| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : > বিয়ের কনের ক্রয়মূল্য   > ল্যান্স নায়েক পদে পদোন্নতি পেলেন আরচার রোমান সানা   > পাকিস্তানে বিস্ফোরণে ধসে মৃত্যু ১১   > সালমানের সিনেমার এক দৃশ্যের খরচ সাড়ে ৭ কোটি রুপি   > শিক্ষার্থীদের নৈতিক মূল্যবোধ সম্পন্ন মানুষ হতে হবে : ঢাবি উপাচার্য   > ভারতে `বেইমান`দের গুলি করে মারার স্লোগান দিলেন বিজেপি মন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর   > সরকার দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে প্রাকৃতিক গ্যাসের ব্যবহার অব্যাহত রাখবে : প্রধানমন্ত্রী   > ধর্মান্তরিত ১২ সদস্যের পরিবারটিকে ভারতে ফেরত পাঠানোর নেপথ্যে   > আবদুল্লাহর পদত্যাগ, কাতারের নতুন প্রধানমন্ত্রী খালিদ   > সোলেইমানি হত্যার নীল নকশাকারী বিমান দুর্ঘটনায় নিহত  

   ফিচার
  অসহায় মানুষের জীবনে দ্বীপ জ্বালাতে চান রেশমা জাহান
  Publish Time : 17 November 2019, 12:23:35:PM

ছুটির সকাল। এক সঙ্গে সবাই নাস্তার সেরে নেবে। তারপর দুপুরের ভালমন্দ খাবার। এমন পরিকল্পনাই ছিল। কিন্তু বাড়ির কর্ত্রীর দেখা নেই। সাজ সকালে ঘর ছেড়ে ছুটে গেছেন বস্তিতে স্বাস্থ্যক্যাম্প করতে। কখনও আবার ছিন্মমূল শিশুদের নিয়ে বসে পড়েন লেখাপড়া শেখাতে। সময় পেরিয়ে যায় নিঃশব্দে। যখন ঘরে ফেরার তাড়া অনুভব করেন, তখন দেখতে পান বেলা গড়িয়ে গেছে। অবেলায় বাড়ি ফেরা। তারপর ঘরের কাজ শেষ করতে সন্ধ্যা। তারপরও মনে তৃপ্তি পান, যখন ভাবেন কিছুতো করা গেল। সামাজিক দায়িত্ব থেকেই ছিন্নমূল নারী-শিশুদের জন্য কাজ করে থাকেন রেশমা জাহান। সে দিন যুব মেলায় দেখা হতেই একমুখ হাসি নিয়ে এগিয়ে এলেন। যেন বহুকালের চেনাজানা। কত আপন। সদা হাসি মাখা মুখ। সকল কষ্টকে হজম করে নিতে পারেন অবলিলায়। সমাজের প্রতি তার দায়িত্ব ও কর্তব্য থেকেই কাজ করেন। রেশমা একাধারে সংগঠক, সমাজসেবী এবং সংস্কৃতি পরিমন্ডলের বাসিন্দা। তিনি জীবনভর কঠোর সংগ্রামী এবং প্রতিকূলতাকে অতিক্রম করতে সাহসিনী এক হার না মানা নারী। যিনি নিজেকে কখনও অবলা ভাবেননি। তিনি মানুষের অধিকার রক্ষায় রাজপথে দাঁড়িয়ে প্রতিবাদ করেন। তরুণদের সংগঠিত করে সম্পৃক্ত করেছেন মানবসেবায়।

মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করার ব্যাপারে পরিবার বড় অনুপ্রেরণা। মানব জীবনের সংক্ষিপ্ত জমিনে সুফল চাষ করে যেতে চাই। এতেই তার পরম সার্থকতা। মানব দরদি এই নারী পথশিশু এবং অনাথ শিশুদের মাথায় হাত বুলিয়ে দেন পরম মমতায়। বয়স্ক নারীদের পাশে গিয়ে যখন দাড়ান, তখন মনে হয় তিনি মায়ের ভূমিকায়। তাদের কল্যাণে নিবেদীত হয়ে কাজ করে যান। তাদের নানা উৎসবে ভাল মন্দ খাবারের ব্যবস্থা করেন। তার মানবিকগুণের আবেদনটিকে মানবসেবার মাধ্যমে নিবেদিত করেছেন সমাজের অনগ্রসর শ্রেণীর কল্যাণে। কাজ করেন নিভৃতে। তাই বহুমাত্রিক অভিধাটি তার জন্যই মানায়। এ কারণেই আজকের একজন আলোকিত নারী তিনি। নিজেকে শুধু আপন বলয়ে আত্মকেন্দ্রিকতার দেয়ালে বন্দী না রেখে তিনি সমর্পিত হয়েছেন বহুজনের মাঝে শুভ, সুন্দর, কল্যাণের মঙ্গলালোকে। তাই তিনি আমাদের সমাজের শুভবোধের সারথী। তিনি সামনের দিকে টেনে নিয়ে যেতে পারেন পশ্চাৎপদ অনগ্রসর মানুষকে যে-কোন চ্যালেঞ্জকে মোকাবিলা করে।
জানালেন তার প্রতিষ্ঠিত স্বপ্ন কথা কুটির শিল্প মাধ্যমে বেশ পিছিযে পড়া নারীকে প্রশিক্ষিত করে কর্মীর হাতিয়ারে রূপান্তরিত করেছেন। তাদের মেশিনের ব্যবস্থা করে কাজ দিয়ে নবজীবন দিয়েছেন। ছিন্নমূল শিশুদের লেখাপড়া শেখার ব্যবস্থা করেছেন। দেশের বিভিন্নস্থানে কাজ করার অভিজ্ঞতা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে রেশমা। সমাজের অনগ্রসর ও দুঃস্থ মানুষের সেবা করাটাকেই জীবনের ব্রত হিসেবে বেঁেচ নিয়েছেন। দুঃখী, অস্বচ্ছল ও অবহেলিত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সংকল্প মহিয়ষী করেছে জীবন সংগ্রামে জয়ী এই নারীকে। তার এই মানবিক গুণের কারণেই তিনি সমাজের অবহেলিত মানুষের মনমন্দিরে স্থায়ী আসন করে নিয়েছেন। তিনি মনে করেন, সেবাই হচ্ছে ধর্ম ব্রত পালনের মত একটি পবিত্র দায়িত্ব। তাই তার মনে সব সময়ই উদীত হয় ‘মানব সেবাই ধর্ম, কর্মই জীবন। এই দায়িত্ববোধ সমাজের সাম্য, শান্তি ও কল্যাণ বয়ে আনতে পারে। তাই একজন দুঃস্থের দিকে হাত বাড়িয়ে দিয়ে যদি তার জীবনের অবলম্বন তৈরি করে দেয়া যায়-তা হলে সেটাই হবে সবচেয়ে বড় মহৎ কর্তব্য পালন। এই কর্তব্য পালনের মধ্য দিয়ে মানুষের মহত্ব প্রাপ্তির সুযোগ ঘটে। এই মহত্ব অর্জনের মধ্য দিয়েই সমাজের মলিনতা দূর হয়।
রেশমা দৃঢ়ভাবেই বিশ্বাস করেন, সেবা ধর্মে নারীরাই যোগ্য ভূমিকা পালন করেন। এ কারণেই নারী সর্বদা মমতাময়ী। তার সেবা ব্রতের মহতী আদর্শ হলেন মাদার তেরেসা। মহিয়ষী মাদার তেরেসার আদর্শকে ধারণ করেই তিনি জীবনের সার্থকতাকে খুঁজে পেতে চান মানব দরদী রেশমা জাহান। বলেন, মাদার তেরেসার মমতাময়ী স্পর্শে অনেক অবহেলিত নারী-শিশু সমাজে আলোকিত হয়েছে। দুঃস্থজনের মাঝে নিজেকে বিলিয়ে দিয়ে তিনিই সেবার ক্ষেত্রে সেরা আদর্শ। তাই মাদার তেরেসা মাতৃজাতির উজ্জ্বল অহংকার। মাদার তেরেসার সেবার আদর্শকে আমৃত্যু অনুসরণ করতে চান রেশমা। তিনি মনে করেন, সমাজে নারী শক্তিকে এখনো শৃঙ্খলিত করে রাখা হয়েছে। নারীরা নানাভাবে কুসংস্কারেরর শিকার। কিছু ধর্মীয় গোড়ামীর কারণেই সমাজ উন্নয়নে নারীরা পুরুষের সমান অবদান রাখতে পারছেন না। সুতরাং নারীর ক্ষমতায়ন শুধুমাত্র শ্লোগানবন্দী হয়ে আছে। তার সীমিত সামর্থের মধ্যেই সেবাব্রত’র মন্ত্রে দু’বাহু বাড়িয়ে দিয়েছেন-এটাই তার জীবনের লক্ষ্য। তার দুয়ার সকাল-সন্ধ্যা-রাত অষ্টপ্রহরব্যাপী সমাজের দুঃস্থ ও অনগ্রসর শ্রেণীর মানুষের জন্য খোলা। সমাজে পিছিয়ে মানুষের জীবনের দ্বীপ জ্বালাতে চান রেশমা।
আমিনুল হক



সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 124        
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     ফিচার
আধুনিকতার ছোঁয়ায় বিলুপ্তির পথে আত্রাইয়ে মাটির ঘর
.............................................................................................
নারী জাগরনের অগ্রদূত -বেগম রোকেয়া
.............................................................................................
অসহায় মানুষের জীবনে দ্বীপ জ্বালাতে চান রেশমা জাহান
.............................................................................................
লাখো ভক্তের স্বপ্নসারথী ইকবাল হোসেন অপু প্রকৃত অর্থেই একজন জননেতা
.............................................................................................
“নারীবাদ নাকি সমকামিতা, কোন পথে আমরা”
.............................................................................................
কি ঘটে জানুয়ারির প্রথম সোমবারে?
.............................................................................................
নারী পুরুষের ১০টি মানসিক পার্থক্য
.............................................................................................
শিশুর যত সুন্দর নাম
.............................................................................................
সৌভাগ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ যে চারটি বিষয়
.............................................................................................
মানসিক সমস্যা সারিয়ে তুলতে পারেন দাদা-দাদি
.............................................................................................
যে গ্রামে পুরুষ প্রবেশ নিষেধ
.............................................................................................
স্বাধীন ভারতের বীরপুত্র
.............................................................................................
বিশ্বের সবচেয়ে প্রাচীন খাবারের সন্ধান
.............................................................................................
৩৬২ কোটি টাকা এক খণ্ড হিরের দাম
.............................................................................................
কুকুর শনাক্ত করবে ম্যালেরিয়া রোগ
.............................................................................................
হঠাৎই হারিয়ে গেল জাপানের আস্ত একটি দ্বীপ!
.............................................................................................
৪০০ কোটি বছরেরও পুরোনো গোমেদ পাথর!
.............................................................................................
যে কারণে সুইসাইড স্পট হয়ে ওঠে এই স্টার হোটেলটি
.............................................................................................
আমার শরীরটা পুরুষের ছিল, কিন্তু মনটা ছিল নারীর
.............................................................................................
এই পান্নার দাম ১৫ কোটি টাকা!
.............................................................................................
অসাধারণ জীবনীশক্তি মিঠা পানির জেলিফিশের
.............................................................................................
দাবানল ঠেকাবে ছাগল বিগ্রেড
.............................................................................................
নিজের স্বরের এই ৭ তথ্য আপনি জানেন কি?
.............................................................................................
পাঁচ মাস বয়সেই যুক্তরাষ্ট্রের ৫০ অঙ্গরাজ্য ভ্রমণ
.............................................................................................
বিশ্বের উষ্ণতা কমানোর ৫ উপায়
.............................................................................................
ভারতের যেসব মন্দিরে নারীদের প্রবেশ নিষেধ
.............................................................................................
চুল শুকাতে সোনার হেয়ার ড্রায়ার!
.............................................................................................
১৯ বছর ধরে যে শহরে চলে না গাড়ি
.............................................................................................
বরফের নিচে আশ্চর্য শহর
.............................................................................................
মোগলাই খাবার এত স্পাইসি হয় কেন?
.............................................................................................
সেতুও আবার রোলার কোস্টার হয় নাকি
.............................................................................................
ভিনদেশি ঐতিহ্যবাহী মিষ্টান্ন
.............................................................................................
আমার বর্ষাকাল
.............................................................................................
খালি পায়ে চলি
.............................................................................................
আর মাত্র ১২ দিন বাকি
.............................................................................................
মুক্তি পেল ‘সাঞ্জু’র নতুন গান
.............................................................................................
দুই তরমুজ প্রায় ২৫ লাখ!
.............................................................................................
যৌন-আসক্তিকে কি এক কাতারে ফেলা যায়
.............................................................................................
অনিয়মিত পিরিয়ডের কারণ ও করণীয়
.............................................................................................
যে কফিশপের কর্মীরা সবাই প্রতিবন্ধী
.............................................................................................
গান শুনলে মন ভালো হয়
.............................................................................................
চাকরি পাওয়ার সঠিক এবং সহজ উপায়
.............................................................................................
স্মর্টফোন মানুষের জীবনে দিনে দিনে উদ্বেগ অস্থিরতা বৃদ্ধি করছে
.............................................................................................
চাকরির জন্য সাক্ষাৎকারের প্রস্তুতি নিতে হবে যে ৭ বিষয়
.............................................................................................
টিভি দেখলে শিশুদের সৃজনশীলতা কমে যায়
.............................................................................................
সেলফি তোলার কিছু টিপস
.............................................................................................
সেই বিপাশার বিয়ে মহা ধুমধামে
.............................................................................................
যেসব ক্ষেত্রে চুপ থাকা উচিত
.............................................................................................
নারীদের নিয়ে রাইড শেয়ারিং চালু করল ‘ও ভাই’
.............................................................................................
যে ৫ কারণে ছেলেদের ছেড়ে যায় মেয়েরা
.............................................................................................

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মো: রিপন তরফদার নিয়াম ।
প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক : মফিজুর রহমান রোকন ।
নির্বাহী সম্পাদক : শাহাদাত হোসেন শাহীন ।

সম্পাদক কর্তৃক শরীয়তপুর প্রিন্টিং প্রেস, ২৩৪ ফকিরাপুল, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত । সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রহমানিয়া ইন্টারন্যাশনাল কমপ্ল্যাক্স (৬ষ্ঠ তলা) । ২৮/১ সি টয়েনবি সার্কুলার রোড, মতিঝিল, বা/এ ঢাকা-১০০০ । জিপিও বক্স নং-৫৪৭, ঢাকা ।
ফোন নাম্বার : ০২-৯৫৮৭৮৫০, ০২-৫৭১৬০৪০৪
মোবাইল : ০১৭০৭-০৮৯৫৫৩, ০১৯১৬৮২২৫৬৬ ।

E-mail: dailyganomukti@gmail.com
   © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি