ঢাকা, শনিবার , ১১ আশ্বিন ১৪২৭ , ২৬ সেপ্টেম্বর , ২০২০ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : > মিথ্যা ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে কুমারখালীতে মেয়রের সংবাদ সম্মেলন   > ২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যু ২৮, আক্রান্ত ১৫৪০   > ধামইরহাটে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে আওয়ামীলীগ সভাপতির সংবাদ সম্মেলন   > অস্ত্র মামলায় পাপিয়া দম্পতির যাবজ্জীবন চায় রাষ্ট্রপক্ষ   > মাদক কাণ্ডে দীপিকা, শ্রদ্ধার নামে সমন জারি   > সতীর্থদের চোখের জলে বিদায় জানালেন সুয়ারেজ   > ওয়াসা’র এমডি নিয়োগ প্রক্রিয়া চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট   > প্রতিদিন ১২০ কোটি লিটার পয়ঃবর্জ্য নদীতে, মারাত্মক হুমকিতে জনজীবন   > সৌদিতে নামার অনুমতি পেল বিমান, ১ অক্টোবর থেকে ফ্লাইট   > আবারো কমলো সোনার দাম  

   ফিচার
  ডেপুটেশনের ফাঁদে ধ্বংস হচ্ছে কুড়িগ্রামের প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা
  Publish Time : 2 February 2020, 12:05:31:PM

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি : ডেপুটেশনের ফাঁদে ধ্বংস হচ্ছে কুড়িগ্রামের প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা।

বছরের পর বছর নিজ বিদ্যালয় ছেড়ে সুবিধা জনক বিদ্যালয়ে ডেপুটেশন এবং

বদলি নেয়ায় ব্যাহত হচ্ছে সেখানকার পাঠদান কার্যক্রম।

ডেপুটেশনের কারণে  অনেক প্রতিষ্ঠানে দেখা দিয়েছে শিক্ষক সংকট অপর দিকে

সুবিধাজনক প্রতিষ্ঠান গুলোতে শিক্ষার্থীর তুলনা বেড়েছে শিক্ষকের সংখ্যা।

জেলার প্রায় বিদ্যালয়গুলোতে  শিক্ষক সংকট রয়েছে তার উপর ডেপুটেশন গোদের উপর বিষ ফোঁড়া হয়ে দাঁড়িয়েছে।

শিক্ষক সংকট আর ডেপুটেশনের কারণে ব্যহত হচ্ছে বিদ্যালয়গুলোর পাঠদান কার্যক্রম।

সঠিক শিক্ষা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। বিশেষ করে গ্রামীণ জনপদের বিদ্যালয়গুলোতে ডেপুটেশনের হার বেশী।

প্রবাভশালীদের ছত্রছায়ায় শিক্ষকেরা এসব বিদ্যালয়ে যোগদান করলেই মাস পেরুতে

না পেরুতেই ডেপুটেশন নিয়ে শহর কিংবা নিজেদের সুবিধাজনক বিদ্যালয়ে চলে যাচ্ছেন।

একদিকে ডেপুটেশনের কারণে দেখা দিয়েছে শিক্ষক সংকট অপর দিকে ডেপুটেশনে যাওয়া

বিদ্যালয় গুলোতে শিক্ষার্থীর চেয়ে বেড়েছে শিক্ষকের সংখ্যা।

শিক্ষক ডেপুটেশন নেয়া বিদ্যালয়ের পদ শূন্য না হওয়ায় অন্য কেউ সেখানে যোগ দিতেও পারছে না।

ফলে সেসব বিদ্যালয়ে শিক্ষক সংকটের কারণে অতিরিক্ত চাপ নিতে হচ্ছে সহকারিদের।

এতে করে মানসিক আর অতিরিক্ত পাঠদানের চাপে সহকারি শিক্ষকদের পাঠদান কার্যক্রম চালাতে বিপাকে পড়তে হচ্ছে।

মন্ত্রণালয় হতে ডেপুটেশন আর বদলি করায় প্রাইমারী শিক্ষা ব্যবস্থার উন্নয়ন কার্যক্রমে

সরকারের মাঠ পর্যায় নেয়া পদক্ষেপ মারাত্নক ভাবে বিপর্যয় ঘটছে।

এছাড়াও কিছু অসাধু শিক্ষক এবং কর্মচারীসহ শিক্ষক প্রতিনিধিদের একাধিক সিন্ডিকেট

চক্রের মাধ্যমে শিক্ষকরা মোটা অংকের টাকা দিয়ে মন্ত্রণালয় হতে ডেপুটেশনসহ বদলি নিচ্ছেন সারাবছরই।

সরেজমিনে দেখাযায়,নাগেশ্বরী উপজেলার দামাল গ্রাম সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে

তিন শতাধিক শিক্ষার্থীর বিপরিতে পাঁচ জন শিক্ষক। এরমধ্যে প্রধান শিক্ষক বদলি নিয়ে চলে গেছেন।

বাকি তিনজনের মধ্যে একজন প্রশিক্ষণরত। অপরজন  ভারপ্রাপ্ত প্রধানের দায়িত্ব পালন করছেন।

দু’জন সহকারি শিক্ষকের মধ্যে জিন্নাতুন নেছা ডেপুটেশনে রয়েছেন সদর উপজেলার পূর্ব চন্ডিপুর বিদ্যালয়ে।

তিনি এই বছরের জানুয়ারীতে ফেরার কথা থাকলেও আবারও ডেপুটেশন নিয়ে নভেম্বরে যোগদান

করেন সদরের পরীক্ষণ বিদ্যালয়ে। শুধু মাত্র একজন সহকারি শিক্ষক দিয়েই বিদ্যালয়ে চলছে শ্রেণী পাঠদান।

বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মোসলেমা বেগম জানান, তিনি প্রাক-প্রাথমিকের নিয়োগ প্রাপ্ত শিক্ষক।

এখন তাকেই নিতে হচ্ছে ১ম শ্রেণী হতে ৫ম শ্রেণীর ক্লাস। এতে করে তিনি মানসিক ও শারিরিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ছেন।

ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক শাহ আলম বলেন, তিনশত শিক্ষার্থীদের পর্যাপ্ত শিক্ষক না থাকায় বিঘ্নিত হচ্ছে পাঠদান।

এছাড়াও রয়েছে সদর উপজেলার করিমের খামার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪১৩ শিক্ষার্থীর

বিপরীতে ১০ শিক্ষকের মধ্যে ২০১৪সাল থেকে আইরিন বেগম ডেপুটিশনে আছেন উলিপুর উপজেলায়।

ভোগডাঙ্গা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক লায়লা আরজু মান্ধ বানু

২০০৯ সাল থেকে পরীক্ষণ বিদ্যালয়ে ডেপুটেশনে।এই বিদ্যালয়ে আরো ৫জন শিক্ষক দীর্ঘদিন ধরে ডেপুটেশনে রয়েছেন।

সদরের আশরাফিয়া স্কুলে প্রায় আড়াই শতাধিক শিক্ষার্থীর জন্য

৫শিক্ষকের পাশাপাশি আরো ০২ শিক্ষক কয়েক বছর ধরে ডেপুটেশনে রয়েছেন। 

পরমালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এএসএম শামসুজ্জোহা বলেন,

আমার বিদ্যালয়ের একজন সহকারি শিক্ষক প্রায় ৬বছর ধরে পরীক্ষণ বিদ্যালয়ে ডেপুটেশনে ছিলেন।

এই বিদ্যালয় হতে দু’জন শিক্ষক ডিপিএইড করার জন্য জানুয়ারিতে চলে গেছেন।

শিক্ষক সংকটের কারণে কর্তৃপক্ষের নিকট ডেপুটেশন বাতিলের লিখিত আবেদন দেয়া হয়।

সেই আবেদন স্থগিতের জন্য সড়ক ও পরিবহন মন্ত্রণালয়ের একজন একান্ত সচিব পরিচয়ে আমাকে ফোন দেয়।

পরে আমি তাকে বিদ্যালয়ের সমস্যার কথা খুলে বলি।

এই বিদ্যালয়ের সভাপতি মাহাবুর রহমান জানান,কোন যাচাইবাছাই ছাড়া মন্ত্রণালয় হতে বদলি কিংবা

ডেপুটেশন দেয়া হয় তাতে করে মাঠ পর্যায় বিদ্যালয় গুলো ক্ষতির সম্মুখিন হচ্ছে।

যেসব শিক্ষক মন্ত্রণালয় হতে বদলি কিংবা ডেপুটেশন নেন তারা শুধু নিজেদের ব্যক্তিগত সুবিধার জন্যই।

এতে করে শিক্ষক লাভবান হলেও বিদ্যালয় গুলো ক্ষতির মুখে পড়ছে।

তাই তিনি মন্ত্রণালয় হতে বদলি এবং ডেপুটেশন কার্যক্রম পুরোপুরি বন্ধ রাখার দাবী করেন ।

ভোগডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আম্বিয়া খানম বলেন,

আমার বিদ্যালয়ের একজন শিক্ষক ১১বছর ধরে ডেপুটেশনের রয়েছেন। চরম ভোগান্তিতে রয়েছি শিক্ষক সংকটের কারণে।

করিমের খামার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নুরজাহান বেগম বলেন,

ডেপুটেশনে শিক্ষক অন্য বিদ্যালয়ে থাকায় বিদ্যালয়ের পদ শূন্য না হওয়ায় অন্য কেউ আসতেও পারছেন না।

ফলে শিক্ষক সংকটের মুখে পড়তে হয়। তাই ডেপুটেশন বাতিল করা অথবা সেইসব বিদ্যালয়েও বিকল্প শিক্ষক ব্যবস্থা করা দরকার।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানাযায়,জেলার ৯টি উপজেলায় ৯৩জন শিক্ষক ডেপুটেশনে রয়েছেন। 

এরমধ্যে কুড়িগ্রাম সদর-২২জন,উলিপুর-১৩জন,চিলমারী-১জন, নাগেশ্বরী-১৫জন,ফুলবাড়ী-১৪জন,

ভুরুঙ্গামারী-১৪জন রাজারহাট-৪জন,রৌমারী-৮জন,রাজিবপুর-২জন।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন জানান, তার অগোচরেই মন্ত্রণালয় হতে বেশ কিছু বদলি এবং ডেপুটেশন হয়েছে।

তবে তিনি আশ্বাস দেন দ্রুত ডেপুটেশন বাতিলসহ শূণ্য পদ পূরণে কার্যকরি সিদ্ধান্ত নেযা হবে। 

 



সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 112        
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     ফিচার
গোপালগঞ্জের শাপলার বিল
.............................................................................................
সিরাজদিখানের কোলা ভিলেজ পার্ক
.............................................................................................
শামুক নিধনে ঝুঁকিতে জীববৈচিত্র্য
.............................................................................................
বর্ষার পানি মিলছে দেশি প্রজাতির মাছ
.............................................................................................
স্ট্রিট লাইটের আলোয় আলোকিত ধোবাউড়ার জনপদ
.............................................................................................
পিলপিলের ৪৪ ডিমে চারটি বাচ্চার জন্ম
.............................................................................................
পর্যটকদের জন্য খুলেছে বান্দরবান
.............................................................................................
কদর বেড়েছে মৌসুমি ছাতার কারিগরদের
.............................................................................................
আদর্শ নগর পর্যটন কেন্দ্র হচ্ছে আদর্শ নগরে
.............................................................................................
সুন্দরবনে বেড়েছে মধু উৎপাদন, খুশি মৌয়াল
.............................................................................................
বীরগঞ্জে হারিয়ে যাওয়া মাছ ধরার সামগ্রীর চাহিদা বাড়ছে
.............................................................................................
রামসাগর জাতীয় উদ্যানে কোলাহল মুক্ত পরিবেশে চিত্রা হরিন দল
.............................................................................................
দস্যুতা দমন ও মৎস্য সম্পদ রক্ষায় কাজ করছে পুলিশ-কোস্টগার্ড-র‌্যাব
.............................................................................................
নৌকা তৈরী ও কেনাবেচার ধুম!
.............................................................................................
কোরবানীর হাট মাতাতে আসছে ‘বাংলার বস’ ও ‘বাংলার সম্রাট’
.............................................................................................
করোনাকালে জলকেলিতে ব্যস্ত পথশিশু-কিশোরেরা
.............................................................................................
করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হলে বন্ধ থাকবে সিলেটের সব হোটেল
.............................................................................................
নাজিরপুরে বর্ষা মৌসুমে জমে উঠেছে চাইয়ের হাট
.............................................................................................
রাসিক মেয়র লিটনের স্বপ্ন নগরীতে এখন ফুলের সুবাস
.............................................................................................
শরীয়তপুর উন্নয়নের স্বপ্ন
.............................................................................................
যেভাবে করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হয়
.............................................................................................
দিনাজপুরে উঠছে প্রচুর রসালো মিষ্টি লিচু
.............................................................................................
শাল, গজারি, আদিবাসী, আনারস, রাবার চাষ সহ নানা ঐতিহ্যের মধুপুর
.............................................................................................
আমাদেরকে কী সবকিছুই আইন করেই মানাতে হবে?
.............................................................................................
‘৩২ নম্বর’ বাড়িটি এখন ইতিহাস
.............................................................................................
জলবায়ু পরিবর্তন চ্যালেঞ্জ : পানি ও পরিবেশ
.............................................................................................
১৩৬ বছরেও কাজ করছেন সোনাভান
.............................................................................................
আমাদের সেই মহানায়ক
.............................................................................................
সুতাং নদীর দূষিত পানিতে মারা যাচ্ছে জলজ প্রাণী
.............................................................................................
মহম্মদপুরে ঋতুরাজ বসন্তের শিমুল ফুল
.............................................................................................
কালিয়াকৈরে নবনির্মিত ব্রিজ সংলগ্ন সড়কে গর্ত, দুর্ঘটনার আশঙ্কা
.............................................................................................
জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের মুখে বাংলাদেশ
.............................................................................................
বীরগঞ্জে গাছে গাছে শিমুল ফুল
.............................................................................................
বীরগঞ্জে বিলুপ্তির পথে বাঁশ শিল্প
.............................................................................................
ইসলামপুর পৌরবাসীর প্রিয় নেতা মেয়র সেখ মো: আ: কাদের
.............................................................................................
ফুলপুরে কংশ নদীতে পারাপার ঝুঁকিতে দশ গ্রামের মানুষ
.............................................................................................
সাহেবের আলগা হতে দাঁতভাংগা পর্যন্ত রাস্তাটির বেহালদশা
.............................................................................................
সুনামগঞ্জের পাখির গ্রাম মুরাদপুর
.............................................................................................
প্রায় ৮ হাজার নারী-পুরুষের কর্মসংস্থান
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু’র আদর্শকে ধারণ করে চলছেন আবদুল খালেক
.............................................................................................
ডেপুটেশনের ফাঁদে ধ্বংস হচ্ছে কুড়িগ্রামের প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা
.............................................................................................
আধুনিকতার ছোঁয়ায় বিলুপ্তির পথে আত্রাইয়ে মাটির ঘর
.............................................................................................
নারী জাগরনের অগ্রদূত -বেগম রোকেয়া
.............................................................................................
অসহায় মানুষের জীবনে দ্বীপ জ্বালাতে চান রেশমা জাহান
.............................................................................................
লাখো ভক্তের স্বপ্নসারথী ইকবাল হোসেন অপু প্রকৃত অর্থেই একজন জননেতা
.............................................................................................
“নারীবাদ নাকি সমকামিতা, কোন পথে আমরা”
.............................................................................................
কি ঘটে জানুয়ারির প্রথম সোমবারে?
.............................................................................................
নারী পুরুষের ১০টি মানসিক পার্থক্য
.............................................................................................
শিশুর যত সুন্দর নাম
.............................................................................................
সৌভাগ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ যে চারটি বিষয়
.............................................................................................
Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale
Digital Load Cell
Digital Indicator
Digital Score Board
Junction Box | Chequer Plate | Girder
Digital Scale | Digital Floor Scale

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মো: রিপন তরফদার নিয়াম
প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক : মফিজুর রহমান রোকন
নির্বাহী সম্পাদক : শাহাদাত হোসেন শাহীন
বাণিজ্যিক কার্যালয় : "রহমানিয়া ইন্টারন্যাশনাল কমপ্লেক্স"
(৬ষ্ঠ তলা), ২৮/১ সি, টয়েনবি সার্কুলার রোড,
মতিঝিল বা/এ ঢাকা-১০০০| জিপিও বক্স নং-৫৪৭, ঢাকা
ফোন নাম্বার : ০২-৪৭১২০৮০৫/৬, ০২-৯৫৮৭৮৫০
মোবাইল : ০১৭০৭-০৮৯৫৫৩, 01731800427
E-mail: dailyganomukti@gmail.com
Website : http://www.dailyganomukti.com
   © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD