ঢাকা, শনিবার , ১১ আশ্বিন ১৪২৭ , ২৬ সেপ্টেম্বর , ২০২০ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : > মিথ্যা ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে কুমারখালীতে মেয়রের সংবাদ সম্মেলন   > ২৪ ঘন্টায় করোনায় মৃত্যু ২৮, আক্রান্ত ১৫৪০   > ধামইরহাটে মিথ্যা সংবাদ প্রকাশের প্রতিবাদে আওয়ামীলীগ সভাপতির সংবাদ সম্মেলন   > অস্ত্র মামলায় পাপিয়া দম্পতির যাবজ্জীবন চায় রাষ্ট্রপক্ষ   > মাদক কাণ্ডে দীপিকা, শ্রদ্ধার নামে সমন জারি   > সতীর্থদের চোখের জলে বিদায় জানালেন সুয়ারেজ   > ওয়াসা’র এমডি নিয়োগ প্রক্রিয়া চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট   > প্রতিদিন ১২০ কোটি লিটার পয়ঃবর্জ্য নদীতে, মারাত্মক হুমকিতে জনজীবন   > সৌদিতে নামার অনুমতি পেল বিমান, ১ অক্টোবর থেকে ফ্লাইট   > আবারো কমলো সোনার দাম  

   ফিচার
  সুনামগঞ্জের পাখির গ্রাম মুরাদপুর
  Publish Time : 7 February 2020, 11:02:59:PM

রুজেল আহমদ, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি : এত পাখি, এত কিচির মিচির শব্দ আদিকালে দেখেনি মুরাদপুর গ্রামবাসী। হাওর বেষ্টিত বৃহৎ এ পল্লীটি জেলার দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার শিমুলবাক ইউনিয়নে অবস্থিত। গ্রামটি উপজেলা সদর থেকে ২০ কি: মিটার দুরে। এদিকে মুরাদপুর গ্রাম থেকে ৮ কি: মিটার দুরে দিরাই উপজেলার ভাটিপাড়া জমিদার বাড়ি। এছাড়া চারদিকে নয়নাভিরাম হাওর আর হাওর। বর্ষায় থৈ থৈ জলের ঢেউ। বসন্তে বাসন্তী হাওয়া। এখানে এসে বাড়তি আনন্দ দিতে যোগ হয়েছে পাখি আর পাখি। এ যেন এক স্বর্গীয় অনুভুতি। যে কারো মনে মুগ্ধতা আনে। দিন দিন পর্যটকদের জন্য বড়ই আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে এলাকাটি। তবে রাস্তাঘাট সহ অবকাঠামোগত উন্নয়নে আধুনিকতার ছোঁয়া না লাগায় কেউ জানে না এ গ্রামে হাজার হাজার পাখির অভয়ারণ্য গড়ে উঠেছে। গাছে গাছে, বাঁশ ঝাড়ে ঝাড়ে পাখির কিচির মিচির শব্দে গড়ে উঠা গ্রামটিকে জাতীয়ভাবে পর্যটন কেন্দ্র ঘোষণার দাবি স্থানীয়দের। সরজমিনে গিয়ে গ্রামবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, গত বছর নানা প্রজাতির পাখি গ্রামে গাছের ডালে বাঁশঝাড়ে আসতে শুরু করে। এ বছর এত পাখি এখানে এসে আশ্রয় নিয়েছে যে লাখো ছাড়িয়ে যাবে। পাখির ভাড়ে ডাল ভাঙ্গে। এত পাখি এখানে এমনভাবে বসতি স্থাপন করেছে যেন তাদের বাড়ি এটি। তাই লোকে লোকে গ্রামটিকে এখন পাখির গ্রাম হিসেবেই ডাকতে শুরু করেছে। নানা প্রজাতির পাখিদের মধ্যে রয়েছে, পানকোঁড়ি, সাদা বক, পরালি, ঘুঘু, চুড়ই, ধনেশ, সারশসহ অসংখ্য পাখি। এসব পাখিরা কালিকোটা হাওর, ছায়ার হাওরসহ বিভিন্ন ছোট ছোট হাওরে সারাদিন আহার জোটায়। সুর্য ডুবার আগেই ঝাঁকে ঝাঁকে আকাশে উড়ে উড়ে মুরাদপুর গ্রামে ফিরতে শুরু করে। গ্রামের চারপাশের হাওর থেকে হাজার হাজার পাখি ডানা ঝাপটিয়ে যখন গ্রামের আকাশে এসে পেখম মেলে অবস্থান করে তখন এক অভূতপূর্ব দৃশ্যের অবতরণা হয়। পাখির কিচির মিচির শব্দ, ডানা ঝাপটানোর শব্দ, দলবেঁধে সারিসারি দৃশ্য যেন আনন্দের মেঘ বর্ষিত হয় লোকে লোকে। এ দৃশ্য উপভোগ করতে গ্রামের শিশু, কিশোর, যুবক, বৃদ্ধ নর-নারী প্রতিদিন গ্রামের বাড়ির উঠোনে, রাস্তার ধারে, স্কুল আঙ্গিনায় দাঁড়িয়ে থাকেন। আবার ভোর হলেই পাখিরা গ্রাম ছেড়ে আহারের সন্ধানে হাওরে বাওরে ছুটে বেড়ায়। তখন প্রাণে প্রাণে স্পন্দিত হয় গ্রাম। পাখিরা পৌষ মাসে আসে আর বৈশাখ এলেই ফিরে যায় তাদের গন্তব্যে। এখানে পাখিরা এত নিরাপদ কেন জানতে চাইলে চমৎকার তথ্য পাওয়া যায়। গ্রামবাসী পাখিকে জাতীয় সম্পদ মনে করে সংরক্ষনের জন্য পাখি শিকারীদের উপর ১০ হাজার টাকা জারিমানার বিধান করেছেন। এমনকি ঢিল ছু’ড়ে বিরক্ত করলেও একই জরিমানার বিধান বহাল রেখেছেন তারা। তাই এ গ্রামে পাখি ডুকা মানে শতভাগ নিরাপদ। এ গ্রামে সব বয়সী নারী পুরুষরা আপন সন্তানের মতো আগলে রাখেন পাখিদের। তবে পখির বিষ্টা এমন পর্যায়ে উপনীত হয়েছে যে, বাড়ি ঘর, রাস্তা-ঘাট, দুর্গন্ধ লেগেই আছে। গ্রামবাসী এ দুর্গন্ধ সইতে পারলেও বিষ্টা দুরকরণের উপায় খোঁজছেন। এছাড়া এখানে নেই কোন পর্যটকদের বসার স্থান। ভাটি অঞ্চল হওয়ায় পাখির মেলা দেখা বড়ই মুশকিল। তাই পাখির বিষ্টা পরিস্কারসহ অবকাঠামোগত উন্নয়নের দাবি জানান স্থানীয়রা। গ্রামের মুরুব্বি সানজব আলী, হারুন মিয়া জানান, পাখি আমাদের জাতীয় সম্পদ। এ সম্পদ নিরাপদ রাখতে আমরা গ্রামবাসী কেউ পাখি শিকার করলে কিংবা বিরক্ত করলে ১০ হাজার টাকা জরিমানা বিধান রাখা হয়েছে। আমরা চাই পাখির এই অভয়ারণ্যকে জাতীয় ভাবে পর্যটন কেন্দ্র ঘোষণা করা হোক। ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান জিতু জানান, মুরাদপুর এখন পাখির গ্রাম। পাখির এই গ্রামকে ঘিরে হতে পারে একটি পর্যটন কেন্দ্র। আমি রাস্তা-ঘাটের অবকাঠামোগত উন্নয়নসহ পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার জন্য পরিকল্পনামন্ত্রীর সাথে কথা বলব। এমন ভাবে পর্যটনকেন্দ্র গড়ে তুলতে চাই যেন দেশ-বিদেশ থেকে পর্যটকরা এসে আনন্দের সাথে পাখিদের এ মেলা উপভোগ করতে পারে। দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জেবুন নাহার শাম্মী বলেন, সংবাদটি শুনে খুশী হলাম। আমি মুরাদপুর গ্রামের পাখির এ দৃশ্য অবলোকন করতে যাব। পাখিকে ঘিরে যদি পর্যটন গড়ে তোলার মতো পরিবেশ চোখে পড়ে অবশ্যই আমি ভাটি অঞ্চলের এ গ্রামে পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলার চেষ্টা করব।


 



সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 122        
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     ফিচার
গোপালগঞ্জের শাপলার বিল
.............................................................................................
সিরাজদিখানের কোলা ভিলেজ পার্ক
.............................................................................................
শামুক নিধনে ঝুঁকিতে জীববৈচিত্র্য
.............................................................................................
বর্ষার পানি মিলছে দেশি প্রজাতির মাছ
.............................................................................................
স্ট্রিট লাইটের আলোয় আলোকিত ধোবাউড়ার জনপদ
.............................................................................................
পিলপিলের ৪৪ ডিমে চারটি বাচ্চার জন্ম
.............................................................................................
পর্যটকদের জন্য খুলেছে বান্দরবান
.............................................................................................
কদর বেড়েছে মৌসুমি ছাতার কারিগরদের
.............................................................................................
আদর্শ নগর পর্যটন কেন্দ্র হচ্ছে আদর্শ নগরে
.............................................................................................
সুন্দরবনে বেড়েছে মধু উৎপাদন, খুশি মৌয়াল
.............................................................................................
বীরগঞ্জে হারিয়ে যাওয়া মাছ ধরার সামগ্রীর চাহিদা বাড়ছে
.............................................................................................
রামসাগর জাতীয় উদ্যানে কোলাহল মুক্ত পরিবেশে চিত্রা হরিন দল
.............................................................................................
দস্যুতা দমন ও মৎস্য সম্পদ রক্ষায় কাজ করছে পুলিশ-কোস্টগার্ড-র‌্যাব
.............................................................................................
নৌকা তৈরী ও কেনাবেচার ধুম!
.............................................................................................
কোরবানীর হাট মাতাতে আসছে ‘বাংলার বস’ ও ‘বাংলার সম্রাট’
.............................................................................................
করোনাকালে জলকেলিতে ব্যস্ত পথশিশু-কিশোরেরা
.............................................................................................
করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হলে বন্ধ থাকবে সিলেটের সব হোটেল
.............................................................................................
নাজিরপুরে বর্ষা মৌসুমে জমে উঠেছে চাইয়ের হাট
.............................................................................................
রাসিক মেয়র লিটনের স্বপ্ন নগরীতে এখন ফুলের সুবাস
.............................................................................................
শরীয়তপুর উন্নয়নের স্বপ্ন
.............................................................................................
যেভাবে করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হয়
.............................................................................................
দিনাজপুরে উঠছে প্রচুর রসালো মিষ্টি লিচু
.............................................................................................
শাল, গজারি, আদিবাসী, আনারস, রাবার চাষ সহ নানা ঐতিহ্যের মধুপুর
.............................................................................................
আমাদেরকে কী সবকিছুই আইন করেই মানাতে হবে?
.............................................................................................
‘৩২ নম্বর’ বাড়িটি এখন ইতিহাস
.............................................................................................
জলবায়ু পরিবর্তন চ্যালেঞ্জ : পানি ও পরিবেশ
.............................................................................................
১৩৬ বছরেও কাজ করছেন সোনাভান
.............................................................................................
আমাদের সেই মহানায়ক
.............................................................................................
সুতাং নদীর দূষিত পানিতে মারা যাচ্ছে জলজ প্রাণী
.............................................................................................
মহম্মদপুরে ঋতুরাজ বসন্তের শিমুল ফুল
.............................................................................................
কালিয়াকৈরে নবনির্মিত ব্রিজ সংলগ্ন সড়কে গর্ত, দুর্ঘটনার আশঙ্কা
.............................................................................................
জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের মুখে বাংলাদেশ
.............................................................................................
বীরগঞ্জে গাছে গাছে শিমুল ফুল
.............................................................................................
বীরগঞ্জে বিলুপ্তির পথে বাঁশ শিল্প
.............................................................................................
ইসলামপুর পৌরবাসীর প্রিয় নেতা মেয়র সেখ মো: আ: কাদের
.............................................................................................
ফুলপুরে কংশ নদীতে পারাপার ঝুঁকিতে দশ গ্রামের মানুষ
.............................................................................................
সাহেবের আলগা হতে দাঁতভাংগা পর্যন্ত রাস্তাটির বেহালদশা
.............................................................................................
সুনামগঞ্জের পাখির গ্রাম মুরাদপুর
.............................................................................................
প্রায় ৮ হাজার নারী-পুরুষের কর্মসংস্থান
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু’র আদর্শকে ধারণ করে চলছেন আবদুল খালেক
.............................................................................................
ডেপুটেশনের ফাঁদে ধ্বংস হচ্ছে কুড়িগ্রামের প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা
.............................................................................................
আধুনিকতার ছোঁয়ায় বিলুপ্তির পথে আত্রাইয়ে মাটির ঘর
.............................................................................................
নারী জাগরনের অগ্রদূত -বেগম রোকেয়া
.............................................................................................
অসহায় মানুষের জীবনে দ্বীপ জ্বালাতে চান রেশমা জাহান
.............................................................................................
লাখো ভক্তের স্বপ্নসারথী ইকবাল হোসেন অপু প্রকৃত অর্থেই একজন জননেতা
.............................................................................................
“নারীবাদ নাকি সমকামিতা, কোন পথে আমরা”
.............................................................................................
কি ঘটে জানুয়ারির প্রথম সোমবারে?
.............................................................................................
নারী পুরুষের ১০টি মানসিক পার্থক্য
.............................................................................................
শিশুর যত সুন্দর নাম
.............................................................................................
সৌভাগ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ যে চারটি বিষয়
.............................................................................................
Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale
Digital Load Cell
Digital Indicator
Digital Score Board
Junction Box | Chequer Plate | Girder
Digital Scale | Digital Floor Scale

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মো: রিপন তরফদার নিয়াম
প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক : মফিজুর রহমান রোকন
নির্বাহী সম্পাদক : শাহাদাত হোসেন শাহীন
বাণিজ্যিক কার্যালয় : "রহমানিয়া ইন্টারন্যাশনাল কমপ্লেক্স"
(৬ষ্ঠ তলা), ২৮/১ সি, টয়েনবি সার্কুলার রোড,
মতিঝিল বা/এ ঢাকা-১০০০| জিপিও বক্স নং-৫৪৭, ঢাকা
ফোন নাম্বার : ০২-৪৭১২০৮০৫/৬, ০২-৯৫৮৭৮৫০
মোবাইল : ০১৭০৭-০৮৯৫৫৩, 01731800427
E-mail: dailyganomukti@gmail.com
Website : http://www.dailyganomukti.com
   © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD