| বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : > এ শূণ্যতা কখনো পূরন হবার নয়   > প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনার সফল বাস্তবায়নে ৩৬ বিসিএস আনসারের ১১জন কর্মকর্তার ব্যতিক্রমী উদ্যোগ   > আমাদের দাবি , ‘জাতীয় দাম্পত্য দিবস’   > ৫০ দিনে ৪০ হাজার ক্ষুধার্ত পরিবারকে খাদ্য সহায়তা   > অসহায় দরিদ্র মানুষের মাঝে শরীয়তপুর পুলিশ সুপারের খাদ্য সামগ্রী বিতরণ   > রাজশাহী জেলা আনসার ও ভিডিপি’র ত্রাণসামগ্রী বিতরণ   > গত ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনায় নতুন আক্রান্ত ৩০৯   > করোনায় মাদক-জঙ্গি রোধে কঠোরতর ব্যবস্থা : র‌্যাব ডিজি   > রাজশাহী জেলা আনসার ও ভিডিপি কার্যালয় করোনাভাইরাসের প্রভাব হ্রাসে নিরবে কাজ করছে   > ক্যামেরা জার্নালিস্টদের সহায়তা দিলো পারটেক্স গ্রুপ  

   ফিচার
  আমাদেরকে কী সবকিছুই আইন করেই মানাতে হবে?
  Publish Time : 22 March 2020, 4:06:43:PM

মো. মাহবুব আলম : করোনা কাঁপিয়ে দিয়েছে সারাবিশ্বকে। শঙ্কিত সারা পৃথিবীর সচেতন সকল শ্রেণি ও পেশার মানুষ। যেখানে সারা পৃথিবীতে শংকা-সংশয়-ভয়, সেখানে বাংলাদেশে এখনো প্রত্যাশা সুলভ জনসচেতনতা তৈরী হয়নি। দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করার ঘোষণা ছিল সরকারের যুগান্তকারী এক সিদ্ধান্ত। কিন্তু অতি মুনাফালোভী-পিশাচ শ্রেণির কিছু মানুষ প্রাইভেট শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, কোচিং সেন্টার হর-হামাশাই চালিয়ে যাচ্ছেন। তাদের কাছে জীবনের চেয়ে যেন টাকার মূল্য অনেক বেশি। আর আমাদের অভিভাবকরাও সন্তানদের নিয়ে যে কতটুকু ভাবেন অথবা কি ভাবেন তাই এখন বড় ভাবনার বিষয়। সম্প্রতি নরসিংদীতে প্রস্তুতি কোচিং সেন্টার নামে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কোচিং ক্লাস করার সময় প্রায় ২’শ শিক্ষার্থীকে পায় ভ্রাম্যমান আদালত। কিন্তু যেখানে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হয়েছে, সেখানে এমন ধূর্ত আচরণ কোনোভাবেই সহজভাবে মেনে নেওয়া যায় না। এই ২’শ শিক্ষার্থীকে কোচিংয়ে এনে তাদের জীবনকে হুমকির মুখোমুখি করার এতটা সাহস একজন শিক্ষক কীভাবে পারেন! তাহলে কী আমরা অল্প সময়ের জন্য এটা ভাবতেই পারি এই প্রস্তুতির মতো অজস্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যারা প্রশাসনের চোখের বাইরে নিরবে এমন নগ্ন প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছেন। তাদেরকে আমরা কী ভাবব? তারা কী শিক্ষা উদ্যোক্তা নাকি শিক্ষাকে পণ্য করে স্বপ্নবাজ অভিভাবকদেরকে তথাকথিত রঙিন স্বপ্ন দেখিয়ে প্রতারিত করার প্রতারক ভাবব? কোনভাবেই এমন শত শত প্রশ্নের উত্তর মিলছে না। কারণ শুধু শিক্ষককে দোষ দিয়েই তো সমাধান হচ্ছে না। কারণ এই ২’শ শিক্ষার্থীর বাবা-মা ই কী অশিক্ষিত? তারা কী একবারও দেখলো না সারা পৃথিবীতে কী হচ্ছে? আমরা মুজিব শতবর্ষের আমাদের কাঙ্খিত আয়োজনকে প্রস্তুত থাকা সত্ত্বেও পালন করতে পারিনি। সেখানে পিতা-মাতা কীভাবে পারলো তার সন্তানকে কোচিং সেন্টারে পাঠানোর নাম করে করোনা ভাইরাসের দিকে ঠেলে দিতে? আচ্ছা, আমরা কী নিজেদের কথা ভেবেও সচেতন হতে পারি না? সবকিছুই কেন আমাদেরকে আইন করে মানাতে হবে। শিক্ষকদেরকেও কেন দন্ডের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। সারা বিশ্ব যখন স্থবির তখন কেন এই শিক্ষকরা তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান (নিষিদ্ধ কোচিং সেন্টারগুলো) বন্ধ করতে পারছেন না? আমাদেরকে কেন শিক্ষকদের বিরুদ্ধে বলতে হয়। শিক্ষকদের বিরুদ্ধে বললে তাদের বিরুদ্ধে শ্রদ্ধাবোধ না থাকলে দেশটা কীভাবে এগিয়ে যাবে? তথাকথিত আখের গুছানো ব্যবসায়ীদেরকে শিক্ষক হিসেবে নিজের পরিচয় দেওয়ার লাইসেন্সটা কেড়ে নেওয়ার দরকার।
২। বাজারে যেন ঈদের আমেজ লেগেছে। নিত্য পণ্য মজুদে শুরু হয়েছে অসুস্থ প্রতিযোগিতা। কখনো কখনো কোনো কোনো পণ্যের দাম বেড়ে গেছে দ্বিগুণের চেয়ে বেশি। করোনা ভাইরাসের জ্বরে কাঁপিয়ে দেওয়া হয়েছে আমাদের নিত্য পণ্যের বাজারকেও। আর সেই হিসেবে যেখানে আমাদের সকল ক্ষেত্রে কাজের অবস্থাটা কমে গেছে-বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে গেছে, সেখানে এই মূল্য বৃদ্ধির আমাদের মধ্যবিত্ত-নিম্ন মধ্যবিত্ত-নিম্ন বিত্ত এবং বিত্তহীনদের জন্য মরার উপর খাড়ার গা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর জানা গেছে, এই মূল্য বৃদ্ধিতে আমাদেরই ভূমিকা সবচেয়ে বেশি। নিকট ভবিষ্যৎে খাদ্য পণ্য পাওয়া যাবে কী না এই আশংকায় ভোক্তারা বাজার থেকে চাহিদার কয়েক গুণ বেশি পণ্য সামগ্রী কিনে নিচ্ছেন। ব্যবসায়ীরা নন, এবার মজুদকারী হিসেবে আবির্ভূত হচ্ছেন ভোক্তারাই। আর সুযোগ বুঝে ব্যবসায়ীরা সব ধরনের পণ্যের দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন। চাল, ডাল, ভোজ্য তেল, চিনি, আটা, ডিম, শাক-সবজি, মাছ-মাংস সহ প্রতিটি পণ্যের দাম বছরের যে কোন সময়ের চেয়ে এখন অনেক বেশি। অন্যান্য দেশগুলোতে এই সংকট সময়ে সকল পণ্যের দাম কমিয়ে রাখা হয়েছে। জনগণের জন্য সকল ধরনের সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করা হয়েছে। যা আমাদের মতো উন্নয়নশীল দেশটির জন্য অনেক বেশি আবশ্যকীয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। বাংলাদেশে একজন করোনা রোগীর মৃত্যুর পর বাজারে পরিস্থিতি আরও অস্বাভাবিক হয়ে পড়েছে। এ দিকে নিত্য পণ্যের দাম স্বাভাবিক রাখতে চাহিদার তুলনায় বেশি পণ্য সামগ্রী কেনা থেকে বিরত থাকা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ আতংকিত হয়ে অতিরিক্ত পণ্য ক্রয়ের কোন যৌক্তিকতা নেই। আপনি বিষয়টি সহজেই বুঝবেন-আপনার ঘর ভর্তি খাদ্য বা চাহিদার সব যদি থাকে; কিন্তু আপনার চারপাশ যদি করোনায় আক্রান্ত থাকে তাহলে কী আপনি করোনা থেকে বাঁচতে পারবেন? করোনা ভাইরাসের মাধ্যমে আমরা সারাবিশ্বের মানুষ যে সমস্যা বা সংকটে আছি সেখান থেকে উত্তরণের একটাই পথ-তা হলো সবাই সুস্থ থেকে নিজ নিজ অবস্থানে থেকে সর্তক থাকা। আর বিজ্ঞানীরা অতি দ্রুত একটি ফলাফল আমাদের জন্য বয়ে আনতে পারবে বলে আমরা বিশ্বাস করি এবং সবাই নিজ নিজ ধর্মের মত অনুযায়ী স্রষ্টার কাছে (আল্লাহর কাছে) একটি প্রার্থনাই করি। করোনা ভাইরাস যেন আমাদেরকে গায়িবীভাবে একটি বার্তা দিচ্ছে-আর তা হলো কেউ চাইলেই পালিয়ে বাঁচতে পারবে না। সবাইকে সহযোগিতামূলক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে বেঁচে থাকতে হবে। একই ভাইরাসে বিভিন্ন দেশের প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আর উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের আক্রান্ত হওয়ার মাধ্যমে প্রমাণিত হয় এই ভাইরাসটি একক কোন গোষ্ঠীকে চ্যালেঞ্জ করে আসেনি। করোনার চ্যালেঞ্জ এখন সারা পৃথিবীর; করোনার চ্যালেঞ্জ এখন প্রতিটি মানুষের।
৩। করোনা ভাইরাস ইস্যুতে বাংলাদেশের জন্য একটি আশার আলো নিয়ে এসেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র। গণমাধ্যমে পাওয়া সূত্র মতে, করোনা ভাইরাস শনাক্তকরণের জন্য একটি কীট তারা আবিষ্কার করতে সক্ষম হয়েছেন। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের গবেষক ডা. বিজন চক্রবর্তী ও তার সহকর্মীদের গবেষণায় করোনা শনাক্তকরণ কীটটি আবিষ্কার সম্ভব হয়েছে। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী জানিয়েছেন তারা সরকারের সহযোগিতা পেলে কীট তৈরীর কাঁচামাল আমদানির পর মাত্র ৭ দিনের মধ্যে দেশেই করোনা শনাক্তকরণ কীট উৎপাদন করতে পারবেন। যার ফলে মাত্র ২৫০ থেকে ৩০০ টাকায় করোনা শনাক্ত করা যাবে এবং তা মাত্র একদিনের মধ্যেই। যা আমাদের জন্য অবশ্যই একটি আশার সংবাদ। এজন্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে অভিনন্দন এবং আমরা দৃঢ়ভাবে প্রত্যাশা করি দেশের এই অবস্থায় সারাবিশ্বকে কাঁপিয়ে দেওয়া মহামারী করোনা থেকে মুক্তির ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীকে সহযোগিতার মাধ্যমে সরকার যেন সারাবিশ্বের মধ্যে নিজেদের সফলতার জানান দিতে পারে। আর সেক্ষেত্রে জনগণকেও সচেতন হতে হবে। কারণ বাতাসের মধ্য দিয়ে দ্রুত ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে সম্মিলিত লড়াই প্রয়োজন এবং এ লড়াই বেঁচে থাকার জন্য। করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ জয়ে দেশের সবাইকে সম্মিলিতভাবে লড়াই করতে হবে। এক্ষেত্রে এখন কেবল অভিযোগ অনুযোগ, দোষারুপ বা সংকট, আতংকের কথা না বলে যে যার অবস্থান থেকে বৈশ্বিক ও জাতীয় দুযোর্গ পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হবে। করোনা ভাইরাস পৃথিবীর জন্য একটি বড় ধরনের বিপর্যয় হয়ে দেখা দিয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ নিজেদের মতো করে এই অদৃশ্য শক্তির বিরুদ্ধে কাজ করছে। আমাদের ছোট দেশে মানুষ বেশি। তাই সরকারের পক্ষে সবধরনের ব্যবস্থা নেওয়া কষ্টসাধ্য হবে এবং এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু তাই বলে সেক্ষেত্রে আমাদের কোন কমতি রাখলে হবে না। স্ব স্ব উদ্যোগে বাধা এড়িয়ে যাবার চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে। এ বিষয়ে আতংকিত না হয়ে নিজেদের বাঁচাতে সবাইকে এক হয়ে এগিয়ে আসতে হবে। নিজেদের বাঁচাতেই সবাইকে সতর্কতার সাথে চলতে হবে।

 



সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 186        
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     ফিচার
শাল, গজারি, আদিবাসী, আনারস, রাবার চাষ সহ নানা ঐতিহ্যের মধুপুর
.............................................................................................
আমাদেরকে কী সবকিছুই আইন করেই মানাতে হবে?
.............................................................................................
‘৩২ নম্বর’ বাড়িটি এখন ইতিহাস
.............................................................................................
জলবায়ু পরিবর্তন চ্যালেঞ্জ : পানি ও পরিবেশ
.............................................................................................
১৩৬ বছরেও কাজ করছেন সোনাভান
.............................................................................................
আমাদের সেই মহানায়ক
.............................................................................................
সুতাং নদীর দূষিত পানিতে মারা যাচ্ছে জলজ প্রাণী
.............................................................................................
মহম্মদপুরে ঋতুরাজ বসন্তের শিমুল ফুল
.............................................................................................
কালিয়াকৈরে নবনির্মিত ব্রিজ সংলগ্ন সড়কে গর্ত, দুর্ঘটনার আশঙ্কা
.............................................................................................
জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের মুখে বাংলাদেশ
.............................................................................................
বীরগঞ্জে গাছে গাছে শিমুল ফুল
.............................................................................................
বীরগঞ্জে বিলুপ্তির পথে বাঁশ শিল্প
.............................................................................................
ইসলামপুর পৌরবাসীর প্রিয় নেতা মেয়র সেখ মো: আ: কাদের
.............................................................................................
ফুলপুরে কংশ নদীতে পারাপার ঝুঁকিতে দশ গ্রামের মানুষ
.............................................................................................
সাহেবের আলগা হতে দাঁতভাংগা পর্যন্ত রাস্তাটির বেহালদশা
.............................................................................................
সুনামগঞ্জের পাখির গ্রাম মুরাদপুর
.............................................................................................
প্রায় ৮ হাজার নারী-পুরুষের কর্মসংস্থান
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু’র আদর্শকে ধারণ করে চলছেন আবদুল খালেক
.............................................................................................
ডেপুটেশনের ফাঁদে ধ্বংস হচ্ছে কুড়িগ্রামের প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা
.............................................................................................
আধুনিকতার ছোঁয়ায় বিলুপ্তির পথে আত্রাইয়ে মাটির ঘর
.............................................................................................
নারী জাগরনের অগ্রদূত -বেগম রোকেয়া
.............................................................................................
অসহায় মানুষের জীবনে দ্বীপ জ্বালাতে চান রেশমা জাহান
.............................................................................................
লাখো ভক্তের স্বপ্নসারথী ইকবাল হোসেন অপু প্রকৃত অর্থেই একজন জননেতা
.............................................................................................
“নারীবাদ নাকি সমকামিতা, কোন পথে আমরা”
.............................................................................................
কি ঘটে জানুয়ারির প্রথম সোমবারে?
.............................................................................................
নারী পুরুষের ১০টি মানসিক পার্থক্য
.............................................................................................
শিশুর যত সুন্দর নাম
.............................................................................................
সৌভাগ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ যে চারটি বিষয়
.............................................................................................
মানসিক সমস্যা সারিয়ে তুলতে পারেন দাদা-দাদি
.............................................................................................
যে গ্রামে পুরুষ প্রবেশ নিষেধ
.............................................................................................
স্বাধীন ভারতের বীরপুত্র
.............................................................................................
বিশ্বের সবচেয়ে প্রাচীন খাবারের সন্ধান
.............................................................................................
৩৬২ কোটি টাকা এক খণ্ড হিরের দাম
.............................................................................................
কুকুর শনাক্ত করবে ম্যালেরিয়া রোগ
.............................................................................................
হঠাৎই হারিয়ে গেল জাপানের আস্ত একটি দ্বীপ!
.............................................................................................
৪০০ কোটি বছরেরও পুরোনো গোমেদ পাথর!
.............................................................................................
যে কারণে সুইসাইড স্পট হয়ে ওঠে এই স্টার হোটেলটি
.............................................................................................
আমার শরীরটা পুরুষের ছিল, কিন্তু মনটা ছিল নারীর
.............................................................................................
এই পান্নার দাম ১৫ কোটি টাকা!
.............................................................................................
অসাধারণ জীবনীশক্তি মিঠা পানির জেলিফিশের
.............................................................................................
দাবানল ঠেকাবে ছাগল বিগ্রেড
.............................................................................................
নিজের স্বরের এই ৭ তথ্য আপনি জানেন কি?
.............................................................................................
পাঁচ মাস বয়সেই যুক্তরাষ্ট্রের ৫০ অঙ্গরাজ্য ভ্রমণ
.............................................................................................
বিশ্বের উষ্ণতা কমানোর ৫ উপায়
.............................................................................................
ভারতের যেসব মন্দিরে নারীদের প্রবেশ নিষেধ
.............................................................................................
চুল শুকাতে সোনার হেয়ার ড্রায়ার!
.............................................................................................
১৯ বছর ধরে যে শহরে চলে না গাড়ি
.............................................................................................
বরফের নিচে আশ্চর্য শহর
.............................................................................................
মোগলাই খাবার এত স্পাইসি হয় কেন?
.............................................................................................
সেতুও আবার রোলার কোস্টার হয় নাকি
.............................................................................................
Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale
Digital Load Cell
Digital Indicator
Digital Score Board
Junction Box | Chequer Plate | Girder
Digital Scale | Digital Floor Scale

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মো: রিপন তরফদার নিয়াম ।
প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক : মফিজুর রহমান রোকন ।
নির্বাহী সম্পাদক : শাহাদাত হোসেন শাহীন ।

সম্পাদক কর্তৃক শরীয়তপুর প্রিন্টিং প্রেস, ২৩৪ ফকিরাপুল, ঢাকা থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত । সম্পাদকীয় ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : রহমানিয়া ইন্টারন্যাশনাল কমপ্ল্যাক্স (৬ষ্ঠ তলা) । ২৮/১ সি টয়েনবি সার্কুলার রোড, মতিঝিল, বা/এ ঢাকা-১০০০ । জিপিও বক্স নং-৫৪৭, ঢাকা ।
ফোন নাম্বার : ০২-৯৫৮৭৮৫০, ০২-৫৭১৬০৪০৪
মোবাইল : ০১৭০৭-০৮৯৫৫৩, ০১৯১৬৮২২৫৬৬ ।

E-mail: dailyganomukti@gmail.com
   © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD