ঢাকা,শুক্রবার,১১০ ভাদ্র ১৪২৮,২৩,এপ্রিল,২০২১ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : > নিয়ম বহির্ভূতভাবে চলছে পশ্চিমাঞ্চল রেলের জিএম দপ্তর   > কাউয়াদিঘি হাওরে ধান কাটা উৎসব   > পঞ্চগড়ের এক মৌসুমে তিন ফসল   > অস্তিত্ব সংকটে রামগঞ্জে বীরেন্দ্র খাল   > করোনা থেকে সুস্থ হতে ঘরেই যা করবেন   > নোয়াখালীতে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ইফতার সামগ্রী বিতরণ   > পিএসজি-বায়ার্নকে নিয়ে পেরেজের মিথ্যাচার   > জিৎ করোনায় আক্রান্ত   > টিকার বিকল্প দেশের সন্ধান চলছে, সেরাম দিচ্ছে না   > বিচারকাজে গতি আনতে হাইকোর্টে আরও দুই বেঞ্চ  

   বিশেষ খবর
  মোরেলগঞ্জে ফ্রি ফায়ার-পাবজি গেমে আসক্ত শিক্ষার্থীরা
  Publish Time : 4 April 2021, 1:23:16:PM

মোরেলগঞ্জ (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো দীর্ঘমেয়াদি বন্ধের কবলে পড়েছে। এ অবস্থায় শিক্ষ র্থীরা পড়ার টেবিল ছেড়ে আধুনিক স্মার্ট মোবাইলে ফ্রি ফায়ার ও পাবজি গেমের দিকে ঝুঁকে পড়ছে। প্রাথমিক থেকে শুরু করে কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এ খেলায় আসক্ত হচ্ছেন। অভিভাবকরা বাধা দিলেও তা খুব একটা কাজে আসছে না। সন্তানের ভবিষ্যৎ নিয়ে তারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। শুধু শহর নয়, উপজেলার প্রতিটি পাড়া-মহলস্নায় এ দৃশ্য নিত্যদিনের। বাগেরহাট জেলার উপকূলীয় উপজেলা মোরেলগঞ্জ মিক্ষক ও অভিভাবকরা তাদের অভিযোগ তুলে ধরেছেন। পাড়া-মহলস্নায় উঠতি বয়সি শিক্ষার্থীদের আড্ডা ও অনলাইন গেম খেলার দৃশ্য চোখের পড়ার মতো। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, এসব কর্মকান্ডের মধ্যে সৃষ্টি হতে পারে গ্যাং গ্রুপ। শিক্ষার্থীরা পড়ার টেবিল ও খেলাধুলার মাঠ ছেড়ে ফেসবুক, ইউটিউব ও প্রযুক্তিভিত্তিক কর্মকান্ডে তাদের সময় পার করছে। ইমো, ভাইবার, টুইটার ও হোয়াটস অ্যাপে নতুন নতুন ছবি আপলোড ও চ্যাটিং করে সময় নষ্ট করছে। তৈরি করছে টিকটক ভিডিও। এই কাজে ছাত্রীরাও পিছিয়ে নেই। সারাদিন এমনকি রাত জেগে ইন্টারনেটে খেলছে ফাইটিং ফ্রি ফায়ার ও পাবজির মতো নেশা ধরা গেম। ইন্টারনেটের সহজলভ্যতাকে কাজে লাগিয়ে স্কুল, কলেজপড়ুয়ারা মোবাইলে এমনভাবে আসক্ত হয়ে পড়েছেন, যা মাদকের চেয়ে ভয়ংকর। বিকালের সময় মোরেলগঞ্জ উপজেলার অধিকাংশ অঞ্চলে দেখা গেছে কিশোররা ইন্টারনেটে ফ্রি ফায়ার গেম নিয়ে পড়ে আছেন। যাদের বেশির ভাগই স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী। উঠতি বয়সের শিক্ষার্থীরা ও পুরো যুব সমাজ দিন দিন ফ্রি ফায়ার ও পাবজি নামক গেমের নেশায় জড়িয়ে পড়ছে। যে সময় তাদের ব্যস্ত থাকার কথা নিয়মিত পড়ালেখাসহ শিক্ষা পাঠ গ্রহণ নিয়ে ও খেলার মাঠে ক্রীড়া চর্চার মধ্যে, সেখানে তারা ডিজিটাল তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে জড়িয়ে পড়ে নেশায় পরিণত করছেন।
উঠতি বয়সের যুবকরা প্রতিনিয়ত অ্যান্ড্রয়েড ফোন দিয়ে এসব গেইমে আসক্ত হচ্ছেন। এসব বিদেশী গেম থেকে শিক্ষার্থী বা তরুণ প্রজন্মকে ফিরিয়ে আনতে না পারলে বড় ধরণের ক্ষতির আশঙ্কা দেখছেন সচেতন মহল। একজন অসচ্ছল পরিবারের সন্তান ডায়মন্ড ও ইউসি কেনার টাকা যোগান দিতে জড়িয়ে পড়ছে বিভিন্ন অপকর্মে। মাদক বিক্রয় ও কিছু টাকার বিনিময়ে মাদক সেবিদের কাছে মাদক পৌছে দেওয়া তার মধ্যে অন্যতম মাধ্যম। কোমল মতি শিশুদের ১০/২০ টাকা জমিয়ে যেখানে ক্রিকেট বল ফুটবল কেনার কথা, সেখানে তারা টাকা জমিয়ে রাখছে ইউসি/ ডায়মন্ড কেনার জন্য। ফায়ার গেমসে অনুরাগীরা জানান, ‘প্রথমে তাদের কাছে ফ্রি ফায়ার গেমস ভালো লাগত না। কিছুদিন বন্ধুদের দেখাদেখি খেলতে গিয়ে এখন তারা আসক্ত হয়ে গেছেন। এখন গেমস না খেলে তাদের অস্বস্তিকর মনে হয় বলে জানা যায় । আরেক জন ১০ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী জানায়, ‘তিনি পূর্বে গেমস সম্পর্কে কিছু জানতেন না। এখন নিয়মিত ফ্রি ফায়ার গেমস খেলেন তিনি। মাঝে মধ্যে গেমস খেলতে না পারলে মুঠোফোন ভেঙে ফেলার ইচ্ছাও হয় তার। তিনি আরো বলেন, ফ্রি ফায়ার গেমস যে একবার খেলবে সে আর ছাড়তে পারবে না বলে দাবি করেন তিনি। গেম খেলায় ফোনে মেগাবাইট কিনতে খরচ সম্পর্কে জানতে চাইলে তারা বলেন, এই গেম যখন বিনোদন নেওয়ার জন্য খেলতাম তখন মাসে ২০০ থেকে ৩০০ টাকার মেগাবাইট খরচ হতো। মেগাবাইট ছাড়া অন্য কোনো খরচ ছিল না। ধীরে ধীরে যখন এটা ভালো লাগে তখন প্রতিটা ইভেন্টে ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা খরচ না করলে যেন হয় না। গেমটিতে পুরোপুরিভাবে মনোযোগ দিয়ে যখন খেলি তখন দেখি গেমের ভেতরে এমন কিছু জিনিস আছে যেগুলো না কিনলে নয়। যেমন অলকের দাম ৪০০ টাকা, একটা জার্সি ৩০০ টাকা, নতুন ইভেন্টে আসলেই ২০০০ টাকার নিচে খরচ না করলে হয় না। সম্পূর্ণ ড্রেস কিনতে লাগে ১২০০ টাকা।
একাধিক অভিভাবকের সঙ্গে কথা বললে অনেকেই বলেন, ‘অলস মস্তিষ্কে শয়তানের বাসা বেঁধেছে’ কোমলমতি শিক্ষার্থীদের। এভাবে স্কুল, কলেজ বন্ধ না রেখে সামাজিক দূরত্ব মেনে সপ্তাহে গ্রম্নপ আকারে তিন দিন ক্লাস নেওয়া হলে এমন খেলা করার সময় পেত না অনেকেই। সে জন্য একাধিক অভিভাবক ক্লাসভিত্তিক গ্রম্নপ করে সপ্তাহে দুই দিন ক্লাস করার দাবি জানিয়েছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কাছে। স্কুল চালু করা না হলে শিক্ষার্থীরা গেম খেলার চেয়েও সামাজিক অপরাধে জড়িয়ে পড়বে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেন তারা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শিক্ষক জানান, আমাদের অবসর সময়টি বিভিন্ন খেলাধুলার মধ্য দিয়ে পার করতাম, কিন্তু এখনকার যুগে তরুণ প্রজন্মের সন্তানদের দেখা যাচ্ছে ভিন্ন চিত্র। উপজেলার গ্রামগঞ্জে মোবাইল ইন্টারনেট গ্রম্নপ গেম এখন মহামারি আকার ধারণ করছে। ইয়ং জেনারেশন এখন ফ্রি ফায়ারের দিকে আসক্ত। যেটা কিনা একটা অনলাইন গেম সেখানে গ্রম্নপিংয়ের মাধ্যমে জুয়ার আসর তৈরি হচ্ছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ পেলেই যথারীতি শিক্ষার্থীরা লেখাপড়া বাদ দিয়ে অনলাইন গেমের প্রতি আসক্ত হয়ে পড়েছে।উঠতি বয়সের শিক্ষার্থীদের বাঁচাতে হলে অভিভাবকদের পাশাপাশি সমাজের সচেতন মহল, শিক্ষক-শিক্ষিকা, জনপ্রতিনিধি এবং প্রশাসনকে এগিয়ে আসার আহ্বান।



সংবাদটি পড়া হয়েছে মোট : 89        
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     বিশেষ খবর
অস্তিত্ব সংকটে রামগঞ্জে বীরেন্দ্র খাল
.............................................................................................
সখীপুরে অবাধে কাটা হচ্ছে টিলা
.............................................................................................
সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে বিষাক্ত কেমিক্যাল দিয়ে পাকানো আম বিনষ্ট
.............................................................................................
বেনাপোলে বন্দরে ২০ হাজার মানুষ করোনা ঝুঁকিতে
.............................................................................................
গয়েশপুর-ডুবাইল সড়কে ঝুঁকিপূর্ণ ব্রিজ, জনদুর্ভোগ
.............................................................................................
আদৌ তাদের পাওনা পাবেন কি না!
.............................................................................................
মোরেলগঞ্জে ফ্রি ফায়ার-পাবজি গেমে আসক্ত শিক্ষার্থীরা
.............................................................................................
মির্জাগঞ্জে আয়রন ব্রিজ এখন মরণ ফাঁদ
.............................................................................................
টাঙ্গাইলের একতা টাওয়ার হতে পারে রানা প্লাজা
.............................................................................................
ঠোংগা বানিয়ে সফল অর্ধ শতাধিক নারী
.............................................................................................
রোহিঙ্গা শিবিরে আগুন : ১১ জনের লাশ উদ্ধার
.............................................................................................
কুমিল্লা দক্ষিণাঞ্চলে ছাদ বাগানের আগ্রহ বাড়ছে ভবন মালিকদের
.............................................................................................
মরে যাচ্ছে বারনই নদী
.............................................................................................
দাগনভূঞার রাতের আধারে লুট হচ্ছে ফসলি জমির মাটি
.............................................................................................
২৪ বছর ধরে বন্দি হলদীগ্রাম শুল্ক ষ্টেশন স্থাপন
.............................................................................................
সিলেটে হাওর উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ শেষ হয়নি এখনো
.............................................................................................
শায়েস্তাগঞ্জে পুরানবাজার-হবিগঞ্জ রাস্তাটি দীর্ঘ দিন ধরে ঝুঁকিপূর্ণ
.............................................................................................
পল্লীতে সম্ভাবনাময় একটি নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত
.............................................................................................
কুশিয়ারা নদীতে একের পর এক জেগে উঠছে বালুচর
.............................................................................................
চট্টগ্রাম বন্দরের বিকল্প বন্দরে পরিণত হবে মোংলা বন্দর
.............................................................................................
কাঁঠালিয়ায় সেতু ভেঙ্গে খালে
.............................................................................................
হেরোইনের উপকরণ ‘পপি’ চাষে জড়িত কৃষকরা গ্রেফতার
.............................................................................................
সিলেটে ৫০টি নিষিদ্ধ ‘বোমা মেশিন’ ধ্বংস
.............................................................................................
দেশ-বিদেশে বাংলাদেশি হিমায়িত খাবারের চাহিদা ক্রমেই বাড়ছে
.............................................................................................
ফসলী জমির মাটি বিক্রি করছে স্থানীয় একটি চক্র
.............................................................................................
মুকসুদপুরে ব্রীজ উদ্বোধন
.............................................................................................
বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি বাড়লেও রফতানি বাণিজ্যে ধ্বস
.............................................................................................
বেনাপোল দিয়ে যাতায়াত বাড়ছে পাসপোর্টধারীদের
.............................................................................................
কক্সবাজার জেলাজুড়ে লবণ উৎপাদনের ধুম
.............................................................................................
গোয়াইনঘাটে বাড়ছে সৌরশক্তির ব্যবহার
.............................................................................................
সরিষাবাড়ীতে হুমকির মুখে ব্রীজ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান
.............................................................................................
পুলিশি সেবা পৌঁছাতে ওসির ব্যতিক্রমী আয়োজন
.............................................................................................
দুর্দিনে গাংনীর মৃৎ শিল্পীরা
.............................................................................................
কুয়াশায় কাজে আসছেনা ফগলাইট
.............................................................................................
হিমাগার নেই কুমিল্লা দক্ষিণাঞ্চলে
.............................................................................................
বীরগঞ্জে এতিমদের মাঝে কম্বল বিতরণ
.............................................................................................
মোংলা-খুলনা রেললাইন নির্মাণ কাজ শেষ হবে ডিসেম্বরে
.............................................................................................
ভিক্ষাবৃত্তি থেকে প্রতিষ্ঠিত জীবনে কালিয়াকৈরের কুষ্ঠ রোগীরা
.............................................................................................
গুচ্ছগ্রাম ছেড়ে চলে যাচ্ছে সুবিধা বঞ্চিতরা
.............................................................................................
টুঙ্গিপাড়ায় সাড়ে ৩৫শ’ পরিবার পাচ্ছেন নিরাপদ পানি
.............................................................................................
ফুলপুরে ৭ গ্রামের একমাত্র ভরসা বাঁশের সেতু
.............................................................................................
৩৫৫ কোটি টাকার পণ্য আটক করেছে কোস্টগার্ড পশ্চিম জোন
.............................................................................................
শুরু হচ্ছে পাইপড ওয়াটার ডিস্ট্রিবিউশন নেটওয়ার্ক
.............................................................................................
বাঁশের সাঁকোই ভরসা নিতাই নদে
.............................................................................................
পায়ে হেঁটেই তিস্তা পার আবাদ হচ্ছে বিভিন্ন ফসল
.............................................................................................
কৃষকদের মাঠ ভ্রমণের আয়োজন করলে প্রশিক্ষণ ফলপ্রসূ হবে: জেলা প্রশাসক, কুষ্টিয়া
.............................................................................................
পদ্মার দুর্গম চরে বিদ্যুতের আলো
.............................................................................................
রাজবাড়ীর পেঁয়াজকলি যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন স্থানে
.............................................................................................
মুজিবনগর ভাস্কর্য রক্ষায় নিরাপত্তা জোরদার
.............................................................................................
রায়গঞ্জে একটি বাঁশের সাকো দিয়ে পাঁচ হাজার লোকের চলাচল
.............................................................................................
Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale
Digital Load Cell
Digital Indicator
Digital Score Board
Junction Box | Chequer Plate | Girder
Digital Scale | Digital Floor Scale

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মো: রিপন তরফদার নিয়াম
প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক : মফিজুর রহমান রোকন
নির্বাহী সম্পাদক : শাহাদাত হোসেন শাহীন
বাণিজ্যিক কার্যালয় : "রহমানিয়া ইন্টারন্যাশনাল কমপ্লেক্স"
(৬ষ্ঠ তলা), ২৮/১ সি, টয়েনবি সার্কুলার রোড,
মতিঝিল বা/এ ঢাকা-১০০০| জিপিও বক্স নং-৫৪৭, ঢাকা
ফোন নাম্বার : ০২-৪৭১২০৮০৫/৬, ০২-৯৫৮৭৮৫০
মোবাইল : ০১৭০৭-০৮৯৫৫৩, 01731800427
E-mail: dailyganomukti@gmail.com
Website : http://www.dailyganomukti.com
   © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop