ঢাকা,শুক্রবার,৮ কার্তিক ১৪২৭,২৩,অক্টোবর,২০২০ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : > দেশে ফেরামাত্র পি কে হালদারকে গ্রেফতারের নির্দেশ   > করোনায় একদিনে আরো ২৪ মৃত্যু   > গাইবান্ধার সাঘাটার রামনগর গ্রাম নদীভাঙন হতে রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান   > আ:লীগের পায়ের নিচে মাটি নেই, তাদের সমালোচনায় জনমনে টিকে রয়েছে বিএনপি : মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর   > নাসিকের প্রকল্প অনুমোদন হওয়ায় প্রধানমন্ত্রীকে মেয়র আইভীর ধন্যবাদ   > এনু-রুপমের জামিন হাইকোর্টেও নামঞ্জুর   > মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষা বাতিল   > কুয়েতে নতুন ‘আইন পাস’, কমবে বাংলাদেশি শ্রমিক   > শাহরুখের লন্ডনের বাড়ি আর অক্ষয়ের টাকা চান কারিনা!   > হারলে বিদায়, জিতলেও অনিশ্চিত তামিমদের ভাগ্য  

   তথ্য-প্রযুক্তি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
বিজ্ঞান জাদুঘরে শেখ রাসেলকে স্মরণ: শূন্যতা পূরণ করবে তরুন মেধাবীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ট পুত্র শেখ রাসেলের ৫৭তম জন্মদিন উপলক্ষে গতকাল রোববার জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরে শিশু-কিশোরদের নিয়ে এক বিজ্ঞান সভার আয়োজন করা হয়েছে। বাংলাদেশ বিজ্ঞান পরিষদ, বুয়েট, রুয়েট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়, হলিক্রস কলেজ, ঢাকা কলেজ, ময়মনসিংহ ক্যাডেট কলেজের প্রায় ৪০জন শিক্ষার্থী এ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা শেখ রাসেলকে স্মরণ পূর্বক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির উৎকর্ষতায় দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরের মহাপরিচালক মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী বলেন, “অবুঝ শিশু শেখ রাসেলকে হত্যা জাতিসংঘ সনদ এবং আন্তর্জাতিক কনভেনশন অনুযায়ী ঘৃণ্য অপরাধ। নিরপরাধ শিশু ও মানুষ হত্যা ইসলামেও নিষিদ্ধ। শেখ রাসেল বেঁচে থাকলে আজ বাংলাদেশের অনেক বড় বিজ্ঞানী, গবেষক বা দেশের কান্ডারী হতে পারতেন। তাঁর এ শুন্যতা পূরণ করতে হবে আজকের তরুন প্রজন্মকে, যারা মেধা ও যোগ্যতা দিয়ে বাংলাদেশকে বিশ্বমানচিত্রে সম্মানজনক অবস্থানে নিয়ে যাবে”।

অনুষ্ঠান শেষে শেখ রাসেলের বিদেহী আত্নার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয় এবং এতিম শিশুসহ অংশগ্রহনকারীদের মধ্যে খাবার বিতরণ করা হয়।

বিজ্ঞান জাদুঘরে শেখ রাসেলকে স্মরণ: শূন্যতা পূরণ করবে তরুন মেধাবীরা
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ট পুত্র শেখ রাসেলের ৫৭তম জন্মদিন উপলক্ষে গতকাল রোববার জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরে শিশু-কিশোরদের নিয়ে এক বিজ্ঞান সভার আয়োজন করা হয়েছে। বাংলাদেশ বিজ্ঞান পরিষদ, বুয়েট, রুয়েট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়, হলিক্রস কলেজ, ঢাকা কলেজ, ময়মনসিংহ ক্যাডেট কলেজের প্রায় ৪০জন শিক্ষার্থী এ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা শেখ রাসেলকে স্মরণ পূর্বক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির উৎকর্ষতায় দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরের মহাপরিচালক মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী বলেন, “অবুঝ শিশু শেখ রাসেলকে হত্যা জাতিসংঘ সনদ এবং আন্তর্জাতিক কনভেনশন অনুযায়ী ঘৃণ্য অপরাধ। নিরপরাধ শিশু ও মানুষ হত্যা ইসলামেও নিষিদ্ধ। শেখ রাসেল বেঁচে থাকলে আজ বাংলাদেশের অনেক বড় বিজ্ঞানী, গবেষক বা দেশের কান্ডারী হতে পারতেন। তাঁর এ শুন্যতা পূরণ করতে হবে আজকের তরুন প্রজন্মকে, যারা মেধা ও যোগ্যতা দিয়ে বাংলাদেশকে বিশ্বমানচিত্রে সম্মানজনক অবস্থানে নিয়ে যাবে”।

অনুষ্ঠান শেষে শেখ রাসেলের বিদেহী আত্নার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করা হয় এবং এতিম শিশুসহ অংশগ্রহনকারীদের মধ্যে খাবার বিতরণ করা হয়।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও বন্ধ হয়নি বিজ্ঞান চচা: মুনীর চৌধুরী
                                  

স্টাফ রিপোর্টার: জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরের মহাপরিচালক মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও বন্ধ হয়নি বিজ্ঞান চর্চা। মুজিব বর্ষকে স্মরণ করে শিক্ষার্থীদের অচলায়তন থেকে রক্ষায় এ বিজ্ঞানভিত্তিক প্রাণবন্ত অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছে, যা আগামীতে অব্যাহত থাকবে।

বুধবার রাজধানীর অদূরে কেরানীগঞ্জে মুজিব বর্ষ উপলক্ষে শিক্ষার্থীদের জন্য ভ্রাম্যমাণ বিজ্ঞান উৎসবের কর্মসূচীর মাধ্যমে ৪-ডি ভিত্তিক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির অজানা রহস্য প্রদর্শন, মহাকাশের গ্রহ নক্ষত্র পরিচিতি এবং বিজ্ঞান বিষয়ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
বিজ্ঞান জাদুঘরের পক্ষে একটি বিশাল মুভিবাস ও একটি মহাকাশ পর্যবেক্ষণ বাস কেরানীগঞ্জে পৌঁছলে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়। সেখানে কেরানীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় ১০ টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রায় ৭০০ জন ছাত্র-ছাত্রী এ প্রদর্শনীতে অংশ গ্রহণ করে।

 

হেরে গেল মাইক্রোসফট, টিকটক কিনছে ওরাকল
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট : চাপ প্রয়োগ করে টিকটকের মার্কিন ব্যবসা বিক্রির জন্য ট্রাম্প প্রশাসন যে সময়সীমা বেধে দিয়েছিল তা পেরোনোর আগেই জানা গেলো, জনপ্রিয় এই ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপটি বিক্রির জন্য ওরাকল করপোরেশনকে বেছে নিয়েছে টিকটকের মালিকানাধীন চীনা কোম্পানি বাইটড্যান্স।

আজ সোমবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এবং বার্তা সংস্থা এপির প্রতিবেদনে সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাতে এ খবর জানানো হয়েছে। টিকটক কেনার এই প্রতিযোগিতায় আরেক মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট মাইক্রোসফটের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে বাইটড্যান্স। টিকটক বিক্রির জন্য কিছুদিন ধরে মার্কিন ক্রেতা খুঁজছিল বাইটড্যান্স।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চীনা অ্যাপ টিকটককে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি হিসেবে অভিহিত করে গত মাসে এক নির্বাহী আদেশ জারি করে টিকটকের মালিকানা যুক্তরাষ্টের কোনো প্রতিষ্ঠানের কাছে বিক্রির জন্য সময়সীমা বেধে দেন। ট্রাম্প প্রশাসনের বেঁধে দেয়া সময় ছিল ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

ট্রাম্প নির্বাহী আদেশ জারির পর হুমকি দিয়ে বলেন, এই সময়সীমার মধ্যে টিকটক বিক্রি না করা হলে যুক্তরাষ্ট্রে তা নিষিদ্ধ করা হবে। ট্রাম্পের এমন হুমকির পর থেকে সম্ভাব্য ক্রেতাদের কাছে টিকটকের মার্কিন ব্যবসা বিক্রি করার জন্য বাইটড্যান্স মার্কিন জায়ান্ট ওরাকল এবং মাইক্রোসফটের সঙ্গে আলোচনা শুরু করে।

এখন ওরাকলের কাছে মার্কিন ব্যাবসা বিক্রির জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও চীন সরকারের অনুমোদনের প্রয়োজন হবে টিকটকের। মাইক্রোসফট স্থানীয় সময় রোববারই অবশ্য জানায় যে, টিকটকের মার্কিন ব্যাবসা কেনার জন্য তারা যে প্রস্তাব দিয়েছিল তা ফিরিয়ে দিয়েছে অ্যাপটির মালিকানা প্রতিষ্ঠান বাইটড্যান্স।

ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশ জারির পর অবশ্য মার্কিন সরকার কর্তৃক এই নিষেধাজ্ঞার হুমকিকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে একটি মামলা দায়ের করেছিল টিকটক। তাতে কোম্পানিটি দাবি করে যে, ট্রাম্পের আদেশ আন্তর্জাতিক জরুরি অর্থনৈতিক শক্তি আইনের অপব্যবহার। কারণ প্ল্যাটফর্মটি ‘অস্বাভাবিক এবং অসাধারণ হুমকির’ নয়।

বাংলাদেশের তথ্যের মান খুবই দুর্বল: বিশ্বব্যাংক
                                  

গণমুক্তি ডেস্ক : ভারত, পাকিস্তান, ভুটান ও শ্রীলঙ্কার চেয়েও বাংলাদেশের তথ্যের মান খুবই দুর্বল বলে জানিয়েছে দেশের অন্যতম উন্নয়ন সহযোগী বিশ্বব্যাংক।

গতকাল বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) বিশ্বব্যাংক জানায়, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) দেশের শুমারি, খানা আয়-ব্যয় জরিপ (এইচআইইএস) ও পরিসংখ্যানগত সব তথ্য প্রকাশ করে। এসব কাজে তথ্যের উৎস ও পদ্ধতিগত বিষয়গুলো ভালোমতো অনুসরণ করা হলেও ঠিক সময়ে তথ্য প্রকাশে দুর্বলতা রয়েছে।

গেল অর্থবছরে দেশের মোট দেশজ উৎপাদনে (জিডিপি) প্রবৃদ্ধির প্রাথমিক হিসাব তুলে ধরে পরিসংখ্যান ব্যুরো। যার নির্ভরযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলে গবেষণা সংস্থা সিপিডি। অনেক সময় রাজস্ব, রপ্তানি আয়, এডিপিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে দুটি সংস্থার মধ্যে সরকারি তথ্য নিয়ে ভিন্নরকম উপস্থাপনাও দেখা যায়। সরকারি সংস্থাগুলোর পরিসংখ্যানগত দুর্বলতার চিত্র উঠে এসেছে বিশ্বব্যাংকের স্ট্যাটিসটিক্যাল ক্যাপাসিটি স্কোরে। এ সময়ে দেশের পয়েন্ট কমেছে ১৮।

বিশ্বব্যাংক বলছে, গত পাঁচ বছরে বাংলাদেশে পরিসংখ্যানগত দুর্বলতা আরো তীব্র হয়েছে। দেশের তথ্যের নির্ভরযোগ্যতা সর্বোচ্চ পর্যায়ে উঠেছিল ২০১৪ সালে। সে বছরে ১০০ পয়েন্টের মধ্যে প্রায় ৮০ পয়েন্ট পেয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ২০১৯ সালে বাংলাদেশের স্কোর পয়েন্ট কমে ৬২ দশমিক ২ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। তথ্যসূত্র ও উৎস, মেথডোলজি এবং সময়কাল এ তিনটি বিষয়কে প্রাধান্য দিয়ে এই মূল্যায়ন করে বিশ্বব্যাংক। এক্ষেত্রে ২৫টি মানদণ্ডের বিপরীতে গড় স্কোর নির্ধারণ করে সংস্থাটি। সূচকটি তৈরিতে দেশের প্রায় সব ক্ষেত্রের তথ্যের সরবরাহ ও পদ্ধতিগত এবং সময় বিষয়গুলোর ওপর বিশ্লেষণ করা হয়েছে।

এসব তথ্যের মধ্যে রয়েছে সামষ্টিক অর্থনীতির প্রধান সূচক, ন্যাশনাল অ্যাকাউন্ট বা জিডিপির হিসাব, লেবার ফোর্স সার্ভে, বাণিজ্য (আমদানি-রফতানি) এইচআইইএস, দরিদ্র, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, রাজস্ব ও মুদ্রানীতিবিষয়ক তথ্য, বাজেট, ব্যালান্স অব পেমেন্ট, সব বিভাগের আর্থসামাজিক তথ্য। বিশ্বব্যাংকের বিবেচনায় মূলত তথ্যের উৎস দুর্বলতা, মেথডোলজিক্যাল দুর্বলতা বা মান নির্ধারণে দুর্বলতা, নির্ভুলতা ও নির্দিষ্ট সময়ে প্রকাশ করতে না পারার কারণেই ধারাবাহিকভাবে বাংলাদেশের তথ্যের মান দুর্বল হচ্ছে। সংস্থাটির প্রতিবেদন অনুযায়ী, স্ট্যাটিসটিক্যাল ক্যাপাসিটি স্কোরে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে আফগানিস্তানের ঠিক ওপরে রয়েছে বাংলাদেশ। এই সূচকে ভারতের পয়েন্ট ছিল ৭৫ দশমিক ৬ শতাংশ। এছাড়া ভুটান ৬৩ দশমিক ৩ শতাংশ, শ্রীলংকা ৮১ দশমিক ১ শতাংশ, পাকিস্তান ৭১ দশমিক ১ শতাংশ, নেপাল ৭৪ দশমিক ৪ শতাংশ ও আফগানিস্তান ৫০ পয়েন্ট পেয়েছে। সার্বিকভাবে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর গড় ৬৯ দশমিক ১ শতাংশ পয়েন্ট হয়েছে।

সূত্র জানিয়েছে, দেশের ব্যালান্স অব পেমেন্ট ও মুদ্রানীতির মেথডোলজি ও সোর্স আন্তর্জাতিক মানদণ্ডে উন্নীত হয়েছে। তবে এ দুই খাতের তথ্য প্রকাশে সময়ক্ষেপণ রয়েছে। আবার রপ্তানি ও রাজস্ব খাতের তথ্য পিরিওডিক্যালি প্রকাশের ক্ষেত্রে অগ্রগতি দেখা যাচ্ছে। রপ্তানি তথ্য প্রকাশে আন্তঃসংস্থার সমন্বয়ে এখন অগ্রগতি ভালো হয়েছে। কিছুটা পিছিয়ে রয়েছে রাজস্ব খাত।

তবে অর্থমন্ত্রী হিসেবে আ হ ম মুস্তফা কামাল দায়িত্ব গ্রহণের পর সময়মতো এসব খাতের তথ্য প্রকাশে গতি এসেছে। গত কয়েক মাসে নিয়মিতভাবে রাজস্ব আয়, রেমিট্যান্স, রিজার্ভ ও বাংলাদেশের ব্যাংকের বেশকিছু সূচকের তথ্য প্রকাশ করছেন তিনি। আন্তঃপ্রতিষ্ঠান সমন্বয় আনতে প্রতি তিন মাস পরপর অর্থ মন্ত্রণালয়গুলোর অধীন সংস্থাগুলো নিয়ে বৈঠক করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।

বিজ্ঞান জাদুঘরের উদ্যোগে এতিম শিশুদের মাঝে খাবার ও উপহার বিতরণ
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘর এবারও ব্যতিক্রমী অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিয়ে ১৫ আগস্ট ২০২০ আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলের পাশাপাশি আগারগাঁও এলাকায় ২টি এতিমখানায় বিজ্ঞান জাদুঘরের পক্ষ থেকে দেওয়া হয় উন্নতমানের খাবার এবং উপহার। প্রায় ৩ শতাধিক এতিম শিশুদের মাঝে উপহার হিসেবে উন্নতমানের ছাতা, মগ এবং মাস্ক দেওয়া হয়। এসব পেয়ে এতিম শিশু আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়ে।

এ প্রসঙ্গে জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরের মহাপরিচালক মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী বলেন, “বঙ্গবন্ধুকে শুধু আনুষ্ঠানিকতায় নয়, বঙ্গবন্ধুর আত্নার মাগফেরাত কামনা করে তাঁকে অন্তর থেকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য নিষ্পাপ শিশুদের জন্য এ আয়োজন করা হয়েছে”।

এদিকে বিজ্ঞান জাদুঘরে আলোচনা সভায় বক্তারা বঙ্গবন্ধুর দেশপ্রেমের চেতনাকে ধারণ করে জনসেবায় উজ্জীবিত হবার উপর গুরুত্বারোপ করেন। এ অনুষ্ঠানে মহাপরিচালক মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী বলেন, “ বঙ্গবন্ধু সংবিধানে কর্মকর্তা-কর্মচারি প্রভেদ রাখেননি। বঙ্গবন্ধুর কল্যাণ রাষ্ট্রের ধারণায় আমরা সবাই কর্মচারি। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর বৈষম্যহীন মানসিকতা ধারণ করতে হবে আমাদের।”

বন্ধ হচ্ছে গুগল প্লে মিউজিক
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আগামী সেপ্টেম্বরে বন্ধ হচ্ছে গুগল প্লে মিউজিক অ্যাপ। মিউজিক কনটেন্টের ব্যাকআপ রাখার জন্য ব্যবহারকারীরা আগামী ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় পাবেন।

নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ায় আগামী সেপ্টেম্বরে গুগল প্লে মিউজিক বন্ধ হলেও বাকি বিশ্বের ব্যবহারকারীরা সময় পাবেন অক্টোবর পর্যন্ত। ব্যাকআপের জন্য ইউটিউব মিউজিক অ্যাপে গানের ফাইল ট্রান্সফার করতে হবে।

ফ্রিল্যান্সারদের জন্য ‘সবচেয়ে কঠিন’ শহর ঢাকা
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট : ৩০টি শহরের মধ্যে কাজের সুযোগের তালিকায় অবস্থান ‘২২তম’। মাসিক পারিশ্রমিকের সূচকে আরও খারাপ, ‘২৬তম’। ইন্টারনেটের গতিতে ‘২৭’ নম্বর। জীবনমানে ‘২৯তম’! এমন ভিন্ন-ভিন্ন ১০টি ম্যাট্রিক্স বিবেচনায় ফ্রিল্যান্সারদের ‘সবচেয়ে ভালো’ দেশের তালিকায় সব মিলিয়ে বাংলাদেশকে ‘৩০ নম্বরে’ রেখেছে লন্ডনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান কারফোন ওয়্যারহাউজ।

সম্প্রতি প্রকাশিত এই তালিকার কথা জানা যায় এএফপি রিল্যাক্স নিউজের ওয়েবসাইট থেকে।

কারফোনের ওয়েবসাইটে গিয়ে দেখা গেছে, ৬৫.১৮ স্কোর নিয়ে শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্রের অস্টিন শহর। দ্বিতীয় থাইল্যান্ডের চিয়াং মাই। তৃতীয় জার্মানির বার্লিন। চতুর্থ স্পেনের বার্সেলোনা। পঞ্চম অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন।

এশিয়ার ভেতর ভারত-বাংলাদেশের থেকে পাকিস্তান এগিয়ে, ১৯তম। ভারতের অবস্থান ২১ নম্বরে। তালিকার শেষ দুটি দেশ কেনিয়া এবং বাংলাদেশ। কেনিয়ার নাইরোবির স্কোরও বাংলাদেশের থেকে অনেক ভালো, ৩৩.৬৬। সেখানে ঢাকার ২৪.৩৪।

র‌্যাকিংয়ে দেখা গেছে ঢাকার ফ্রিল্যান্সাররা সবচেয়ে কম অবসর সময় কাটান। এই সূচকে সবার শেষে অবস্থান তাদের। স্বাস্থ্যসেবা সূচকেও ৩০ নম্বরে বাংলাদেশ।

বিল গেটস, ওবামাসহ প্রভাবশালীদের টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক
                                  

গণমুক্তি ডেস্ক : বুধবার গভীর রাতে হ্যাকার হানার কবলে পড়লেন বিশ্বের প্রভাবশালী ও ধনকুবেররা। প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা থেকে মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস, টেসলার সিইও ইলন মাস্ক থেকে অ্যামাজন কর্তা জেফ বেজোসের-বিশ্বের এই প্রভাবশালী ব্যক্তিদের টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা হয় বলে অভিযোগ। বিটকয়েনে বিনিয়োগের ভুয়ো টোপ দেখিয়ে এঁদের কয়েকজনের অ্যাকাউন্ট থেকে টুইট ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানা যায়।

যেমন ইলন মাস্কের টুইটার থেকে যে টুইট ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে, তাতে বলা হয়েছে, ‘আমি বিটিসি পেমেন্ট দ্বিগুণ করে দেব৷ আমাকে এক হাজার ডলার দিতে হবে। বিনিয়মে আমি ২ হাজার ডলার ফেরৎ দেব। পরিবার ও বন্ধুদের একথা জানিয়ে দাও। ৩০ মিনিটের জন্য এই অফার দেওয়া রইল।’

একই টুইট করা হয় বিল গেটসের অ্যাকাউন্ট থেকেও। এই টুইটগুলি দেখে হইচই পড়ে যায় টুইটার ব্যবহারকারীদের মধ্যে। উল্লেখ্য, জেফ বেজোসের মতো বিশ্বের প্রথম দশ ধনকুবেরদের তালিকায় নাম রয়েছে বিল গেটস এবং ইলন মাস্কেরও। মনে করা হচ্ছে, বিটকয়েন কেলেঙ্কারির সঙ্গে এই সাইবার হামলার যোগ রয়েছে। ঘটনার পরই টুইটার থেকে বিবৃতি জারি হয়। বলা হয়, এসব ভুয়ো টুইট। প্রভাবশালীদের টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা হয়েছে।

নিরাপত্তার ফাঁক গলে কীভাবে বিশ্বের তাবড় শিল্পপতি, রাজনীতিককদের টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা হল সে নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। বিষয়টি নজরে আসার পরই ওই ভুয়ো টুইটগুলি মুছে দেওয়া হয়। টুইটার জানিয়েছে, বিষয়টি অনুসন্ধান করে তার সমাধান করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

চালক ছাড়াই চলবে গাড়ি
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট : টেসলার প্রতিষ্ঠাতা এলন মাস্ক জানালেন, স্বয়ংক্রিয় প্রযুক্তি ব্যবহারে আমরা লেভেল-ফাইভ পর্যায়ে রয়েছি। আমরা প্রায় সাফল্যের কাছাকাছি চলে এসেছি।

বর্তমানে এই প্রযুক্তিতে টেসলা লেভেল-টু পর্যায়ে রয়েছে। যেখানে স্বয়ংক্রিয় প্রযুক্তি ব্যবহার করতে হলে চালকের কমান্ড আবশ্যক। ভবিষ্যতে নতুন কোন হার্ডওয়্যারের সংযোজন ছাড়াই শুধু সফটওয়্যার আপডেটের মাধ্যমে সহজে লেভেল-ফাইভ পর্যায়ের স্বয়ংক্রিয় প্রযুক্তি ব্যবহার করা যাবে বলে জানিয়েছেন এলন মাস্ক। সাংহাইয়ে অনুষ্ঠিত ওয়ার্ল্ড আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স কনফারেন্সে এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন, লেভেল ফাইভের কার্যকারিতা নিয়ে আমার অগাধ বিশ্বাস যে, লেভেল ফাউভ বা পুরো স্বয়ংক্রিয়তা খুব তাড়াতাড়িই আসবে।

তিনি বলেন, এই স্বয়ংক্রিয় প্রযুক্তি বাস্তবায়নে আর বড় কোন বাধা নেই। কিছু ছোট ছোট ভুল ছাড়া। এই ছোট ছোট সমস্যাগুলো সমাধান করেই সম্পূর্ণ কাজ শেষ করতে হবে।

টিভি সেবা খরচ বাড়ালো ইউটিউব
                                  

গণমুক্তি ডেস্ক : কোভিট মাহামরীর কালে লকডাউনে বাসায় গ্রাহকরা বেশি করে ইউটিউব দেখছেন। দেখছেন বিভিন্ন মুভি। তাই কনটেন্টের খরচ বেড়ে যাওয়ায় গ্রাহকদের উপর সেটি চাপিয়ে দিলো গুগল। বুধবার প্রযুক্তি জায়ান্টটি ইউটিউব টিভির অনলাইন সেবা ৩০ শতাংশ বাড়িয়ে ৬৪ দশমিক ৯৯ ডলার নির্ধারণের ঘোষণা দিয়েছে।
ডিজিনেট জানায়, বুধবার থেকেই নতুন মূল্য কার্যকর হয়েছে। করোনাভাইরাস মহামারিকালীন সিনেমা হলসহ বাইরের বিনোদন অনেকটা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ও বাড়িতে থাকার কারণে অনলাইন কনটেন্টের চাহিদা বেড়ে যাওয়ার এই সময়ে সুযোগ বুঝেই গুগল এই মূল্য বৃদ্ধি করলো বলে মনে করছেন অনেকেই।

যদিও গতবছর এপ্রিলেও ইউটিউব টিভি সাবস্ক্রিপশন ফি ২৫ শতাংশ বাড়িয়ে ৪৯ দশমিক ৯৯ ডলার করা হয়েছিলো।

রাজনীতিকদের পোস্টে ‘সম্ভাব্য ক্ষতিকারক’ লেবেল দেবে ফেসবুক
                                  

গণমুক্তি ডেস্ক : চাপের মুখে পড়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতো রাজনীতিকদের পোস্টে ‌‘সম্ভাব্য ক্ষতিকারক’ লেবেল সেঁটে দেবে ফেসবুক। এসব পোস্টের সংবাদমূল্য বিবেচেনায় এই লেবেল দেয়া হবে।

বিবিসি এ খবর দিয়ে বলছে, সোশ্যাল মিডিয়া জায়ান্টটির বিরুদ্ধে বিষয়বস্তু নিয়ন্ত্রণ সংক্রান্ত নানান অভিযোগ ওঠার পর মোট ৯০টিরও বেশি বিজ্ঞাপনদাতা কোম্পানি তাদের বিজ্ঞাপন প্রদানের প্ল্যাটফর্ম হিসেবে ফেসবুক বয়কট করে। এরপর ফেসবুক কর্তৃপক্ষ চাপে পড়েই এমন সিদ্ধান্ত নিল।

শুক্রবার ফেসবুকের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান নির্বাহী জাকারবার্গ এক ফেসবুক লাইভে বলেন, রাজনীতিবিদদের যেসব পোস্ট সংবাদযোগ্য তাতে এখন থেকে ‘সম্ভাব্য ক্ষতিকারক’ লেবেল সেঁটে দেওয়া হবে। ট্রাম্পের নাম না নিলেও সম্প্রতি ট্রাম্পের ফেসবুক পোস্ট নিয়ে শুরু হওয়া বিতর্ককে বড় কারণ হিসেবে ভাবা হচ্ছে।

টুইটার কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যেই ট্রাম্পের উসকানিমূলক টুইটে নিয়মিতই নানা লেবেল সেঁটে দেওয়া শুরু করেছে। বিভ্রান্তিমূলক তথ্য ও বিদ্বেষ ছড়ানো ছাড়াও নানা কারণে টুইটার তাদের নীতি মেনে এমন কাজ করে থাকে। কিন্তু ফেসবুকের ক্ষেত্রে এমনটা না দেখা যাওয়ায় শুরু হয় বিতর্ক ও সমালোচনা।

পুলিশের হাতে যুক্তরাষ্ট্রের কৃষ্ণাঙ্গ নাগরিক ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ডের পর বিতর্ক আরও জোরালো হয়। দেশটির নাগরিক সংগঠনগুলো ‘ঘৃণা ছড়ানোর বিনিময়ে মুনাফা বন্ধ করো’ এমন নানা স্লোগানে এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়। এরপর থেকে বিজ্ঞাপনদাতা কোম্পানিগুলো একে একে বিজ্ঞাপন প্রদান বন্ধ করে দিলে চাপে পড়ে যায় ফেসবুক।

কখন হাত ধুঁতে হবে বলে দেবে ঘড়ি
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট : কোভিড-১৯ হতে বাঁচতে বর্তমানে হাত ধোয়া একটি অত্যাবশ্যকীয় কাজ। ভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি কমাতে আমাদের নিয়মিত হাত ধুতে হয়। কমপক্ষে ২০ সেকেন্ডে ধরে সঠিকভাবে হাত ধোয়া উচিত। কিন্তু কখন হাত ধুতে হবে তা বুঝতে অ্যাপল নিয়ে এসেছে ‘ওয়াচ ওএসসেভেন’। যার আওতায় কখন হাত ধুতে হবে তা জানতে পারবেন।

এই ফিচারটির সাহায্যে আপনার ঘড়িতে লাগানো সেন্সর, মাইক্রোফোন এবং অন-ডিভাইস মেশিন লার্নিং ব্যবহার করে হাত ধুয়ার গতি এবং সময় বলে দেবে। যখন আপনার হাত সঠিকভাবে পরিষ্কার করা হবে তখন আপনাকে জানিয়ে দেবে ঘড়ি।

অ্যাপলের এ ঘড়িটি এখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। বেশ কয়েকটি ইউরোপীয় দেশ আমদানি করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

ভার্চুয়াল স্নাতক ডিগ্রিধারীদের মালালার অভিনন্দন
                                  

গণমুক্তি ডেস্ক : ভার্চুয়াল ডিগ্রি প্রদান অনুষ্ঠানে বিশ্বের লাখ লাখ শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে শুভেচ্ছা বক্তব্য পাকিস্তানের নোবেল লরিয়েট মালালা ইউসুফজাই বলেন কোভিড মহামারীতে কি হারালেন তা চিন্তা না করে অর্জিত শিক্ষা বাস্তবে কাজে লাগাতে। কারণ আপনারা জানেন কিভাবে তা করতে হবে। তিনি নিজেও একজন অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক।
ইউটিউবে জনপ্রিয় তারকা বেইনস, লেডি গাগা, জাস্টিন টিম্বারলেক, এলিস কীস, শেয়ান মেনডেস, কেটি পেরী, টেইলর সুইফটের মত মালালা ইউসুফ জাই শিক্ষার্থীদের কাছে এক প্রিয় মুখ হিসেবে বিভিন্ন সময়ে তাদের উদ্দীপনামূলক পরামর্শ দিয়ে থাকেন।
মালালা বলেন অভিজ্ঞতা অর্জনের পর তা কাজে লাগানো অধিক জরুরি। বিশ্বে কোভিড সংকটের সময় প্রাপ্ত শিক্ষাকে তিনি বাস্তবভাবে প্রয়োগের আহবান জানিয়ে বলেন, প্রতিটি বাধাকে সুযোগে পরিণত করেন, পরিবর্তনের জন্যে এগিয়ে যান।

 

ep/ap

হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের জন্য সুসংবাদ
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট : সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ। দেশে ও দেশের বাইরে এখন খুব সহজে কথা বলা, ভিডিও ও ছবি পাঠানো যায় হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে। বাংলাদেশেও এখন হোয়াটসঅ্যাপ অনেক জনপ্রিয়। 

সামাজিক যোগাযোগের এই মাধ্যম যারা ব্যবহার করছেন, তাদের জন্য রয়েছে সুসংবাদ। এই ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তার জন্য বিভিন্ন সময়ে অনেক নতুন উদ্যোগ নেন হোয়াটসঅ্যাপ। এবার হোয়াটসঅ্যাপে থাকছে কোনো বার্তা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য পাঠিয়ে তা মুছে দেয়ার সুবিধা। বার্তা আদান-প্রদান করার জনপ্রিয় অ্যাপ স্ন্যাপচ্যাটের জনপ্রিয় ফিচার এটি। 

এবার হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ স্ন্যাপচ্যাটের মতো এ সুবিধা যোগ করবেন। এ ধরনের বার্তা নির্দিষ্ট সময় পর স্বয়ংক্রিয়ভাবে মুছে যাবে। প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট ডব্লিউএবিটা ইনফোর প্রতিবেদন অনুযায়ী, হোয়াটসঅ্যাপের নতুন পরীক্ষামূলক সংস্করণের প্রাইভেট চ্যাট অপশনে ‘ডিলিট মেসেজ’ নামের একটি সুবিধা থাকবে।

এর আগের বিটা সংস্করণে গ্রুপ চ্যাটের জন্য এ ধরনের সেটিংস যুক্ত করেছিল হোয়াটসঅ্যাপ। এবারে ব্যক্তিগত আলাপচারিতার ক্ষেত্রেও এ সুবিধা থাকছে।

হোয়াটসঅ্যাপে ব্যক্তিগত প্রোফাইল খোলা হলে এনক্রিপশনের ওপরে নতুন অপশন দেখা যাবে। এতে ক্লিক করলে নতুন পপআপ আসবে। এতে বার্তা পাঠানোর জন্য সময় নির্ধারণ করে দেয়া যাবে। এক ঘণ্টা থেকে এক বছর পর্যন্ত বার্তাটি রেখে তা স্বয়ংক্রিয় মুছে ফেলার সুবিধা থাকছে এ অপশনে। এটি সক্রিয় করা হলে একটি ঘড়ির আইকন দেখবেন গ্রহীতা। হোয়াটসঅ্যাপ আপাতত পরীক্ষামূলকভাবে এ সুবিধা চালু করতে যাচ্ছে। তবে ব্যবহারকারীদের প্রতিক্রিয়া বোঝার পর তা আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মুক্ত করতে পারে হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ।

 

মুজিববর্ষে একশ সার্ভিসে দশ কোটি মানুষকে সুবিধা দেয়া হবে-পলক
                                  

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি : মুজিববর্ষে লার্নিং অ্যান্ড আর্ণিং প্রজেক্টে একশটি সার্ভিসের মাধ্যমে ১০কোটি মানুষ সুবিধা পাবে। এছাড়াও এ বছরে প্রধানমন্ত্রীর নতুন উপহার স্ট্যার্ট অব বাংলাদেশ। যেখানে তরুণরা চাকুরি না খুঁজে চাকুরী দেব। উদ্যোক্তা সৃষ্টি করবে। এ কথা বলেছেন, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, ডাক টেলিযোগাযোগ ওতথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহ্মেদ পলক।
গতকাল শুক্রবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে কুড়িগ্রামের বিলুপ্ত ছিটমহল দাসিয়ারছড়ায় দাসিয়ারছড়া বহুমুখী মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে নির্মাণাধীন ডিজিটাল সার্ভিস ইমপ্লয়মেন্ট এন্ড ট্রেনিং সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন তিনি।
এ সময় পলক আরও বলেন, ৬৮ বছরের পিছিয়ে থাকা ছিটমহলের মানুষদের আইসিটি বিষয়ে প্রশিক্ষণ ও কর্মসংস্থানের জন্য এ ট্রেনিং সেন্টার মুজিব বর্ষে উপহার দেয়া হলো।
প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, মুজিববর্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে প্রযুক্তি নির্ভর বাংলাদেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে ৪০ হাজার তরুণকে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। এরমধ্যে কুড়িগ্রামে ৫০০জন তরুণ লার্নিং এন্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট এর আওতায় প্রশিক্ষণ পাবে। আমাদের আইসিটি সেক্টরে ১০ লাখ তরুন তরুনী কর্মসংস্থান পেয়েছে। ইতোমধ্যে ৬ লাখ ফ্রিলিয়ান্সসার কাজ করছে। সেই সাথে প্রায় ২ লাখ সফটওয়্যার টেকনোরজিতেও কাজ করছে। লক্ষাধিক ছেলে-মেয়ে কল সার্ভিস কাজ করছেন। ৫০ হাজারও বেশি ছেলে-মেয়ে ই-কমার্সে কাজও করছেন।
আলোচনা অনুষ্ঠানে ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুমা আরেফীনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট জিলুফা সুলতানা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেনহাজুল আলম, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. জাফর আলী, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আমান উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, ফুলবাড়ী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম রব্বানী সরকার, ফুলবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ প্রমূখ।

হুয়াওয়ে ৫ জি রায়ের সিদ্ধান্ত `কয়েকটি ভাল বিকল্প সহ`
                                  
ডেস্ক  রিপোর্ট : যুক্তরাজ্যের ৫ জি নেটওয়ার্ক তৈরিতে হুয়াওয়েকে সহায়তা করার অনুমতি দেওয়া কিনা 
তা সরকার সবচেয়ে কার্যকর এবং জাতীয় জাতীয় নিরাপত্তা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।
জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের পরে বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া - 
সিদ্ধান্তটি অর্থনীতিতে ভূ-রাজনীতি ও ব্যয়ের সাথে জটিল প্রযুক্তিগত ঝুঁকির মধ্যে ভারসাম্য জড়িত।
তবে এটি এমন একটি বিষয়ও যেখানে চালচালনার জন্য জায়গাটি শক্ত - 
বেশ কয়েকটি বছর ধরে সিদ্ধান্তগুলি অনুসরণ করার জন্য যেগুলি বিকল্পগুলি বন্ধ করে দিয়েছে আংশিকভাবে ধন্যবাদ।
আপনি যদি বুঝতে চান যে আমরা কোথায় ছিলাম কীভাবে, 
বিটি যখন যুক্তরাজ্যের টেলিকম অবকাঠামোগত উন্নতি করছিল তখন দেড় দশকেরও বেশি সময় পিছনে ফিরে যাওয়া উচিত।
এটি হুয়াওয়ের সরঞ্জামগুলি ব্যবহার করতে চেয়েছিল কারণ এটি সস্তা ছিল।
বিটি - এমন একটি কৌশল ব্যবহার করে যা অপারেটররা আজও ব্যবহার করে চলেছে -
হুঁশিয়ারি দিয়েছিল যে হুয়াওয়ে বাদ দিলে সরকারের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণের জন্য প্রচুর পরিমাণে অর্থ ব্যয় করতে হবে।
সেই সময়ে খুব কম লোকই সিদ্ধান্তের তাৎপর্যকে প্রশংসা করেছিল।
এটি নেওয়া হওয়ার পরেই কর্মকর্তারা প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছিলেন যে
এটি চীন থেকে নজরদারি বা এমনকি নাশকতার জন্য ইউকেকে উন্মুক্ত করেছিল কিনা -
হুয়াওয়ে নিজেই সবসময় যা বলেছিল তা অসম্ভব। এবং তাই বিপদ হ্রাস করার জন্য একটি কৌশল তৈরি করা হয়েছিল।

 
নেটওয়ার্কগুলিতে একাধিক সরবরাহকারী রয়েছে কিনা তা নিশ্চিত করা এবং
ঝুঁকিপূর্ণ বিক্রেতাদের (অন্যথায় হুয়াওয়ের ভাষায়) নেটওয়ার্কের সবচেয়ে সংবেদনশীল অংশের বাইরে রাখা হয়েছে
(উদাহরণস্বরূপ মূলটি এটি নিয়ন্ত্রণ করে যে কীভাবে এটি পরিচালনা করে) অন্তর্ভুক্ত।
ইতিহাসটির অর্থ ইউকে গোয়েন্দা সম্প্রদায় বিশ্বাস করে যে হুয়াওয়ের ঝুঁকি কীভাবে পরিচালনা করতে হবে
সে সম্পর্কে কারও চেয়ে অনেক বেশি ভাল বোঝাপড়া রয়েছে।
`তীব্র` সুরক্ষা হুয়াওয়ের ব্যবহার অন্যান্য টেলিকম অপারেটরগুলিতে ছড়িয়ে পড়ার সাথে সাথে
হুয়াওয়ে সাইবার সিকিউরিটি মূল্যায়ন কেন্দ্র (এইচসিএসইসি) হুয়াওয়ে যুক্তরাজ্যে প্রবর্তন করছে
এমন শারীরিক সরঞ্জাম এবং কোডটি সাবধানতার সাথে মূল্যায়নের জন্য তৈরি করা হয়েছিল।
বানবুরি ২০১৩-তে "সেল" হিসাবে পরিচিত হয়ে আমি পরিদর্শন করেছি।
সুরক্ষা তীব্র ছিল - একটি অভ্যন্তর ঘরে হুয়াওয়ে সোর্স কোড অ্যাক্সেস সহ একটি কম্পিউটার
সিসিটিভি ক্যামেরায় দেখেছিল যাতে কোনও অননুমোদিত অ্যাক্সেস না ঘটে।
গুপ্তচরবৃত্তির কোনও ইচ্ছাকৃতভাবে পিছনের দরজা বা প্রমাণ পাওয়া যায়নি। তবে সমস্যা আছে।
২০১৩ সালের একটি তদারকির প্রতিবেদনটি সংস্থার ইঞ্জিনিয়ারিং স্ট্যান্ডার্ডগুলির জন্য অত্যন্ত সমালোচিত ছিল
এবং ২০১২ সালের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে উদ্বেগগুলি সমাধান করতে কোনও বৈবাহিক অগ্রগতি হয়নি,
যা এটিকে কেবল "সীমিত আশ্বাস" দিয়ে রেখেছিল যে সুরক্ষা রক্ষা করা যেতে পারে।
যদিও এই অভিজ্ঞতা গোয়েন্দা সংস্থা ও সুরক্ষা কর্মকর্তাদের কাছ থেকে একধরণের আস্থা তৈরি করেছে যে
তারা ৫জি নেটওয়ার্কে হুয়াওয়ে ব্যবহারের ঝুঁকিগুলি হ্রাস করতে পারে, সীমাবদ্ধতার একটি সংস্থান রেখে।
তবে তারা এও সাবধান করে দেয় যে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তটি রাজনৈতিক হতে হবে
কারণ এটিতে কূটনৈতিক এবং অর্থনৈতিক ব্যয়ের সাথে প্রযুক্তিগত পরামর্শকে ভারসাম্যপূর্ণ করা জড়িত।
প্যানোরামা: আমরা কি হুয়াওয়ের উপর ভরসা রাখতে পারি? ৫ জি নেটওয়ার্কটি আংশিকভাবে ৪ জি এর শীর্ষে নির্মিত হচ্ছে,
সুতরাং যুক্তরাজ্যের ৫জি থেকে হুয়াওয়েকে বাদ দেওয়া (যেখানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এটি প্রায় কোনও ভূমিকা রাখে না)
এর অর্থ এটিও ৪জি এর বাইরে ছিঁড়ে যায়। এটি ব্যয়বহুল হবে এবং বর্ধিত সংযোগের রোল আউটকে ধীর করবে, যা এই সরকার অগ্রাধিকার দিয়েছে।
এই সিদ্ধান্তটি বিলম্বের দ্বারা আরও কঠোর করা হয়েছে - এটি প্রায় এক বছর আগে নেওয়া হয়েছিল কিন্তু ফাঁস এবং নির্বাচন এলো।
ইতিমধ্যে ৫ জি ইতিমধ্যে রোল আউট হচ্ছে। টেলিকম অপারেটররা হুয়াওয়ে ব্যবহার করতে
এবং এর সরঞ্জামাদি ব্যবহার করতে তাদের কেস চাপ দিচ্ছে। এর অর্থ সংস্থাটি বাদ দেওয়ার ব্যয়গুলি দিন দিন পর্যন্ত বেড়ে চলেছে।
"না" বললে বৃহত্তর সংযোগের প্রতিশ্রুতিটি ধীর হয়ে যাবে। তবে দেরি আমেরিকা ও সমালোচকদের সাম্প্রতিক
ডসির উপস্থাপন সহ চীনা সংস্থা ব্যবহারের বিরুদ্ধে তাদের যুক্তিগুলি মার্শাল করার জন্য আরও সময় দিয়েছে -
যদিও যুক্তরাজ্যের কর্মকর্তারা বলছেন যে এতে কোনও ধূমপানের বন্দুকের অভাব ছিল।
মার্কিন বনাম চীন যুক্তরাজ্য হুয়াওয়ে ব্যবহার না করলে গোয়েন্দা ভাগাভাগি পর্যালোচনা করবে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।
যুক্তরাজ্যের আধিকারিকরা বিশ্বাস করেন - বা সম্ভবত - আশা করছেন যে ওয়াশিংটন ধোঁকায়।
এটি একটি বড় কল। চ্যালেঞ্জগুলির মধ্যে একটি হ`ল এই বিষয়টিকে চীন ও আমেরিকার বিস্তৃত বাণিজ্য দ্বন্দ্ব এবং
রাষ্ট্রপতি ট্রাম্পের অপ্রত্যাশিত প্রকৃতি থেকে বিচ্ছিন্ন করা। অনেক সময় এমন লক্ষণ দেখা গিয়েছিল যে
বিস্তৃত লড়াইয়ে হুয়াওই দর কষাকষির হয়ে উঠেছে। যুক্তরাজ্যের কর্মকর্তারা ভয় পেয়েছিলেন যে
তারা হুয়াওয়ে এবং চীনকে ক্ষোভ থেকে বাদ দিতে পারে, কেবল মার্কিন রাষ্ট্রপতিকে বেইজিংয়ের সাথে
একটি চুক্তি কাটানোর এবং তাদেরকে বিচ্ছিন্ন রেখে দেওয়ার জন্য।
কিছু ব্রিটিশ আধিকারিক সতর্ক করে বলেছেন যে ওয়াশিংটনে এই সংস্থা সম্পর্কে উদ্বেগগুলি আরও গভীরতর হয়েছে,
যেখানে জাতীয় সুরক্ষা কর্মকর্তারা চীন থেকে প্রযুক্তিগত চ্যালেঞ্জের জন্য ক্রমবর্ধমানভাবে মনোনিবেশ করছেন এই বিষয়টি উপেক্ষা করে।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে কারণ তারা জানে যে যুক্তরাজ্যের সিদ্ধান্তটি বিশ্বব্যাপী তাত্পর্যপূর্ণ।
অন্যান্য অনেক দেশ এই মুহুর্তে একই জাতীয় বিতর্কের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে।
যুক্তরাজ্যের মতো তারাও হুয়াওয়ে ব্যবহার করতে চাইবে কারণ এটি সস্তা তবে নিরাপত্তা ঝুঁকি এবং আমেরিকার ক্রোধের আশঙ্কা করছে।
যুক্তরাজ্য যদি হুয়াওয়ের ব্যবহার অনুমোদন করে তবে তাদের মধ্যে অনেকেই
স্যুট অনুসরণ করতে কভার হিসাবে এটি ব্যবহার করতে পারে।
যুক্তরাজ্য গড়ে তুলেছেন হুয়াওয়ে পর্যবেক্ষণের প্রযুক্তিগত অভিজ্ঞতা থাকলেও খুব কম লোকেরই রয়েছে।
বিশ্বব্যাপী দৃষ্টিকোণ আরও দীর্ঘমেয়াদী ঝুঁকির মধ্যে যায়। কিছু লোক জিজ্ঞাসা করে যে
আমরা কীভাবে এমন একটি অবস্থানে পৌঁছেছি যেখানে আমাদের চাইনিজ প্রযুক্তি ব্যবহারের বিষয়ে বিবেচনা করা দরকার।
উত্তরটি হ`ল পশ্চিমা দেশগুলি গত দুই দশক ধরে তাদের নিজস্ব স্পেকট্রাম টেলিকম শিল্প সুরক্ষা বা
লালনপালনের বিষয়ে কৌশলগতভাবে চিন্তা করতে ব্যর্থ হয়েছিল। সংস্থাগুলি আবদ্ধ হয় বা তাদের দখল করা হয়।
ইতিমধ্যে বেইজিং প্রযুক্তিতে শীর্ষস্থানীয় হয়ে উঠতে দীর্ঘমেয়াদী একটি কৌশল অবলম্বন করেছিল।
যুক্তরাজ্যে হুয়াওয়ের অনুমোদন অনুসরণকারীদের সাথে যুক্ত হওয়ার পরে,
সংস্থার উত্থান এবং নির্ভরতার ঝুঁকিকে ত্বরান্বিত করবে।
এর প্রভাবশালী খেলোয়াড় হওয়ার ঝুঁকিগুলি প্রাক্তন পররাষ্ট্রসচিব জেরেমি হান্ট প্রকাশ করেছিলেন।
তিনি বিবিসিকে বলেছেন, "সমস্যাটি এমন হয় যে আমরা যদি এমন পরিস্থিতিতে পৌঁছে যাই যেখানে কোনও
পশ্চিমা সংস্থাগুলি হুয়াওয়ের সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রতিযোগিতা করতে সক্ষম হয় না।"
"এটি পছন্দ হোক বা না হোক, দশকের দশকে লোকেরা ফিরে তাকাবে এবং বলবে,
`২০২০ সালে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া কি এই বুদ্ধিমানের কারণেই এই নির্ভরতা বাড়ে?`"
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এই ক্ষেত্রে আরও বৃহত্তর পশ্চিমা সক্ষমতা গড়ে তোলার কথা বলছে,
তবে এটি আসলে কী দেখাচ্ছে বা বিতরণ করতে কত দিন লাগবে তা এখনও পরিষ্কার নয়।
এবং ওয়াশিংটনে 5 জি হারিয়েছে তবে 6 জি হারাবেন না তা নিশ্চিত করে নিয়ে অনেক কথা হয়।
হুয়াওয়েই সর্বদা বজায় রেখেছে যে এটি চীনা রাষ্ট্রের বাহু নয় এবং তার পক্ষে গুপ্তচরবৃত্তি করবে না।
তবে আসন্ন বছরগুলিতে এটি যত বেশি প্রভাবশালী হয়ে উঠবে,
কোনও ভুল কাজ করেছে বলে ধরা পড়লে কোনও নেটওয়ার্ক থেকে সংস্থাটি বের করা তত বেশি কঠিন।
সুতরাং মঙ্গলবারের সিদ্ধান্তটি সামান্য পরিমাণে ভারসাম্য বজায় রেখে আসল তবে আসল স্বল্পমেয়াদী
অর্থনৈতিক ব্যয়ের সাথে দীর্ঘমেয়াদী ঝুঁকির পরিমাণ নির্ধারণ করা শক্ত।
অতীত সিদ্ধান্তগুলি যুক্তরাজ্যের বিকল্পগুলি সংকুচিত করেছে। এবং এই এক আবার করতে পারে।

   Page 1 of 75
     তথ্য-প্রযুক্তি
বিজ্ঞান জাদুঘরে শেখ রাসেলকে স্মরণ: শূন্যতা পূরণ করবে তরুন মেধাবীরা
.............................................................................................
শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও বন্ধ হয়নি বিজ্ঞান চচা: মুনীর চৌধুরী
.............................................................................................
হেরে গেল মাইক্রোসফট, টিকটক কিনছে ওরাকল
.............................................................................................
বাংলাদেশের তথ্যের মান খুবই দুর্বল: বিশ্বব্যাংক
.............................................................................................
বিজ্ঞান জাদুঘরের উদ্যোগে এতিম শিশুদের মাঝে খাবার ও উপহার বিতরণ
.............................................................................................
বন্ধ হচ্ছে গুগল প্লে মিউজিক
.............................................................................................
ফ্রিল্যান্সারদের জন্য ‘সবচেয়ে কঠিন’ শহর ঢাকা
.............................................................................................
বিল গেটস, ওবামাসহ প্রভাবশালীদের টুইটার অ্যাকাউন্ট হ্যাক
.............................................................................................
চালক ছাড়াই চলবে গাড়ি
.............................................................................................
টিভি সেবা খরচ বাড়ালো ইউটিউব
.............................................................................................
রাজনীতিকদের পোস্টে ‘সম্ভাব্য ক্ষতিকারক’ লেবেল দেবে ফেসবুক
.............................................................................................
কখন হাত ধুঁতে হবে বলে দেবে ঘড়ি
.............................................................................................
ভার্চুয়াল স্নাতক ডিগ্রিধারীদের মালালার অভিনন্দন
.............................................................................................
হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের জন্য সুসংবাদ
.............................................................................................
মুজিববর্ষে একশ সার্ভিসে দশ কোটি মানুষকে সুবিধা দেয়া হবে-পলক
.............................................................................................
হুয়াওয়ে ৫ জি রায়ের সিদ্ধান্ত `কয়েকটি ভাল বিকল্প সহ`
.............................................................................................
১৬ বছরে পা রাখলো বাংলা উইকিপিডিয়া
.............................................................................................
তরুণ প্রজন্মকে প্রযুক্তির সাথে সম্পৃক্ত করে গড়ে তুলতে হবে : পলক
.............................................................................................
ফেসবুক এবং ইউটিউব মডারেটররা পিটিএসডি প্রকাশে স্বাক্ষর করেছেন
.............................................................................................
প্রযুক্তি হুমকিতে ফেলতে যাচ্ছে যে সাতটি পেশা
.............................................................................................
শিগগির রফতানিতে গার্মেন্টকে ছাড়াবে আইটি খাত : জয়
.............................................................................................
ডিজিটাল বাংলাদেশ মেলার উদ্বোধন করলেন জয়
.............................................................................................
স্যার ডেভিড অ্যাটেনবারো জলবায়ু `সঙ্কটের মুহুর্ত` সম্পর্কে সতর্ক করেছেন
.............................................................................................
প্রথমবারের মতো ৫জি ব্যবহারের সুযোগ আগামি-বৃহস্পতিবার
.............................................................................................
মিলিয়ন ডলার খরচ করে মহাকাশে যাচ্ছেন প্রথম যে পর্যটকরা
.............................................................................................
স্পেসএক্স আরও ৬০ টি স্টারলিঙ্ক উপগ্রহকে কক্ষপথে প্রেরণ করে
.............................................................................................
চলতি বছরই মহাকাশ ভ্রমণ করবে মানুষ
.............................................................................................
হুয়াওয়ের নতুন অফার নতুন বছরে
.............................................................................................
চীনের বাজারে শাওমির ওয়্যারলেস কি-বোর্ড ও মাউস
.............................................................................................
২০২০ : সতর্ক থাকুন তারিখ লেখা নিয়ে
.............................................................................................
২০১৯ সালের মহাকাশের সেরা কিছু ছবি
.............................................................................................
ইনবক্সে `সারপ্রাইজ মেসেজ` খোলার আগে ভাবুন
.............................................................................................
যুবরাই ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রধান শক্তি : আইনমন্ত্রী
.............................................................................................
ইন্টারনেটের অভাবে কীভাবে ডুবছে কাশ্মীরের অর্থনীতি
.............................................................................................
মঙ্গল গ্রহে যে নভোযান হয়তো দু-তিন মাসেই নিয়ে যাবে
.............................................................................................
প্রকৃতি ক্ষতি : `প্রাকৃতিক ও মানব জরুরী অবস্থা` তুলে ধরার জন্য প্রধান প্রতিবেদন
.............................................................................................
সূর্য গ্রাহান ২০১9 : সৌর গ্রহণ চলাকালীন কি কি খাওয়া উচিত নয়
.............................................................................................
বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন ইন্টারনেট ‘সফলভাবে পরীক্ষা’ করেছে রাশিয়া
.............................................................................................
নতুন ইঞ্জিন প্রযুক্তি যা আমাদের মঙ্গল গ্রহে দ্রুত পৌঁছে দিতে পারে
.............................................................................................
চলতি বছরে আয়ে শীর্ষ ১০ ইউটিউবার
.............................................................................................
বোয়িং নভোচারী স্টারলাইনার ক্যাপসুল অসম্পূর্ণ মিশনের পরে অবতরণ করে
.............................................................................................
মহাকাশে মিলল এলিয়েনের সন্ধান!
.............................................................................................
পাবলিক প্লেসের ইউএসবি পোর্ট ব্যবহার করে ফোন চার্জ করার ঝুঁকি সম্পর্কে কতটুকু জানেন?
.............................................................................................
ফেসবুক থেকে ২৭ কোটি ব্যবহারকারীর তথ্য ফাঁস
.............................................................................................
আরও ২ দিন থাকবে শৈত্যপ্রবাহ : আবহাওয়া
.............................................................................................
ক্ষুদ্র ব্যবসার বিকাশে বাংলাদেশেও কাজ করবে ফেসবুক
.............................................................................................
ইউটিউবে খেলনার বাক্স খোলার ভিডিও দেখার সুফল ও কুফল
.............................................................................................
`লেটস টক` অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
জলবায়ু পরিবর্তনে সাগর-মহাসাগরে কমে যাচ্ছে অক্সিজেন
.............................................................................................
হোয়াটসঅ্যাপ, ভাইবার, মেসেঞ্জার, ইমো-র মত যোগাযোগের অ্যাপগুলো কতটা নিরাপদ?
.............................................................................................

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মো: রিপন তরফদার নিয়াম
প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক : মফিজুর রহমান রোকন
নির্বাহী সম্পাদক : শাহাদাত হোসেন শাহীন
বাণিজ্যিক কার্যালয় : "রহমানিয়া ইন্টারন্যাশনাল কমপ্লেক্স"
(৬ষ্ঠ তলা), ২৮/১ সি, টয়েনবি সার্কুলার রোড,
মতিঝিল বা/এ ঢাকা-১০০০| জিপিও বক্স নং-৫৪৭, ঢাকা
ফোন নাম্বার : ০২-৪৭১২০৮০৫/৬, ০২-৯৫৮৭৮৫০
মোবাইল : ০১৭০৭-০৮৯৫৫৩, 01731800427
E-mail: dailyganomukti@gmail.com
Website : http://www.dailyganomukti.com
   © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD