ঢাকা,মঙ্গলবার,৬ ভাদ্র ১৪২৮,২০,এপ্রিল,২০২১ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : > অসহায় ও ছিন্নমূলদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ   > মেহেরপুরে লকডাউন মানছে না কেউ   > দাগনভূঞায় আয়েশা ডেইরি ফার্মের সফল উদ্যোক্তা তুহিন   > তীব্র তাপদাহে পুুড়ছে বাগাতিপাড়া   > সখীপুরে অবাধে কাটা হচ্ছে টিলা   > ‘লকডাউনের আগে থেকেই শুটিং করছি না’   > ফুটবলার পগবাকে নিয়ে চলচ্চিত্র   > কুড়িগ্রামে বাজারে অগ্নিকান্ড প্রায় ৩০ লাখ টাকার ক্ষতি   > কুমারখালীতে বাজার মনিটরিং কমিটির অভিযান   > ভারতে করোনায় একদিনে আক্রান্ত আড়াই লাখ, মৃত্যু দেড় হাজার  

   সারা বাংলা -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
কুমারখালীতে বাজার মনিটরিং কমিটির অভিযান

জাকের আলী শুভ, কুষ্টিয়া ব্যুরো : রমজানে নিত্যপণ্যের বাজার স্থিতিশীল রাখতে কুষ্টিয়ার কুমারখালী বাজারে অভিযান চালিয়েছে বাজার মনিটরিং কমিটি। রোববার দুপুরে সহকারী কমিশনার (ভূমি) তামান্না তাস্নীম এর নেতৃত্বে শহরের মুল বাজারে অভিযান পরিচালনা করা হয়।
এসময় কাঁচা বাজার, মাছ বাজার, মাংস বাজার সহ বিভিন্ন বাজারে অভিযান পরিচালনা করে নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির প্রমাণ পায় বাজার মনিটরিং কমিটি। বেশির ভাগ দোকানে ছিল না কোনো মূল্য তালিকা ও পণ্য ক্রয়ের রশিদ। সহকারী কমিশনার (ভূমি) কুমারখালী, প্রাথমিক ভাবে ব্যবসায়ীদের নিত্যপণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে রাখার নির্দেশ দেন। নির্দেশ না মানলে আগামী দু-একদিনের মধ্যে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করার ঘোষণা দেন তিনি। অভিযান পরিচালনা সময় উপস্থিত ছিলেন বাজার মনিটরিং কমিটির সদস্য, সাংবাদিক ও বিভিন্ন ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।

কুমারখালীতে বাজার মনিটরিং কমিটির অভিযান
                                  

জাকের আলী শুভ, কুষ্টিয়া ব্যুরো : রমজানে নিত্যপণ্যের বাজার স্থিতিশীল রাখতে কুষ্টিয়ার কুমারখালী বাজারে অভিযান চালিয়েছে বাজার মনিটরিং কমিটি। রোববার দুপুরে সহকারী কমিশনার (ভূমি) তামান্না তাস্নীম এর নেতৃত্বে শহরের মুল বাজারে অভিযান পরিচালনা করা হয়।
এসময় কাঁচা বাজার, মাছ বাজার, মাংস বাজার সহ বিভিন্ন বাজারে অভিযান পরিচালনা করে নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির প্রমাণ পায় বাজার মনিটরিং কমিটি। বেশির ভাগ দোকানে ছিল না কোনো মূল্য তালিকা ও পণ্য ক্রয়ের রশিদ। সহকারী কমিশনার (ভূমি) কুমারখালী, প্রাথমিক ভাবে ব্যবসায়ীদের নিত্যপণ্যের দাম সহনীয় পর্যায়ে রাখার নির্দেশ দেন। নির্দেশ না মানলে আগামী দু-একদিনের মধ্যে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করার ঘোষণা দেন তিনি। অভিযান পরিচালনা সময় উপস্থিত ছিলেন বাজার মনিটরিং কমিটির সদস্য, সাংবাদিক ও বিভিন্ন ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ।

সখীপুরে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র ঘেঁষে ইটভাটা!
                                  

বাদল হোসাইন, সখীপুর : টাংগাইলের সখীপুর বহেড়াতৈল ইউনিয়ন গ্রামটিতে এখন ঝড়ে যাচ্ছে আম, লিচু, পেয়ারা ও ডাবের গুটি। নষ্ট হচ্ছে শাকসবজি ও ফসলের জমি। মাঝে মধ্যেই মারা যাচ্ছে কবুতরসহ গৃহপালিত হাঁস-মুরগি। নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন গ্রামের বাসিন্দারা। এর সবকিছুর পেছনে দায়ী একটি ইটভাটা। আবাসিক এলাকায় অনুমোদনহীন গড়ে ওঠা এই ইটভাটা থেকে নির্গত গরম বাতাস ও ধোঁয়ায় এ অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।
ইটভাটা ঘেঁষে রয়েছে একটি পরিবার পরিকল্পনা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সেখানে গর্ভবতী মহিলা ও স্বাস্থ্যকর্মী কেউ যেতে পারে না ইটভাটার ট্রাফিট্রাক্টর যাতায়াতের কারনে। ধূলোর স্তুপ পড়ে আছে পুরো গ্রামে।সেখানে একটি বীর সেনানিবাস রয়েছে বসবাস অযোগ্য।ইটভাটা থেকে ১০০মিটার পশ্চিমে একটি হাই স্কুল,একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ইউনিয়ন পরিষদের কার্যালয় রয়েছে। ইট ভাটাটি স্থাপন করার সময় এলাকা বাসি বাধা দিলেও কাউকে তোয়াক্কা না করে স্থাপন করেন।এরপর ভাটার ইট পুরানো শুরুর পর থেকেই বিভিন্ন সমস্যা তৈরী হতে থাকে। কাঠ পোড়ানোর কারণে ভাটা থেকে সারাক্ষণ কালো ধোঁয়া বের হয়। ভাটার পাশে বুরো ধান রোপন করা হয়েছে বর্তমানে ক্ষতির মুখে।
বন অঞ্চলের গাছপালাও ক্ষতির মুখে পরতে থাকে। এ ছাড়া প্রতি বছর অন্তত একবার এই ভাটায় জমে থাকা গরম বাতাস নির্গত করা হয়। নির্গত এই বাতাস যেদিন প্রবাহিত হয়, সেদিকে গাছের ফল, ফসল ও গবাদিপশু মারা যায়। গ্রামের বাসিন্দাদের দাবি, ইট পোড়ানো কালো ধোঁয়ার পাশাপাশি প্রতিবছর একবার এই ভাটা থেকে গরম বাতাস নির্গত করা হয়। চলতি মৌসুমে সপ্তাহ দুই আগে এই গরম বাতাস নির্গত করা হয়েছে। এই বাতাস যেখান দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে, সেখান দিয়ে গাছপালার পাতা পুড়ে কালো হয়েছে। নষ্ট হয়েছে গাছে থাকা আম, লিচু, ডালিম, পেয়ারাসহ বিভিন্ন ফল। নষ্ট হয়ে গেছে শাকসবজি বুরো ধান সহ বেশ কিছু ফসল।ছোট ছোট বাচ্চা ছেলে মেয়েরা স্কুলে যেতে ভয় পায় মাটি ও ইট বহন করা ট্রাফি ট্রাক্টর এর কারনে।যে কোন সময় এক্সিডেন্ট হতে পারে। ইউনিয়ন পরিষদের সেবা নেওয়ার জন্য প্রতিদিন অনেক লোককে পরিষদে আসতে হয়। সবার ভিতরে আতংক ইটভাটা ও ট্রাফি ট্রাক্টর। সরেজমিনে ভাটা ঘুরে দেখা গেছে এমন চিত্র।
গ্রামের বাসিন্দা নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক এক ব্যক্তি জানান, ভাটা তৈরির পর থেকেই গ্রামে এ অবস্থা তৈরি হচ্ছে। একদিকে ফল ও ফসল নষ্ট হচ্ছে। অন্যদিকে শ্বাসকষ্টসহ নানা রোগে ভুগছে শিশু ও বৃদ্ধরা।জৈনেক এক নারী বলেন ‘ভাটার জন্যি আমাগের গ্রামে কোনো পক্ষী (পাখি) আসে না। পুষা কবুতর পাখিও ঠাস করে পরে মরে যায়। এই ভাটার গরমেই এই রহম হয়।`
যোগাযোগ করা হলে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নুরুল ইসলাম বলেন, ‘ফসলি জমিতে ভাটা তৈরি করতে হলে কৃষি বিভাগের অনুমোদন প্রয়োজন। কিন্তু কোনো অনুমোদন ছাড়াই ১২/১৩ বছর ধরে এই ইটভাটাটি চলছে। এই ভাটার কারণে ফল ও ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে। জীববৈচিত্র্য হুমকির মুখে পড়েছে। সরেজমিন ঘুরে প্রতিটি বিষয়ের সত্যতা পেয়েছি। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তবে ইটভাটার মালিক আঃ রহিম গ্রামবাসীর অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, বৈধ কাগজপত্র নিয়েই ভাটা স্থাপন করা হয়েছে। অনন্য বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি এরিয়ে যান। টাংগাইল পরিবেশ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মোঃ মুজাহিদুল ইসলাম বলেন বহেড়াতৈল একটি ইট ভাটা আছে সেট আমি জানি।বন অঞ্চলের পাশে ইট ভাটা গড়ে ওঠা সম্পূর্ণ বেআইনি। কিন্তু ইট ভাটাটির কোন বৈধ কাগজ পত্র নাই। অবৈধ ইট ভাটাটির বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এবিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার চিত্রা শিকারী বলেন ইট ভাটা করতে হলে পরিবেশ অধিদফতরের ছাড়পত্র লাগবে।ছাড়পত্র আছে কিনা সেটা দেখতে হবে।আর যদি বৈধ কাগজ পত্র না থাকে তাহলে অবশ্যই আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষকে আশান্বিত করেছেন : মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি
                                  

বীরগঞ্জ(দিনাজপুর) প্রতিনিধি : প্রধানমন্ত্রী করোনা সংকট পাড়ি দিয়ে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন এমন মন্তব্য করে দিনাজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষকে আশান্বিত করেছেন’। মানুষ শুধু আশান্বিতই হননি, আলোকিত হয়েছেন। গ্রামে আজ কুড়েঘর নেই, পণ্যকুটির খুঁজে পাওয়া যায় না। কবিতায় কুড়েঘর আছে বাস্তবে নেই। কুড়েঘর এখন পাকা ঘরে রূপান্তরিত হয়েছে। শেখ হাসিনা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। তিনি শুধু দেশকে এগিয়ে নিতে চান না, দেশের নতুন প্রজন্মকে মেধায় সমৃদ্ধ করে এগিয়ে নিতে চান। শুধু বস্তুগত উন্নতি নয়, নতুন প্রজন্মের আত্মিক উন্নতিও তিনি ঘটাতে চান। এখন দেশে উন্নয়ন অর্জনে একটি নাম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর স্বাধীনতা বিরোধীরা এখনো দেশ ও জনগণের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। যারা এদেশের স্বাধীনতা চায়নি তারা দেশের সাফল্যে ঈর্ষান্বিত। তারা বিভিন্নভাবে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায় যাতে দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রা থামিয়ে দেওয়া যায়। তারা দেশ ও জনগণের কল্যাণ চায় না। এদেশের স্বাধীনতা বিরোধীরা তাই এখনো ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। এ ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে আমাদের সচেতন থাকতে হবে। ১৫ এপ্রিল ২০২১ বৃহস্পতিবার বিকেলে কান্তনগর হতে কাহারোল উপজেলা পর্যন্ত সাড়ে ৮ কিলোমিটার নির্মানাধীণ রাস্তার কাজ পরিদর্শনকালে মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কে এম ফারুক, সুন্দরপুর ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মজিদুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক মো. হামিদুল ইসলাম, বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ জেলা শাখার সভাপতি মো. কামাল হোসেন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. আসিফ রেজা রুবেলসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।
কাহারোল উপজেলা প্রকৌশলী নিমাই চন্দ্র বৈষ্ণন জানান, আগামী ৩০শে এপ্রিল কান্তগনগর হতে কাহারোল উপজেলা পর্যন্ত সাড়ে ৮ কিলোমিটার নির্মানাধীণ রাস্তার কাজ শেষ করা হবে।

কুমারখালীতে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ উদ্বোধন
                                  

জাকের আলী শুভ, কুষ্টিয়া ব্যুরো : কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় খরিফ-১/২০২১-২০২২ মৌসুমে (২০২০-২১ অর্থবছর) উফশী আউশ ধান উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষে ক্ষুদ্র প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে বীজ ও রসায়নিক সার বিতরণ কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়েছে।
১২ই এপ্রিল বেলা ১১ টায় কুমারখালী উপজেলা পরিষদ চত্বরে কুমারখালী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে বিতরণ অনুষ্ঠানে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজীবুল ইসলাম খান’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বীজ ও সার বিতরণ উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান খান। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন কুমারখালী উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সাইদুর রহমান লালু, কৃষি অফিসার দেবাশীষ কুমার দাস, কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার রাইসুল ইসলাম, বিপ্লব কুমার সাহা (ইউ ডি এফ) প্রমূখ সহ কৃষকবৃন্দ।
জন প্রতি ২০ কেজি ডিএপি রাসায়নিক সার, ১০ কেজি এমওপি রাসায়নিক সার এবং ৫ কেজি ধান বীজ, মোট ২০৫০ জন কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ দেবাশীষ কুমার দাস।

নানা সমস্যায় নওগাঁ বিএমডিএ সেচ প্রকল্পের গভীর নলকূপ
                                  

নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁ বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিএমডিএ) সেচ প্রকল্পের গভীর নলকূপ নানাবিধ সমস্যা নিয়ে সেচ কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। দীর্ঘদিন পূর্বে স্থাপিত নলকূপগুলো পুন: স্থাপন না করায় যেকোনো সময় সেচ কার্যক্রম বিঘ্নিত হওয়ায় আশঙ্কা করছেন কৃষকরা। জরুরী ভিত্তিতে সেচযন্ত্র পুন:স্থাপনের উদ্যোগ নেয়ার দাবী করছেন কৃষকরা।
নওগাঁ বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিএমডিএ) রিজিওন-১ ও রিজিওন-২ কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, জেলার ১১টি উপজেলায় বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিএমডিএ) সেচ প্রকল্পের আওতায় ৪১০৩টি গভীর নলকূপ রয়েছে। এর মধ্যে রিজিওন-১ এর আওতায় ২০৫৩টি এবং রিজিওন-২ এর আওতায় ২০৫০টি রয়েছে।
নওগাঁ সদর উপজেলার ইকরতারা ও চকআব্রুশ গ্রামে সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, নওগাঁ সদর উপজেলার তিলকপুর ইউনিয়নের ইকরতারা গ্রামে ২০০৯ সালে ২২০ বিঘা জমির জন্য একটি গভীর নলকূপ ও হাঁসাইগাড়ী ইউনিয়নের চকআব্রুশ গ্রামে ১৯৯৫ সালে ১৭০ বিঘা জমির জন্য একটি গভীর নলকূপ স্থাপন করা হয়। দীর্ঘ সময় পার হওয়ায় সঠিক সময়ে সংস্কার ও পুন: স্থাপন না করায় গভীর নলকূপ এর সেচযন্ত্রে দেখা দিয়েছে নানান ত্রুটি। ত্রুটি নিয়েই ঢিলেঢালাভাবে সেচ কাজ পরিচালনা করছেন অপারেটররা। ত্রুটি থাকায় দিন দিন সেচ যন্ত্রের পানি উত্তোলনের গতি কমেছে। এতে বাড়তি টাকা গুণতে হচ্ছে কৃষকদের। মাঝে মাঝে সেচ যন্ত্র নষ্ট হয়ে গেলে তা মেরামতে দীর্ঘ সময় লেগে যায়। এতে সেচ কার্যক্রম বিঘ্নিত হওয়ায় বিপাকে পড়ছেন কৃষকরা। নওগাঁ সদর উপজেলার চকআব্রুশ গ্রামের কৃষক মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, ১৫ বিঘা জমিতে ইরিবোরা ধান লাগিয়েছেন। গ্রামে একটিমাত্র গভীর নলকূপের উপর ভরসা করে চলতে হয়। মাঝে মধ্যে সেচযন্ত্র নষ্ট হওয়ায় জমির রোপনকৃত ধান নিয়ে দুঃশ্চিন্তায় পড়তে হচ্ছে। দ্রুত সেচযন্ত্র পুন:স্থাপনের দাবী জানান তিনি। গভীর নলকূপের অপারেটর আব্দুল হামিদ বলেন, ২৫ বছর আগে গভীর নলকূপ স্থাপন করার সময় বিএমডিএ পুরাতন মটর দিয়েছিলো। এরপর থেকে কয়েকবার সেচযন্ত্রের সমস্যা হওয়ায় সেচ কার্যক্রম বিঘ্নিত হয়েছে। সেচযন্ত্র নষ্ট হলে গ্রামের ২০০ জন কৃষকের জমিতে সময়মতো পনি দিতে না পারায় কৃষকরা সমস্যায় পড়েন। গভীর নলকূপের ঘরের ছাদ ও বিম ভেঙে পড়েছে। সেচযন্ত্রের সমস্যার কারণে পানি খুব ধীর গতিতে উঠে। নতুন করে সেচযন্ত্র পুন: স্থাপন করলে এই সমস্য সমাধান হবে।
বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিএমডিএ) নওগাঁ রিজিওন-১ এর নির্বাহী প্রকৌশলী মো: সমশের আলী বলেন, গভীর নলকূপের সমস্যা হলে কৃষকদের যাতে সমস্যা না হয় তাৎক্ষণিকভাবে আমরা নিজস্ব তহবিল থেকে সংস্কার করে থাকি। যেসব নলকূপের ঘর, ছাদ ও সেচযন্ত্র পুন:স্থাপন করতে হবে তার জন্য আমরা প্রস্তাবনা পাঠিয়েছি। প্রতি বছর আমরা ১০০টি গভীর নলকূপ পুর্নবাসন করে দিয়ে থাকি।

মোরেলগঞ্জে অর্ধশত প্রজাতির মাছের অস্তিত্ব বিলীন
                                  

মোরেলগঞ্জ (বাগেরহাট) প্রতিনিধি : বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে দেশীয় অর্ধশত প্রজাতির মাছের অস্তিত্ব প্রায় বিলীন। এখন আর পুকুর ভরা মাছ নেই। জলবায়ুর পরিবর্তন, প্রাকৃতিক দুুর্যোগ, অসচেতনতা, অবাধে লবণ পানি তুলে বাগদা চিংড়ি চাষ, ফসলের ক্ষেতে ক্ষতিকর কীটনাশক ও রাসায়নিক সারের যথেচ্ছা ব্যবহার এবং মিঠাপানির অভাবে মৎস্য খনি খ্যাত মোরেলগঞ্জে অর্ধশত প্রজাতির মিঠাপানির দেশীয় মাছের অস্তিত্ব বিলীন হতে চলেছে। সুস্বাদু দেশীয় মাছ এখন আর তেমন মিলছে না। বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে গ্রামে গঞ্জে সর্বত্রই দেশীয় মাছের চরম সংকট। যা পাওয়া যায় তার অগ্নিমূল্য। বিগত দিনে সরকারের উদাসিনতা, মৎস্য অধিদপ্তরের বাস্তবসম্মত সুদূর প্রসারী পরিকল্পনা গ্রহণের অভাব এবং যে সকল প্রকল্প ও কর্মকা হাতে নেয়া হয়েছিল তার যথাযত বাস্তবায়ন না করায় এ সেক্টরটি ‘শিকেয়’ উঠেছে। বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর মৎস্য অধিদপ্তর এবং কয়েকটি এনজিও এসব বিষয়ে কিছু প্রকল্প হাতে নিয়েছে। তবে তাও যৎ সামান্য। জন সচেতনতা তৈরিতে দায়িত্বশীলরা এগিয়ে আসছে না। মৎস্য বিজ্ঞানীদের মতে, কয়েক দশক পূর্বেও এ অঞ্চলে আড়াইশত প্রজাতির মিঠাপানির মাছ ছিল। কিন্তু মনুষ্যসৃষ্ট নানা প্রতিবন্ধকতার কারণে এসব মাছের অনেক প্রজাতি এখন চোখে পড়ে না। তাছাড়া বর্ষা মৌসুমের সময় নদী-খাল-বিল থেকে কারেন্ট জালের মাধ্যমে ব্যাপকহারে ডিমওয়ালা মাছ ধরার কারণে দেশীয় মিঠা পানির বিভিন্ন প্রজাতির মাছের অস্তিত্ব বিলীন হয়ে যাচ্ছে। কালের গর্ভে মাছে-ভাতে বাঙালির ঐতিহ্য আজ হারিয়ে যেতে বসেছে। মৎস্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, দুই দশক পূর্বেওবাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে সন্নিকটস্থ উপকূলীয় অঞ্চলে প্রায় আড়াইশ প্রজাতির মিঠাপানির মাছ পাওয়া যেত। যার মধ্যে শোল, টাকি, কৈ, গজাল, টেংরা, চিতল, শিং, খয়রা, বাটা, পাইশ্যা, কালিবাউশ, বাইল্যা, কাজলি, সরপুঁটি, পাবদা, খৈলশা, ডগরি, জাবা, ভোলা, বাগাড়, বাশপাতা, ভাঙ্গান, কাইন, দেশী পুঁটি, গোদা চিংড়িসহ অর্ধশত প্রজাতির মিঠাপানির মাছ এখন বিলুপ্তির পথে। এ সকল মাছ স্বাদে ও পুষ্টি গুনে ছিল ভরপুর। এ অঞ্চলের গ্রামে-গঞ্জের কয়েকশ’ হাওড় বাওড়, বিল, খাল নদী থেকে এসকল মাছ সংগ্রহ করতো জেলে সম্প্রদায়। সারা বছর তারা মৎস শিকার করে নিজ পরিবারের চাহিদাপূরণ সহ জীবিকা নির্বাহ করত। শুষ্ক মৌসুমে খাল বিল হাওরের পানি কমে গেলে চলত মাছ ধরার উৎসব। বর্ষা মৌসুমের পূর্বে এপ্রিল মাস থেকে খালে বিল নদীতে মাছ ডিম্ব নিঃস্বরণ শুরু করে। কারেন্ট জালের ব্যাপকতায় খাল, বিল নদীতে এ মাছের রেনু ধরা পড়ে মাছের প্রজনন প্রচ ভাবে বাধাগ্রস্থ হচ্ছে। জালে ধরা পড়ে নষ্ট হচ্ছে হাজার হাজার রেনু মাছ।
পরিবেশ ও মৎস্য বিজ্ঞানীদের মতে, মৎস্য প্রজাতি বিলুপ্তির কারণ হচ্ছে- অপরিকল্পিততভাবে জলাধারে বাধ দেয়ায় ভরা বর্ষা মৌসুমে ডিম ছাড়ার মা মাছ আসতে বাধা পায়। মাছের স্বাভাবিক চলাচলে বাধা তদুপরি খাল, বিল, হাওর, বাঁওড়গুলো ক্রমান্বয়ে ভরাট হয়ে যাওয়ায় প্রতিনিয়ত মাছের প্রজনন ক্ষেত্র সংকুচিত হয়ে আসার কারণে মাছের বংশ বৃদ্ধি বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে। তাছাড়া বিভিন্ন কারণে পানি দূষণ জলাশয়ের গভীররা হ্রাস, ছোট মাছ ধরার জন্য কারেন্ট জালের ব্যবহারের কারণেও মাছে প্রজাতি ধ্বংস হচ্ছে। মারাত্মক পানি দূষণের কারণে আজ খুলনার ময়ূর নদী মাছের বংশ বৃদ্ধি ও জীবনধারণের অনুপযুক্ত হয়ে পড়েছে। বাগদা চিংড়ি চাষের জন্য বাধ দিয়ে লোনা পানির আধার নির্মাণের কারণে অনেক প্রজাতির মিঠাপানির মাছ বিলুপ্ত হয়ে যাচ্ছে। দেশীয় প্রজাতির মাছ সংরক্ষণে মৎস্যজীবী তথা সর্বসাধারণকে সচেতন করে তোলার পাশাপাশি স্থানীয় মৎস্য অধিদপ্তরের কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ ও মৎস্য সংরক্ষণ আইনের সঠিক বাস্তবায়ন নিশ্চিত করণের মাধ্যমেই সম্ভব।

রাজবাড়ীর বাজার গুলোতে জন সাধারনের ভির মানা হচ্ছেনা স্বাস্থ্যবিধি
                                  

রাজবাড়ী প্রতিনিধি : রাজবাড়ীর বাজার গুলোতে সাধারন মানুষের ভির লক্ষ করা গেছে। সেই সাথে বাজারেরর সব ধরনের দোকানপাট খোলা রাখতেও দেখা গেছে। এতে স্বাভাবিক সময়ের মতই সাধারন মানুষের চলাচল বেড়েছে। মানুষের চলাচল দেখে বোঝার উপায় নেই যে দেশের কোথাও করোনা কালীন সময় চলছে, চলছে লকডউনের মত কোন বিধি নিষেধ। এতে সাধারন মানুষের মাঝে করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়ার ঝুুিক রয়েছে সবচেয়ে বেশি।
সাধারনের মাঝে স্বাস্থ্যবিধি তেমন একটা মেনে চলতেও দেখা যায়নি। কারো কারো মুখে মাস্ক থাকলেও অধিকাংশ মানুষের মুখে মাস্ক দেখা যায়নি। থাকলেও তা ঝুলতে দেখা গেছে মুখের নিচে থুতনির উপর। করোনা আক্রান্তের ভয়মানুষের মাঝে তেমন একটা দেখা যাচ্ছেনা এবং এই আতঙ্ক এখন মানুষকে তেমন একট সচেতনও করতে পারেনি। য কারনে প্রতিদিনই করোনা সংক্রমন বাড়ছে রাজবাড়ীর বিভিন্ন উপজেলা গুলোতে।
তবে সচেতন মহল বলেন,প্রশাসনের তেমন কোন ধরনের হস্তক্ষে নেই বাজার গুলোতে যে কারনে করোনা আতঙ্ক বেড়েই চলছে। দ্রুত বাজার গুলোতে প্রশাসকিন নজরদারি জরুরী বলে মনে করেন সচেতন এই সাধরন মানুষেরা।

লকডাউনে চলছে গাংনীর বামন্দী পশুহাট
                                  

মেহেরপুর প্রতিনিধি : লকডাউনে মেহেরপুরের গাংনীর বিভিন্ন বাজারে দোকানপাট বন্ধ থাকলেও মহা উৎসবে চলেছে বামন্দী পশু হাট। সোমবার সকাল থেকে বামন্দী পশুহাটে দেদারছে কেনা বেচা চলেছে। কোন স্বাস্থ্য বিধি মানা হচ্ছে না। পশুহাট বন্ধে সরকারী কোন নির্দেশনা না থাকায় কোন ব্যবস্থা নিতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন উপজেলা প্রশাসন।
করোনা বিস্তার রোধে সরকার সারা দেশে লকডাউনের ঘোষণা দেন। সেই সাথে এক পরিপত্র জারী করেন। বন্ধ করা হয় সরকারী বেসরকারী সকল অফিস আদালত, দোকানপাট ও জনসমাগম ঘটে এমন সব অনুষ্ঠান। সেই আলোকে গাংনীর বিভিন্ন বাজারে দোকানপাট বন্ধ ঘোষণা করা হয়। প্রশাসন কঠোর নজরদারী শুরু করেন। অথচ লক্ষাধিক লোকের সমাগম স্থল বামন্দী পশু হাটে দেদারছে চলেছে বেচা কেনা। কয়েক হাজার পশুবাহী গাড়ি চলাচল করে। সেই সাথে ব্যবসায়িদের প্রয়োজন মেটাতে বামন্দী বাজারের সব দোকানপাট খোলা ছিল।
বামন্দী পশু হাট খোলা ও বন্ধে কোন বিধি নিষেধ আছে কিনা জানতে চাইলে গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরএম সেলিম শাহনেওয়াজ জানান, সরকারী প্রজ্ঞাপণ অনুযায়ী প্রশাসন ব্যবস্থা নিচ্ছেন। কিন্তু পশুহাটের ব্যাপারে কোন বিধি নিষেধ না থাকায় কোন প্রকার ব্যবস্থা নিতে পারছেন না তারা।
এদিকে স্থানীয় ব্যবসায়িরা জানান, বিভিন্ন দোকানে স্বাস্থ্য বিধি মেনে মালামাল বিক্রি করা হলেও সরকার দোকান পাট বন্ধ করে দিয়েছেন। আর যেখানে কোন স্বাস্থ্য বিধি বা সামাজিক দূরত্ব নেই সেখানে কি করে খোলা থাকে এ নিয়ে নানা ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে সাধারণ ব্যবসায়িদের মনে।

ফুলবাড়ী সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠক
                                  

শ্যামল ভৌমিক, কুড়িগ্রাম : চোরাকারবারীর হাতে ভারতীয় বিএসএফ সদস্য আহত হওয়ার অভিযোগের প্রক্ষিতে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)র ব্যাটালিয়ন কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) সকালে উপজেলার নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের বালাতাড়ি সীমান্তে আন্তর্জাতিক মেইন পিলার ৯৩০ এর ৯ এস থেকে ৫০ গজ ভারতের অভ্যান্তরে বালাটারি এলাকায় এ পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
বিজিবি ১৫ ব্যাটলিয়নের পক্ষ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
বিজিবি জানায়, এক ঘন্টাব্যাপী বৈঠকে বিজিবি’র ৮ সদস্যের প্রতিনিধি দলে নের্তৃত্ব দেন লালমনিরহাট বিজিবি ১৫ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল এসএম তৌহিদুল আলম এবং বিএসএফের পক্ষে নের্তৃত্ব দেন ৩৮ ব্যাটালিয়নের কমান্ড্যান্ট শ্রী ইন্দ্রেশ কুমার যাদভ। বৈঠকে বিএসএফ প্রতিনিধি দল বিজিবিকে জানায়, গত ৪ এপ্রিল গভীর রাতে বালাতাড়ি সীমান্তে আন্তজাতিক পিলার ৯৩০/১০-এস এর নিকট ভারতীয় নারায়ণগঞ্জ ক্যাম্পের কর্তব্যরত একজন বিএসএফ সদস্য বাংলাদেশি ৮ থেকে ৯ জন চোরাকারবারীর ঢিলের আঘাতে আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ ঘটনার উভয় দেশের চোরাকারবারীরা জড়িত থাকতে পারে বলেও জানায় বিএসএফ। ভবিষ্যতে এ ধরনের অনাকাঙ্খিত ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধকল্পে উভয় দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর টহল তৎপরতা বৃদ্ধিসহ সতর্কতার সাথে দায়িত্ব পালনের ব্যাপারে উভয় পক্ষ সম্মত হন। বৈঠক শেষে বিএসএফ কর্তৃক উদ্ধারকৃত ০১টি মোবাইল সেট, ২টি বাংলাদেশি সিমকার্ড এবং সন্দেহভাজন বাংলাদেশি চোরাকারবারীদের নাম বিজিবি’র নিকট হস্তান্তর করে বিএসএফ প্রতিনিধি দল। বিজিবি আরও জানায়, উভয় বাহিনীর মধ্যে বিদ্যমান শান্তিশৃঙ্খলা বজায় রাখার লক্ষ্যে সীমান্ত এলাকায় সৃষ্ট যেকোন অনাকাঙ্খিত ঘটনা একে অপরের সার্বিক সহযোগিতা ও যোগাযোগের মাধ্যমে দ্রুত সমাধান করে উভয় বাহিনীর মধ্যে বিরাজমান বন্ধুত্বপূর্ণ সুসম্পর্ক আরো সুদৃঢ় করার প্রত্যয় ব্যক্ত করা হয়।

রায়পুরে লকডাউনে ব্যবসায়ীদের জরিমানা আদায় প্রশাসনের
                                  

মোঃ হৃদয় হোসেন, রায়পুর : লক্ষ্মীপুর রায়পুরে লকডাউনে শার্টার ইন, লুকোচুরি চলছে ব্যবসায়ীদের ও প্রশাসনের মাঝে। জরিমানা আদায় করেছে প্রশাসনের । দেশে করোনার তৃতীয় ঢেউ শুরু হওয়া এবং করোনা আক্রান্ত রোগী উদ্বেগজনক হারে বাড়তে থাকায় করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সরকার দেশে লকডাউন দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহন করে, ০৫ই এপ্রিল রোজ সোমবার থেকে আগামী সাতদিন পর্যন্ত সারাদেশে লকডাউনের ঘোষণা করা হয়।
এদিকে লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্তের হার বাড়তে থাকলেও রায়পুরে চলছে ঢিলেঢালা লকডাউন, রায়পুর পৌর শহর ঘুরে দেখা গেছে সরকারী নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কিছু কসমেটিক, ইলেকট্রনিক, ফার্নিচার, গার্মেন্টস ও জুতার দোকান মালিকেরা তাদের ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান চালু রেখেছে যা সরকারী আইন পরিপন্থী কাজ।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, উপজেলা প্রশাসন যতক্ষণ মাঠে ছিলো লকডাউন ততক্ষণ লুকোচুরি চলেছে, প্রশাসন চলে যাওয়ার পর লকডাউন মানার কোন বালাই মনে করেনা কিছু ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানের মালিকগন।

শিমুলিয়াঘাটে ঘরমুখি মানুষের চাপ
                                  

শহিদ শেখ, শ্রীনগর : সরকার ঘোষিত লকডাউন কে কেন্দ্র করে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়াঘাটে দেশের দক্ষিণ অঞ্চলের ঘরমুখো যাত্রীদের চাপ দেখা দিয়েছে। রবিবার সকাল থেকেই ঘুরমুখি যাত্রীরা শিমুলিয়া ঘাটে এসে ভিড় করছেন। ঘাটের ফেরিগুলোতে চাপ কিছুটা কম থাকলেও নৌরুটের লঞ্চ ও স্পীডবোট ঘাটে দেখা গেছে যাত্রীদের উপচেপড়া ভীর। এদিকে ঘাট ও নৌযান গুলোতে যাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি মানার ক্ষেত্র উদাসীনতা দেখা গেছে। শিমুলিয়া ফেরিঘাটের ব্যবস্থাপক (বানিজ্য) সাফায়েত আহমেদ জানান, নৌরুটে বর্তমানে ১৫টি ফেরি, ৮৭টি লঞ্চ ও ৩শতাধিক স্পীডবোট চালু রয়েছে। মাওয়া ট্রাফিক পুলিশের ইন্সপেক্টর মো. হাফিজুল ইসলাম জানান, চাপ কিছুটা বেড়েছে। তবে পরিস্থিত নিয়ন্ত্রণ আমরা প্রস্তুত রয়েছি। স্বাস্থ্যবিধি মানা ক্ষেত্রে যাত্রীদের মাস্ক পরিধান ও সচেতনতায় কাজ করছি।

‘ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতের সহিংসতার ঘটনা বাঙ্গালি জাতি সত্বার উপরই পৈশাচিক আক্রমন’
                                  

এস.আর শরিফুল ইসলাম রতন, লালমনিরহাট : ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাব ও জাতির জনকের মুরালসহ গুরুত্বপুর্ণ স্থাপনার ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ বাঙ্গালি জাতি সত্বার উপরই পৈশাচিক আক্রমন বলে দাবী করেছেন লালমনিরহাট জেলার বীরমুক্তিযোদ্ধারা।
শনিবার (৩ এপ্রিল) বেলা সাড়ে ১১টায় জেলার প্রাণকেন্দ্র মিশনমোড় গোলচত্বরে দেড় ঘন্টা ব্যাপী এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
মানববন্ধনে লালমনিরহাট জেলা আ`লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. মতিয়ার রহমান তার বক্তব্যে বলেন, স্বাধীনতা দিবসে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ একটি ভয়াবহ ঘটনা। স্বাধীনতা দিবসে এ ধরনের ঘটনা মানে স্বাধীনতার মূলে আঘাত করা।
তিনি আরো বলেন, সেদিনের সহিংসতার সময় ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় সাংবাদিকদের ওপর যে হামলা ও গাড়ি পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে তা ক্ষমার অযোগ্য। সেই সাথে সব সাংবাদিকদের ঐক্যবদ্ধ থেকে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি।
বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ লালমনিরহাট জেলা ইউনিট কমান্ডার মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মুক্তিযোদ্ধারা প্রান ত্যাগ করেছে, শহীদ হয়েছে ৩০ লাখ বাঙ্গালী, সম্ভ্রম হারিয়েছে ২ লক্ষ মা-বোন। মুক্তিযুদ্ধে অনেক ত্যাগ রয়েছে কোটি কোটি বাঙ্গালীর। এদেরকে সমুচিত জবাব ও শাস্তিবিধান একান্ত অপরিহার্য বলে মনে করেন মুক্তিযোদ্ধারা।
এ সময় জেলায় কর্মরত সকল সাংবাদিক তাদের এই মানববন্ধনের সাথে একাত্বতা ঘোষনা করে মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করেন।
মানববন্ধনে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবু বকর সিদ্দিক, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান সুজন, জেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মোড়ল হুমায়ুন কবীর, জেলার সকল মুক্তিযোদ্ধা জেলার সকল সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন। মানববন্ধন শেষে মুক্তিযোদ্ধারা জেলা প্রশাসক বরাবরে স্বারকলিপি পেশ করেন।

কুমারখালী জিমনেসিয়ামের শুভ উদ্বোধন
                                  

জাকের আলী শুভ, কুষ্টিয়া ব্যুরো : কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ‘কুমারখালী জিমনেসিয়াম’ নামে জিম উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে কুমারখালী বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন খন্দকার মার্কেটের দ্বিতীয় তলায় জিমনেসিয়াম উদ্বোধন করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরমেয়র মোঃ সামছুজ্জামান অরুন।  যুবকদের মাদকমুক্ত রাখতে ও বর্তমান করোনাকালীন সময়ে মানবদেহে ইমিউনিটি বৃদ্ধির জন্য কায়িকশ্রমের বিকল্প নাই। বর্তমান অবস্থার প্রেক্ষাপট বিবেচনায় মাইটিভি ও যুগান্তর পত্রিকার কুমারখালী প্রতিনিধি লিপু খন্দকার ব্যক্তিগত অর্থায়নে অত্যাধুনিক জিমনেসিয়াম তৈরী করেছেন। জিমনেসিয়াম উদ্বোধনের সময় সাংবাদিক সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

দাগনভূঞা রিপোর্টার্স ইউনিটির মাক্স বিতরণ
                                  

দাগনভূঞা প্রতিনিধি : সারাদেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধির পাওয়া ও তা মোকাবিলার জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ নো মাস্ক নো সার্ভিস বাস্তবায়নে জনসচেতনতার পাশাপাশি মাস্ক বিতরণ ও গণসচেতনতা মূলক কার্যক্রম পরিচালনা করেছে দাগনভূঞা রিপোর্টার্স ইউনিটি।
গতকাল বুধবার সকালে দাগনভূঞা রিপোর্টার্স ইউনিটির আয়োজনে দাগনভূঞার পৌরশহর এলাকায় মাস্ক বিহীন পথচারীদের মাঝে এসব মাস্ক বিতরণ করা হয়।
মাস্ক বিতরণ ও গণসচেতনতা মূলক কার্যক্রমে ফেনী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও আরটিভি জেলা প্রতিনিধি আজাদ মালদার, দাগনভূঞা পৌরসভার প্যানেল মেয়র নুরুল হুদা সেলিম, ডিসিএ সভাপতি তারেক আজিজ খান, দাগনভূঞা বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি আবুল কায়েস রিপন, সাধারণ সম্পাদক জসীম উদ্দিন লিটন, কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিষ্ট সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. নাজিম উদ্দিন, বিটিভির সাবেক জেলা প্রতিনিধি ও দৈনিক ইত্তেফাক প্রতিনিধি ওসমান গণি, থানার এএসআই জহিরুল ইসলাম, দাগনভূঞা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মোয়াজ্জেম মালদার, সহ-সভাপতি মাস্টার মো. নাজমুল হক, মো. হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মো. সাইফ উদ্দিন মিঠু, যুগ্ম-সম্পাদক মো. আবদুল মুনাফ পিন্টু, কোষাধ্যক্ষ দেওয়ান মো. ইকবাল, দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক সুমন পাটোয়ারী, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক জুলফিকার আলম, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক জসীম উদ্দিন ফরায়েজী, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন টিপু, কার্য নির্বাহী সদস্য তাহেরুল ইসলাম, সুজন মাহমুদ, আশফাল আহমেদ রাফি, নুর হোসেন অংশগ্রহণ করেন।

নারায়ণগঞ্জে ৬ মামলায় ২৯২৫ আসামিকে গ্রেফতারে অভিযান
                                  

এ এইচ ইমরান : হেফাজত ইসলামের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনায় নারায়ণগঞ্জে ছয়টি মামলা হয়েছে। এতে ১২৫ জনের নাম উল্লেখ করে আরও দুই হাজার ৮০০ জনকে আসামি করা হয়েছে। সোমবার রাতে এসব মামলা করা হলেও গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ‘রোববারের ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ওপর হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা, সরকারি কাজে বাধা, গাড়ি ভাঙচুর করে অগ্নিসংযোগ, সাধারণ মানুষের জানমালের ক্ষতি, সরকারি সম্পদের ক্ষতি ইত্যাদি বিভিন্ন অভিযোগে পুলিশের পক্ষ থেকে পাঁচটি ও র‌্যাবের পক্ষ থেকে একটি মামলা করা হয়েছে।’ এ মধ্যে পাঁচটি মামলা করেছে পুলিশ ও একটি করেছে র‌্যাব। তিনি বলেন, ‘ মামলায় হেফাজতের ব্যানারে নাশকতাকারীদের নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। আসামিদের কাউকে এখনো গ্রেফতার করা হয়নি। গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।’ গত রোববার ভোর ৬টা থেকে হেফাজতে ইসলামের নেতা-কর্মীরা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের শিমরাইল, সানারপাড় এলাকায় গাছের গুড়ি, বালুর বস্তা, টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে অবরোধ করে রাখে। এসময় কয়েকটি ট্রাকে হরতাল সমর্থকরা ভাঙচুর করে। র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি, সাদা পোশাকে গোয়েন্দা পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কয়েক দফা চেষ্টা করেও পিকেটারদের মহাসড়ক থেকে সরাতে ব্যর্থ হয়। সকাল ১১টার দিকে হেফাজতের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ হয়। এ সময় শাকিল (৩২) নামে এক ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হন। সন্ধ্যায় সাতটি কাভার্ড ভ্যান, ছয়টি ট্রাক, চারটি বাস, একটি মাইক্রোবাস, তিনটি পিকআপ ভ্যানে আগুন দেওয়া হয়। রাত নয়টার দিকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

আগুনে ক্ষতিগ্রস্থদের ত্রাণ দিল বান্দরবান জেলা প্রশাসন
                                  

বাসুদেব বিশ্বাস, বান্দরবান : বান্দরবানের টংকাবতী ইউনিয়নের রামরি পাড়ায় জুমের আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত জনসাধারণের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। বান্দরবানের জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি এর নির্দেশনা মোতাবেক রামরি পাড়ায় আগুনে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মধ্যে এই ত্রাণ সহায়তা প্রদান করা হয়। এ সময় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোর মধ্যে ত্রান সহায়তা প্রদান করেন বান্দরবান সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌছিফ আহম্মেদ। এ সময় অন্যদের মধ্যে আরো উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ময়নুল ইসলাম, টংকাবতী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্লুকান ম্র্রো, রামরি পাড়ার কারবারি চিং থুই ম্রোসহ ম্রো জনগোষ্টির জনসাধারণ।
এ সময় বান্দরবান জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে রামরি পাড়ায় জুমের আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত ২৬ পরিবারের কাছে (পরিবার প্রতি) ৬ কেজি চাউল,১কেজি ডাল,১লিটার সয়াবিন তেল,২লিটার বিশুদ্ধ খাবার পানি,২ কেজি আলুসহ বিভিন্ন সামগ্রী প্রদান করা হয়।
প্রসঙ্গত, বান্দরবানের চিম্বুক পাহাড়ের রামরি পাড়ায় জুমে আগুন লাগে আর এতে কয়েকটি ঘর পুড়ে যায় এবং সেই সাথে দুর্গম পাহাড়ের ৪ হাজার ফুট নিচের ঝিড়ি থেকে সংগ্রহ করা পানির পাইপ স¤পূর্ণ পুড়ে ছাই হয়ে যায়,আর এদিকে অগ্নিকান্ডের পরপরই বান্দরবান জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই ত্রাণ সহায়তা প্রদান করা হয়।


   Page 1 of 956
     সারা বাংলা
কুমারখালীতে বাজার মনিটরিং কমিটির অভিযান
.............................................................................................
সখীপুরে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র ঘেঁষে ইটভাটা!
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানুষকে আশান্বিত করেছেন : মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি
.............................................................................................
কুমারখালীতে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ উদ্বোধন
.............................................................................................
নানা সমস্যায় নওগাঁ বিএমডিএ সেচ প্রকল্পের গভীর নলকূপ
.............................................................................................
মোরেলগঞ্জে অর্ধশত প্রজাতির মাছের অস্তিত্ব বিলীন
.............................................................................................
রাজবাড়ীর বাজার গুলোতে জন সাধারনের ভির মানা হচ্ছেনা স্বাস্থ্যবিধি
.............................................................................................
লকডাউনে চলছে গাংনীর বামন্দী পশুহাট
.............................................................................................
ফুলবাড়ী সীমান্তে বিজিবি-বিএসএফ পতাকা বৈঠক
.............................................................................................
রায়পুরে লকডাউনে ব্যবসায়ীদের জরিমানা আদায় প্রশাসনের
.............................................................................................
শিমুলিয়াঘাটে ঘরমুখি মানুষের চাপ
.............................................................................................
‘ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হেফাজতের সহিংসতার ঘটনা বাঙ্গালি জাতি সত্বার উপরই পৈশাচিক আক্রমন’
.............................................................................................
কুমারখালী জিমনেসিয়ামের শুভ উদ্বোধন
.............................................................................................
দাগনভূঞা রিপোর্টার্স ইউনিটির মাক্স বিতরণ
.............................................................................................
নারায়ণগঞ্জে ৬ মামলায় ২৯২৫ আসামিকে গ্রেফতারে অভিযান
.............................................................................................
আগুনে ক্ষতিগ্রস্থদের ত্রাণ দিল বান্দরবান জেলা প্রশাসন
.............................................................................................
জামালপুরে এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলীর নিজস্ব অর্থায়নে তৈরি ঘরের চাবি হস্তান্ত
.............................................................................................
সমাজে নারী নির্যাতনের চিত্রটাকে পাল্টে দিতে হবে: জেলা প্রশাসক,বান্দরবান
.............................................................................................
সাবেক পিপি হত্যা মামলার রায়ের প্রতিবাদে শরীয়তপুর পৌরসভায় অর্ধবেলা হরতাল পালিত
.............................................................................................
কুমারখালীতে করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতা সভা ও মাস্ক বিতরণ
.............................................................................................
কিশোরগঞ্জে করোনা মোকাবেলায় পুলিশের সচেতনতা কার্যক্রম উদ্বোধন ও মাস্ক বিতরণ
.............................................................................................
শরীয়তপুরের গোসাইরহাটে দুর্বৃত্তদের হামলায় স্কুলছাত্র নিহত
.............................................................................................
ঝিনাইগাতীতে আদিবাসীর ওপর হামলা
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফলতায় দুর্লভ গতিতে উন্নয়ন কর্মকান্ড এগিয়ে চলছে
.............................................................................................
নারীরা এখন বাংলাদেশের উন্নয়নের সহযোদ্ধা : মনোরঞ্জন শীল গোপাল
.............................................................................................
রাজশাহীতে দুর্ঘটনার কবলে প্রশিক্ষণ বিমান
.............................................................................................
রামগঞ্জে ফসলি জমির মাটি যাচ্ছে ইটভাটায়
.............................................................................................
মোবাইল কোর্ট পরিচালনার খবর আগেই পৌঁছে দেয় কর্মচারীরা
.............................................................................................
বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটের সাফল্য
.............................................................................................
শরীয়তপুরে নির্মাণ হচ্ছে ভাষা সৈনিক গোলাম মাওলা উড়াল সেতু
.............................................................................................
লালমনিরহাটে ২০ হাজার মানুষের ভরসা একটি বাঁশের সাঁকো
.............................................................................................
ঘরের মধ্যেই রেহানাকে ৩ টুকরা করলো স্বামী
.............................................................................................
দিনাজপুরে ফল আর্মি ওয়ার্ম দমনে প্রশিক্ষণ কর্মশালা
.............................................................................................
ত্রিশালে জাতীয় হিফজুল কুরআন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
প্রবেশের অপেক্ষায় ৫ হাজার ট্রাক
.............................................................................................
মরহুম জয়নুল হক সিকদারের স্মরণে শরীয়তপুর সমিতিতে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
রামগতিতে মেঘনায়, সকল ধরনের মৎস্য আহরণ নিষিদ্ধ
.............................................................................................
কিশোরগঞ্জে পুলিশ মেমোরিয়াল ডে- পালিত
.............................................................................................
‘উন্নয়নের জোয়ার পার্বত্য অঞ্চলে’
.............................................................................................
মেয়র আইভীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার ও মডেল মসজিদ নির্মাণে বাধা
.............................................................................................
সিলেটে দুই বাসের সংঘর্ষ : নিহত ৮
.............................................................................................
বাহুবলে পুলিশের মোটরসাইকেল পোড়ানোর ঘটনায় থানায় মামলা, আটক ৫
.............................................................................................
কিশোরগঞ্জে কোভিড-১৯ টিকা গ্রহণ উদ্বুদ্ধকরণে আলোচনা সভা ও র‌্যালি
.............................................................................................
ফরিদপুরে গ্রামবাসীর উদ্যোগে সেতু নির্মাণ
.............................................................................................
কুমারখালীতে মেয়র সামছুজ্জামান অরুন’কে গণ সংবর্ধনা
.............................................................................................
নওগাঁর মহাদেবপুরে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
ডামুড্যায় সংস্কৃতি বিকাশে প্রশিক্ষণ কর্মশালা উদ্বোধন
.............................................................................................
মিয়ানমারে গুলিবিদ্ধ নারী নিহত, উত্তাল বিক্ষোভ চলছে
.............................................................................................
কোম্পানিগঞ্জে দু’গ্রুপের ভয়াবহ সংঘর্ষ : গুলিবিদ্ধ ৩
.............................................................................................
সোনাইমুড়ীতে সাংবাদিকের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন
.............................................................................................

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মো: রিপন তরফদার নিয়াম
প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক : মফিজুর রহমান রোকন
নির্বাহী সম্পাদক : শাহাদাত হোসেন শাহীন
বাণিজ্যিক কার্যালয় : "রহমানিয়া ইন্টারন্যাশনাল কমপ্লেক্স"
(৬ষ্ঠ তলা), ২৮/১ সি, টয়েনবি সার্কুলার রোড,
মতিঝিল বা/এ ঢাকা-১০০০| জিপিও বক্স নং-৫৪৭, ঢাকা
ফোন নাম্বার : ০২-৪৭১২০৮০৫/৬, ০২-৯৫৮৭৮৫০
মোবাইল : ০১৭০৭-০৮৯৫৫৩, 01731800427
E-mail: dailyganomukti@gmail.com
Website : http://www.dailyganomukti.com
   © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop