ঢাকা,সোমবার,১২ আশ্বিন ১৪২৮,২৭,সেপ্টেম্বর,২০২১ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : > ‘বাকের খনি’র ট্রিপল সেঞ্চুরি   > কোস্টগার্ডের অভিযানে ইয়াবা ও গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক   > বাণিজ্য সম্প্রসারণে বৈশ্বিক ভিত্তি বঙ্গবন্ধুর তৈরি করা   > সাবেক প্রতিমন্ত্রী মান্নান ও তাঁর স্ত্রীর বিচার শুরু   > করোনায় শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২১   > প্রধানমন্ত্রী ওয়াশিংটনে অবস্থান করছেন   > একদিনে ৮০ লাখ ডোজ টিকা   > রাজবাড়ীতে জন্ম নিবন্ধন তৈরিতে নাজেহাল সনদ গ্রহিতারা   > গ্রাম ও শহরের মধ্যে পার্থক্য থাকবে না : এমপি নয়ন   > সোনাইমুড়ীতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন  

   নগর-মহানগর -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
সোনাইমুড়ীতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন

মো. মাহাবুর আলম, সোনাইমুড়ী : নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ীতে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে চিহ্নিত চাঁদাবাজ রাসেল, জয়নাল ও রকি কর্তৃক সাংবাদিক হোসাইন মাহমুদকে লাঞ্চিত ও মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়ার প্রতিবাদে চাঁদাবাজদের গ্রেপ্তারের দাবীতে মানববন্ধন করেছে সোনাইমুড়ীতে কর্মরত সাংবাদিকরা। গতকাল শনিবার সোনাইমুড়ী প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে সোনাইমুড়ীতে কর্মরত ছাড়াও চাটখিল ও নোয়াখালী জেলাতে কর্মরত সাংবাদিকরা এবং স্থানীয় সুশীল সমাজ ও ব্যবসায়ীবৃন্দ সংহতি জানিয়ে মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন। ঘন্টা ব্যাপী এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, সোনাইমুড়ী উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি খোরশেদ আলম শিকদার, সোনাইমুড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি খোরশেদ আলম, বেগমগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও মাই টিভি জেলা প্রতিনিধি গিয়াস উদ্দিন মিঠু, বৃহত্তম সোনাইমুড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি ফারুক আল ফয়সাল। সোনাইমুড়ী প্রেসক্লাবের সাধারণ স¤পাদক বেলাল হোছাইন ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, সোনাইমুড়ী উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ স¤পাদক মোশারেফ হোসেন সুমন, মানবজমিন প্রতিনিধি ও বৃহত্তম প্রেসক্লাবের সাধারণ স¤পাদক আমিনুল ইসলাম মানিক, দৈনিক যুগান্তর প্রতিনিধি সেলিম মিয়া, এশিয়ান টিভি নোয়াখালী প্রতিনিধি মাহাবুবুর আলমসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এসময় বক্তারা বলেন, ঘটনার ৩ দিন অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত আসামীদের গ্রেপ্তার ও মোবাইল উদ্ধার করে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। তারা অবিলম্বে অপরাধীদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবী জানান। অন্যথায় আরও কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে বক্তাগণ বলেন। উল্লেখ্য, এলাকার চিহ্নিত চাঁদাবাজ রাসেল, জয়নাল ও রকিসহ গত বৃহ¯পতিবার সোনাইমুড়ী বাজারের প্রধান সড়কের ব্যাংক রোডের মুখে ফল ব্যবসায়ীর নিকট চাঁদা দাবী করে। ব্যবসায়ী চাঁদা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় তার দোকানের ফল রাস্তায় ফেলে দেয়। এ ঘটনার ভিডিও চিত্র ধারণ করছিলেন সাংবাদিক হোসাইন মাহমুদ। ভিডিও করতে চাঁদাবাজরা দেখে ফেলায় তারা হোসাইনের উপর চড়াও হয়। এ সময় তারা হোসাইনকে লাঞ্চিত করে তার হাতে থাকা ভিডিও করা মোবাইলটি ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ঐ দিন বিকেল ৪টার দিকে হোসাইন মাহমুদ বাদী হয়ে আসামীদের বিরুদ্ধে সোনাইমুড়ী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনার ৩ দিন পার হলেও পুলিশ এখন পর্যন্ত কোন অপরাধীকে গ্রেপ্তার ও মোবাইলটি উদ্ধার করতে না পারায় সাংবাদিকরা মানববন্ধনের ডাক দেন।

সোনাইমুড়ীতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন
                                  

মো. মাহাবুর আলম, সোনাইমুড়ী : নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ীতে পেশাগত দায়িত্ব পালনকালে চিহ্নিত চাঁদাবাজ রাসেল, জয়নাল ও রকি কর্তৃক সাংবাদিক হোসাইন মাহমুদকে লাঞ্চিত ও মোবাইল ছিনিয়ে নেওয়ার প্রতিবাদে চাঁদাবাজদের গ্রেপ্তারের দাবীতে মানববন্ধন করেছে সোনাইমুড়ীতে কর্মরত সাংবাদিকরা। গতকাল শনিবার সোনাইমুড়ী প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে সোনাইমুড়ীতে কর্মরত ছাড়াও চাটখিল ও নোয়াখালী জেলাতে কর্মরত সাংবাদিকরা এবং স্থানীয় সুশীল সমাজ ও ব্যবসায়ীবৃন্দ সংহতি জানিয়ে মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেন। ঘন্টা ব্যাপী এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, সোনাইমুড়ী উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি খোরশেদ আলম শিকদার, সোনাইমুড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি খোরশেদ আলম, বেগমগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও মাই টিভি জেলা প্রতিনিধি গিয়াস উদ্দিন মিঠু, বৃহত্তম সোনাইমুড়ী প্রেসক্লাবের সভাপতি ফারুক আল ফয়সাল। সোনাইমুড়ী প্রেসক্লাবের সাধারণ স¤পাদক বেলাল হোছাইন ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, সোনাইমুড়ী উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ স¤পাদক মোশারেফ হোসেন সুমন, মানবজমিন প্রতিনিধি ও বৃহত্তম প্রেসক্লাবের সাধারণ স¤পাদক আমিনুল ইসলাম মানিক, দৈনিক যুগান্তর প্রতিনিধি সেলিম মিয়া, এশিয়ান টিভি নোয়াখালী প্রতিনিধি মাহাবুবুর আলমসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এসময় বক্তারা বলেন, ঘটনার ৩ দিন অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত আসামীদের গ্রেপ্তার ও মোবাইল উদ্ধার করে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। তারা অবিলম্বে অপরাধীদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবী জানান। অন্যথায় আরও কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে বক্তাগণ বলেন। উল্লেখ্য, এলাকার চিহ্নিত চাঁদাবাজ রাসেল, জয়নাল ও রকিসহ গত বৃহ¯পতিবার সোনাইমুড়ী বাজারের প্রধান সড়কের ব্যাংক রোডের মুখে ফল ব্যবসায়ীর নিকট চাঁদা দাবী করে। ব্যবসায়ী চাঁদা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় তার দোকানের ফল রাস্তায় ফেলে দেয়। এ ঘটনার ভিডিও চিত্র ধারণ করছিলেন সাংবাদিক হোসাইন মাহমুদ। ভিডিও করতে চাঁদাবাজরা দেখে ফেলায় তারা হোসাইনের উপর চড়াও হয়। এ সময় তারা হোসাইনকে লাঞ্চিত করে তার হাতে থাকা ভিডিও করা মোবাইলটি ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ঐ দিন বিকেল ৪টার দিকে হোসাইন মাহমুদ বাদী হয়ে আসামীদের বিরুদ্ধে সোনাইমুড়ী থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনার ৩ দিন পার হলেও পুলিশ এখন পর্যন্ত কোন অপরাধীকে গ্রেপ্তার ও মোবাইলটি উদ্ধার করতে না পারায় সাংবাদিকরা মানববন্ধনের ডাক দেন।

মোংলায় ৪৪৪০ বনজীবী পরিবারকে পণ্য সহায়তা কার্যক্রমের উদ্বোধন
                                  

মনির হোসেন, মোংলা : মোংলার সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জে কোভিড-১৯ মোকাবেলায় সুন্দরবনের উপর নির্ভরশীল ৪৪৪০ বনজীবী পরিবারকে জরুরী খাদ্য পণ্য সহায়তা কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১ টায় সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের করমজল পর্যটন কেন্দ্রে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন খুলনা বন অঞ্চলের প্রধান বন সংরক্ষক মিহির কুমার দে, সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বন কর্মকর্তা মুহাম্মদ বেলায়েত হোসেন, পশ্চিম বন বিভাগের কর্মকর্তা আবু নাসের মহাসিন হোসেন। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মোংলার থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মনিরুল ইসলামসহ বনবিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ। প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার বলেন, সরকার প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ সকল শ্রেণী পেশার মানুষকে সহায়তা করেছেন। ধাপে ধাপে খাদ্য পণ্য সহায়তা অব্যাহত রয়েছে। যেকোন দুর্যোগ মোকাবেলায় সরকারের পক্ষ থেকে প্রস্তুতি রয়েছে। তিনি আরো বলেন, সুন্দরবন আমাদের অক্সিজেন। এমন কিছু করা যাবেনা যাতে সুন্দরবনের ক্ষতি হয়।অনুষ্ঠানে সঞ্চালনা করেন করমজল বন্য প্রাণী প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হাওলাদার আজাদ কবির। অনুষ্ঠানে ২০ জন বনজীবী পরিবারের মাঝে সামগ্রী প্রদান করলেও চাঁদপাই এলাকার ৩৭ টি গ্রামের ৪৪৪০ টি পরিবারকে এইভাবে সহায়তা প্রদান করা হবে।

সম্প্রীতির বাগেরহাট গড়ার প্রত্যয় নিয়ে আন্তঃধর্মীয় আলোচনা
                                  

মনির হোসেন, মোংলা : দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশের ব্রেভ প্রকল্পের উদ্যোগে সম্প্রীতির বাগেরহাট জেলা গড়ে তোলার প্রত্যয় নিয়ে ইমাম, পুরোহিত, যাজক, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক ও রাজনৈতিক নেতাদের নিয়ে আন্তঃধর্মীয় সংলাপ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত শনিবার অনুষ্ঠিত দিনব্যাপি এই কর্মসূচিটি বাগেরহাট লেডিস ক্লাবে তিন উপজেলার ৬০ জন বিভিন্ন ধর্মের নেতাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। প্রবীন শিক্ষাবীদ প্রফেসর মোজাফ্ফর হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাগেরহাট জেলার জেলা প্রশাসক জনাব মোহাম্মদ আজিজুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন ফকিরহাট উপজেলার চেয়ারম্যান জনাব স্বপন কুমার দাশ, বাগেরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ মুছাব্বিরুল ইসলাম, বাগেরহাট সদর উপজেলা আওয়ামিলীগের সভাপতি ও ষাটগম্বুজ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আক্তারুজ্জামান বাচ্চু সহ শহরের বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ, জেলার বিভিন্ন মসজিদের ইমাম, মন্দিরের পুরোহিত এবং গীর্জার যাজক উপস্থিত ছিলেন। সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন দি হাঙ্গার প্রজেক্টের খুলনা অঞ্চলের আঞ্চলিক সমন্বয়কারী মাসুদুর রহমান। সভায় বক্তারা একটি সম্প্রীতির জেলা গড়ে তোলার লক্ষ্যে আন্ত:ধর্মীয় সম্পর্কের প্রতি গুরুত্ব আরোপ করেন। তারা বলেন, সকল ধর্মই মানবতার কথা বলে, মানুষের প্রতি ভালোবাসার কথা বলে। ধর্ম কখনও মানুষের প্রতি অক্রমনাত্বক অচরণ করার কথা বলে না বরং ধর্মীয় অনুভুতি সম্পন্ন মানুষ সকল সময় সকল ধর্মের মানুষের প্রতি সহনশীল হয়। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন “সকল ধর্মের মূল বিষয় হচ্ছে শান্তি ও সম্প্রীতি, কোনো ধর্মই সংঘাতের কথা বলে না। আমরা যে ধর্মেরই অনুসারি হইনা কেন পরষ্পরের প্রতি পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ ধরে রাখতে পারলে আমরা একটি মর্যাদাপূর্ণ মানবিক সমাজ গড়তে পারবো। ফকিরহাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান স্বপন কুমার দাশ বলেন, “সংবিধানের চেতনায় অনুপ্রাণিত হয়ে আমাদের ধর্মীয় নেতারাই পারে একটি সম্প্রীতির সমাজ গড়ে তুলতে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন,একজন প্রকৃত ধর্মপ্রাণ মানুষ কোনো সময় অন্য ধর্মের মানুষের প্রতি সহিংস হতে পারেন না। ধর্মীয় অনুশাসন মানুষকে পরিশুদ্ধ করে তোলে, এই শিক্ষা আমাদের ধর্মীয় নেতারা প্রচারের ক্ষেত্রে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা অব্যাহত রাখবেন।

ব্রিজের পাটাতন ভেঙে টাঙ্গাইল-আরিচা মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ
                                  

অলক কুমার, টাঙ্গাইল : অতিরিক্ত ওভার লোডে ট্রাক চলাচলের কারণে আবার বেইলী ব্রিজের পাটাতন ভেঙে টাঙ্গাইল-আরিচা আঞ্চলিক মহাসড়কে ৮ ঘন্টা যাবত যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। গত শুক্রবার ভোর সাড়ে ৪টায় নাগরপুর উপজেলার ভাদ্রা ইউনিয়নের টেংরীপাড়া এলাকায় বেইলী ব্রিজের পাটাতন ভেঙে গাছ ভর্তি একটি ট্রাক আটকে যায়। এরপর থেকে বেলা সারে ১১টা পর্যন্ত এ সড়কের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। বিষয়টি ভাদ্রা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. হাবিবুর রহমান খান নিশ্চিত করেছেন। চেয়ারম্যান মো. হাবিবুর রহমান খান জানান, নাগরপুর থেকে গাছ ভর্তি একটি ট্রাক মানিকগঞ্জের দিকে যাচ্ছিলো। ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ট্রাকটি ট্রেংরীপাড়া বেইলী ব্রিজের পাটাতন ভেঙ্গে ট্রাকটি আটকে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এই বেইলী ব্রিজটির ধারণ ক্ষমতা ৮ টন থাকলেও প্রতিনিয়ত এই ব্রিজ দিয়ে ১৫ থেকে ২০ টন ওজনের যানবাহন চলাচল করায় প্রতিনিয়ত ঘটছে দুর্ঘটনা। গত ১৫ দিন আগেও এই ব্রিজটির পাটাতন ভেঙ্গে যান চলাচল বন্ধ হয়েছিলো। অতিরিক্ত অভার লোডের কারণে যানবাহন আটকে যান চলাচল বন্ধ হয়ে দুর্ভোগ পোহাতে হয়। স্থায়ী সমাধানের জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টদের অবগত করা হয়েছে। এলাকাবাসীর অভিযোগ, বেইলী ব্রিজটি দীর্ঘদিন যাবত এই বেইলী ব্রিজটি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। কয়েকবার সংস্কার করা হলেও স্থায়ীভাবে মেরামত করা হচ্ছে না। ফলে বার বার দুর্ঘটনা ঘটছে। টাঙ্গাইল সড়ক বিভাগের সহকারি প্রকৌশলী এস.এম আলামিন বলেন, ট্রাক সরানোসহ ব্রিজের পাটাতন সংস্কার করে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করা হবে।

শিশুদের পদচারণায় মুখর বান্দরবানের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান
                                  

বাসুদেব বিশ্বাস, বান্দরবান : সারাদেশের মতো বান্দরবানে স্কুল ও কলেজ খুলেছে। সকালেই পরিপাটি স্কুল পোষাক পরা শিশুদের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠে বিদ্যালয় ও কলেজ প্রাঙ্গন। বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে শিক্ষকেরা দাঁড়িয়ে ফুল, মাক্স, স্যানিটাইজার আর চকলেট দিয়ে অভ্যর্থনা জানায় শিক্ষার্থীদের। বিদ্যালয়ে প্রবেশের মুখে নতুন আমেজে বাজতে থাকে বাদ্যযন্ত্র। বিদ্যালয়গুলো সেজেছে নতুন সাজে। এদিকে দীর্ঘদিন পরে সহপাঠীদের পেয়ে আর বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে জড়ো হয়ে খুশি শিক্ষার্থীরা। বান্দরবান ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ এর শিক্ষার্থী নুসরাত বলেন, দীর্ঘদিন বিদ্যালয় বন্ধ থাকায় আমরা অনেক কিছুই মিস করেছি আজ আবার বিদ্যালয় খুলেছে আমাদের ভালো লাগছে। বান্দরবান ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ এর শিক্ষার্থী রাইসা বলেন, আমরা আজ সত্যিই আনন্দিত, করোনায় আমাদের লেখাপড়া অনেক পিছনে গেলে ও আজ থেকে নতুন উদ্যামে আগের চেয়ে বেশি পরিশ্রমী করে পড়ালেখা শুরু করবো। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রবেশমুখে বিদ্যালয়ের কর্মচারীরা থার্মাল স্ক্যানার দিয়ে শিশুদের তাপমাত্রা পরীক্ষা করছে, আর হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিস্কার করে মুখে মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতের মাধ্যমে শ্রেণীকক্ষে প্রবেশের ব্যবস্থা করেছে কর্তৃপক্ষ। সরকারের দেয়া নির্দেশনাবলী যথাযথ প্রতিপালন করে শিক্ষাপ্রতিষ্টান পরিচালনার করার আশাবাদও ব্যক্ত করেছেন শিক্ষকেরা। বান্দরবান ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজ এর অধ্যক্ষ লে. কর্ণেল সিরাজুল ইসলাম উকিল (পিএইচডি,এইসি) জানান, সরকারীভাবে আমাদের শিক্ষাপ্রতিষ্টান খোলার বিষয়ে যে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে আমরা তা মেনে চলবো এবং শিক্ষাপ্রতিষ্টানে আগত ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক-শিক্ষিকা ও অভিভাবকদের আরো সচেতন হয়ে এই করোনা মোকাবেলায় ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করে যেতে হবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ লে. কর্ণেল সিরাজুল ইসলাম উকিল (পিএইচডি,এইসি), উপাধ্যক্ষ মোঃ আতিকুর রহমান, সহকারী প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ ইয়াকুবসহ প্রতিষ্ঠানটি শিক্ষক-শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীরা।

বিষখালী নদীর ভাঙন ঝুঁকিতে দুই গ্রাম
                                  

কাঁঠালিয়া (ঝালকাঠি) প্রতিনিধি : ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় বিষখালী নদীর পাড়ের মাটি কেটে ইটভাটায় নেয়ার প্রতিবাদে অবস্থান কর্মসূচী পালন করেছে ভুক্তভোগী এলাকাবাসী। গত রোববার বিকেলে উপজেলার বড় কাঠালিয়া এলাকায় বিষখালী নদীর পাড়ে এ কর্মসূচী পালন করা হয়। অবস্থান কর্মসূচী থেকে এলাকাবাসী জানান, উপজেলা সদর ইউনিয়নের বড় কাঠালিয়া থেকে শৌলজালিয়া ইউনিয়নের কচুয়া খাল পর্যন্ত প্রায় তিন কিলোমিটার এলাকার বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে মাটি কেটে নিচ্ছে ভাটার মালিক এনামুল হক ডাকুয়া। এর ফলে বর্ষায় এলাকায় ব্যাপক ভাঙনের আশংকা তৈরী হয়েছে। বিষখালী নদী ও বড় কাঠালিয়া খালের ভাঙ্গন রোধে অবৈধ ভাবে চরের মাটি কাটা বন্ধ করার জোর দাবি জানানো হয় অবস্থান কর্মসূচী থেকে। এলাকাবাসী আরো জানান, এর আগে উপজেলা নির্বার্হী অফিসার বরাবরে লিখিত অভিযোগ দিলে কয়েকদিন মাটি কাটা বন্ধ ছিল। গত দুইতিন দিন আগে পুনরায় মাটি কাটা শুরু করেছে ভাটার লোকজন। ব্রিকস ফিল্ডের মালিক প্রভাবশালী হওয়ায় এলাকার মানুষ মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছেনা। ভাটার মালিক মো. এনামুল ইসলাম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমার ভাটার জন্য নদী ও খালের চরের মাটি কখনো কাটা হয়নি, আমার ক্রয়কৃত জমির মাটি কেটে ভাটায় ব্যবহার করছি। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুফল চন্দ্র গোলদার বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে ভাটার মালিককে ডেকে সতর্ক করেছি। এরপরও যদি মাটি কাটে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

রাসিক উপ-নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন জমা
                                  

রাজশাহী ব্যুরো : আগামী ৭ই অক্টোবর রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের ৯নং ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এই নির্বাচনে মহানগর আ’লীগ (বোয়ালিয়া পশ্চিম) এর সাংগঠনিক সম্পাদক, জেলা ক্রিড়া সম্পাদক বিশিষ্ট সমাজ সেবক রাসেল জামান কাউন্সিলর পদ প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তথ্যমতে, গত বুধবার দুপুর রাজশাহী আঞ্চলিক নির্বাচন কমিশন কার্যালয় থেকে মনোয়নপত্র উত্তোলন করেছিলেন এবং গতকাল রোববার ১২.৩০ মিনিটে রাজশাহী আঞ্চলিক নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ের অতিরিক্ত আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা আহমেদ আলীর হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে এই মনোনয়নপত্র জমা দেন।
মনোনয়ন উত্তোলন এবং জমার বিষয়টি নিশ্চিত করে আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা আহমেদ আলী বলেন, রাসিকের ৯ নং ওয়ার্ড উপনির্বাচনে মোট ছয় জন মনোনয়নপত্র উত্তোলন করেছে। তবে এখন পর্যন্ত রাসেল জামান এই মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। যেহেতু ১৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত জমা দেয়ার শেষ তারিখ রয়েছে তাই নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না কয়জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। তবে এখন পর্যন্ত ছয়জন মনোনয়ন উত্তোলন করেছে। মনোয়নপত্র উত্তোলনের সময় উপস্থিত ছিলেন, আব্দুল্লাহ, লাবু হাজী, জাকির কামরুজ্জামান রুবেল, লাল্টু, হাবু সহ রাসেলের একমাত্র পুত্র রাইজান জামান। মনোনয়ন জমা দেয়ার পর রাসেল জামান সাংবাদিকদের বলেন, আমি সুখে-দুখে ওয়ার্ডবাসীর পাশে ছিলাম। আমি আমার এলাকাবাসির দোয়া ও ভালবাসা নিয়ে প্রার্থীতা ঘোষনা করেছি। সেই ভালবাসায় সিক্ত হয়ে আজ মনোনয়ন জমা দিলাম। এখন পর্যন্ত আমার এলাকার জনগনের পুর্নাঙ্গো সমর্থন রয়েছে। আমি নির্বাচিত হলে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে লালন করে নগর পিতার হাত ধরে জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ায় নিরলস কাজ করে যাব। আমার আগামী নির্বাচনে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে এসেছে নারী ও যুবকরা। আমার জন্য সকলে দোয়া করবেন আমি যেন নির্বাচিত হয়ে এই ওয়ার্ডবাসির সেবা করতে পারি।

বটবৃক্ষের মত সবার পাশে দাঁড়িয়ে থাকুক বান্দরবান প্রেসক্লাব : পার্বত্যমন্ত্রী
                                  

বাসুদেব বিশ্বাস,বান্দরবান : বটবৃক্ষের মত সাধারণ মানুষের পাশে থাকুক বান্দরবানের প্রেসক্লাব । বান্দরবানের উন্নয়নে ও অগ্রযাত্রায় সকল সংবাদকর্মীরা পাশে আছে ও আগামীতে থাকবে এমনটা মন্তব্য করেছে পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি।
গত শুক্রবার দুপুরে বান্দরবান প্রেসক্লাবের আয়োজনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বান্দরবান সদরের রাজার মাঠে এক বৃক্ষরোপন কর্মসুচীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পার্বত্যমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি এই কথা বলেন। এসময় পার্বত্যমন্ত্রী আরো বলেন, শুধু বৃক্ষরোপন নয়,করোনাকালী সময়ের বিভিন্ন অসহায়দের খাদ্য সামগ্রী প্রদান, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্ক বিতরণসহ বিভিন্ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে বান্দরবান প্রেসক্লাব প্রশংসা কুড়িয়েছে। এসময় পার্বত্যমন্ত্রী আরো বলেন,সংবাদকর্মীরা হলো সমাজের দর্পণ,তাই প্রতিটি সংবাদকর্মীকে সততা ও নিষ্টার সাথে সংবাদ সংগ্রহ করে এলাকার তথ্যবহুল সংবাদ প্রচার করতে হবে। বৃক্ষরোপন কর্মসুচীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক লুৎফুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো.নাজিম উদ্দিন,পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ক্যসাপ্রু, সিভিল সার্জন ডা.অংসুই প্রু মারমা, সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা.ত্রিলোচন চাকমা,বান্দরবান নার্সিং কলেজের অধ্যক্ষ আলেয়া বেগম,বান্দরবান রেডক্রিসেন্ট সোসাইটির সেক্রেটারী অমল কান্তি দাশ, প্রেসক্লাবের সভাপতি মনিরুল ইসলাম মনু, সেক্রেটারী মিনারুল হক, অনলাইন নিউজ পোর্টাল পাহাড় বার্তা ডট কমের সম্পাদক সাদেক হোসেন চৌধুরীসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

জোয়ারের পানিতে প্লাবিত পটুয়াখালী শহর
                                  

পটুয়াখালী প্রতিনিধি : জোয়ারের পানিতে পটুয়াখালী শহরের বেশিরভাগ এলাকা প্লাবিত হয়েছে। সোমবার বেলা সাড়ে ১১টায় জোয়ার শুরুর পর থেকেই শহরের বিভিন্ন এলাকা প্লাবিত হতে থাকে। মঙ্গলবার সকালে সরেজমিনে দেখা যায়, শহরের মহিলা কলেজ রোড, পোস্ট অফিস সড়ক, নবাব পাড়া, নিউ মার্কেট, এসডিও সড়কসহ অনেক স্থান জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হয়েছে। পটুয়াখালী পোস্ট অফিস সড়কের ব্যবসায়ী আরাফাত জানান, আমাবস্যা ও পূর্ণিমার জোয়ারের পানিতে প্রতিদিন আড়াই থেকে তিন ঘণ্টা পানি জমে থাকে। এ সময়ে ব্যবসা বাণিজ্য করতে কিছুটা বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। জোয়ার শুরুর সময় ১০-১২ ইঞ্চি পানি উঠে যায়। নিউমার্কেট এলাকার কাপড় ব্যবসায়ী ইকবাল হোসেন জানান, আশপাশের সড়কগুলো উঁচু হলেও মার্কেটটি এখনও নিচু স্থানে রয়েছে। ফলে জোয়ারের পানিতে মার্কেটের মধ্যে ড্রেন দিয়ে পানি ঢুকে পড়ে। ফলে বেশ ভোগান্তি পোহাতে হয়। পটুয়াখালী পৌর মেয়র মো. মহিউদ্দিন আহমেদ জানান, পটুয়াখালী শহর রক্ষা বাঁধ নির্মাণ হলেও জোয়ারের পানিতে শহর প্লাবিত হয়। সমস্যা সমাধানের পানি উন্নয়ন বোর্ড এবং পটুয়াখালী পৌরসভা সমন্বিতভাবে কাজ করছে। এছাড়া শহরে নদীর পাড় দিয়ে একটি মেরিন ড্রাইভ নির্মাণ প্রকল্প প্রস্তুত করা হচ্ছে। এগুলো বাস্তবায়ন হলে এ সমস্যা থাকবে না। পটুয়াখালী পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী হালিম সালেহী বলেন, এক দশক আগে শহররক্ষা বাঁধের নির্মাণ কাজ শেষ হলেও পরে কোনো সংস্কার কাজ হয়নি। বাঁধের অনেক সুইজগেট অকার্যকর হওয়া এবং কিছু কিছু জায়গা বাঁধ ক্ষতিগ্রস্তের কারণে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হচ্ছে। সমস্যা সমাধানে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে লিখিতভাবে অবহিত করা হয়েছে।

বান্দরবান বাজারে নিরাপত্তার লক্ষ্যে সিসি ক্যামেরার উদ্বোধন
                                  

বাসুদেব বিশ্বাস, বান্দরবান : বান্দরবান বাজারে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তা,অপরাধ দমন ও নিয়ন্ত্রনের উদ্দেশ্যে গুরুত্বপূর্ণস্থানে ৭২ টি সিসি ক্যামরার উদ্বোধন করা হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের বাস্তবায়নে ৩৫লক্ষ টাকা ব্যয়ে বান্দরবান বাজার মসজিদের সামনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফলক উন্মোচন করে এই ৭২টি সিসি ক্যামেরা উদ্বোধন করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। পরে সিসি ক্যামেরা উদ্বোধন শেষে বাজার এলাকায় বান্দরবান ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের আয়োজনে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় প্রধান অতিথি পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন, বান্দরবান বাজারে ব্যবসায়ীদের উদ্যোগে স্থাপিত সিসি ক্যামেরা শুধুমাত্র অপরাধ দমনে নয় বরং বাজারে আগত বিভিন্ন পর্যটকদের নিরাপত্তা রক্ষায় গুরুত্বপূর্ন ভুমিকা রাখবে। মন্ত্রী আরো বলেন,বাজারে বিভিন্ন প্রকৃতির মানুষের আগমন ঘটে, তাই অপরাধীদের সনাক্তকরণে সিসি ক্যামেরা স্থাপন একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ। ইতোমধ্যে বাজার এলাকায় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ৭২টি সি সি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। এসময় প্রধান অতিথি পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি আগামীতে বান্দরবানের নিরাপত্তা রক্ষায় বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড অব্যাহত রাখার আশ্বাস প্রদান করেন। আলোচনা সভায় বান্দরবান ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের সভাপতি মাষ্টার মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিনের সভাপতিত্বে এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি, পুলিশ সুপার জেরিন আখতার, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষীপদ দাশ, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি অমল কান্তি দাশ, পৌরসভার প্যানেল মেয়র সৌরভ দাশ শেখর, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বিন মোহাম্মদ ইয়াছির আরাফাত, ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের সহ-সভাপতি বিমল কান্তি দাশ, ৪নং ওয়ার্ড পৌর কাউন্সিলর মোঃ ওমর ফারুকসহ প্রমুখ।

আমিষের চাহিদা পূরনে মৎস্য চাষের বিকল্প নেই
                                  

দিনাজপুর প্রতিনিধি : জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ-২০২১ এর অনুষ্ঠানে সাংবাদিকবৃন্দের সাথে মতবিনিময় সভাতে জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মুক্তাদির খান বলেন, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়েন মৎস্য চাষ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। আমাদের বেকার সমস্যা সমাধানে যুবকদের সাবলম্বী করে গড়ে তুলেছে। আমিষের অভাব পূরনে মৎস্য অনেক ভূমিকা রেখেছে, যা মেধা বিকাশে চাহিদা পূরন করতে সক্ষম। আমিষের চাহিদা পূরনে মৎস্য চাষের বিকল্প নেই।
তিনি আরও বলেন, সকল পুকুর মাছ চাষের আওতায় আনতে হবে, সময়ের সাপেক্ষে সে কাজটি করতে পারলে আমাদের মৎস্যের চাহিদা পূরণ করে রপ্তানি বাড়াতে সক্ষম হবো। বর্তমানে আমরা মৎস্যের চাহিদা পূরণ করতে সক্ষম হয়েছি। দিনাজপুর অঞ্চলের মৎস্য চাষের ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা হল পুকুরে পানি কম থাকা অর্থাৎ পুকুরে পানি ধরে রাখে না। সেই জন্য কিছু নিয়ম নীতির মাধ্যমে মৎস্য চাষ করলে প্রতিবন্ধীকতা দূর করা যায়। প্রত্যেকটি পুকুর নিবন্ধনের আওতায় আনার প্রকল্পের কাজ চলছে। সেটি সম্ভব হলে চাষিরা মৎস্য চাষের ক্ষেত্রে উন্নয়নের দিকে যাবে। বেশী বেশী মৎস্য উৎপাদনে দেশের চাহিদা পূরন করে বিদেশে রপ্তানিতে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে সক্ষম হবো।
গতকাল শনিবার সকাল ১১ টায় বালুবাড়ী জেলার মৎস্য দপ্তেরর কনফারেন্স রুমে সাংবাদিকগনের সাথে মতবিনিময় সভাতে এসব কথা বলেন।
মতবিনিময় সভাতে উপস্থিত ছিলেন জেলার মৎস্য দপ্তেরর সিনিয়র সহকারি পরিচালক মোঃ ফয়সাল আজম, সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আন্না রানী দাস এবং দিনাজপুরের সাংবাদিকবৃন্দ।

এস কে সিনহার বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ সমাপ্ত, আত্মপক্ষ সমর্থন ২৯ আগস্ট
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : ফারমার্স ব্যাংক থেকে চার কোটি টাকা ঋণ নিয়ে আত্মসাতের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) করা মামলায় সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ সমাপ্ত করেছেন আদালত। আগামী ২৯ আগস্ট আত্মপক্ষ সমর্থনের দিন নির্ধারণ করেছেন। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪-এর বিচারক শেখ নাজমুল আলম এই আদেশ দেন। এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের পরিচালক বেনজীর আহমেদের জেরা শেষ করেন আইনজীবীরা। এর পরে বিচারক আত্মপক্ষ সমর্থনের দিন নির্ধারণ করেন। ২০১৯ সালের ১০ জুলাই দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে দুদক পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন বাদী হয়ে এ মামলা করেন। মামলার অন্য আসামিরা হলেন ফারমার্স ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) এ কে এম শামীম, সাবেক সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট (এসইভিপি) ও সাবেক ক্রেডিট প্রধান গাজী সালাহউদ্দিন, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট স্বপন কুমার রায়, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট সাফিউদ্দিন আসকারী, সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. জিয়াউদ্দিন আহমেদ, ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. লুৎফুল হক, টাঙ্গাইলের বাসিন্দা মো. শাহজাহান, একই এলাকার নিরঞ্জন চন্দ্র সাহা, রণজিৎ চন্দ্র সাহা ও তাঁর স্ত্রী সান্ত্রী রায়। এরপরে ২০১৯ সালের ১০ ডিসেম্বর আদালতে এ মামলার অভিযোগপত্র দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের পরিচালক বেনজীর আহমেদ। এর আগে ওই বছরের ৪ ডিসেম্বর কমিশনের সভায় ১১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র অনুমোদন দেওয়া হয়। মামলার অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, আসামিরা ক্ষমতার অপব্যবহার ও প্রভাব বিস্তার করে অবৈধভাবে ভুয়া ঋণ সৃষ্টির মাধ্যমে বিভিন্ন ব্যাংক হিসাবে স্থানান্তর করে নগদে উত্তোলন ও বিভিন্ন পে-অর্ডারের মাধ্যমে স্থানান্তর করে অর্জিত অপরাধলব্ধ আয় উত্তোলন, স্থানান্তর ও নিজেদের ভোগ-দখলে রেখে অবৈধ প্রকৃতি উৎস অবস্থান গোপন করে পাচার করেছেন বা পাচারের ষড়যন্ত্রে সংঘবদ্ধভাবে সম্পৃক্ত থেকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। ২০১৭ সালের ১৩ অক্টোবর এস কে সিনহা শারীরিক অসুস্থতার কথা বলে ছুটি নিয়ে অস্ট্রেলিয়া যান। এরপর আর তিনি দেশে ফেরেননি।

বেনাপোলে ৭ বস্তা কয়েনসহ পাচারকারী আটক
                                  

বেনাপোল অফিস : বেনাপোল আমড়াখালি চেকপোস্ট থেকে ভারতে পাচারের সময় ৭ বস্তা কয়েনসহ এক মুদ্রা পাচারকারীকে আটক করেছে বিজিবি। ৭ বস্তায় ২ টাকার ও ১ টাকার মোট ৮৩ হাজার কয়েন সহ আবদুর রহমান (৩০) নামে একজনকে আটক করেছে বিজিবি। কয়েনগুলো ভারতে পাচারের জন্য নিয়ে যাচ্ছিলেন বলে সে বিজিবির কাছে স্বীকার করেছেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় আমড়াখালি এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।
আটককৃত আবদুর রহমান বেনাপোল পোর্ট থানার কাগমারী গ্রামের আবুল কালামের ছেলে।
বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)’র যশোর-৪৯ ব্যাটালিয়নের শার্শার আমড়াখালী চেকপোস্টের সুবেদার শাহীন রহমান জানান, গোপন সুত্রে জানতে পারি আব্দুর রহমান নামে এক ব্যক্তি ভারতে পাচারের জন্য বিপুল পরিমান কয়েন নিয়ে নাভারন থেকে ইজিবাইক করে বেনাপোলে আসছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবির তল্লাশি জোরদার করে আমড়াখালি চেকপোস্টে ইজিবাইক টি থামিয়ে ৭টি বস্তায় থাকা ৮৩ হাজার কয়েনসহ আসামিকে আটক করা হয়।
যশোর ৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে, কর্ণেল সেলিম রেজা বলেন, বেনাপোল আমড়াখালি চেকপোস্ট থেকে ৭ বস্তায় ২ টাকার ও ১ টাকার মোট ৮৩ হাজার কয়েন সহ আবদুর রহমান নামে একজন কে আটক করেছে বিজিবি। করোনা কালীন সময়ে মাদক, পাচার, চোরাচালান, অবৈধ অনুপ্রবেশ ঠেকাতে ২৪ ঘন্টা সীমান্তে টহল দিচ্ছে বিজিবি। আটককৃত আসামীর বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

দিনাজপুরে ৯ পৌরসভায় ৪৮ জন ডিলারের মাধ্যমে চলছে ওএমএস কার্যক্রম
                                  

রাজু বিশ্বাস : চলমান লকডাউনে নিম্ন-মধ্যবিত্ত মানুষের আয়ের স্বল্পতার চিন্তা মাথায় রেখে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় দিনাজপুর জেলার ৯টি পৌরসভায় ৪৮ জন ডিলারের মাধ্যমে সপ্তাহে ৬ দিন ৪৮ মেঃ টন চাল ও ৩৪ মেঃ টন স্বাস্থ্য সম্মত আটা নিম্ন ও মধ্যবিত্ত আয়ের জনসাধারণের মাঝে ও এমএস কার্যক্রম চালু করা হয়েছে। গত জুন মাসের ১৫ দিন স্থানীয়ভাবে এবং সারাদেশ ব্যাপী ১ জুলাই থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত লাগাতার লকডাউন এবং বর্তমানে চলমান ৫ আগস্ট পর্যন্ত লকডাউন অব্যাহত রাখার নিদের্শ দিয়েছেন সরকার। ভয়াবহ করোনার ছোবল থেকে জনগনের জীবন বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিদের্শে লকডাউন চলমান রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা জীবন ও জীবিকা দুটোই রক্ষা করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ প্রণোদনার প্যাকেজের অংশ হিসাবে নিম্ন ও মধ্যবিত্ত মানুষের জীবন বাঁচাতে ঘরে ঘরে স্বল্প মূল্যে চাল ও আটা পৌঁছে দেয়ার জন্য এ কার্যক্রম শুরু করছেন দিনাজপুর জেলা খাদ্য বিভাগ। জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মোঃ সাইফুল ইসলাম গত বুধবার বিকেল ৪টায় নিজ কার্যালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংএ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, এ জেলাতেও ৯টি পৌর সভায় নিয়োজিত ৪৮ জন ডিলারের মাধ্যমে সপ্তাহে ৬ দিনে ১ টন করে ৪৮ মেঃ টন চাল ও ৩৪ মেঃ টন আটা নিম্ন আয়ের জন সাধারণের মাধ্যমে বিলি করা হচ্ছে। সপ্তাহে শুক্রবার বাদে শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত এই বিশেষ প্রণোদনা প্যাকেজের চাল ৩০ টা কেজি এবং আটা ১৮টা কেজি দরে বিক্রি কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। তিনি জানান সারা দেশে লকডাউন শুরু হওয়ার পর থেকেই গত ২৫ জুলাই থেকে এ চাল বিক্রি কার্যক্রম শুরু করে আগামী ৫ আগস্ট পর্যন্ত চলমান থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বর্তমানে দিনাজপুর খাদ্য গুদামে ৩৫ হাজার মেঃ টন চাল এবং দেড় হাজার মেঃ টন গম মজুদ রয়েছে। দেশের এই দুর্যোগকালিন সময় দরিদ্র জনগোষ্ঠী ও নিম্ন আয়ের মানুষের মধ্যে ও এমএস’র চাল বিক্রি চলমান রাখা হলে কোন সংকট সৃষ্টি হবে না। এদিকে গতকাল বুধবার দিনাজপুর নিমনগর বাসষ্ট্যান্ডে লাইন ধরে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চাল ক্রয় করা কালীন সময় ৭০ বৎসর বয়সের বৃদ্ধা মালেকা বেগম ও ৭৫ বয়সের বৃদ্ধ ছবের আলী দাবী করেন তাদের মত গরীব মানুষ যাতে ও এমএস’র চাউল দুর্যোগ কালীন সময় ক্রয় করে খেতে পারে এজন্য ওএমএস কার্যক্রম চালু রাখার জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট আবেদন জানান। গত জুন থেকে দিনাজপুরে স্থানীয়ভাবে ১৫ দিন এবং ১ জুলাই থেকে সারাদেশের ন্যায় দিনাজপুরেও কঠোর লকডাউন শুরু হয়েছে। দিনমজুর, রিক্সাচালক, নাপিত, মুচি, ধোপা, দোকান কর্মচারী, শপিংমল কর্মচারী, বাস, ট্রাক, ট্রাক্টর, মিলচাটাল, কলকারখানাসহ নানা প্রতিষ্ঠানের খেটে খাওয়া মানুষ অসহায় হয়ে পড়েছে। অনেকে বেতন পাচ্ছে না আবার অনেকে চাকুরীচ্যুত হয়েছে। দিনাজপুর ড্রাইভ চেইন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানে প্রায় ১শত ৫০ জন শ্রমিক চাকুরীচ্যুত হয়েছে। জেলার বিভিন্ন শিল্পপ্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের চাকুরী থেকে বাদ দেয়া হয়েছে। এ সব পরিবার চরম অভাব অনটন ও চরম অসহায়ত্বের মধ্যে দিন অতিবাহিত করছে। এসব পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় স্বল্প মূল্যে চাল ও আটা বিতরণের ব্যবস্থা করা হয়েছে। দিনাজপুর ড্রাইভ চেইন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের চাকুরীচ্যুত একজন কর্মচারী (নাম প্রকাশ্যের অনিচ্ছুক) এ প্রতিনিধিকে বলেন, চাকুরী হারানোর পর চরম অভাব অনটনের মধ্যে দিন যাপন করছি। বাজার থেকে উচ্চমূল্যে চাল আটা ক্রয় করে সংসার পরিচালনা করা এখন অসম্ভব হয়ে পড়েছে। ঠিক এই মূহুর্তে প্রধানমন্ত্রী বিশেষ প্রণোদনার প্যাকেজের আওতায় স্বল্প মূল্যে চাল ও আটা আমাদের পরিবার পরিচালনার ক্ষেত্রে সহায়ক শক্তি হিসাবে কাজ করবে। কিছুটা হলেও চরম অভাব অনটনের সমস্যা ঘুচবে। তিনি দাবী করেন চাল ও আটার পাশাপাশি অতিপ্রয়োজনীয় তেল, ডাল, চিনি, পিয়াজ এই প্যাকেজের আওতায় দেয়া হোক এটাই হলো আমাদের প্রাণের দাবী। এ দিকে বিশেষ প্রণোদনার প্যাকেজের এই ওএমএসর চাল ও আটা লাইনে দাড়িয়ে অনেক উচ্চ-মধ্যবিত্তদের নিতে দেখা গেছে। এছাড়াও লোকচক্ষুর আড়ালে অনেকেই এই চাল ও আটা সংগ্রহ করছেন। এই প্যাকেজ বাড়ানোর জন্য সর্বমহল থেকে দাবী উঠেছে।

মাদকের বস্তি উচ্ছেদ, সওজের শতকোটি টাকার জমি উদ্ধার
                                  

এ এইচ ইমরান/রবিউল ইসলাম, নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জ এসপি অফিসের পাশে অবস্থিত চাঁনমারী বস্তিটি অবশেষে উচ্ছেদ করা হয়েছে। এতে উদ্ধার হয়েছে সওজের শতকোটি টাকার জমি। বস্তিটি শহরের সবচেয়ে বড় মাদকস্পট হিসেবে পরিচিত ছিলো। বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলমের নেতৃত্বে ভেকু দিয়ে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হয়। দুপুর ১২টায় ঘটনাস্থলে সাংবাদিকদের ব্রিফিং করেন এসপি। এর আগে ৯ মে নারায়ণগঞ্জে জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় চাঁনমারী বস্তি উচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৫ শতাধিক ঘর ছিলো চানমারী বস্তিতে। এখানে শীষ দিয়ে মাদক বিক্রি হতো। প্রশাসনের নাকের ডগায় এ বস্তিটিতে কয়েক যুগ ধরেই মাদক ব্যবসা চলছিলো। প্রায়ই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনীর অভিযানও হতো। তবে শত প্রচেষ্টার পরও রহস্যজনক কারণে বন্ধ করা যায়নি মাদক ব্যবসা। অবশেষে প্রশাসনের জোরালো পদক্ষেপে মাদকের অন্যতম ‘বড় আখড়া’ চানমারী বস্তি উচ্ছেদ হওয়ায় আশপাশের লোকজন স্বস্থি প্রকাশ করেছে। বস্তির বাসিন্দারা জানান, প্রশাসনের কর্মকর্তারা কয়েক দফা এসে বস্তিবাসীকে স্বেচ্ছায় ঘর নিয়ে অন্যত্র চলে যেতে বলেছে। এজন্য মঙ্গলবার বিকেল থেকে বস্তির প্রায় পাঁচ শতাধীক ঘর নিজেরাই সেচ্ছায় ভেঙ্গে অন্যত্র চলে যাচ্ছি। আর মাদক ব্যবসায়ীদের কারনে অনেক অসহায় পরিবারকে বস্তি ছাড়তে হচ্ছে। এ বস্তিতে ঝুট ব্যবসায়ী, দিনমজুর, হকার, টোকাইসহ মাদক ব্যবসায়ীরা বসবাস করতেন। স্থানীয়রা জানায়, ২০১৪ সালে তৎকালীন নারায়ণগঞ্জ সদর ইউএনও গাউছল আযম চাঁদমারী বস্তিটি মাদক মুক্ত করেছিলেন। তিনি অভিযান চালিয়ে শতাধীক মাদক ব্যবসায়ীকে কারাদন্ড দেন। একই সঙ্গে বস্তির হতদরিদ্র পরিবারের শিশু সন্তানদের লেখাপড়ার জন্য স্বপ্নডানা নামে একটি স্কুল প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন। সেই স্কুলে শিশুদের পাশাপাশি বয়স্ক নারী পুরুষদের লেখাপড়ার পাশাপাশি হাতের কাজও শিখানোর কার্যক্রম চালু করে ছিলেন। ইউএনও গাউছুল আযম বদলীর পর সেই স্বপ্নডানার কার্যক্রম থেমে যায় এবং মাদক ব্যবসায়ীরা ফের বস্তি দখল করে প্রকাশ্যে মাদক ব্যবসা শুরু করেন। চাঁদমারী বস্তির একশ গজের কাছে জেলা প্রশাসক, জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়সহ জেলা জজ কোর্ট অবস্থিত। বিগত সময় এ বস্তি থেকে নানা ধরনের অপরাধ পরিচালিত হয়েছে। শীষ দিয়ে প্রকাশ্যে মাদক বিক্রি চলতো।
চুরি, ছিনতাই, ডাকাতি, হত্যাসহ ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনাও ঘটেছে।
বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) বস্তি উচ্ছেদকালে প্রেস ব্রিফিং এ জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম বলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলার চানমারি বস্তি অনেক পুরোন একটি বস্তি। এই বস্তির পাশেই আছে পুলিশ সুপারের কার্যলয়, জেলা প্রশাসকের কার্যলয়, জেলা দায়রা জজ কার্যলয়সহ অনেক গুলো গুরুত্বপূর্ণ কার্যালয়। ইতিপূর্বে আমরা দেখেছি এই বস্তিতে মাদক ব্যবসায়ীদের সাথে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বেশ কয়েকবার সংঘর্ষ হয়েছে। এছাড়া যতবারই এই বস্তি উচ্ছেদ হয়েছে ততবারই কোনো না কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। আমি যোগদানের পর থেকেই নারায়ণগঞ্জবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি, এই বস্তি থেকে মাদক নির্মূল করা বা এই বস্তির অপসারণ করা। এটি সম্পূর্ণভাবে সরকারি জমিতে একটি অবৈধ স্থাপনা। এই স্থাপনাটি উচ্ছেদের জন্য আমরা জেলা পুলিশ থেকে বিভিন্ন পরিকল্পনা গ্রহন করি, এবং সকল শ্রেনী পেশার বিশেষ করে যারা মিডিয়ায় কাজ করছেন। তারা এই বস্তি অপসারণের জন্য সহোযোগীতা করছেন। সেই সুবাদে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ কর্তৃক গত তিনদিন এই উচ্ছেদ অভিযান কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন এবং আজকে বস্তিতে শতভাগ উচ্ছেদ করা হয়েছে। আমাদের সহযোগীতা করার জন্য মিডিয়াকর্মীসহ সকল শ্রেনীপেশার লোকজদের ধন্যবাদ জানাচ্ছি। নারায়ণগঞ্জ গোয়েন্দা সংস্থা ডিবি ও ফতুল্লা পুলিশের নেতৃত্বে বস্তি অপসারণ করা সম্ভব হয়েছে। আপনারা বলেছেন যে, এই ধরণের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করার পর সেটি পুণঃরায় চালু হয়ে যায়। কিন্তু আমরা সড়ক ও জনপদকে বলেছি, তারা এটি উচ্ছেদ করার পরে আর এই স্থাপনা হবে না।
মাদকের বিষয়ে এসপি বলেন, আমরা এখনে বেশ কয়েকটি ঘরে মাদকের আস্তানা ছিলো, আমরা অভিযান করেছি। কয়েকজনকে আটকও করেছি, তাদের বিজ্ঞ আদালতে আমরা সোর্পদ করেছি। আমরা চেষ্টা করছি, আর যাতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে। এখানে মাদক ব্যবসায়ীদের মধ্যে অনেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে বিভিন্নভাবে নিহত হয়েছেন, যারা জীবিত আছেন তাদের বিরুদ্ধে ডজনের উপরে মামলা আছে, আমরা হুশিয়ারি দিয়েছি তাদের আইনের আওতায় আনবো এবং সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিত করবো। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ডিবি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহেদ পারবেজ, ডিএসবির শফিউল আলম সহ অনেকে।

একদিনে করোনায় মৃত্যু ২২৫, শনাক্ত ১১৫৭৮ জন
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে আরও ২২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে দেশে ১১ হাজার ৫৭৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর আগে, গত ১১ জুলাই এ পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ ২৩০ জন মারা গিয়েছিল। শনিবার করোনায় ২০৪ জন, গত পরশু ১৮৭ জন ও তার আগের দিন ২২৬ জন মারা যান। এ পর্যন্ত দেশে ১৭ হাজার ৮৯৪ জন করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। মোট শনাক্ত হয়েছেন ১১ লাখ তিন হাজার ৯৮৯ জন। গত ১২ এপ্রিল দেশে একদিনে সর্বোচ্চ ১৩ হাজার ৭৬৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল। গতকাল রোববার বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে দেওয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।
এতে বলা হয়, শনিবার সকাল ৮টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টায় অ্যান্টিজেন ও আরটি-পিসিআর পদ্ধতিতে ৩৯ হাজার ৮০৬টি নমুনা পরীক্ষা করে আরও ১১ হাজার ৫৭৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২৯ দশমিক শূন্য নয় শতাংশ। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২২৫ জনের মধ্যে ১২৩ জন পুরুষ ও ১০২ জন নারী। বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে তাদের মধ্যে একজনের বয়স ১০ বছরের মধ্যে, তিন জনের বয়স ১১-২০ বছরের মধ্যে, সাত জনের বয়স ২১-৩০ বছরের মধ্যে, ১৬ জনের বয়স ৩১-৪০ বছরের মধ্যে, ৩১ জনের বয়স ৪১-৫০ বছরের মধ্যে, ৫২ জনের বয়স ৫১-৬০ বছরের মধ্যে, ৬৪ জনের বয়স ৬১-৭০ বছরের মধ্যে, ৩৫ জনের বয়স ৭১-৮০ বছরের মধ্যে, ১৩ জনের বয়স ৮১-৯০ বছরের মধ্যে, দুই জনের বয়স ৯১-১০০ বছরের মধ্যে এবং একজনের বয়স ১০০ বছরের বেশি।
গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৬০ জনের মৃত্যু হয়েছে ঢাকা বিভাগে। এরপর খুলনা বিভাগে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। বরিশাল বিভাগে এ সময়ে সবচেয়ে কম নয় জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া, চট্টগ্রাম বিভাগে ৪০ জন, রাজশাহী বিভাগে ২০ জন, রংপুর বিভাগে ১৪ জন, সিলেট বিভাগে ১৪ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ১৪ জন মারা গেছেন।
২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগে সর্বোচ্চ চার হাজার ৮৫৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ ছাড়া, চট্টগ্রাম বিভাগে এক হাজার ৮৬৩ জন, রাজশাহী বিভাগে এক হাজার ৪১ জন, খুলনা বিভাগে ৩৯৪ জন, রংপুর বিভাগে ৮২১ জন, সিলেট বিভাগে ৬৮১ জন, বরিশাল বিভাগে ৬০০ জন ও ময়মনসিংহ বিভাগে ৩৬৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।
একই সময়ে দেশে সুস্থ হয়েছেন আট হাজার ৮৪৫ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন নয় লাখ ৩২ হাজার আট জন।
বিজ্ঞপ্তির তথ্য অনুযায়ী, দেশে এখন পর্যন্ত মোট পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ২২ শতাংশ। মোট শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৮৪ দশমিক ৪২ শতাংশ ও মৃত্যুর হার এক দশমিক ৬২ শতাংশ।


   Page 1 of 37
     নগর-মহানগর
সোনাইমুড়ীতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন
.............................................................................................
মোংলায় ৪৪৪০ বনজীবী পরিবারকে পণ্য সহায়তা কার্যক্রমের উদ্বোধন
.............................................................................................
সম্প্রীতির বাগেরহাট গড়ার প্রত্যয় নিয়ে আন্তঃধর্মীয় আলোচনা
.............................................................................................
ব্রিজের পাটাতন ভেঙে টাঙ্গাইল-আরিচা মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ
.............................................................................................
শিশুদের পদচারণায় মুখর বান্দরবানের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান
.............................................................................................
বিষখালী নদীর ভাঙন ঝুঁকিতে দুই গ্রাম
.............................................................................................
রাসিক উপ-নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে মনোনয়ন জমা
.............................................................................................
বটবৃক্ষের মত সবার পাশে দাঁড়িয়ে থাকুক বান্দরবান প্রেসক্লাব : পার্বত্যমন্ত্রী
.............................................................................................
জোয়ারের পানিতে প্লাবিত পটুয়াখালী শহর
.............................................................................................
বান্দরবান বাজারে নিরাপত্তার লক্ষ্যে সিসি ক্যামেরার উদ্বোধন
.............................................................................................
আমিষের চাহিদা পূরনে মৎস্য চাষের বিকল্প নেই
.............................................................................................
এস কে সিনহার বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ সমাপ্ত, আত্মপক্ষ সমর্থন ২৯ আগস্ট
.............................................................................................
বেনাপোলে ৭ বস্তা কয়েনসহ পাচারকারী আটক
.............................................................................................
দিনাজপুরে ৯ পৌরসভায় ৪৮ জন ডিলারের মাধ্যমে চলছে ওএমএস কার্যক্রম
.............................................................................................
মাদকের বস্তি উচ্ছেদ, সওজের শতকোটি টাকার জমি উদ্ধার
.............................................................................................
একদিনে করোনায় মৃত্যু ২২৫, শনাক্ত ১১৫৭৮ জন
.............................................................................................
প্রাথমিক শিক্ষকদের সংবাদ সম্মেলন
.............................................................................................
দিনাজপুরে খাদ্য সংরক্ষনের কাজ এগিয়ে চলছে এবং তা বাস্তবায়ন করছে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক
.............................................................................................
বিভিন্ন জেলায় এসডিএসের ১৮টি অক্সিজেন সিলিন্ডার বিতরণ
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু সেতুতে দফায় দফায় টোল আদায় বন্ধ; দীর্ঘ যানজট
.............................................................................................
যানজট কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কে
.............................................................................................
করোনার প্রভাবে কন্টেইনার জাহাজ কমেছে মোংলা বন্দরে
.............................................................................................
নাটোর বাগাতিপাড়ায় আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পরিদর্শন করলেন বিভাগীয় কমিশনার
.............................................................................................
কুমারখালীতে মাইটিভির চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকের আম্মার ১৪ তম মৃত্যু বার্ষিকী পালিত
.............................................................................................
সরিষাবাড়ীতে লকডাউন উপেক্ষা করে বসেছে পশুর হাট
.............................................................................................
মোংলায় কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে নৌবাহিনীর টহল
.............................................................................................
নোয়াখালী পুলিশ সুপার সপরিবারে করোনায় আক্রান্ত
.............................................................................................
তিস্তার ভাঙনে হুমকির মুখে ডিমলার কয়েকটি গ্রাম
.............................................................................................
রামগঞ্জ বাস টার্মিনাল সংস্কার অভাবে যাত্রীদের চরম ভোগান্তি
.............................................................................................
কোস্টগার্ড সদর দপ্তরে বৃক্ষরোপণ অভিযান উদ্বোধন
.............................................................................................
সরিষাবাড়ীতে জমিসহ ঘর পেয়ে খুশি ৩২০ গৃহহীন পরিবার
.............................................................................................
শ্রীপুরে মাথা গোঁজার ঠাঁই পেলেন ৪০ গৃহহীন পরিবার
.............................................................................................
গোয়ালন্দে বিষ প্রয়োগে মাছ শিকার
.............................................................................................
ব্যস্ত সময় পার করছেন খামারিরা
.............................................................................................
জকিগঞ্জে ৪টি স্তরে গ্যাস পাওয়ার সম্ভাবনা : বাপেক্স
.............................................................................................
নাটোরে করোনা প্রতিরোধে ব্র্যাকের কর্মসুচি উদ্বোধন
.............................................................................................
রাজশাহীতে হয়রানির শিকার দুই শিক্ষা প্রকৌশলী
.............................................................................................
‘বর্তমান সরকারের আমলে কোন লোকই আশ্রয়হীন থাকবে না’
.............................................................................................
করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের মাঝে বিসিকের প্রণোদনার চেক বিতরণ
.............................................................................................
সোনাইমুড়ীতে শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ
.............................................................................................
কয়েক ঘণ্টার বৃষ্টিতে চট্টগ্রামের বহু এলাকা তলিয়েছে
.............................................................................................
মোংলায় নিয়ন্ত্রণের বাইরে করোনা আরও ৭ দিনের বিধিনিষেধ আরোপ
.............................................................................................
শরীয়তপুরে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী মেলা অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
গাজীপুরে সড়কে জলাবদ্ধতা
.............................................................................................
চুনারুঘাটে প্রয়াত দপ্তরি কুদরতের পরিবারকে মানবিক সহায়তা
.............................................................................................
ইয়াসের প্রভাবে সেন্টমার্টিনের পর্যটক জেটি লণ্ডভণ্ড
.............................................................................................
ঠাকুরগাঁওয়ের মুন্সিরহাটে লিচু বিক্রি জমজমাট
.............................................................................................
দাগনভূঞা পৌরসভার অপরিকল্পিত বর্জ্য ব্যবস্থাপনা
.............................................................................................
শ্রীনগরে নান্নু মিয়া সড়ক গ্রামবাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্নপূরণ
.............................................................................................
কুড়িগ্রামের বিলুপ্ত ছিটমহলে কৃষি সম্ভাবনা প্রর্দশনী ও মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত
.............................................................................................

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মো: রিপন তরফদার নিয়াম
প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক : মফিজুর রহমান রোকন
নির্বাহী সম্পাদক : শাহাদাত হোসেন শাহীন
বাণিজ্যিক কার্যালয় : "রহমানিয়া ইন্টারন্যাশনাল কমপ্লেক্স"
(৬ষ্ঠ তলা), ২৮/১ সি, টয়েনবি সার্কুলার রোড,
মতিঝিল বা/এ ঢাকা-১০০০| জিপিও বক্স নং-৫৪৭, ঢাকা
ফোন নাম্বার : ০২-৪৭১২০৮০৫/৬, ০২-৯৫৮৭৮৫০
মোবাইল : ০১৭০৭-০৮৯৫৫৩, 01731800427
E-mail: dailyganomukti@gmail.com
Website : http://www.dailyganomukti.com
   © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop