ঢাকা,সোমবার,১২ আশ্বিন ১৪২৮,২৭,সেপ্টেম্বর,২০২১ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : > কোস্টগার্ডের অভিযানে ইয়াবা ও গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক   > বাণিজ্য সম্প্রসারণে বৈশ্বিক ভিত্তি বঙ্গবন্ধুর তৈরি করা   > সাবেক প্রতিমন্ত্রী মান্নান ও তাঁর স্ত্রীর বিচার শুরু   > করোনায় শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২১   > প্রধানমন্ত্রী ওয়াশিংটনে অবস্থান করছেন   > একদিনে ৮০ লাখ ডোজ টিকা   > রাজবাড়ীতে জন্ম নিবন্ধন তৈরিতে নাজেহাল সনদ গ্রহিতারা   > গ্রাম ও শহরের মধ্যে পার্থক্য থাকবে না : এমপি নয়ন   > সোনাইমুড়ীতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন   > নন্দীগ্রামে ১৫ বছরেও চালু হয়নি হাসপাতাল  

   জেলা-উপজেলা -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
সরকারের বর্তমান লক্ষ টিকা সংগ্রহ ও জনগণকে দেওয়া: সিনিয়র সচিব আনিছুর রহমান

টিটু দত্ত, শরীয়তপুর প্রতিনিধি : শরীয়তপুর জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সাথে জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ বিভাগ, বিদ্যুৎ জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের এঁর সিনিয়র সচিব আনিছুর রহমান বলেছেন, করোনা প্রতিরোধে আমরা সম্মিলিত ভাবে অনেক কাজ করে আজকে অবস্থানে এসেছি। এখন আমাদের সরকারের লক্ষ হচ্ছে প্রয়োজনীয় টিকা সংগ্রহ করা ও তা জনসাধারণের দেহে প্রয়োগ করা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতারা কন্যা শেখ হাসিনার দুরর্দশিতায় আমরা প্রয়োজনীয টিকা সংগ্রহ করতে সমর্থ হয়েছি। আমাদের টিকা সমস্যা অনেকটা দূর হয়েছে। এখন সবাইকে পর্যক্রমে প্রাপ্ত টিকা দিতে পারলে আল্লাহ রহমতে আমাদের দেশ অনেকটা ঝুঁকিমুক্ত হবে। তিনি ২৫ সেপ্টেম্বর শনিবার শরীয়তপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে দুপুর ১২টায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। তিনি জেলার সড়ক সংস্কার বিষয়টি উল্লেখ করে বলেন, ঢাকা-মাওয়া-কাঠাবাড়ি ও মনোহর বাজার-নরসিংহপুর সড়ক ৪ লেনে উন্নতি করার কাজ চলছে। কাজ চলমান থাকায় সড়কে চলাচল কিছুটা বিঘ্নিত হচ্ছে। কাজ শেষ হলেও আমাদের এ সমস্যা কেটে যাবে। তিনি করোনাকালিন সময়ে জেলা প্রশাসন, পুলিশ বিভাগ, বিশেষ করে স্বাস্থ্য বিভাগ সহ উপজেলা প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও আওয়ামীলীগ সহ অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন, আমরা ঐক্যবদ্ধ ছিলাম বলেই করোনার দ্বিতীয় ঢেউকেও আমরা আমাদের সুযোগ্য প্রধানমন্ত্রীর শক্ত নেতৃত্বে গুনে মোকাবেলা করে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসতে সক্ষম হয়েছি। শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক মোঃ পারভেজ হাসান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন সিভিল সার্জন ডাঃ এস এম আব্দুল্লাহ মুরাদ, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, শরীয়তপুর জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, মোঃ শামীম হোসেন রেজা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ শাখাওয়াত হোসেন, উপপরিচালক স্থানীয় সরকার বিভাগ আবেদা আফসারী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আসমা উল হুসনা লিজা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) এসএম মিজানুর রহমান পিপিএম, শরীয়তপুর পৌরসভা মেয়র পারভেজ রহমান জন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনদীপ ঘরাই, ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর আল নাসীফ। এছাড়া ভার্চুয়ালীযুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন জাজিরা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোবারক আলী সিকদার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান ভূইয়া, গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান ঢালী, ভেদরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ হুমায়ুন কবির মোল্যা ছাড়াও জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন দপ্তর প্রধান, শিক্ষা বিভাগ, জেলা আনসার ভিডিপি সহ বিভিন্ন দপ্তরের প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

সরকারের বর্তমান লক্ষ টিকা সংগ্রহ ও জনগণকে দেওয়া: সিনিয়র সচিব আনিছুর রহমান
                                  

টিটু দত্ত, শরীয়তপুর প্রতিনিধি : শরীয়তপুর জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির সাথে জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ বিভাগ, বিদ্যুৎ জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের এঁর সিনিয়র সচিব আনিছুর রহমান বলেছেন, করোনা প্রতিরোধে আমরা সম্মিলিত ভাবে অনেক কাজ করে আজকে অবস্থানে এসেছি। এখন আমাদের সরকারের লক্ষ হচ্ছে প্রয়োজনীয় টিকা সংগ্রহ করা ও তা জনসাধারণের দেহে প্রয়োগ করা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতির পিতারা কন্যা শেখ হাসিনার দুরর্দশিতায় আমরা প্রয়োজনীয টিকা সংগ্রহ করতে সমর্থ হয়েছি। আমাদের টিকা সমস্যা অনেকটা দূর হয়েছে। এখন সবাইকে পর্যক্রমে প্রাপ্ত টিকা দিতে পারলে আল্লাহ রহমতে আমাদের দেশ অনেকটা ঝুঁকিমুক্ত হবে। তিনি ২৫ সেপ্টেম্বর শনিবার শরীয়তপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে দুপুর ১২টায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। তিনি জেলার সড়ক সংস্কার বিষয়টি উল্লেখ করে বলেন, ঢাকা-মাওয়া-কাঠাবাড়ি ও মনোহর বাজার-নরসিংহপুর সড়ক ৪ লেনে উন্নতি করার কাজ চলছে। কাজ চলমান থাকায় সড়কে চলাচল কিছুটা বিঘ্নিত হচ্ছে। কাজ শেষ হলেও আমাদের এ সমস্যা কেটে যাবে। তিনি করোনাকালিন সময়ে জেলা প্রশাসন, পুলিশ বিভাগ, বিশেষ করে স্বাস্থ্য বিভাগ সহ উপজেলা প্রশাসন, জনপ্রতিনিধি ও আওয়ামীলীগ সহ অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন, আমরা ঐক্যবদ্ধ ছিলাম বলেই করোনার দ্বিতীয় ঢেউকেও আমরা আমাদের সুযোগ্য প্রধানমন্ত্রীর শক্ত নেতৃত্বে গুনে মোকাবেলা করে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসতে সক্ষম হয়েছি। শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক মোঃ পারভেজ হাসান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন সিভিল সার্জন ডাঃ এস এম আব্দুল্লাহ মুরাদ, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, শরীয়তপুর জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, মোঃ শামীম হোসেন রেজা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোঃ শাখাওয়াত হোসেন, উপপরিচালক স্থানীয় সরকার বিভাগ আবেদা আফসারী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আসমা উল হুসনা লিজা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) এসএম মিজানুর রহমান পিপিএম, শরীয়তপুর পৌরসভা মেয়র পারভেজ রহমান জন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনদীপ ঘরাই, ভেদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানভীর আল নাসীফ। এছাড়া ভার্চুয়ালীযুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন জাজিরা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোবারক আলী সিকদার, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান ভূইয়া, গোসাইরহাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান ঢালী, ভেদরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ হুমায়ুন কবির মোল্যা ছাড়াও জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন দপ্তর প্রধান, শিক্ষা বিভাগ, জেলা আনসার ভিডিপি সহ বিভিন্ন দপ্তরের প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

টঙ্গীতে মালবাহী ট্রেনের লাইনচ্যুতিতে যোগাযোগ বিঘ্নিত
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : গাজীপুরের টঙ্গীতে মালবাহী ট্রেনের তিনটি বগি লাইনচ্যুত হয়েছে। এতে ঢাকার সঙ্গে সারাদেশের ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ হয়ে পড়েছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ওই ট্রেনটি লাইনচ্যুত হয়। এ সময় লাইন থেকে একটি বগি তিন নম্বর লাইনে ছিটকে পড়ে। এ ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। টঙ্গী রেলওয়ে ফাঁড়ির ইনচার্জ নূর মোহাম্মদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
এছাড়া, স্টেশন কর্মকর্তা জানান, চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা ঢাকামুখী মালবাহী ট্রেনটি টঙ্গী এলাকায় পৌঁছালে সেটি লাইনচ্যুত হয়। এতে ঢাকার সঙ্গে সারাদেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে পড়ে।
স্টেশন কর্মকর্তা আরও জানান, ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। দ্রুতই ঘটনাস্থলে উদ্ধারকারী ট্রেন পৌঁছাবে। তবে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক করতে একটু সময় লাগবে।

শরীয়তপুরে সাংবাদিকের উপর হামলা
                                  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : শরীয়তপুর পৌর শহরে দোকানে ঢুকে রোকনুজ্জামান পারভেজ (৪০) নামে এক সাংবাদিককে রড দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করা হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পালং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে ওই সাংবাদিকের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে তার ওপর হামলা চালানো হয়। পরে তাকে উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন স্থানীয়রা। আহত রোকনুজ্জামান পারভেজ এটিএন বাংলা, এটিএন নিউজ ও বাংলাদেশ প্রতিদিনের শরীয়তপুর প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছেন। এছাড়া শরীয়তপুর ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। ওই সাংবাদিক এবং প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে রোকনুজ্জামান পারভেজ তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বসে ছিলেন। এসময় ২০/২৫ জন মিলে এক নারীকে রড, লাঠি দিয়ে মারধর করছিল। এক পর্যায়ে তার দোকানে আশ্রয় নেন ওই নারী। তখন ওই সন্ত্রাসীদের দোকান থেকে বের হতে বলেন পারভেজ। ঘটনাটি ভিডিও করার সময় পারভেজকে কিল-ঘুষি ও রড দিয়ে পিটিয়ে জখম করেন তারা। এসময় দোকান থেকে নগদ টাকাও লুট করা হয়। হামলাকারীরা শরীয়তপুর পৌরসভার উত্তর পালং গ্রামের আবুল কাশেম মিয়ার ছেলে নাজমুল মাদবর ও নাঈম মাদবরের অনুসারী বলে অভিযোগ করেন রোকনুজ্জামান পারভেজ। আবুল কাশেম মিয়া বলেন, ‘আমি এই ব্যাপারে কিছু জানিনা। যদি আমার ছেলেরা এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়ে থাকে তবে তাদের বিচার করা হোক। সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. সুমন কুমার পোদ্দার জানান, পারভেজের ঘাড়ে আঘাত করা হয়েছে। আরও কিছু সময় পার না হলে তার সঠিক অবস্থা বলা যাবে না। পালং মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আক্তার হোসেন বলেন, আহত অবস্থায় রোকনুজ্জামান পারভেজকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। শরীয়তপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি অনল কুমার দে হামলাকারীদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।

ঐতিহ্যবাহী দাদনার খাল দখল ও দূষণ তদন্তের নির্দেশ
                                  

শাখাওয়াত হোসেন টিপু, দাগনভূঞা : ফেনীতে পরিবেশ ও বন আদালতের কার্যক্রম চালু হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার আদালতের প্রথম কর্মদিবসে দায়িত্বপ্রাপ্ত সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো. জাকির হোসাইন ফেনীর দাগনভূঁঞার ঐতিহ্যবাহী দাদনার খালের দখল ও দূষণ নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।
আদালত স্বপ্রণোদিত হয়ে ৪ অক্টোবরের মধ্যে এ বিষয়ে ফেনীর পরিবেশ অধিদপ্তরকে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ফেনীর দাগনভূঁঞা বাজারের উপর দিয়ে প্রবাহিত দাদনার খালটি স্থানীয় প্রভাবশালীরা দখল করে দোকানঘর ও বসতবাড়ি তৈরি করে রেখেছেন। এছাড়াও বাজারের কসাইখানার ময়লা আবর্জনায় সবসময় পঁচাগন্ধ আর দূষণে অতিষ্ঠ স্থানীয়রা। বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন সময়ে স্থানীয় ও জাতীয় দৈনিকে প্রতিবেদন প্রকাশ হলেও কার্যত কোন ফলাফল পাওয়া যায়নি। উপজেলা শহর ও আশপাশের এলাকার একমাত্র পানি নিষ্কাষণের এ খালটি দখল ও দূষণের কারণে পানির প্রবাহ কমে যাওয়ায় অল্প বৃষ্টিতেই হাট-বাজার পানিতে তলিয়ে যায়। ৮ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য এবং ২শ বছরের অধিক পুরোনো এ খালটির প্রায় ৩ কিলোমিটার জুড়ে স্থানীয় প্রভাবশালীরা দোকানঘর ও বাসাবাড়ি করে রেখেছে। তাছাড়া দীর্ঘদিন খনন না হওয়ায় গত কয়েকবছর যাবত এটি মৃতপ্রায়। আদালতের একটি সূত্র জানায়, স্থানীয় একটি গণমাধ্যমে খালটির দখল-দূষণ নিয়ে একটি প্রতিবেদন আদালতের দৃষ্টিগোচর হয়।
ফেনীতে পরিবেশ আদালত পৃথকীকরণের ঘোষণার পর প্রথম কর্মদিবসে দাগনভূঁঞার ঐতিহ্যবাহী দাদনার খাল দখল দূষণের সাথে জড়িত সংশ্লিষ্ট আসামিদের চিহ্নিতকরণ ও দাদনার খালের প্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্য রক্ষার উদ্দেশ্যে পরিবেশ আইন অনুযায়ী তদন্ত করে আগামি ৪ অক্টোবরের মধ্যে ফেনীর পরিবেশ অধিদপ্তরকে নির্দেশ দেয়া হয়। এ কাজে সহযোগিতার জন্য দাগনভূঞা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন আদালত। ফেনীস্থ পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিদর্শক ফায়জুল কবির জানান, দাদনার খাল নিয়ে আদালতের নির্দেশনার কথা শুনেছি। নির্দেশনার কপি হাতে পাওয়ার পর তদন্ত কাজ শুরু করা হবে।

নয় বছর ধরে একজন শিক্ষক দ্বারা চলছে প্রাথমিক বিদ্যালয়!
                                  

রাজনগর প্রতিনিধি : নয় বছর ধরে একজন শিক্ষকই কর্মরত আছেন বিদ্যালয়ে। তিনি একাই সামলাচ্ছেন শ্রেণি পাঠদান ও অন্যান্য কার্যক্রম। ২০১২ সাল থেকে শূন্য রয়েছে প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকের দুটি পদ। শিক্ষক কম থাকায় এলাকার অভিভাবকরা বিদ্যালয়ে ছেলেমেয়েদের পাঠাতে আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছেন। এমনিভাবেই চলছে মৌলভীবাজারের রাজনগরের হাওরপাড়ের শাহবাজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। স্কুল খোলার পঞ্চম দিনে ওই বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, একজন শিক্ষক ক্লাস নিচ্ছেন। আর ১৩ জন ছাত্রছাত্রীর মধ্যে উপস্থিত হয়েছে মাত্র দুজন। রুটিন অনুযায়ী আজ শুধু পঞ্চম শ্রেণির ক্লাস ছিল। স্থানীয় অভিভাবকদের অভিযোগ, শিক্ষকদের শূন্যপদ পূরণের বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে একাধিকবার আবেদন করেও লাভ হয়নি। শিক্ষকের অভাবে স্কুলটিতে শিক্ষার্থীর সংখ্যাও কমে গেছে। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আকল আলী বলেন, আমরা উপজেলা শিক্ষা অফিসে অনেক যোগাযোগ করেছি। তারা শুধু আশা দিয়ে রেখেছেন, কোনো শিক্ষক দিতে পারেননি। এতে আমাদের এলাকার কমলমতি ছেলেমেয়েরা শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। স্কুলটির একমাত্র শিক্ষক যোগময় চক্রবর্তী বলেন, আমি অনেক কষ্ট করে প্যারা শিক্ষকের সমন্বয়ে বিদ্যালয়ের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছি। বিদ্যালয়ে মোট ১১১ জন ছাত্রছাত্রী রয়েছে। পঞ্চম শ্রেণিতে ১৩ জন শিক্ষার্থী থাকলেও বৃহস্পতিবার সায়মন ও খাদিজা নামের দুই শিক্ষার্থী ক্লাসে এসেছে।

ফুলতলা-গুনাহার সংযোগ সড়কের বন্ধ থাকা নির্মাণ কাজ শুরু
                                  

মো. এমদাদুল হক, বগুড়া : স্থানীয় সরকার প্রকেীশলী অধিদপ্তর (এলজিইডি) এর তৎপরতায় ফুলতলা-গুনাহার সড়কের বন্ধ থাকা নির্মান কাজ পুনরায় শুরু করা হয়েছে। ফলে এলাকার জনমনে স্তস্তি ফিরে এসেছে। জানা যায় ফুলতলা-গুনাহার সড়কের নির্মাণ কাজের অর্থ বরাদ্দ হয়েছে প্রায় ৩ কোটি টাকা। উল্লেখ্য ওই সড়কের নির্মান কাজ রফিকুল ইসলাম এন্ড সুমন (জেভি) ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান আরম্ভ করেছিল প্রায় ৩ বছর পুর্বে কিন্তু ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান নির্ধারিত সময়ে কাজ সমাপ্ত করতে পারেনি। এতে সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষ ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান কে বারবার তাগিদ দিলেও তারা ব্যর্থ হয়। ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান কাজ প্রাপ্তির পর উক্ত সড়কে ইটের খোয়া ও বালি দিলেও দীর্ঘদিন পরে থাকায় বৃষ্টির পানিতে খোয়া ও বালি উঠে গিয়ে অসংখ্য স্থানে ছোট বড় গর্তে সৃষ্টি হওয়ায় জন চলাচলের অযোগ্য হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করা হলে স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তরের (এলজিইডি) নির্বাহী প্রকৌশলী গোলাম মোর্শেদ রাস্তাটি সরেজমিনে পরিদর্শন পুর্বক ওই সড়কের প্রায় সোয় চার কিলোমিটার সড়কের কাজ পুন:রায় দ্রুত আরম্ভ করার কথা জানান।
এবং ইতোমধ্যে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান কাজ শুরু করেছে। স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তরের (এলজিইডি) দুপচাঁচিয়া উপজেলা প্রকৌশলী মো. রবিউল ইসলাম জানান, জনগনের কষ্টের কথা বিবেচনা করে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান কে বারবার তাগিদ দেওয়া হয়েছে। কাজ পুন:রায় শুরু হওয়ায় আমরা সার্বক্ষণিক দেখা শুনা করছি। আশা করছি দ্রুত কাজ সমাপ্ত হবে। এ ব্যাপারে বগুড়া স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তরের (এলজিইডি) নির্বাহী প্রকৌশলী গোলাম মোর্শেদ এর সাথে কথা বললে তিনি জানান বিগত সালের যে সকল কাজ পেন্ডিং রয়েছে তা দ্রুত সমাপ্ত করার জন্য সংশ্লিষ্ঠ ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান কে বারবার তাগিদ দেওয়া হয়েছে । যে সকল সংশ্লিষ্ঠ ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ করতে ব্যর্থ হবে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

পাথরঘাটায় গভীর নলকূপ থেকে মিলেছে গ্যাসের সন্ধান
                                  

মো. ফিরোজ হোসেন, পাথরঘাটা : বরগুনার পাথরঘাটার সদর ইউনিয়নের রুহিতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠে মাটির ভূগর্ভস্থ থেকে নিরাপদ পানির অনুসন্ধান ও নলকূপ স্থাপন করতে গিয়ে লেয়ার গ্যাসের বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণের পর প্রায় ৩০ থেকে ৪০ ফিট উপরে মাটির উঠে যাচ্ছে। ঘটনার পর থেকে এক কিলোমিটার এলাকা জুড়ে মাটির কম্পন তৈরির পাশাপাশি এলাকায় বিভিন্ন পুকুর থেকেও বুদ বুদ করে গ্যাস বের হতে দেখা যায়। এতে এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে শুক্রবার ঐ স্কুলটি ও আসেপাশের রাস্তাসহ দোকানপাট পাথরঘাটা উপজেলা প্রসাশন বন্ধ করে দেয়। পাশাপাশি চতুর্দিকে বাঁশের বেড়া দিয়ে লাল নিশান টানিয়ে জনসাধারণের প্রবেশ নিষিদ্ধ করে দেয়। এরমধ্যে শনিবার রাত সাড়ে দশটার দিকে স্থানীয়রা নলকূপের পাইপের মাথায় আগুন দিলে তা ধাউ ধাউ করে জ্বলে উঠে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় ইউপি সদস্য খলিলুর রহমান। তিনি জানান, কে বা কারা নলকূপের জন্য ভূগর্ভস্থ থেকে আসা পাইপের মাথায় আগুন ধরিয়ে দেয় এসময় দাউদাউ করে আগুন জ্বলে উপরের দিকে ওঠে। পরবর্তীতে স্থানীয়রাই আবার আগুন নিভিয়ে ফেলে। পাথরঘাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হোসাইন মুহাম্মদ আল-মুজাহিদ জানান, ইতিমধ্যে জ্বালানি মন্ত্রণালয়ে অফিসিয়াল ভাবে অবহিত করা হয়েছে। তারা আসলে পরবর্তী কার্যক্রম জানানো যাবে। তিনি আরো জানান, ঘটনা স্থলের আসেপাশের চতুর্দিকে কোন ধরনের ধার্য পদার্থ নিয়ে প্রবেশ করতে জনসাধারণকে নিষেধ করা হয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানা যায় ইনস্টিটিউট অব ওয়াটার মডেলিং নামের একটি প্রতিষ্ঠান গত তিনদিন ধরে মাটির নিচের একহাজার ফিট পাইপ প্রবেশ করিয়ে নিরাপদ পানির অনুসন্ধান চালায়। এর নেতৃত্ব দেন পানি সম্পদ অধিদপ্তরের অনুসন্ধানী দল। হঠাৎ করে শুক্রবার জুমার নামাজের পর মাটির ভিতরে বিস্ফোরণ হয়।

বৈরি আবহাওয়ায় সাগর উত্তাল, আতঙ্কে কক্সবাজারের পর্যটকরা
                                  

কক্সবাজার প্রতিনিধি : বৈরি আবহাওয়ায় সাগর উত্তাল থাকায় কক্সবাজারে ৩নং স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অফিস। এতে হতাশ হয়েছে কক্সবাজারের পর্যটকরা। সকল ধরনের মাছ ধরার ট্রলার কক্সবাজারের বাঁকখালী ও উপকূলীয় অঞ্চলগুলোতে নিরাপদে আশ্রয় নিয়েছে। সাগর উত্তাল হয়ে উঠায় আনন্দ মাটি হয়েছে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা ভ্রমণপিপাসুদের। তাদের সমুদ্রস্নান কিংবা পানিতে নামার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করছে ট্যুরিস্ট পুলিশ। কক্সবাজার আবহাওয়া অফিসের প্রধান আবহাওয়াবিদ মো. আব্দুর রহমান বলেন, ‘সমুদ্র এখন উত্তাল রয়েছে। ইতোমধ্যে সাগরে থাকা মাছ ধরার ট্রলারগুলোকে কূলে চলে আসতে বলা হয়ছে। পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত সকল ধরনের নৌযানকে উপকূলে নিরাপদ আশ্রয়ে থাকতে বলা হয়েছে।’ এদিকে, সাগরে সতর্ক সংকেত ও দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে কক্সবাজারে বেড়াতে আসা পর্যটকরা আতঙ্কে রয়েছে। কক্সবাজার সমুদ্রেসৈকতে ঘুরে বেড়ানোসহ সমুদ্রস্নান ও আনন্দ মাটি হয়ে গেছে বলে জানান একাধিক পর্যটক। তবে তারা আবহাওয়া অফিসের সতর্ক বার্তা জেনে নিরাপদ আশ্রয়ে রয়েছেন।
কক্সবাজার ট্যুরিস্ট জোনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘কক্সবাজার সমুদ্রে ৩নং সতর্ক সংকেত ঘোষণার পর ট্যুরিস্ট পুলিশ সার্বক্ষণিক সজাগ রয়েছে যেন পর্যটকরা গভীর পানিতে নেমে গোসল কিংবা ওয়াটার বাইক না চালায়। কক্সবাজার ট্যুরিস্ট পুলিশের পক্ষ থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। বৈরি আবহাওয়ায় সাগর উত্তাল থাকার কারণে ট্যুরিস্ট পুলিশের পক্ষ থেকে পর্যটকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত অব্যাহত রয়েছে। যারা সতর্ক সংকেত না মেনে সমুদ্রের পানিতে নামছেন তাদের কূলে তুলে দেয়া হচ্ছে। সমুদ্রের উত্তাল অবস্থা কমে গেলে বা পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের সমুদ্রের পানিতে নামতে দেয়া হবে না।’ পর্যটকদের এই সাময়িক অসুবিধার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন ট্যুরিস্ট পুলিশের এই কর্মকর্তা।

সালথায় ফুল দিয়ে শিক্ষার্থীদের বরণ
                                  

সালথা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি : বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের কারনে ধমকে গেছে পৃথিবী, বন্ধ হয়ে গেছে বহু শিল্প কারখানাসহ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহ। ধীরে ধীরে সব প্রতিষ্ঠান খুললেও বন্ধ ছিল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। অনলাইনে ক্লাস চললেও হাজির হয়ে ক্লাস ছিল বন্ধ। তবে করোনা পরিস্থিতি থেকে কিছুটা স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসলে প্রায় দেড় বছর পর খুলছে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সরকারি বেশ কিছু স্বাস্থ্যবিধি রয়েছে যা মেনে চলতে হবে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে। প্রাণ চঞ্চল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আবারও প্রাণের ছোঁয়া লাগতে যাচ্ছে গতকাল রোববার সকাল থেকেই। প্রায় দেড় বছর পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার জন্য প্রাণ চঞ্চল শিক্ষার্থীদের কে ফুল দিয়ে স্বাগত জানাচ্ছে ফরিদপুরের সালথার ৭৬ টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১৪ টি এবতেদায়ী মাদ্রাসা, ২৬ টি কিন্ডার গার্টেন, ১৫ টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৭ টি আলীয়া মাদ্রাসা, ৩টি কলেজ সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা।সালথা সরকারি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও সালথা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কে ফুল দিয়ে স্বাগত জানানোর জন্য উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা কৃষি অফিসার জীবাংশু দাশ। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, সালথা সরকারি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ মিজানুর রহমান, সহকারী প্রধান শিক্ষক খায়রুল বাসার, সালথা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনজুমান আরা খানম, সহকারী শিক্ষক ও উপজেলা প্রথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাহিদুর রহমান, সালথা প্রেসক্লাবের সহ সভাপতি মাহমুদ আশরাফ টুটু, সাংবাদিক মনির মোল্যা প্রমূখ।কয়েকজন শিক্ষার্থীর সাথে কথা হলে তারা জানায়, অনেক দিন পর স্কুল খোলায় আমাদের ভাল লাগছে। আমরা আবার স্কুলে আসতে পারবো, স্যারও অনেক ভাল আমাদের ফুল দিলেন। আমরা স্যারদের কথা মত চলে প্রতিদিন স্কুলে আসবো।

লইস্কা বিলের সেই রুটে চলাচলে কোনো নৌকারই নেই পারমিট
                                  

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরে নৌকাডুবিতে ২৩ জন নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার পাঁচজন আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। জবানবন্দিতে ওই নৌপথের ইজারাদার মিষ্ঠু মিয়া আদালতে জানিয়েছেন, এ নৌপথের কোনো নৌকার রুট পারমিট নেই। রুট পারমিট নিলে বয়া, লাইফ জ্যাকেট কিনে নৌকায় রাখতে হয়। রুট পারমিটের সঙ্গে বয়া-লাইফ জ্যাকেট থাকলে মানুষ মারা যেতো না। পাঁচ আসামির জবানবন্দি দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মির্জা মো. হাসান। তিনি জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আনোয়ার সাদাত গত রোববার বিকেলে পাঁচ আসামির জবানবন্দি গ্রহণ করেন। প্রতি বছর বৈশাখ-জ্যৈষ্ঠ মাসে নিলাম ডেকে উপজেলার চম্পকনগর-আনন্দবাজার নৌপথের চম্পকনগর ঘাট এক বছরের জন্য ইজারা দেওয়া হয়। এ বছর দুই লাখ ১০ হাজার টাকার ডাক ওঠে। নৌকা ঘাটের ডাকের টাকা মসজিদে খরচ করা হয়। প্রায় আট বছর ধরে এই ঘাটের ইজারা পাচ্ছেন মিষ্ঠু মিয়া। ওই ঘাট থেকে তার একটি যাত্রীবাহী নৌকাও চলাচল করে। চম্পকনগর ঘাট থেকে আনন্দবাজার ঘাট পর্যন্ত প্রতিদিন ১৪টি ইঞ্জিনচালিত যাত্রীবাহী নৌকা চলাচল করে। নৌকাডুবির ঘটনায় গ্রেফতার মিষ্ঠু মিয়া আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে বলেন, এই নৌপথে সরকারের কোনো অনুমতি নেই। দুর্ঘটনা কবলিত যাত্রীবাহী নৌকার মালিক ও দুর্ঘটনার সময় যারা নৌকা চালাচ্ছিলেন তাদের নাম-ঠিকানাও জানান মিষ্ঠু মিয়া। গ্রেফতার হওয়া বালুবোঝাই ট্রলারের দুই মাঝি, সহযোগী ও মালিকরা তাদের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে বলেছেন, যাত্রীবাহী নৌকাটি দ্রুতগতিতে যাচ্ছিল। নৌকাডুবির ঘটনার পরদিন বিজয়নগরের চম্পকনগরের সেলিম মিয়া নামে এক ভুক্তভোগী সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। পরে এ মামলায় ধাক্কা দেওয়া বালুবাহী বাল্কহেডের মাঝি, তার দুই সহযোগী, বাল্কহেডের মালিক ও চম্পকনগর নৌঘাটের ইজারাদারকে গ্রেফতার করে পুলিশ। বাকি দুজনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা যায়। গত ২৭ আগস্ট বিকেল সোয়া ৫টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার লইস্কা বিলে বালুবোঝাই ট্রলারের ধাক্কায় নৌকাটি ডুবে যায়।

চরম দুর্ভোগে হাজারো মানুষ
                                  

অলক কুমার টাঙ্গাইল : সুখ সইলো না টাঙ্গাইলের ধনবাড়ি উপজেলার পাইস্কা ইউনিয়নের ২০ হাজার গ্রামবাসীর। মাত্র তিন বছরে ভেঙে পড়লো দীর্ঘদিন দাবির প্রেক্ষিতে পাওয়া বৈরাণ নদীর ওপর নির্মিত ব্রিজটি। গত শুক্রবার সকালে ব্রিজটি ভেঙে পড়ায় দুর্ভোগে পড়েছেন স্থানীয়রা। খবর পেয়ে ভেঙেপড়া ব্রিজ এলাকা পরিদর্শন করেছেন উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা।
এর আগে গত সোমবার ব্রিজটির নিচের গার্ডার ও পাটাতনে ফাটল ধরে দেবে যায়। স্থানীয়রা জানান, ওই ব্রিজ দিয়ে চলচাল করতেন পাইস্কা ইউনিয়নের প্রায় ২০ হাজার মানুষ। ব্রিজটি ভেঙে পড়ায় ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে তাদের। নানা অনিয়মের মধ্যেই তিন বছর আগে ব্রিজটি নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছিল। তবে ঠিকাদার প্রভাবশালী হওয়ায় স্থানীয়রা অনিয়মের প্রতিবাদ করতে সাহস পাননি। এছাড়াও ব্রিজ নির্মাণের পরপরই ব্রিজ সংলগ্ন স্থান থেকে অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলন শুরু হয়। যার কারণে গত সোমবার ব্রিজটি মাঝখানে দেবে যায়। ফলে নিচের গার্ডার ও পাটাতনে ফাটল ধরে। নির্মাণের কিছুদিন পর থেকেই রেলিং ভাঙতে শুরু করে। স্থানীয় বাসিন্দা মিলন মিয়া, সাইফুল ইসলাম, তোতা মিয়া ও রফিকুল ইসলাম বলেন, শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে ব্রিজটির মাঝখানে ভেঙে নদীতে পড়ে যায়। তিন বছরের ব্যবধানে ব্রিজটি ভেঙে পড়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন তারা। পাইস্কা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৫নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আবদুল মজিদ বলেন, বৈরাণ নদীর দুই পাড়ের বেশ কয়েকটি গ্রামের জনসাধারণ ও যান ব্রিজ দিয়ে চলাচল করে। ব্রিজটি ভেঙে পড়ায় কয়েক হাজার মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন হয়ে পরেছে। পাইস্কা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান আরিফ বজলু বলেন, ব্রিজটি হঠাৎ ভেঙে পড়ায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে পড়েছে।
এতে জনসাধারণ চরম সমস্যায় পড়েছেন। বিকল্প কোনো ব্যবস্থা নেয়া যায় কি না সেটা ভাবছি আমরা। ধনবাড়ী উপজেলা প্রকৌশলী জয়নাল আবেদীন সাগর বলেন, ব্রিজটি পুরাতন হয়ে গিয়েছিল। গত ২০১৩-১৪ অর্থ বছরে এডিবির সাড়ে চারলাখ টাকায় ফুট ব্রিজটি নির্মিত হয়েছিল। এছাড়াও ব্রিজটির পাশ থেকে অপরিকল্পিতভাবে বালু উত্তোলনের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে ভেঙে পড়েছে। এ বিষয়ে ধনবাড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সামিউল হক বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। দ্রুত সময়ের মধ্যে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশ সরকারের উন্নয়নে প্রাণিসম্পদ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলছে
                                  

রাজু বিশ্বাস, দিনাজপুর : দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকী বলেছেন বাংলাদেশ সরকারের উন্নয়নে প্রানি সম্পদ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলছে। দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে প্রাণিসম্পদের প্রয়োজন। আমাদের দেহের এবং মেধা বিকাশের জন্য আমিষ খাদ্যের বিকল্প নেই। তা পূরন করতে হলে প্রাণিসম্পদের উন্নয়ন ঘটাতে হবে। বেকারত্বের থলি থেকে যুবকদের বেরিয়ে আসার জন্য, কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে হাঁস, মুরগী ও পশু পালন চাষে উদ্বুদ্ধকরণে এবং যারা আগামী দিনে খামার করতে ইচ্ছুক তাদেরকে উৎসাহিত করতে এই প্রর্দশনীর আয়োজন। খামারিদের উন্নত প্রশিক্ষন দিয়ে দক্ষ করে গড়ে তুলতে পারলে প্রানিসম্পদের উন্নয়নের বিকাশ ঘটবে। বর্তমানে আমাদের দেশ মাংস ও ডিমের চাহিদা পূরণে স্বয়ংসম্পূর্ণ। সরকার ডেইরি ফার্মের খামারিদের আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের যাবতীয় উপকরণ সরবরাহ করে আসছে। করোনাকালীন খামারিদের সহায়তার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অনুদান দিয়েছেন। তারই নেতৃত্বে দেশ আজ উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে। ২০৪১ সালের মধ্যে আমরা একটি উন্নত দেশ হিসেবে বিশ্বের দরবারে পরিচিতি লাভ করব।
২১ আগস্ট শনিবার উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে উপজেলা প্রাণিসম্পদ দপ্তর ও ভেটেরিনারি হাসপাতাল এর বাস্তবায়নে এবং প্রানি সম্পদ ও ডেইরী উন্নয়ণ প্রকল্প (এলডিডিপি) প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর মৎস ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রনালয়ের সহযোগিতায় দিনব্যাপী প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী-২০২১ এর উদ্বোধন করতে গিয়ে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথাগুলো বলেন। উপজেলা নিবার্হী অফিসার মতুর্জা আল-মুঈদ এর সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রানি সম্পদ কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোঃ আলতাফ হোসেন ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইমদাদ সরকার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুর রহিম। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত প্রাণিসম্পদ অফিসার ড. আশিকা আকবর তৃষা ও ডেইরী এসোসিয়েশন দিনাজপুরের প্রেসিডেন্ট শেখ নাসিম আলী কচি। উদ্বোধনের বক্তব্য শেষে প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকীসহ অতিথিবৃন্দের অংশগ্রহনে বেলুন ও ফেস্টুন উড়িয়ে প্রর্দশনীর উদ্বোধন করেন। এরপর প্রদর্শনীতে দেয়া খামারিদের বিভিন্নমুখী প্রায় ৪৪ টি স্টল হাঁস-মুরগী, গরু-ছাগল,বিলেতি কুকুর,উটপাখি,কচ্ছপ পরিদর্শন করেন।

রংপুরে জাতীয় শোক দিবসে বিচার বিভাগের শ্রদ্ধা নিবেদন ও এতিমদের মাঝে খাদ্য বিতরণ
                                  

রংপুর প্রতিনিধি : ১৫ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গ মাতা শেখ ফজিলাতুননেছা সহ ১৫ ই আগষ্ট-এ শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন ও শোক র‍্যালী বের করেন রংপুরবিচার বিভাগ। শোক র‍্যালী শহীদ মিনারে উপস্থিত হয়ে শহীদদের প্রতি ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ শাহেনুর, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক যাবিদ হোসেন, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মোঃ রোকনুজ্জামান, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক মোঃ আলী আহাম্মেদ, সাইবার অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনাল এর বিচারক মোঃ আব্দুল মজিদ, মানব পাচার ট্রাইব্যুনাল এর বিচারক মোঃ মুজিবুর রহমান, সন্ত্রাস দমন ট্রাইব্যুনাল এর বিচারক মোছাঃ ইশরাত জাহান, চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শওকত আলী, মেট্রো পলিটন ম্যাজিস্ট্রেট এফ.এম আহসানুল হক, অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আরিফা ইয়াছমিন মুক্তা, সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দেলোয়ার হোসেন, ফজলে এলাহী খাঁন, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম এবং জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সোয়েবুর রহমান, দেবাংশু কুমার সরকার, আল-মেহবুব, কে.এম হাফিজুর রহমান ও যুগ্ন জেলা জজ ২য় আদালতের বিচারক সাদিয়া সুলতানা, যুগ্ন জেলা জজ ৩য় আদালতের বিচারক স্নিগ্ধা রানী সরকার, বিচারক জুলফিকার উল্লাহ, রংপুর আইনজীবি সমিতির সভাপতি আব্দুল মালেক ও সাধারন সম্পাদক আব্দুল হক। সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ শাহেনুর-এর সভাপতিত্বে শহীদদের রুহের মাগফেরাতের জন্য এক ভার্চুয়াল আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া শেষে সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজশাহেনুর-এর নির্দেশক্রমে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দেলোয়ার হোসেন এর নেতৃত্বে কেরামতিয়া এতিমখানা, সাতগাড়া এতিমখানা, আল-আমিন এতিমখানা, কেরানীরহাট শরীফিয়া দারুল উলুম এতিমখানার এতিমদের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণ করেন। এতিমদের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণে সহযোগীতা করেন,চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের হিসাব রক্ষক খাইরুল হোসেন, জুডিশিয়াল পেশকার মোস্তাফিজার রহমান, প্রধান তুলনাকারক মাহফুজার রহমান চৌধুরী ও নাজির মোঃ মশিয়ার রহমান।

শরীয়তপুরে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নানা কর্মসূচি
                                  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : স্বাধীনতার মহান স্থপতি ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালনের জন্য নানা কর্মসূচি গ্রহণ করে শরীয়তপুর জেলা প্রশাসন। গতকাল রোববার (১৫ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮টায় জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কার্যালয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, অর্ধনমিতকরণ, মুক্তিযুদ্ধের কালোব্যাজ ধারণ করা হয় এবং সকাল ৯টায় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনের আম্রকাননে বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল চত্তরে কালোব্যাজ ধারণ ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করা হয়। পরে গাছের চারা রোপণের মাধ্যমে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি উদ্বোধন করা হয়। এছাড়া শিশুদের জন্য আয়োজিত চিত্রাঙ্কন ও রচনা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়, করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত পল্লী উদ্যোক্তাদের মাঝে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের ব্যবস্থাপনায় প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় এসএমই ঋণের চেক বিতরণ করা হয় এবং কর্মহীন শ্রমজীবী যেমন ডোম, গোর খোদক, বংশীবাদক, ঢুলী এবং তবলাবাদক ৫০ জন মানুষের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা কার্যক্রমের আওতায় নগদ অর্থ বিতরণ করেন শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক মো. পারভেজ হাসান। এছাড়া সকালে পুলিশ প্রশাসন, জেলা আওয়ামী লীগ ও তার সহযোগী সংগঠন, সরকারি-বেসরকারি ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাগণ বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। দুপুরে জেলার সরকারি হাসপাতাল, সরকারি শিশু পরিবার ও কারাগারে উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হয়। এসময় পুলিশ সুপার এস.এম. আশরাফুজ্জামান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছাবেদুর রহমান খোকা সিকদার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. সাখাওয়াত হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, শরীয়তপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস সামাদ তালুকদার, শরীয়তপুর পৌরসভার মেয়র পারভেজ রহমান জনসহ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, জেলার বিভিন্ন দফতরের কর্মকর্তাবৃন্দ ও অন্যান্য সুধীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ঘরে ঘরে খাদ্য পৌঁছে দিলেন জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার
                                  

পঞ্চগড় প্রতিনিধি : দেশে একজন মানুষও গৃহহীন হয়ে থাকবে না। প্রধানমন্ত্রীর এমন ঘোষনার বাস্তবায়নে পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারী উপজেলায় ভূমি ও গৃহহীন অসহায় মানুষের মাঝে ক ক্যাটাগরিতে মোট ১৯০ টি আধা পাকা ঘর বরাদ্দ দেওয়া হয়। শনিবার (১৭ জুলাই) দুপুরে এসব নির্মানাধীন হস্তান্তরকৃত ঘর পরিদর্শন ও আশ্রয়ণ প্রকল্পে বসবাসকৃত করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দুঃস্থ অসহায়দের প্রধানমন্ত্রীর উপহার খাদ্য সামগ্রী প্রত্যেকের ঘরে ঘরে তুলে দেন জেলা প্রশাসক মোঃ জহুরুল ইসলাম। উপজেলার ধামোর ইউনিয়নের শিকটিহাড়ি গ্রামে আশ্রয়ণ প্রকল্পের নির্মানাধীন ঘরের পরিদর্শন ও খাদ্য পণ্য সামগ্রী তুলে দেওয়া হয় । এছারাও তিনি উপকার ভোগী অসহায় গরীব অসচ্ছল পরিবারের সার্বিক বিষয়ে খোঁজ খবর নেন এবং ভূমি ও গৃহহীনদের ঘর বাড়ি উপহার দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া কামনা করেন। এ সময় পঞ্চগড় জেলা পুলিশ সুপার মোঃ ইউসুফ আলী, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ তৌহিদুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু তাহের মোঃ শামসুজ্জামান, আটোয়ারী থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইজার উদ্দীন, ভাইস চেয়ারম্যান রেনু একরাম, বারঘাটি তদন্ত কেন্দ্রের আইসি মোঃ রন্জু আহমে ধামোর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ নজরুল ইসলাম দুলাল ও সংবাদকর্মী উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য যে, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে সারা দেশের ন্যায় আটোয়ারীতেও ভূমি ও গৃহহীন মানুষের মাঝে ১৯০ টি আধা পাকা ঘর বরাদ্দ দেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী দ্বারা উদ্ভোধনকৃত ২য় পর্যায়ে ১৪৫ জনকে উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক এই ঘর প্রদান করা হয়। বর্তমান ১৪৫ টি ঘরের দলিল পত্র প্রদান ও বাকি ৪৫ টি ঘরের কার্যক্রম এখনো প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে নিশ্চিত করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবু তাহের মোঃ শামসুজ্জামান।

নোয়াখালীতে করোনার অর্ধেক রোগীই দুই উপজেলায়
                                  

নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালীর নয় উপজেলায় করোনা আক্রান্ত মোট রোগীর সংখ্যা ১৩ হাজার ৩৩৬ জন। আর এর অর্ধেকের বেশি রোগীই সদর ও বেগমগঞ্জ উপজেলার।
এ দুই উপজেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা সাত হাজার ৫২৮ জন। এর মধ্যে সদর উপজেলায় চার হাজার ৯১৮ জন ও বেগমগঞ্জ উপজেলায় দুই হাজার ৬১০ জন।
অন্য সাত উপজেলা মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা পাঁচ হাজার ৮০৮ জন। এর মধ্যে, সুবর্ণচরে ৫২৮ জন, হাতিয়ায় ২০৬ জন, সোনাইমুড়ীতে ৯১৪ জন, চাটখিলে ৬৮২ জন, সেনবাগে ৭৭১ জন, কোম্পানীগঞ্জে এক হাজার ৪৬৪ জন এবং কবিরহাটে এক হাজার ২৪৩ জন। গত বুধবার রাতে জেলা সিভিল সার্জন অফিস থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে। এতে আরও বলা হয়েছে, জেলার সদর ও বেগমগঞ্জে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যাও জেলার মোট মৃতের অর্ধেকের বেশি। জেলায় ১৬০ জনের মধ্যে এই দুই উপজেলাতেই মারা গেছেন ৮৫ জন। এর মধ্যে সদরে ২৯ জন ও বেগমগঞ্জে ৫৬ জন। অন্যান্য উপজেলার মধ্যে সূবর্ণচরে পাঁচজন, সোনাইমুড়ীতে নয়জন, চাটখিলে ১৬ জন, সেনবাগে ২০ জন, কোম্পানীগঞ্জে চারজন ও কবিরহাটে ২১ জন মারা গেছেন। এদিকে জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ১৯৭ জনের। ৬২৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় এ ফলাফল পাওয়া গেছে। শনাক্তের হার ৩১ দশমিক ৬২ শতাংশ। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে নোয়াখালী সদরে ৫৬ জন, সূবর্ণচরে পাঁচজন, হাতিয়ায় সাতজন, বেগমগঞ্জে ১৩ জন, সোনাইমুড়ীতে ৩৩ জন, চাটখিলে ২১ জন, সেনবাগে ১৯ জন, কোম্পানীগঞ্জে ২৭ জন ও কবিরহাটের ১৬ জন রয়েছে। এদিকে জেলায় মোট আক্রান্তের হার ১২ দশমিক ৬৮ শতাংশ। বর্তমানে আইসোলেশনে আছে পাঁচ হাজার ১৭ জন। এর মধ্যে, কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালে (শহীদ ভুলু স্টেডিয়াম) ভর্তি আছেন ৮৩ জন।


   Page 1 of 20
     জেলা-উপজেলা
সরকারের বর্তমান লক্ষ টিকা সংগ্রহ ও জনগণকে দেওয়া: সিনিয়র সচিব আনিছুর রহমান
.............................................................................................
টঙ্গীতে মালবাহী ট্রেনের লাইনচ্যুতিতে যোগাযোগ বিঘ্নিত
.............................................................................................
শরীয়তপুরে সাংবাদিকের উপর হামলা
.............................................................................................
ঐতিহ্যবাহী দাদনার খাল দখল ও দূষণ তদন্তের নির্দেশ
.............................................................................................
নয় বছর ধরে একজন শিক্ষক দ্বারা চলছে প্রাথমিক বিদ্যালয়!
.............................................................................................
ফুলতলা-গুনাহার সংযোগ সড়কের বন্ধ থাকা নির্মাণ কাজ শুরু
.............................................................................................
পাথরঘাটায় গভীর নলকূপ থেকে মিলেছে গ্যাসের সন্ধান
.............................................................................................
বৈরি আবহাওয়ায় সাগর উত্তাল, আতঙ্কে কক্সবাজারের পর্যটকরা
.............................................................................................
সালথায় ফুল দিয়ে শিক্ষার্থীদের বরণ
.............................................................................................
লইস্কা বিলের সেই রুটে চলাচলে কোনো নৌকারই নেই পারমিট
.............................................................................................
চরম দুর্ভোগে হাজারো মানুষ
.............................................................................................
বাংলাদেশ সরকারের উন্নয়নে প্রাণিসম্পদ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলছে
.............................................................................................
রংপুরে জাতীয় শোক দিবসে বিচার বিভাগের শ্রদ্ধা নিবেদন ও এতিমদের মাঝে খাদ্য বিতরণ
.............................................................................................
শরীয়তপুরে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নানা কর্মসূচি
.............................................................................................
ঘরে ঘরে খাদ্য পৌঁছে দিলেন জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার
.............................................................................................
নোয়াখালীতে করোনার অর্ধেক রোগীই দুই উপজেলায়
.............................................................................................
ঈদুল আজহা উপলক্ষে চাল বিতরণ
.............................................................................................
মির্জাগঞ্জে দুই হাজার গরু প্রস্তুত, বিক্রি নিয়ে চিন্তিত খামারিরা
.............................................................................................
বৃষ্টিতেই ধসে পড়লো ‘মুজিববর্ষের ঘর’
.............................................................................................
বান্দরবানে লকডাউন বাস্তবায়নে ভ্রাম্যমান আদালত
.............................................................................................
কঠোর লকডাউন উপেক্ষা করে গ্রাম্য হাটবাজারে উপচেপড়া ভিড়
.............................................................................................
লকডাউনে বিপাকে স্বল্প পুঁজির ব্যবসায়ীরা
.............................................................................................
ভারী বর্ষণে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত
.............................................................................................
বান্দরবানে সহায়তা ও মাসিক কল্যাণ ভাতা প্রদান
.............................................................................................
তীব্র যানজট নিরসনে রামগঞ্জ থানা পুলিশের অভিযান
.............................................................................................
ক্ষতির মুখে কচু চাষি বাবু মিয়া
.............................................................................................
সখীপুরে আমন ধানের বীজতলা তৈরিতে ব্যস্ত চাষীরা
.............................................................................................
সোনাইমুড়ীতে বঙ্গবন্ধু ভিলেজের শুভ উদ্বোধন
.............................................................................................
রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় চিরনিদ্রায় শায়িত বীর মুক্তিযোদ্ধা কামরুল মনির
.............................................................................................
গোমস্তাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে অক্সিজেন সিলিন্ডার দিলেন বুয়েট অ্যালামনাই
.............................................................................................
ঠাকুরগাঁওয়ে অদম্য মাল্টিপারপাস হলের উদ্বোধন
.............................................................................................
মুক্তিযোদ্ধাদের গণকবর ও যুদ্ধে নিহতদের স্মৃতিচিহ্ন
.............................................................................................
কুমারখালীতে ভূমি সেবা সপ্তাহ পালিত
.............................................................................................
মুকসুদপুরে পনেরো ইউনিয়ন আ’লীগের কমিটি ঘোষণা
.............................................................................................
রায়পুর পৌর মেয়র কাউন্সিলরদের শপথ গ্রহণ
.............................................................................................
কুমারখালীতে মৎস্য চাষ প্রদর্শনী খামারে উপকরণ বিতরণ
.............................................................................................
শ্রীপুরে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে মাগুরা ইয়ুথ এসেম্বলির বৃক্ষরোপন কর্মসূচী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
কোম্পানীগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেলো মামা-ভাগিনার
.............................................................................................
ডামুড্যায় দুস্থ মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ
.............................................................................................
ট্রাফিক পুলিশ বক্স রক্ষার দাবি জাজিরাবাসীর
.............................................................................................
মাগুরা নবাগত ইউএনওকে ফুলেল শুভেচ্ছা
.............................................................................................
ইয়াসের প্রভাবে ভোলায় বিভিন্ন অঞ্চল প্লাবিত
.............................................................................................
রামগঞ্জে ব্রীকফিল্ডের দেয়াল ধ্বসে ৩ শ্রমিকের মৃত্যু
.............................................................................................
মোংলায় ঘূর্ণিঝড় ইয়াসর প্রভাবে বাড়ছে নদীর পানি
.............................................................................................
পঞ্চগড়ে দূরপাল্লার পরিবহন শ্রমিকদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ
.............................................................................................
দিনাজপুরে দেশের বৃহত্তম লিচুর বাজার উদ্বোধন
.............................................................................................
ফুলবাড়ীতে নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে চলছে সড়কের কাজ
.............................................................................................
সাংবাদিক রোজিনার মুক্তির দাবিতে রামগঞ্জ প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ সভা
.............................................................................................
প্রতিবন্ধী আকলিমার পাশে দাঁড়ালেন মেয়র ছানোয়ার হোসেন
.............................................................................................
রাণীশংকৈলে ৩দিন ব্যাপি করোনা প্রতিরোধ প্রচারণা
.............................................................................................

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মো: রিপন তরফদার নিয়াম
প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক : মফিজুর রহমান রোকন
নির্বাহী সম্পাদক : শাহাদাত হোসেন শাহীন
বাণিজ্যিক কার্যালয় : "রহমানিয়া ইন্টারন্যাশনাল কমপ্লেক্স"
(৬ষ্ঠ তলা), ২৮/১ সি, টয়েনবি সার্কুলার রোড,
মতিঝিল বা/এ ঢাকা-১০০০| জিপিও বক্স নং-৫৪৭, ঢাকা
ফোন নাম্বার : ০২-৪৭১২০৮০৫/৬, ০২-৯৫৮৭৮৫০
মোবাইল : ০১৭০৭-০৮৯৫৫৩, 01731800427
E-mail: dailyganomukti@gmail.com
Website : http://www.dailyganomukti.com
   © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop