ঢাকা,মঙ্গলবার,১৩ মাঘ ১৪২৭,২৬,জানুয়ারী,২০২১ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : > এসএসসির পাঠ্যসূচি কমিয়ে সিলেবাস প্রকাশ   > কুয়াশায় মাওয়ায় বিধ্বস্ত ৭ গাড়ী, আহত অনেকে   > রিমান্ডে পিকে হালদারের তিন সহযোগী   > আসামী কারাগারে, সদরঘাট থেকে লঞ্চ চলাচল বন্ধ   > করোনায় একদিনে ১৮ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৬০২   > দেশে এখন ৭০ লাখ ভ্যাকসিন   > প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেলো ভূমিহীন পরিবাররা   > কুড়িগ্রামে পৌর মেয়র কাজিউল ইসলামের দায়িত্ব গ্রহণ   > টাঙ্গাইল সরকারি জমি উদ্ধার   > চুনারুঘাট-বাল্লা সড়কের বেহাল দশা  

   জেলা-উপজেলা -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
কুড়িগ্রামে পৌর মেয়র কাজিউল ইসলামের দায়িত্ব গ্রহণ

শ্যামল ভৌমিক, কুড়িগ্রাম : কুড়িগ্রাম পৌরসভার নব নির্বাচিত পৌর মেয়র কাজিউল ইসলামসহ পৌর পরিষদ দায়িত্ব গ্রহণ করেছে। গতকাল রোববার দুপুরে কুড়িগ্রাম পৌরসভা চত্বরে নব নির্বাচিত মেয়র কাউন্সিলরদের পৌরবাসী ও পৌরসভার পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। পরে বিদায়ী মেয়র আব্দুল জলিল নব নির্বাচিত মেয়র কাজিউল ইসলামের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করেন। এসময় পৌর সচিব রেজাউল করিম, নির্বাহী প্রকৌশলী কামাল হোসেন পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ পৌর এলাকার সুধীজন ও আওয়ামী লীগের জেলা ও পৌর নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। দায়িত্ব গ্রহণ করে নব নির্বাচিত মেয়র কাজিউল ইসলাম বলেন, আমাদের নতুন পরিষদের প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে নাগরিক সেবার মান বাড়ানো। দ্রুততম সময়ের মধ্যে বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা রাস্তা-ঘাট নির্মাণ ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নকরণ।
তিনি পৌর কর্মচারীদের উদ্দেশ্যে বলেন, পৌর কর্মচারীদের কোন দুর্নীতি বরদাস্ত করা হবে না। পরে নব নির্বাচিত পৌর মেয়র ও কাউন্সিলররা জেলা পরিষদ চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণকরে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

কুড়িগ্রামে পৌর মেয়র কাজিউল ইসলামের দায়িত্ব গ্রহণ
                                  

শ্যামল ভৌমিক, কুড়িগ্রাম : কুড়িগ্রাম পৌরসভার নব নির্বাচিত পৌর মেয়র কাজিউল ইসলামসহ পৌর পরিষদ দায়িত্ব গ্রহণ করেছে। গতকাল রোববার দুপুরে কুড়িগ্রাম পৌরসভা চত্বরে নব নির্বাচিত মেয়র কাউন্সিলরদের পৌরবাসী ও পৌরসভার পক্ষ থেকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। পরে বিদায়ী মেয়র আব্দুল জলিল নব নির্বাচিত মেয়র কাজিউল ইসলামের কাছে দায়িত্ব হস্তান্তর করেন। এসময় পৌর সচিব রেজাউল করিম, নির্বাহী প্রকৌশলী কামাল হোসেন পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ পৌর এলাকার সুধীজন ও আওয়ামী লীগের জেলা ও পৌর নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। দায়িত্ব গ্রহণ করে নব নির্বাচিত মেয়র কাজিউল ইসলাম বলেন, আমাদের নতুন পরিষদের প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে নাগরিক সেবার মান বাড়ানো। দ্রুততম সময়ের মধ্যে বিশুদ্ধ পানির ব্যবস্থা রাস্তা-ঘাট নির্মাণ ও ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নকরণ।
তিনি পৌর কর্মচারীদের উদ্দেশ্যে বলেন, পৌর কর্মচারীদের কোন দুর্নীতি বরদাস্ত করা হবে না। পরে নব নির্বাচিত পৌর মেয়র ও কাউন্সিলররা জেলা পরিষদ চত্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণকরে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

ফুলবাড়ীতে সার্কাস শিল্পীদের দূর্দিন, স্বপ্ন বুনছেন বিজয় মেলাকে ঘিরে
                                  

তানভীর হোসাইন রাজু, ফুলবাড়ী (কুড়িগ্রাম) : কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার বড়ভিটা মহাবিদ্যালয় মাঠে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হবে বিজয় মেলা। মেলায় প্রধান আকর্ষণ আবহমান বাংলার সুস্থধারার বিনোদন মাধ্যম সার্কাস। বড়ভিটায় মেলা আয়োজনকে কেন্দ্র করে আশায় বুক বাঁধছে দীর্ঘদিন মানবেতর জীবনযাপন করা সার্কাস শিল্পীরা। কথা হয় দি ইলেভেন স্টার সার্কাসের দীর্ঘদিনের সারথি নলনি কান্ত, জসিম ও শহিদুলের সাথে। তারা বলেন, বাপ দাদার আমল থেকে আমরা সার্কাসের সাথে যুক্ত। সার্কাসে খেলা দেখিয়ে চলে আমাদের জীবন জীবিকা। দীর্ঘদিন সার্কাস বন্ধ থাকায় আমরা দুর্বিসহ জীবনযাপন করছি। এদিকে মহামারী করোনা পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন হতে বিনোদন বঞ্চিত উপজেলাবাসীর মধ্যে বিজয় মেলা আয়োজনের খবরে উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গেছে। সব বয়সের ও শ্রেণি পেশার মানুষ সার্কাস উপভোগের প্রহর গুনছেন। উপজেলার বিভিন্ন হাট বাজারে চায়ের দোকানে প্রবীণরা শোনাচ্ছেন ঐতিহ্যবাহী সার্কাসের সোনালী অতীতের গল্প। বড়ভিটা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও মেলার পৃষ্ঠপোষক বেলাল হোসেন প্রামানিক বলেন, উন্নয়নের পাশাপাশি মানুষের বিনোদনের ক্ষেত্রেও বর্তমান সরকার যথেষ্ট আন্তরিক। তারই অংশ হিসেবে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সৌজন্যে আমরা বিজয় মেলার আয়োজন করেছি। দি ইলেভেন স্টার সার্কাসের স্বত্বাধিকারী জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ঐতিহ্যবাহী ও গণমানুষের বিনোদনের খোরাক মেটানোর অন্যতম মাধ্যম সার্কাস বর্তমানে বিলীনের পথে। বৈরী আবহাওয়া, বিভিন্ন পরীক্ষা ও রমজান মাস বাদ দিয়ে বছরে সার্কাস প্রদর্শনের জন্য সময় পাই মাত্র দু`মাস।এ দু`মাসেও পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে আমাদের হাত গুটিয়ে বসে থাকতে হয়। ফলে নিজের সর্বস্ব খুইয়েও আমরা দুবেলা-দুমুঠো খাবার জোগাতে পারিনা। সার্কাসের পিছনে সর্বস্ব বিনিয়োগের ফলে আমরা অন্য পেশাতেও যেতে পারছিনা। সার্কাস টিকিয়ে রাখতে নেই সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা ও ব্যাংক লোনের সুবিধা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আমরা আপনার কাছে অনুদান চাইনা, চাই সুস্থধারার বিনোদনের জনপ্রিয় মাধ্যমসার্কাস আয়োজনের অনুমতি, সার্কাস আয়োজনে সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা। আমাদের দিকে একটু মানবতার নজরে তাকান। আমরা আর পারছি না। বড়ভিটা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান খয়বর আলী মিয়া বলেন, মানুষের মধ্যে সাংস্কৃতিক চর্চা আজ বিলীনের পথে। ফলে বাড়ছে অপরাধ প্রবণতা। সুস্থ সংস্কৃতির ধারাকে ফিরিয়ে আনতে আমরা বিজয় মেলার আয়োজন করেছি। যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিজয় মেলায় সকলের অংশগ্রহণ ও সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেন তিনি।

মাগুরায় ইটভাটা মালিকদের আহাজারি
                                  

ফারুক আহমেদ, মাগুরা : পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছাড়া ইট প্রস্তুত ও ভাটা নিয়ন্ত্রণ আইন অমান্য করে ভাটা পরিচালনা করার অপরাধে মাগুরা সদর উপজেলা ও শ্রীপুর উপজেলায় ৮ টি ইটভাটা গুড়িয়ে দিয়েছে ভাম্যমাণ আদালত। গত সোমবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বাংলাদেশ পরিবেশ অধিদপ্তরের খুলনা কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট মাশরুবা ফেরদৌসী সুফিয়া ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। গুড়িয়ে ফেলা ভাটাগুলো হলো- শ্রীপুর উপজেলার রায়নগর এলাকার আবু জাফর পরিচালিত গড়াই ব্রিকস্, নাকোল এলাকার হুমাউনুর রশিদ মুহিতের টপটেন ভাটা ,মহেশপুর এলাকার লিটু শেখের জিয়া ব্রিকস্ , সারঙ্গদিয়া এলাকার মুশফিকুর রহমান কাননের হামিম ব্রিকস্, মাগুরা সদর এর পুকুরিয়া এলাকার মির রওনক হোসেন চেয়ারম্যানের এইচ এন ডি ব্রিকস্,বাগবারিয়া এলাকার সুমনের এমএস ব্রিকস্, সোহেলের ইটভাটা, সহসকল ইট ভাটার কাচা ইট গুলো ভেঙে গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে সেইসাথে চিমনি গুলোও ভেংগে দেওয়া হয়েছে। গড়াই ব্রিকসের মালিক আবু জাফর বলেন, আমাদের ভাটায় ২০ লক্ষ কাচা ইট ভেঙে গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে। মোট আনুমানিক প্রায় দুই কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। এতে আমরা অর্থনৈতিকভাবে পঙ্গু হয়ে গেলাম এবং নিঃস্ব হয়ে গেছি। অথচ সরকারের রাজস্ব খাতে প্রতিনিয়ত ভ্যাট ও ট্যাক্স দিয়ে আসছি। এভাবে প্রত্যেকটি ইটভাটায় ১ থেকে ২ কোটি টাকার মধ্যে অর্থনৈতিক ক্ষতি হয়েছে। বাংলাদেশ পরিবেশ অধিদপ্তরের খুলনা কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট মাশরুবা ফেরদৌসী সুফিয়া বলেন, আদালতের নির্দেশে আমরা অবৈধ্য ইটভাটার বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করছি। এর আগে আমরা জরিমানা করেছি, আদালতে মামলা করেছি আদালত থেকে আমাদেরকে ইটভাটাগুলো ভেঙে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে। পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র ছাড়া যতগুলো ইটভাটা রয়েছে প্রত্যেক ভাটায় অভিযান পরিচালনা করা হবে। বাংলাদেশ পরিবেশ অধিদপ্তরের খুলনা কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যজিস্ট্রেট মাশরুবা ফেরদৌসী বলেন, ভাটায় স্থায়ী ভাবে চিমনি করে যারা ভাটার কার্যক্রম চালিয়ে আসছে তাদের বিরুদ্ধে এই অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। যে সব ভাটায় স্থায়ী চিমনি ব্যবহার না করে হাওয়ার মাধ্যমে ইট তৈরির কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে তাদের প্রাথমিক ভাবে জরিমাণা করা হচ্ছে। ২০১২ সালের পরিবেশ দূষণকারী সনাতন পদ্ধতীর ফিক্সড চিমনি ইটভাটা নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

কমলগঞ্জে দ্বিতীয় বার নির্বাচিত মেয়র জুয়েল
                                  

অঞ্জন প্রসাদ রায় চৌধুরী, কমলগঞ্জ : মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে ২৪৫১ ভোটের ব্যবধানে ২য় বারের মতো বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী জুয়েল আহমেদ। আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. জুয়েল আহমদ নৌকা পেয়েছেন ৫ হাজার ২৫৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দি আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র প্রার্থী) মো. হেলাল মিয়া (জগ) ২ হাজার ৮০৬ ভোট। এছাড়া আওয়ামীলীগের আরেক বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র প্রার্থী) মো. আনোয়ার হোসেন (নারিকেল গাছ) পেয়েছেন ২ হাজার ৭৮৭ ভোট ও বিএনপির প্রার্থী মোহাম্মদ আবুল হোসেন (ধানের শীষ) পেয়েছেন ৩০১ ভোট। গত শনিবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কমলগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার। শনিবার সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ২য় ধাপে কমলগঞ্জ পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। তবে নির্বাচনে কোন প্রকার বিশৃঙ্খল ঘটনা ঘটেনি। কমলগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে ৯টি ওয়ার্ডের ৯টি কেন্দ্রে ১৩ হাজার ৯০৫ জন ভোটারের মধ্যে ১১ হাজার ২১০ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। বাতিল হয় ৫৯টি ভোট। এখানে মেয়র পদে ৪ জন, কাউন্সিলর পদে ৩১ জন ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করেন। কমলগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে ১নং ওয়ার্ডে দেওয়ান আব্দুর রহিম মুহিন, ২নং ওয়ার্ডে সৈয়দ জামাল হোসেন, ৩নং ওয়ার্ডে আনসার শোকরানা মান্না, ৪নং জসিম উদ্দিন সাকিল, ৫নং ওয়ার্ডে মো: ছাদ আলী, ৬নং ওয়ার্ডে রফিকুল ইসলাম রুহেল, ৭নং ওয়ার্ডে গোলাম মুগ্নি মুহিত, ৮নং ওয়ার্ডে আহাদুর রহমান বুলু, ৯নং ওয়ার্ডে বখতিয়ার খান। এছাড়া সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ডে মুসলিমা বেগম, ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডে আয়েশা সিদ্দিকা এবং ৭, ৮ ও ৯নং ওয়ার্ডে শাপলা আক্তার নির্বাচিত হন। কড়া নিরাপত্তার মধ্যে দিয়ে শনিবার সকার ৮টা থেকে কমলগঞ্জ পৌরসভার ৯টি কেন্দ্রে বিরতিহীনভাবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ হয়। কোন প্রকার বিশৃঙ্খল ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবে ভোট গ্রহণ হয়েছে। উপস্থিতির দিকে নারী ভোটারদের সংখ্যা ছিল বেশি।

মুকসুদপুরে মঙ্গল হত্যার বিচারের দাবিতে ঝাড়ু– মিছিল
                                  

ফকির মিরাজ আলী শেখ, গোপালগঞ্জ : গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে কাঁচামাল ব্যবসায়ী মঙ্গল সরদার হত্যাকারীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও ঝাড়ু– মিছিল করেছে বনগ্রাম জলিরপাড় এলাকাবাসী। গত শুক্রবার সকালে উপজেলার জলিরপাড় বাজারে এ মানববন্ধন ও ঝাড়ু– মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধনে নিহতের স্বজনরাসহ এলাকার ৩শতাধিক নারী-পুৃরুষ অংশগ্রহন করে। মানববন্ধন চলাকালে ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক শেখ হারুনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন ইউপি চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মিনা, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শেখ মজিবুর রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও সমাজ সেবক শেখ রনি আহম্মেদ, জলিরপাড় ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক বিপ্লব মজুমদার, নিহতের স্ত্রী উর্মিলা সরদার, বাজার কমিটির সাধারন সম্পাদক সুমন শেখ স্বপন, ডাক্তার অশোক মন্ডল, খলিলুর রহমান শেখ প্রমুখ। এসময় নিহত মঙ্গল সরদারের মেয়েরা ও স্বজনরা কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন এবং পিতৃ হত্যাকারিদের বিচারের দাবী জানান। উল্লেখ্য, গত ১২ই সেপ্টেম্বর রাজৈর ও মুকসুদপুর উপজেলার সীমান্তে মুকসুদপুর উপজেলার উপজেলার দক্ষিন জলিড়পাড়ের পুর্ব মাঠে ফাকা জায়গা কমোদ বাগচির ধান ক্ষেত থেকে হাত- পা বাধা অবস্থায় মঙ্গল সরদারের লাশ উদ্ধার করে সিন্দিয়াঘাট ফাঁড়ির পুলিশ। এ ঘটনায় ১৩ সেপ্টেম্বর ভাতিজা দুলাল সরদার বাদী হয়ে মুকসুদপুর থানায় মামলা করে।

সখিপুরে ১২ শতাধিক অসহায় পরিবারের মাঝে কম্বল বিতরণ
                                  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : পানি সম্পদ উপমন্ত্রী ও আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম এমপি’র নির্দেশে শরীয়তপুরের সখিপুর থানার আরশিনগর ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের অসহায় ও দুস্তদের প্রায় ১২০০ পরিবারকে কম্বল বিতরণ করেছেন আরশিনগর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যান সম্পাদক আরিফুর রহমান (আরিফ) বেপারী। গত কয়েকদিন ধরেই আরশিনগরের সকল ওয়ার্ডে গিয়ে কম্বল বিতরণ করছেন তিনি। এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন, সখিপুর থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও ভেদরগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব হুমায়ুন কবির মোল্যা। এসময় উপস্থিত ছিলেন, সখিপুর থানা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক স্বপন সিকদার, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক ও কাঁচিকাটা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন দেওয়ান প্রমূখ। এসময় স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এর আগেও করোনাকালে এই ইউনিয়নের অসহায়দের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে তাদের পাশে থেকেছেন আরিফ বেপারী। পাশাপাশি ঈদ সহ বিভিন্ন উৎসবে অসহায়দের পাশে দাঁড়ান তিনি।

মুন্সীগঞ্জে সাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণের সমাপ্তি
                                  

রুবেল মাদবর, মুন্সীগঞ্জ : মুন্সীগঞ্জে সাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ সম্পন্ন হয়েছে। প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ কর্তৃক আয়োজিত মুন্সীগঞ্জ জেলা সার্কিট হাউসে গতকাল সমাপনি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। টানা তৃতীয় দিনের প্রশিক্ষণে শেষ দিনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এর সমাপ্তি ঘোষনা করা হয়। সমাপনী অনুষ্ঠানে সকল সাংবাদিকদের সনদ প্রদান করা হয়। মুন্সীগঞ্জ জেলার সাংবাদিকগনের হাতে অতিথিবৃন্দ বেশ জমকালো ও মনোরঞ্জন পরিবেশে সনদ প্রদান করেন।
উক্ত অনুষ্ঠানে মুন্সীগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এড সোহানা তাহমিনার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ মহিউদ্দিন। সভাপ্রধান হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহাপরিচালক প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ, (পিআইবি) মো. জাফর ওয়াজেদ। প্রেস ইনস্টিটিউটের সিনিয়র ট্রেইনার, পারভিন এস রাব্বি, মফস্বল ইনচার্জ দৈনিক জনকন্ঠ মীর লিয়াকত আলী, সিনিয়র এডিটর চ্যানেল আই মীর মাসরুর জামান, সহকারী অধ্যাপক জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় মিনহাজ উদ্দিন, সিনিয়র এডিটর বাংলাভিশন রুহুল আমিন রুমদ প্রমূখ।

তিতাস গ্যাসের অবৈধ সংযোগ একজনের কারাদণ্ড
                                  

গাজীপুর প্রতিনিধি : গাজীপুরে অবৈধ গ্যাস সংযোগ ও ব্যবহারের দায়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত একজনকে কারাদন্ড দিয়েছে। এসময় আদালত প্রায় এক হাজার অবৈধ আবাসিক সংযোগ বিচ্ছিন্ন ও গ্যাস লাইন অপসারন করে। গত বুধবার দিনব্যাপী গাজীপুরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনীষা আহম্মেদ এর নেতৃত্বে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়। তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লিমিটেড গাজীপুর আঞ্চলিক অফিসের ব্যবস্থাপক সুরুজ আলম এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিতাসের ব্যবস্থাপক সুরুজ আলম জানান, গাজীপুর সদর উপজেলার বাঘের বাজার, বানিয়ারচালা ও শিরিরচালা এলাকার কিছু অসাধু ব্যাক্তিবর্গ বাসা বাড়ী ও বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অবৈধ গ্যাস লাইন সংযোগ দিয়ে গ্যাস ব্যবহার করছে। গোপন সংবাদ পেয়ে গাজীপুরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনীষা আহম্মেদের নেতৃত্বে এবং গাজীপুর তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন এন্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লিমিটেডের উদ্যোগে দিনব্যাপী ওইসব এলাকার বিভিন্ন পয়েন্টে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় অবৈধ গ্যাস সংযোগ প্রদান করার দায়ে স্থানীয় হযরত আলী হিরাকে ৭ দিন বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়। অভিযানকালে প্রায় ৫শ’টি বসত বাড়ির প্রায় এক হাজার অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন ও আড়াই কিলোমিটার পাইপ লাইনের সংযোগ বিচ্ছিন্ন ও অপসারণ করা হয়। ওই কর্মকর্তা জানান, অভিযানকালে চুলাসহ বিভিন্ন ব্যাসার্ধের পাইপ, রাইজার ও অবৈধ সংযোগে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জামাদি জব্দ করা হয়।

ফুলবাড়িতে লেপ তোষক তৈরিতে ব্যাস্ত কারিগররা
                                  

ফুলবাড়ি (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের ফুলবাড়িতে লেপ তোষক তৈরিতে ব্যাস্ত সময় পার করছে কারিগররা। তুলা বাজারে শুরু হয়েছে তুলার বেচা-কেনা আর লেপ তৈরির ধুম। গংগারহাটের লেপ সেলাই কারিগর মালেক (৫০) জানান, লেপ তোষক সেলাইয়ের কাজ করি। একজন কর্মচারী খাটাচ্ছি। সব খরচ বাদ দিয়ে ৭০হাজার টাকা শীত মৌসুমে আয় হয়। লেপ তৈরি করতে আসা রোস্তম বলেন, বাড়িতে যে লেপ আছে তা দিয়ে বড়দের চাহিদা পুরন হয়েছে। এখন ছোট বাচ্চাদের জন্য ২টা লেপ বানাচ্ছি। তুলা ব্যাবসায়ী রাকিব জানান, এখন শীতের কাজ পুরোদমে শুরু হয়েছে। আমার দোকানে আঙ্গুরী,উল,কাপাস,শিমুল জাতের তুলা রয়েছে।
ফুলবাড়ি বাজার মার্কেটে লেপ কিনতে আসা রুমী আক্তারের সাথে কথা হয়,তিনি জানান, আমি মার্কেটে আসছি ভালমানের লেপ কিনতে। কয়েকটি দোকানে ঘুরেছি, লেপ আছে পছন্দও হচ্ছে তবে দামটা একটু বেশি চাচ্ছে দোকানিরা। ফুলবাড়ি সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ জানান, ফুলবাড়িতে পুরোদমে লেপ তোষক তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। প্রতি বছরের ন্যায় এবারো শীতার্তদের মাঝে লেপ,কম্বল বিতরন করা হবে।

কুড়িগ্রামে শীতবস্ত্র বিতরণ
                                  

শ্যামল ভৌমিক, কুড়িগ্রাম : কুড়িগ্রামে শীতার্ত অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছে মুনলাইট ডেভলপমেন্ট সোসাইটি বগুড়া। উইকেয়ারের সহযোগীতায় এসব শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। গত সোমবার জেলার রাজারহাট উপজেলার ছিনাই ইউনিয়নের রামরতন এলাকায় শীতকষ্টে ভোগা অর্ধশতাধিক অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র হিসেবে কম্বল বিতরণ করা হয়। বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক কুড়িগ্রাম খবরের সম্পাদক এসএম ছানালাল বকসী। এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক বাদশাহ্ সৈকত, স্থানীয় সমাজকর্মী শ্রী বাবলু সরকারসহ অন্যান্যরা। এসময় প্রধান অতিথি এসএম ছানালাল বকসী বলেন, কুড়িগ্রাম একটি অবহেলিত জেলা। এখানকার বেশিরভাগ মানুষ হত দরিদ্র। বগুড়ার মুনলাইট ডেভলপমেন্ট সোসাইটির মত অন্যান্য সংগঠনগুলো যদি জেলার অসহায় মানুষদের প্রতি সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিত তাহলে তারা কিছুটা হলেও শীতকষ্ট থেকে মুক্তি পেত। কম্বল পাওয়া মানুষেরা জানান, তাদের শীতবস্ত্র কেনার সামর্থ নেই। এবার এই কম্বলে তারা শীত নিবারণ করতে পারবেন।

ভীর বাড়ছে গরম কাপরের দোকানে
                                  

আতিয়ার রহমান, রাজবাড়ী : এবার পৌষের শুরুতেই কনকনে শীত পরতে শুরু করেছে। ভরা শীতের হিমেল হাওয়া আর কুয়াশার কারনে জনজীবনে নেমে এসেছে থমথমে অবস্থা। অতি মাত্রায় শীত নিবারনে নিম্ন, মধ্যবিত্ত থেকে শুরু করে সব শ্রেনীর মানুষ শীত নিবারনের জন্যে ভির করছেন রাজবাড়ী রেলওয়ে মার্কেট নামে পরিচিত পুরাতন কাপর বাজারে। শীত নিবারনের জন্য সাধ্যের মধ্যে শীতের পোষাক কিনতে প্রতিদিনই ভির করছেন ক্রেতারা। রাজবাড়ী রেলওয়ে ১ নং থেকে ২ নং গেট পর্যন্ত স্থানে সাধারন মানুষের নাগালের মধ্যে শীতের পোষাকের বাজার ইতমধ্যে পুরোদমে জমে উঠেছে। নতুন ও মার্কেট থেকে অর্ধের্কেও কম দামে বিভিন্ন ধরনের পুরুষ মহিলা, বাচ্চা ও বয়স্কদেও বিদেশি ও দেশী পোষাক পাওয়া যায় বলে এখানে সবসময় ক্রেতাদের ভির লেগেই থাকে। সকাল থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত অল্প দামে ভালো শীতের পোষক পাওয়া যায় এখানে। অগ্রহায়ন,পৗষ ও মাঘ ও ফাল্গুন এ চার মাস মাসই পুরোদমে শীতের পোষাক বিক্রি হয়। এর পাশাপাশি কিছু নতুন পোষাকের দোকান নিয়ে বসেন বিক্রেতারা। পরিত্যক্ত ও খোলা রেলের এ স্থানে ক্রেতা ও বিক্রেতাদের সকসময় সমাগম থাকে। পৌষ মাস ,তাই পুরোপুরি হাড় কাপানো শীত এখন জন জীবন লেগেছে শীতের কাপন। তবে শীতের প্রকোপ জানান দিচ্ছে গ্রামাঞ্চলে সাধারন নিম্ন ও মধ্যবিত্ত খেটে খাওয়া মানুষ কি কষ্টে দিন যাপন করছে। তাই নতুন গরম পোষাক কেনা সাধ্যের মধ্যে না থাকায় অল্প দামে শীতের পোষাক কিনছেন রাজবাড়ীর এ রেলওয়ে পুরাতন কাপর বাজার থেকে। অল্প টাকায় গ্রামাঞ্চলের দরিদ্র ,মধ্যবিত্ত ও সামর্থবান সকলেই তাদের শীত নিবারনের জন্যে প্রতিদিন ভীর জমাচ্ছেন রাজবাড়ী রেলওয়ে পুরাতন কাপড় বাজারে। কিনছেন পরিবারের ছোট ,বড় সবার জন্যে শীতের পেষাক। ক্রেতারা বলেন -রেলের এ পুরাতন কাপড় বাজারে প্রতিবছরই শীতবস্ত্র কিনতে আসেন তারা। এখানে অল্প দামে ভালো মানের শীতের পোষাক পাওয়া যায় তাই তারা নতুন মার্কেট থেকে বেশি দামে না কিনে পুরাতন এ বাজার থেকেই কিনছেন। কেউ কেউ আবার সস্তায় ভালো মানের পুরাতন কাপর কিনতে এসেছেন এই বাজারে। অল্প দামে দেশি বিদেশী বিভিন্ন ধরনের শীতের পেষাক পাওয়া যায় বলে এখানে আসেন প্রতি বছর। অনেকে পছন্দের পোষাকটি ঘুরে দেখছেন কিনবেন বলে।
বিকেতা-বিক্রেতারা বলছেন, শীত পরার কারনে বেচাকেনা মোটামুটি ভালই হচ্ছে তাদের। নতুন কাপরের চাইতে পুরাতন কাপড় অর্ধেকেরও কমদামে পাওয়া যায় বলে এখানে তারা সমসময় আসেন। শীতের পোষাকের মধ্যে বিভিন্ন দেশের তৈরী জ্যাকেট,ব্রেজার, চাদর,বাচ্চাদের শীতের নানা ধরনের পোষাক বিক্রি হয়। সাধ্যের মধ্যে ভালো পোষাকটি পাওয়া যায় বলে তারা জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে কিনতে আসছেন। তবে প্রতিটি পোষাক ধরন ও মান অনুযায়ী ২০ টাকা থেকে ৫০০, ৭০০ ও হাজার টাকার মধ্যে পাওয়া যায় এ বাজারে। তবে প্রতিটি পুরাতন কাপরের গাইড তারা ক্রয় করেন ১০ হাজার থেকে ৩০ হাজার টাকার মধ্যে। বেচা বিক্রি ভালো হচ্ছে তবে শীত আরো বেশি পরলে বেচা বিক্রিও বেশি হবে বলে জানান তারা।

শরীয়তপুরে মেগা ইভেন্ট উদ্বোধন
                                  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : পরিচ্ছন্ন বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ নিয়ে শরীয়তপুরে মেগা ইভেন্ট করলো বিডিক্লিন।
গত বৃহষ্পতিবার শরীয়তপুরের আংগারিয়া বাজার সংলগ্ন শরীয়তপুর-মাদারীপুর মহাসড়ক ও জলস্বপ্ন রেস্টুরেন্টের আশেপাশে জমে থাকা ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযান অনুষ্ঠিত হয়। এই অভিযানে শরীয়তপুর জেলার সকল উপজেলা টিমের প্রায় শতাধিক মেম্বার অংশগ্রহণ করে। এ সময় মহাসড়কের আশে পাশে জমে থাকা ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করা হয়, এবং সেখানে একটি ফুলের বাগান করা হবে। এই পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন অভিযান উদ্বোধন ও শপথ বাক্য পাঠ করান শরীয়তপুর জেলার পুলিশ সুপার জনাব এস. এম. আশরাফুজ্জামান। এ সময় পুলিশ সুপার বলেন, আমরা যদি সকলে সচেতন হই এবং যার যার অবস্থান থেকে নিজ নিজ এলাকা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখি, তাহলে সকলেই এসকল জনকল্যানমূলক কাজে অংশগ্রহন করবে। তাহলেই আমাদের দেশকে আমরা পরিবেশ দূষণ থেকে মুক্ত রাখতে পারবো এবং সকলে সুস্থ্য থাকতে পারবো। এছাড়াও বিডিক্লিন শরীয়তপুরের পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম চলমান রাখতে জেলা পুলিশের পক্ষ হতে সার্বিকভাবে সাহায্য প্রদান করবেন বলে জানান পুলিশ সুপার। শরীয়তপুর জেলার বিডিক্লিন সমন্বয়ক এ্যাড. মো. মাসুদুর রহমান বলেন, শরীয়তপুর বিডিক্লিন ময়লার বিরুদ্ধে কাজ করে যাচ্ছে, আমরা যেখানে সেখানে ময়লা ফেলবো না, এবং অপরকে না ফেলার জন্য উৎসাহিত করব। পুরানো বছরকে বিদায় জানাতে আমরা আজকে এখানে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করেছি এবং আগামীকাল নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে এখানে একটি ফুলের বাগান করব।। আমাদের এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে এবং ইনশাআল্লাহ আমরা একদিন শরীয়তপুর জেলাকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন জেলা হিসেবে গড়ে তুলতে পারবো। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন জনাব ডা. মনিরুল ইসলাম, জনাব আসলাম উদ্দিন, অফিসার ইনচার্জ, পালং মডেল থানা, মো. জামাল হোসেন মীর, পুলিশ পরিদর্শক, আসমা আক্তার,জনাব এ্যাড. তাজুল ইসলাম, মো. আনোয়ার হাওলাদার, চেয়ারম্যান, আংগারিয়া ইউনিয়ন পরিষদ, বিডিক্লিন শরীয়তপুরের আই টি সনিয়া আক্তার, সমন্বয়ক রাশেল মির্জা, উপ সমন্বয়ক (জাজিরা) আব্দুল মোতালেব সুমন, উপ সমন্বয়ক (নড়িয়া) রিদিতা রহমান, লজিস্টিক ইশিতা আফরিন, আব্দুর রাজ্জাক ওবায়দুল্লা, ওহিদুল ইসলাম সহ আরো অনেকেই।

গুরুদাসপুর হাসপাতাল চত্বর থেকে চুরি যাওয়া শিশু উদ্ধার
                                  

নাটোর প্রতিনিধি : নাটোরের গুরুদাসপুর হাসপাতাল চত্বর থেকে কৌশলে চুরি করে নিয়ে যাওয়া শিশুকে উদ্ধার এবং চুরির সাথে জড়িত ট্রাক ড্রাইভার সাইদুলের স্ত্রী শাকিলা খাতুনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতরাতে বড়াইগ্রাম উপজেলার কালিকারপুর গ্রাম থেকে শিশুটিকে উদ্ধার ও চুরির সাথে জড়িত মহিলাকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত সাকিলা খাতুন বড়াইগ্রাম উপজেলার তিরাইল গ্রামের সাইদুল ইসলামের স্ত্রী। বৃহস্পতিবার দুপুরে গুরুদাসপুর থানায় এক প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা এসব তথ্য জানান।
তিনি জানান, গুরুদাসপুর উপপজেলার মশিন্দা মাঝপাড়া গ্রামের মফিজ উদ্দিনের স্ত্রী সিমা খাতুন ২৩ডিসেম্বর সকালে সে তার ০২ মাসের শিশু কন্যা তাইবাকে শীত জনিত অসুখের চিকিৎসার জন্য গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকা দেওয়াতে নিয়ে আসে।বহির্বিভাগে লাইনে অনেক ভিড় থাকায় পাশে থাকা অজ্ঞাত বোরকা পরিহিত এক মহিলা (গ্রেফতারকৃত সাকিলা খাতুন) সিমা খাতুনকে বলে আপা আপনার বাচ্চা আমার কোলে দেন। মিনিট পাচেক পরে সিমা খাতুন দেখেন অজ্ঞাত মহিলার শিশু তাইবা সহ উধাও। খোঁজাখুঁজি করে এখন পর্যন্ত শিশু কন্যা তাইবাকে না পেয়ে মা সিমা খাতুন কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।বিয়টি জানাজানি হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ গুরুদাসপুর থানা পুলিশকে অবহিত করেন। হাসপাতালের সিসিটিভি ক্যামেরায় দেখা যায়, বোরকা পরা এক মহিলা শিশুটিকে কাপড়ে জড়িয়ে দ্রুত চলে যাচ্ছেন। এ ব্যাপারে শিশুটির পিতা তফিজ উদ্দিন বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। এরপর পুলিশের ৪টি টিম গুরুদাসপুর হাসপাতাল থেকে সরবরাহ করা সিসিটিভি ফুটেজ পর্যালোচনা এবং তথ্য প্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে কাকিাপুর গ্রাম থেকে বৃহস্পতিবার ভোর ৪টার সময় শিশুটিকে উদ্ধার ও চুরির সাথে জড়িত সাকিলাকে গ্রেফতার করে। পুলিশ সুপার জানান, সাকিলা খাতুনের সিংড়া উপজেলার বিলদহর গ্রামের আরিফুল ইসরামের সাথে বিয়ে হয়। সেখানে তার এক কন্যা সন্তান জন্মে। কিন্তু বিয়ের ৫ বছরের মধ্যে স্বামী -স্ত্রীর মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। এরপর তিরাইল গ্রামের সাইদুল ইসলামের সাথে শাকিলার দ্বিতীয় বিয়ে হয়।

পরিকল্পনাহীন বাড়ি নির্মাণ বসবাস নিয়ে শঙ্কায় গৃহহীনরা
                                  

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহারে মাঠের ইরি-বোরো ধান চাষের নিচু জমিতে নির্মাণ করা হচ্ছে পরিকল্পনাহীন দুর্যোগ সহনীয় বাড়ি। এতে বসবাস করা নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়ছে। আবার অনকেই বলছেন গৃহহীনরা যদি স্বাছন্দ ভাবে এই বাড়িতে বসবাসই করতে না পারে তাহলে নিচু এই মাঠের জমিতে বাড়ি নির্মাণ করা মানে সরকারের অর্থ পুকুরে ফেলে দেওয়া।
সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, নওগাঁ-রাণীনগর আঞ্চলিক মহাসড়কের তারাপুরর মোড় নামক স্থানের পশ্চিম ছাতনী মৌজায় অবস্থিত ছাতনী উত্তর মাঠ। এই মাঠের মধ্যে প্রায় ২৮ শতাংশ খাস জমি রয়েছে যা স্থানীয়রা দীর্ঘদিন ধরে ধান চাষের জমি হিসেবে ভোগদখল করে আসছিলো। নিচু ধান চাষের এই খাস জমির উপর নির্মাণ করা হচ্ছে গৃহহীনদের জন্য ১৪টি দুর্যোগ সহনীয় বাড়ি। প্রতিটি বাড়ি নির্মাণের জন্য সরকার ১লাখ ৭১ হাজার টাকা বরাদ্দ দিয়েছে। প্রতিটি বাড়িত দুইটি ঘর, একটি বারান্দা, একটি রান্নাঘর ও টয়লেট-গোসলখানা রয়েছে। বাড়িগুলোতে ইটের দেয়ালের উপর থাকবে উন্নত মানের টিনের ছাউনি। কিন্তু এই মাঠের জমিগুলা হচ্ছে নিচু। ইরি-বোরো ধান চাষের সময় পানিতে তলিয়ে যাবে ঘরগুলোর মেঝে। এছাড়া প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে বৃষ্টিতে হাটু পানি জমে এবং ছোট-বড় বন্যার সময় মাঠের এই সব জমির উপর তার চেয়েও বেশি পানি জমে যায়। তখন গৃহহীনরা এই সব দুর্যোগসহনীয় বাড়িতে কেমন করে বসবাস করবে তা নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়ছে। অনেকেই ধারনা করছেন দুর্যোগ সহনীয় বাড়িই প্রতিবছর দুর্যোগ ডেকে আনবে এই সব বাড়িতে বসবাসরত অসহায়-গঋহহীনদের ভাগ্যে। নিচু জমি মাটি কাটা উচু না করেই পরিকল্পনাহীন ভাবে নামমাত্র নির্মাণ করা হচ্ছে প্রকল্পের ঘরগুলো। এছাড়াও রাস্তা থেকে এই প্রকল্পের বাড়ির উপর দিয়ে খোলা তার দিয়ে মাঠের মধ্যে গভীরনলকূপ চালানোর জন্য কয়েক হাজার ভোল্টের বিদ্যুতের লাইন চলে গেছে। তাই শুধুমাত্র বর্ষা মৌসুম ও বন্যার পানি জমে নয় বিদ্যুতের লাইন থেকেও যে কোন সময় বৈদ্যুতিক দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা করছে স্থানীয়রা।
তারাপুর গ্রামর আনছার আলী, মিলন হাসন ও স্থানীদের অনেকেই অভিযোগ করব বলেন প্রথম আমরা ভেবে ছিলাম যে রাস্তার পাশে হয়তো বা কান ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নির্মাণ করা হবে। তাই থাকার জন্য অস্থায়ী ভাবে ইট দিয়ে ঘরগুলো তৈরী করা হচ্ছে। কিন্তু পরবর্তিতে খোঁজ নিয়ে জানতে পারলাম যে সরকারর পক্ষ থেকে গৃহহীনদর জন্য দুর্যোগ সহনীয় বাড়ি নির্মাণ করা হচ্ছে। কিন্তু এই সব বাড়িত মানুষ থাকবে কিভাবে? বন্যার সময় এই মাঠের জমির উপর মানুষ সমান পানি চলে আসে। বর্ষা মৌসুমে এই মাঠে যাবার কান রাস্তা নেই। তাহলে এখান বসবাসরত মানুষেরা কিভাবে চলাচল করবে? বন্যার সময় এখানে বসবাসরত মানুষদের সবকিছু নিয়ে রেললাইনর উপর আশ্রয় নেয়া ছাড়া আর কোন উপায় থাকবে না। পরিকল্পনা বিহীন ভাবে এই সব ঘর নির্মাণ করে সরকারের লক্ষ্য ও উদ্দশ্য কখনই সফলতার মুখ দখবে না এবং অর্থগুলো পানিতে ফেলে দেওয়া ছাড়াও আর কিছুই নয়। উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আমির হোসেন বলেন জমি চূড়ান্ত করার দায়িত্ব ভূমি অফিসারের। ঐ মাঠের জমিগুলা অনেক নিচু। আমারও মনে হয়েছে জমিতে মাটি কেটে ভরাট না করে ঘর নির্মাণ করলে কেউ সেখানে বসবাস করতে পারবেন না। তবে এই বিষয়ে উপজলা নির্বাহী কর্মকর্তা খুব ভালো জানেন। আদমদীঘি উপজলা নির্বাহী কর্মকর্তা সীমা শারমিন বলেন স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ অন্যান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতেই ঘর নির্মাণের জন্য এই খাস জায়গা চূড়ান্ত করা হয়ছে। বরাদ্দ কম থাকায় আপাতত বাড়ি নির্মাণ করা হচ্ছে পরবর্তিতে বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে ঘরগুলা উচু করে দেওয়া হবে।

সিলেটে চলন্ত বাসে ধর্ষণচেষ্টায় আটক রশিদের আদালতে জবানবন্দি
                                  

খায়রুল আলম সুমন, সিলেট ব্যুরো : সিলেট বিভাগের সুনামগঞ্জ জেলার দিরাইয়ে চলন্ত বাসে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার ঘটনায় আটক হওয়া বাসের হেলপার রশিদ আহমদ (২২) আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন। ২৯ ডিসেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে সুনামগঞ্জের বিচারিক হাকিম মো. রাগীব নূরের আদালতে হাজির করা হলে আটক রশিদ জবানবন্দি দেন। এরপর তাকে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দেন বিচারক। সুনামগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মো. আশেক সুজা মামুন জানান, রশিদ আহমদ আদালতে জবানবন্দী দিয়েছে। এরপর আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। রশিদ আহমদ সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলার চরমহল্লা ইউনিয়নের কামরাঙ্গিরচর গ্রামের হাবিব আহমদের ছেলে। ২৭ ডিসেম্বর গভীর রাতে সিলেটের পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) বাস মালিকের সহায়তায় ছাতক উপজেলার বুরাইরগাঁও গ্রামের শ্বশুর বাড়ি থেকে রশিদকে আটক করা হয়। তবে বাসের চালক শহীদ মিয়া এখনও পলাতক। শহীদ মিয়া সিলেটের জালালবাদ থানার মোগলগাঁও ইউনিয়নের মোল্লারগাঁও গ্রামের তৌফিক মিয়ার ছেলে। গত ২৬ ডিসেম্বর দুপুরে সিলেটের লামাকাজী থেকে দিরাইয়ে যাওয়ার পথে ওই কলেজছাত্রীকে দিরাই পৌরসভার সুজানগর এলাকায় চালক ও হেলপার কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় ওই ছাত্রী চলন্ত বাস থেকেই লাফিয়ে পড়েন। স্থানীয়রা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়। ওই ছাত্রী বর্তমানে সিলেটের এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। এ ঘটনায় ওইদিন রাতেই ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে দিরাই থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছিলেন।

রায়গঞ্জে ফুটপাতে জমে উঠেছে শীতের কাপড় বিক্রি
                                  

রায়গঞ্জ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি : সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে কনকনে শীত পড়তে শুরু করেছে। সকালে এবং বিকেলে ঘর ছেড়ে যারা বের হচ্ছেন তারা গায়ে গরম কাপড় সঙ্গে নিয়েই বের হতে দেখা গেছে। কেউ কেউ আবার ভিড় করছে উপজেলার ফুটপাতের ভাম্যমান গরম কাপড় দোকান গুলোতে। উপজেলার পাঙ্গাসী ইউনিয়নসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের বাজার গুলো ঘুরে দেখা যায়, এলাকার ফুটপাতের দোকানগুলোতে মিলছে নানা ধরনের শীতের কাপড়। বিক্রিও হচ্ছে মোটামোটি ভালো। ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে থাকায় এখানে জনসাধারণের আগ্রহও ভালো। প্রয়োজনীয় পোশাক বেশ সহজেই কিনছেন ক্রেতারা। এসব দোকানে বিভিন্ন দামের ফুলহাতা শার্ট- টি-শার্ট, ট্রাউজার, নারীদের মোটা কাপড়ের টপস আর বিভিন্ন ডিজাইনের কার্ডিগান বা পশমী জামা পাওয়া যাচ্ছে। হাতা কাটা সোয়েটার, লং জ্যাকেট, শাল, মাফলার, উলের মোটা কাপড়, শর্ট ও লং ব্লেজার, জ্যাকেট আর ব্লেজারের মিশ্রণে তৈরি নতুন ধরনের শীতের পোশাকও পাওয়া যাচ্ছে। একই সঙ্গে আছে কাপড়ের সঙ্গে মিলিয়ে শীতে ব্যবহার উপযোগী জুতা, মোজা ও বাহারি ডিজাইনের কম্বল বিক্রি করছেন দোকানীরা। ব্র্যান্ডের দোকান বা শপিং মলে গলাকাটা দামের ভয়ে যেতে চান না মধ্যবিত্ত বা নিম্ন মধ্যবিত্তের অনেকেই। তাদের পছন্দ ফুটপাতের বাজার গুলি। তাছাড়া স্বল্প আয়ের মানুষদের হাতের নাগালের মধ্যে নানা ধরনের পোশাক মেলে ফুটপাতে। উপজেলার হাটপাঙ্গাসী বাজারে বাজার করতে আসা জাহাঙ্গীর আলম নামের এক ব্যক্তি ফুটপাতে মনোযোগ দিয়ে গরম কাপড় কিনছেন। জানতে চাইলে তিনি বলেন, বাজার ঘাট শেষ তাই ভাবছি ছেলে মেয়েদের জন্য কিছু গরম কাপড় কিনে নিয়ে যাবো। গ্রামে কনকনে শীত পড়েছে। সেজন্য তিনি শীতের কেনাকাটা করছেন। ফুটপাতের এই বাজার অনেকটা সহজ ও সুবিধাজনক বলে এখানেই সেরে নিচ্ছেন বাজার। তিনি বলেন, মার্কেটে গেলে দরদাম নিয়ে ঝামেলা হয়। বেশির ভাগ সময় আমাদের মতো দাম না জানা লোকদের ঠকতে হয়। এজন্য ফুটপাত থেকেই কিনছেন। এখানে দেখতে সুবিধা, চোখের সামনে খোলা-মেলাভাবে বিক্রি হয়। আবার দামও কম। তবে গত বারের চেয়ে দামটা একটু বেশি। এছাড়াও তাদের পছন্দ ফুটপাতের বাজার। তাছাড়া স্বল্প আয়ের মানুষদের হাতের নাগালের মধ্যে নানা ধরনের পোষাক মেলে উপজেলার ফুটপাত গুলোতে।


   Page 1 of 13
     জেলা-উপজেলা
কুড়িগ্রামে পৌর মেয়র কাজিউল ইসলামের দায়িত্ব গ্রহণ
.............................................................................................
ফুলবাড়ীতে সার্কাস শিল্পীদের দূর্দিন, স্বপ্ন বুনছেন বিজয় মেলাকে ঘিরে
.............................................................................................
মাগুরায় ইটভাটা মালিকদের আহাজারি
.............................................................................................
কমলগঞ্জে দ্বিতীয় বার নির্বাচিত মেয়র জুয়েল
.............................................................................................
মুকসুদপুরে মঙ্গল হত্যার বিচারের দাবিতে ঝাড়ু– মিছিল
.............................................................................................
সখিপুরে ১২ শতাধিক অসহায় পরিবারের মাঝে কম্বল বিতরণ
.............................................................................................
মুন্সীগঞ্জে সাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণের সমাপ্তি
.............................................................................................
তিতাস গ্যাসের অবৈধ সংযোগ একজনের কারাদণ্ড
.............................................................................................
ফুলবাড়িতে লেপ তোষক তৈরিতে ব্যাস্ত কারিগররা
.............................................................................................
কুড়িগ্রামে শীতবস্ত্র বিতরণ
.............................................................................................
ভীর বাড়ছে গরম কাপরের দোকানে
.............................................................................................
শরীয়তপুরে মেগা ইভেন্ট উদ্বোধন
.............................................................................................
গুরুদাসপুর হাসপাতাল চত্বর থেকে চুরি যাওয়া শিশু উদ্ধার
.............................................................................................
পরিকল্পনাহীন বাড়ি নির্মাণ বসবাস নিয়ে শঙ্কায় গৃহহীনরা
.............................................................................................
সিলেটে চলন্ত বাসে ধর্ষণচেষ্টায় আটক রশিদের আদালতে জবানবন্দি
.............................................................................................
রায়গঞ্জে ফুটপাতে জমে উঠেছে শীতের কাপড় বিক্রি
.............................................................................................
কমলগঞ্জে সাংবাদিকদের সাথে মেয়র প্রার্থীর মতবিনিময়
.............................................................................................
জলঢাকায় হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধনে জনসাধারণের ঢল
.............................................................................................
কালভার্ট ভেঙে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন
.............................................................................................
১০ বছর অপেক্ষার পর তেরবেকি ব্রিজের নির্মাণ কাজ উদ্বোধন
.............................................................................................
জগন্নাথপুরে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের বস্ত্র বিতরণ
.............................................................................................
ভাস্কর্য ভেঙে ফেলায় মুকসুদপুরের কাশালিয়া ইউনিয়নে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ
.............................................................................................
কুমারখালীতে হানাদার মুক্ত দিবস পালিত
.............................................................................................
নবীগঞ্জে বাস ও সিএনজি’র সংঘর্ষে নিহত ৮
.............................................................................................
খুলনায় স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ৭৭০ মামলা জরিমানাসহ আটক ৩৮২
.............................................................................................
কাটার ম্যাশিংসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম ধ্বংস করেন জেলা প্রশাসক
.............................................................................................
রাজবাড়ীতে শীতের শুরুতে ধুলা, দূষণ বাড়ছে রোগের প্রাদুর্ভাব
.............................................................................................
জগন্নাথপুরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন : প্রশাসনের অভিযান
.............................................................................................
সুস্থ্যভাবে বেঁচে থাকার জন্য প্রত্যেক নাগরিকদের মাস্ক পড়তে হবে : মেয়র ইকরামুল হক টিটু
.............................................................................................
উদ্বোধনের আগেই ভেঙ্গে পড়লো ব্রিজ, জনদুর্ভোগ চরমে
.............................................................................................
কাঁঠালিয়ার ছৈলারচরকে পুর্ণাঙ্গ পর্যটন সুবিধার দাবিতে মানববন্ধন
.............................................................................................
কুষ্টিয়ায় ট্রাক-এ্যম্বুলেন্স মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৫, আহত ১
.............................................................................................
মাগুরায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় যুব দিবস ২০২০ উদযাপিত
.............................................................................................
কালকিনিতে ইউপি চেয়ারম্যানের কার্যকলাপে অতিষ্ঠ হয়ে গ্রামবাসীর মানববন্ধন
.............................................................................................
মানবতার অগ্রদূত কুষ্টিয়ার এসপি তানভীর আরাফাত এর জনকল্যাণকর নানা উদ্যোগ
.............................................................................................
শাহজাদপুরে মহাঅষ্টমীতে মন্দির প্রদর্শন ও ৫৪ হাজার টাকা উপহার মেয়র মিরু
.............................................................................................
স্পিডবোটডুবিতে নিখোঁজ পাঁচজনের লাশ উদ্ধার
.............................................................................................
গাইবান্ধার সাঘাটার রামনগর গ্রাম নদীভাঙন হতে রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান
.............................................................................................
মুকসুদপুরে শারদীয় দুর্গা পূজা উপলক্ষে আ.লীগ নেতার শাঁড়ি কাপড় বিতরণ
.............................................................................................
বান্দরবানে আ.লীগ কার্যালয়ের সামনে এলইডি স্ক্রিন স্থাপন
.............................................................................................
কালকিনিতে ধর্ষন ও নারী নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ
.............................................................................................
গোবিন্দগঞ্জ থানা ও উপজেলা প্রশাসন এর আয়োজনে বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্টিত
.............................................................................................
আইন সহায়তা কমিটির সমন্বয়ে সংবেদনশীলতা অধিবেশন অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
কুমারখালী সরকারি কলেজে ভুয়া সনদে প্রভাষক পদে ৯ বছর চাকরি
.............................................................................................
শাহজাদপুর বিশ্ব পরিযায়ী পাখি দিবস পালিত
.............................................................................................
সারাদেশে অব্যাহত ধর্ষণের প্রতিবাদে বাঘাইছড়িতে হৃদয়ে বাঘাইছড়ির র‌্যালী ও মানববন্ধন
.............................................................................................
৫ দিনে ৮ খুন, শিশুসহ আহত শতাধিক
.............................................................................................
ধর্ষণ নীপিড়নের প্রতিবাদে রাজপথে শিক্ষার্থীরা
.............................................................................................
ফরিদপুর নৌ বন্দরের ইজারা বাতিল
.............................................................................................
ব্রি ধান-৪৮ মাঠ দিবস অনুষ্ঠিত
.............................................................................................

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মো: রিপন তরফদার নিয়াম
প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক : মফিজুর রহমান রোকন
নির্বাহী সম্পাদক : শাহাদাত হোসেন শাহীন
বাণিজ্যিক কার্যালয় : "রহমানিয়া ইন্টারন্যাশনাল কমপ্লেক্স"
(৬ষ্ঠ তলা), ২৮/১ সি, টয়েনবি সার্কুলার রোড,
মতিঝিল বা/এ ঢাকা-১০০০| জিপিও বক্স নং-৫৪৭, ঢাকা
ফোন নাম্বার : ০২-৪৭১২০৮০৫/৬, ০২-৯৫৮৭৮৫০
মোবাইল : ০১৭০৭-০৮৯৫৫৩, 01731800427
E-mail: dailyganomukti@gmail.com
Website : http://www.dailyganomukti.com
   © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop