ঢাকা,শুক্রবার,১১০ ভাদ্র ১৪২৮,২৩,এপ্রিল,২০২১ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : > নিয়ম বহির্ভূতভাবে চলছে পশ্চিমাঞ্চল রেলের জিএম দপ্তর   > কাউয়াদিঘি হাওরে ধান কাটা উৎসব   > পঞ্চগড়ের এক মৌসুমে তিন ফসল   > অস্তিত্ব সংকটে রামগঞ্জে বীরেন্দ্র খাল   > করোনা থেকে সুস্থ হতে ঘরেই যা করবেন   > নোয়াখালীতে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ইফতার সামগ্রী বিতরণ   > পিএসজি-বায়ার্নকে নিয়ে পেরেজের মিথ্যাচার   > জিৎ করোনায় আক্রান্ত   > টিকার বিকল্প দেশের সন্ধান চলছে, সেরাম দিচ্ছে না   > বিচারকাজে গতি আনতে হাইকোর্টে আরও দুই বেঞ্চ  

   জাতীয় -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
টিকার বিকল্প দেশের সন্ধান চলছে, সেরাম দিচ্ছে না

স্টাফ রিপোর্টার : স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র ডা. মোহাম্মদ রোবেদ আমিন বলেন, করোনা টিকা সরবরাহে সরকার ও বেক্সিমকো সেরামের সঙ্গে সবসময় যোগাযোগ রাখছে। কিন্তু সেরাম এখন টিকা দিতে পারছে না। অন্যদিকে টিকা শেষ হয়ে যাচ্ছে, আমাদের লাগবেই। তাই বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে রাশিয়া ও চীনের সঙ্গে যোগাযোগ চলছে। চীনের সিনোভ্যাক নামে একটি কোম্পানির ভ্যাকসিন বাংলাদেশে ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছিলো সরকার? আইসিডিডিআরবির সহযোগিতায় এই ট্রায়াল হবার কথা। কিন্তু হঠাৎ করেই চীনা কোম্পানির ভ্যাকসিনের ট্রায়াল বন্ধ করে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট টিকা সরবরাহ ঝুঁকে পড়ে বাংলাদেশ। বর্তমানে ভারত সরকারের বিরোধিতায় সেরাম বাংলাদেশে টিকা রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে। সেজন্য বাংলাদেশ সরকার এবার নতুন করে রাশিয়া কিংবা চীনা কোম্পানির ভ্যাকসিনের দিকে ঝুঁকছে। তখন চীনা কোম্পানির ভ্যাকসিন ট্রায়ালের পরীক্ষামূলক প্রয়োগের প্রায় সব প্রস্তুতিই শেষ করে এনেছিল আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র। সেজন্য ঢাকার সাত হাসপাতাল চিহ্নিত করা হয়েছিল- কুয়েত বাংলাদেশ মৈত্রী হাসপাতাল, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, মহানগর হাসপাতাল, মুগদা জেনারেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতাল বার্ন ইউনিট-১, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল বার্ন ইউনিট-২। কিন্তু হঠাৎ করে চীনা কোম্পানির ভ্যাকসিনের ট্রায়াল বন্ধ হয়ে যায়। ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট টিকা সরবরাহ করে। এখন সেরামের টিকা পাওয়া নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে।
করোনাভাইরাসের টিকা সরবরাহ প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম সংবাদমাধ্যমকে বলেন, দেশে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন সংকটের আগেই সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছে, প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে আমাদের জানানো হয়েছে যে, ভারত সরকারের বিরোধিতায় সেরাম টিকা পাঠাতে পারছে না। তবে ভারত সরকারের অনুমতি মিললে টিকা রপ্তানি করবে। তারা টিকা দিতে প্রস্তুত। আমরা এখনও মানুষকে টিকা দিচ্ছি, আশা করা হচ্ছে- টিকার সংকট হবে না বিকল্প ব্যবস্থা হয়ে যাবে। টিকার বিকল্প উৎস খুঁজতে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছি। তারা রাশিয়া ও চীনের টিকা নিয়ে কাজ করছে।

টিকার বিকল্প দেশের সন্ধান চলছে, সেরাম দিচ্ছে না
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র ডা. মোহাম্মদ রোবেদ আমিন বলেন, করোনা টিকা সরবরাহে সরকার ও বেক্সিমকো সেরামের সঙ্গে সবসময় যোগাযোগ রাখছে। কিন্তু সেরাম এখন টিকা দিতে পারছে না। অন্যদিকে টিকা শেষ হয়ে যাচ্ছে, আমাদের লাগবেই। তাই বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে রাশিয়া ও চীনের সঙ্গে যোগাযোগ চলছে। চীনের সিনোভ্যাক নামে একটি কোম্পানির ভ্যাকসিন বাংলাদেশে ট্রায়ালের অনুমতি দিয়েছিলো সরকার? আইসিডিডিআরবির সহযোগিতায় এই ট্রায়াল হবার কথা। কিন্তু হঠাৎ করেই চীনা কোম্পানির ভ্যাকসিনের ট্রায়াল বন্ধ করে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট টিকা সরবরাহ ঝুঁকে পড়ে বাংলাদেশ। বর্তমানে ভারত সরকারের বিরোধিতায় সেরাম বাংলাদেশে টিকা রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে। সেজন্য বাংলাদেশ সরকার এবার নতুন করে রাশিয়া কিংবা চীনা কোম্পানির ভ্যাকসিনের দিকে ঝুঁকছে। তখন চীনা কোম্পানির ভ্যাকসিন ট্রায়ালের পরীক্ষামূলক প্রয়োগের প্রায় সব প্রস্তুতিই শেষ করে এনেছিল আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র। সেজন্য ঢাকার সাত হাসপাতাল চিহ্নিত করা হয়েছিল- কুয়েত বাংলাদেশ মৈত্রী হাসপাতাল, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, হলি ফ্যামিলি রেড ক্রিসেন্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, মহানগর হাসপাতাল, মুগদা জেনারেল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসাপাতাল বার্ন ইউনিট-১, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল বার্ন ইউনিট-২। কিন্তু হঠাৎ করে চীনা কোম্পানির ভ্যাকসিনের ট্রায়াল বন্ধ হয়ে যায়। ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট টিকা সরবরাহ করে। এখন সেরামের টিকা পাওয়া নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে।
করোনাভাইরাসের টিকা সরবরাহ প্রসঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম সংবাদমাধ্যমকে বলেন, দেশে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন সংকটের আগেই সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে যোগাযোগ হয়েছে, প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে আমাদের জানানো হয়েছে যে, ভারত সরকারের বিরোধিতায় সেরাম টিকা পাঠাতে পারছে না। তবে ভারত সরকারের অনুমতি মিললে টিকা রপ্তানি করবে। তারা টিকা দিতে প্রস্তুত। আমরা এখনও মানুষকে টিকা দিচ্ছি, আশা করা হচ্ছে- টিকার সংকট হবে না বিকল্প ব্যবস্থা হয়ে যাবে। টিকার বিকল্প উৎস খুঁজতে পাঁচ সদস্যের একটি কমিটি গঠন করেছি। তারা রাশিয়া ও চীনের টিকা নিয়ে কাজ করছে।

করোনা ভ্যাকসিনকে বৈশ্বিক গণপণ্য ঘোষণা চান শেখ হাসিনা
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনকে বৈশ্বিক পণ্য আখ্যায়িত করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ ন্যায়সঙ্গত ভাবে ও ন্যায্যতার ভিত্তিতে প্রত্যেকের ভ্যাকসিন এবং চিকিৎসা সরঞ্জামের চাহিদা মেটাতে জাতিসংঘ এবং অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থার কর্তৃত্বে বিশ্বাস করে। তিনি বলেন, ‘আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনকে বৈশ্বিক গণপণ্য হিসাবে ঘোষণা করা উচিত। ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী দেশগুলোকে সার্বজনীন ভ্যাকসিনের কভারেজ অর্জনের লক্ষ্যে অন্যদেরকেও ভ্যাকসিন তৈরি করতে সহায়তা করা উচিত।’ এশিয়ার জন্য বোয়াও ফোরামের সম্মেলনের প্ল্যানারি পর্বে প্রচারিত এবং পূর্বে ধারণকৃত ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন। বিএফএ সম্মেলনে এরাবারের প্রতিপাদ্য ‘এ ওয়াল্ড ইন চেঞ্জ: জয়েন হ্যান্ডস টু ট্রেংদেন গ্লোবাল গভর্নেন্স এন্ড অ্যাডভান্স বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভ (বিআরআই) কোঅপারেশন।’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই সংকটময় সময়ে উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য আর্থিক ও প্রযুক্তিগত সহায়তাও আরও গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। উন্নয়নশীল দেশগুলোর আন্তর্জাতিক আর্থিক প্রতিষ্ঠান এবং বহুজাতিক উন্নয়ন ব্যাংকগুলোর তহবিলগুলিতে আরো বেশি প্রবেশাধিকার প্রয়োজন। শেখ হাসিনা আরো বলেন, কোভিড-১৯ মহামারী আমাদের মানবসভ্যতার সন্ধিক্ষণে বিশেষত ইতিহাসের চূড়ান্ত বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দিয়েছে। এই মহামারীর আর্থসামাজিক প্রভাব ব্যাপক, যা ক্রমশ প্রকাশিত হচ্ছে। এই চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলায় সমন্বিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে বৈশ্বিক ও আঞ্চলিক অংশীদারিত্বকে আরও জোরদার করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, ‘আমরা এখন পর্যন্ত সামাজিক সুরক্ষা এবং অর্থনীতিকে উৎসাহিত করার জন্য আমাদের জিডিপির প্রায় ৪ দশমিক ৪ শতাংশ, যা টাকার অংকে ১৪ দশমিক ৬ বিলিয়ন ডলারের বিভিন্ন প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছি।’

মামুনুল সাত দিনের রিমান্ডে
                                  

কোর্ট রিপোর্টার : হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরীর সাধারণ সম্পাদক মামুনুল হককে সাত দিনের রিমান্ডে দিয়েছেন আদালত। গতকাল সোমবার তাকে আদালতে তুলে ৭ দিনের রিমান্ড চান মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপ-পরিদর্শক (এসআই) সাজেদুল হক। রিমান্ড আবেদনে হেফাজত নেতা মামুনুল হক ও তার ভাই মাহফুজুল হকসহ অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে মোবাইল ও মানিব্যাগ থেকে টাকা চুরির অভিযোগও আনা হয়। রিমান্ড আবেদনে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উল্লেখ করেন, ২০২০ সালের ৬ মার্চ মোহাম্মদপুর সাত মসজিদ এলাকায় সাত গম্বুজ মসজিদে রাত সাড়ে ৮টায় আসামি মাওলানা মামুনুল হক ও তার ভাই মাহফুজুল হকের নির্দেশে জামিয়া রহমানিয়া আরাবিয়া মাদরাসার ছাত্র আসামি ওমর এবং ওসমান বাদী ও তার সঙ্গে থাকা অন্যদের মসজিদে আমল (ধর্মীয় কাজ) করতে নিষেধ করেন। তাদের মসজিদ থেকে বের হয়ে যেতে বলেন আসামিরা। এতে বলা হয়, বাদী প্রতিবাদ করলে মামুনুল হক ও তার ভাই মাহফুজুল হকের নির্দেশে মাদরাসার আরও ৭০-৮০ জন ছাত্র বের হয়ে বাদীকে এলোপাতাড়ি মারধর করে গুরুতর জখম করেন। আসামি ওমর ও ওসমান তাদের হাতের লাঠি দিয়ে বাদীকে এলোপাতাড়ি আঘাত করেন। লাঠির আঘাতে গুরুতর জখম হয়ে মসজিদের ভেতরে শুয়ে পড়েন বাদী।এরপর আসামিরা বাদীর কাছে থাকা একটি স্যামসাং মোবাইল, নগদ সাত হাজার টাকা, ২০০ ডলার ও ব্র্যাক ব্যাংকের একটি ডেবিট কার্ডসহ বাদীর মানিব্যাগ নিয়ে যান। বাদীকে পুনরায় মসজিদে প্রবেশ করলে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দেন আসামিরা।` পরে শুনানি শেষে বেলা ১১টা ৩৩ মিনিটের দিকে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস চন্দ্র অধিকারী সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে আদেশ দেন। মারধর, হত্যার উদ্দেশ্যে আঘাতে গুরুতর জখম, চুরি, হুমকি ও ধর্মীয় কাজে ইচ্ছাকৃতভাবে গোলযোগের অভিযোগ এনে স্থানীয় এক ব্যক্তি মোহাম্মদপুর থানায় মামুনুলের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন।

করোনা দিন দিন ভীতিকর হচ্ছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ‘করোনাভাইরাসজনিত কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা দিন দিন ভীতিকর হচ্ছে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে ঢাকার সব হাসপাতালের আইসিইউ বেড পূর্ণ হয়ে গেছে। দেশে কোভিড-আক্রান্ত রোগীদের জন্য প্রতিদিনই আইসিইউর চাহিদা বেড়ে চলেছে।’ গতকাল রোববার রাজধানীর মহাখালীতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে এক হাজার বেডের কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম। দেশের সবচেয়ে বড় কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল উদ্বোধন করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আজ আমাদের জন্য এক বিশেষ খুশির দিন। বর্তমান কঠিন সময়ে জরুরি ভিত্তিতে ডিএনসিসির এই মার্কেটটিকে একটি পূর্ণাঙ্গ কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতাল হিসেবে উদ্বোধন করা হলো। এই হাসপাতালে কোভিড রোগীদের জন্য মোট এক হাজার বেড রয়েছে। এর মধ্যে পূর্ণাঙ্গ আইসিইউ বেড রয়েছে ২১২টি। এ ছাড়া ২৫০টি এইচডিইউ বেড ও ৪৩৮টি কোভিড আইসোলেটেড রুম রয়েছে।’ মন্ত্রী বলেন, ‘এ হাসপাতালটিতে ইমারজেন্সি বেড রয়েছে ৫০টি, যার মধ্যে ৩০টি পুরুষ ও ২০টি নারী রোগীর জন্য। পাশাপাশি এখানে আরটি পিসিআর ল্যাব, প্যাথলজি ল্যাব, রেডিও থেরাপি সেন্টার, এক্সরে সুবিধাসহ অন্যান্য সুবিধাও রয়েছে।’ মাত্র ২০ দিনের মধ্যে অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে অতি দ্রুততার সাথে এই হাসপাতালটি প্রস্তুত করা হয়েছে বলে সন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি।
উদ্বোধনকালে হাসপাতালটির ২৬০টি বেড সচল রয়েছে উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, এখানে ৬০টি আইসিইউ বেড, ৫০টি ইমারজেন্সি ও ১৫০টি জেনারেল ওয়ার্ড রয়েছে। এ ছাড়া আগামী সাত দিনের মধ্যে আরও আড়াইশ বেড সচল হবে। এ মাসের ২৯ তারিখের মধ্যে হাসপাতালটি পরিপূর্ণভাবে সচল হবে বলেও জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।
দেশের প্রতিটি হাসপাতালে কোভিড ডেডিকেটেড বেড সংখ্যা ও সেন্ট্রাল অক্সিজেন সুবিধা বাড়ানোর ঘোষণা দিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমানে দেশে প্রায় একশটি হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে। আরও ৩৪টি হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন ব্যবস্থা চালুর কাজ চলমান রয়েছে। এর ফলে বর্তমানে দেশে হাসপাতালগুলোতে প্রায় ১২ হাজার বেডে সেন্ট্রাল অক্সিজেন ব্যবস্থা স্থাপন করা সম্ভব হয়েছে। এসব সুবিধা নিশ্চয়ই দেশের কোভিড-রোগীদের জীবন রক্ষায় বড় ভূমিকা রেখে চলেছে।’
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব লোকমান হোসেন মিয়া, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক এ বি এম খুরশিদ আলম, মেজর জেনারেল সাকিল আহমেদ, মেজর জেনারেল মো. মাহাবুবুর রহমান, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মঞ্জুর আহমেদ, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল বশির এবং হাসপাতালটির পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ টি এম নাসির উদ্দিন।

বাঁশখালীতে শ্রমিক পুলিশের সংঘর্ষে গুলিতে নিহত ৫
                                  

জেলা সংবাদদাতা : চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রে শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় পুলিশের গুলিতে ৫ শ্রমিক নিহত হয়েছে। নিহতরা হলেন- শুভ (২৩), মো. রাহাত (২৪), আহমদ রেজা (১৯) ও রনি হোসেন (২২)। গুলিবিদ্ধ আরেক শ্রমিক হাবিবুল্লাহ (২৫)কে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও শতাধিক শ্রমিক। আশঙ্কাজনক অবস্থায় গুলিবিদ্ধ ৬ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সকাল ১১টার পর এ ঘটনা ঘটে। আহত শ্রমিকরা জানিয়েছেন, এস আলম গ্রুপের মালিকানাধীন বাঁশখালীর কয়লা বিদ্যুৎকেন্দ্রের পরিচালনায় ছিল চীনা নাগরিকরা। দীর্ঘদিন ধরে চীনাদের সঙ্গে শ্রমিকদের বিভিন্ন দাবি-দাওয়া নিয়ে মতবিরোধ চলছিল। এ নিয়ে গতকাল শ্রমিকরা কর্মবিরতি পালন করেন। সকাল ১১টায় বিদ্যুৎকেন্দ্রের ভেতরে আন্দোলনকারী শ্রমিকদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। এসময় শ্রমিকদের নিবৃত্ত করতে পুলিশ টিয়ার গ্যাস ও রাবার বুলেট ছুড়ে। এসময় গুলিতে ঘটনাস্থলে ৪ শ্রমিক নিহত হন। আহত হন কয়েক শতাধিক শ্রমিক। আশঙ্কাজনক অবস্থায় গুলিবিদ্ধ ৬ জনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এরমধ্যে হাবিবউল্লাহ নামের এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়।

সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে রুখে দিতে হবে : কাদের
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : করোনা প্রতিরোধের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার পাশাপাশি সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে রুখে দেওয়ার শপথ ব্যক্ত করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। গতকাল শনিবার সকালে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি এ কথা বলেন। এসময় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতারা। পরে দলের পক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন তারা। এরপর দলের সহযোগী ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরাও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। শ্রদ্ধা নিবেদন অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন দলটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাসান মাহমুদ, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, মির্জা আজম, আফজাল হোসেন, দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন প্রমুখ।
১৭ এপ্রিল, ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসের সুবর্ণজয়ন্তী। বাংলাদেশের স্বাধীনতাসংগ্রাম তথা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে এক অবিস্মরণীয় দিন। এখন থেকে ৫০ বছর আগে ১৯৭১ সালের এই দিনে তৎকালীন কুষ্টিয়া জেলার মেহেরপুর মহকুমার বৈদ্যনাথতলার আম্রকাননে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রথম মন্ত্রিসভা শপথ গ্রহণ করে। রচিত হয় স্বাধীন বাংলাদেশের নতুন ইতিহাস।
১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতা ঘোষণা করেন। এর তিন সপ্তাহ পর বৈদ্যনাথতলা নামে পরিচিত ঐ বিশাল আমবাগান এলাকাকেই পরে ‘মুজিবনগর’ নাম দিয়ে বাংলাদেশের অস্থায়ী রাজধানী ঘোষণা করা হয়েছিল। বাংলাদেশকে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর দখলমুক্ত করতে মুজিবনগর সরকারের নেতৃত্বেই পরিচালিত হয় সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধ। মুজিবনগর সরকারের দক্ষ নেতৃত্ব ও পরিচালনায় ৯ মাসের সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের সফল পরিণতিতে ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বিশ্ব মানচিত্রে বাঙালির নিজস্ব আবাসভূমি স্বাধীন-সার্বভৌম গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের অভ্যুদয় ঘটে।

রোমান্টিক অভিনেত্রী কবরী পাড়ি জমিয়েছেন অনন্তলোকে
                                  

হাসান মাহমুদ : বাংলা চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি রোমান্টিক অভিনেত্রী কবরীর চলে যাওয়াকে ঘিরে সারা দেশের মানুষের মাঝে শোক আর আক্ষেপ বয়ে যাচ্ছে। শোস্যাল মিডিয়ায় তাঁর কর্মকে ঘিরে আছে শোকাতুর মানুষের ঢল। তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন সুস্থ হয়ে বাড়ী ফিরবেন বলে কিন্তু ক্ষণস্থায়ি বাড়ীতে তাঁর আর ফেরা হলো না। পাড়ি জমিয়েছেন অনন্তলোকে। বনানী কবরস্থানে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাঁকে চির নিদ্রায় শায়িত করা হয়েছে গতকাল শনিবার। এর আগে রাত ১২.২০ মিনিটে তিনি করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। তাঁর মৃত্যু সংবাদ প্রচারের সঙ্গে সঙ্গে মধ্যরাতেই রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ বলেছেন, ‘বাংলা চলচ্চিত্রের বিকাশে তার অবদান মানুষ আজীবন শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করবে’। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘এদেশের চলচ্চিত্রে কবরী এক উজ্জ্বল নক্ষত্র’। মাত্র ১৩ বছর বয়সে এক নায়িকা কবরী। সেই নায়িকা থেকে চলচ্চিত্র পরিচালক এবং জাতীয় সংসদ সদস্য। সফলতার সোনার কাঠি তাঁর চারদিকে ছিলো। ‘আপা’ বলেই সকলে তাঁকে আপন করে ডাকতেন। কথার আগে পরে সেই মিষ্টি হাসি তার লেগেই থাকতো। প্রখ্যাত পরিচালক সুভাষ দত্ত চট্টগ্রামের মেয়ে ‘মিনা পাল’কে বাংলা চলচ্চিত্রে ব্রেক দেন। তিনি তাঁর নাম বদলে রাখেন ‘কবরী’। তারপর থেকে আর পেছনে তাঁকে ফিরে তাকাতে হয়নি। কবরীর বিপরিতে অভিনয় করে অনেকেই জনপ্রিয় নায়ক হয়েছেন এ দেশে। বহু নায়কের চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়েছে কবরীকে ঘিরে। যিনিই কবরীর বিপরিতে অভিনয় করেছেন তিনিই বিখ্যাত হয়েছেন। চলচ্চিত্রের সেই নায়িকা শনিবার মধ্যরাতে নশ্বর পৃথিবীর মায়া ছেড়ে চলে গেলেন। রেখে গেলেন তাঁর অনন্য সব সৃষ্টিকর্ম। কবরীর অভিনয় মানেই ব্যবসা সফল চলচ্চিত্র। ‘নীল আকাশের নীচে’, ‘সারেং বৌ’ বা ‘সুতরাং’ ছবি দেখে মানুষ আবার তা দেখতে ভিড় করতো। ষাট-সত্তর এর দশকের কবরীর দর্শকপ্রিয়তা আজও কোন অংশে কমে যায়নি। তাঁর মৃত্যু সংবাদ সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে।
তিনি এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ‘সুতরাং’ এর পর আমাকে আর ফিরে তাকাতে হয়নি। পরবর্তী দুই দশকে ‘রংবাজ’, ‘নীল আকাশের নীচে’, ‘দ্বীপ নেভে নাই’, ‘তিতাস একটি নদীর নাম’, ‘ময়নামতি’, ‘স্মৃতিটুকু থাক’, ‘সুজন সখী’, ‘সারেং বৌ’য়ের মত বহু ব্যবসা সফল এবং আলোচিত সিনেমায় প্রধান নায়িকা চরিত্রে অভিনয় করেছেন কবরী। নারায়ণগঞ্জের ব্যবসায়ী শফিউদ্দিন সারওয়ারকে বিয়ের পর তিনি কবরী সারওয়ার নামে পরিচিত হন। ১৯৫০ সালের জুলাই মাসে চট্টগ্রামে জন্মগ্রহণ করেন কবরী। ১৯৬৪ সালে সুভাষ দত্তের ‘সুতরাং’ ছবির মধ্যে দিয়ে সিনেমায় তাঁর অভিষেক। ‘কবরী’ নামটি তাঁর বেশ পছন্দ হয়। এক সময় পরিচালকরা নায়িকাদের নাম তিন অক্ষর দিয়েই রাখতেন। যেমন ‘শাবানা’, রোজিনা, ‘ববিতা’ ‘সুজাতা’ ‘সুচন্দা’ এমন বহু নাম। দর্শকরা সহজে যাতে তাদের সংক্ষিপ্ত নাম মনে গেঁথে ফেলতে পারেন সেই ব্যবস্থা। প্রখ্যাত চলচ্চিত্রকার ঋত্বিক ঘটকের ‘তিতাস একটি নদীর নাম’ সিনেমার নায়িকা হিসেবে তাঁর অভিনয় এখন ইতিহাস।
নায়ক রাজ রাজ্জাক কিংবা বাংলা চলচ্চিত্রের মিয়া ভাই সবার সঙ্গেই ছিল তার নজরকাড়া অভিনয়। তবে রোমান্টিক অভিনয়ে তার জুড়ি ছিলো না। তাই আপামর দর্শক তাঁকে আজো ‘মিষ্টি মেয়ে’ বলে ডাকে। তার বিপরীতে অভিষেক হয়েছে নায়ক জাফর ইকবাল, ফারুক, আলমগীর, উজ্জ্বল ও সোহেল রানার। যারা পরবর্তীতে জনপ্রিয় নায়ক হয়েছেন। নায়িকাদের মধ্যে এমন রেকর্ড আর কারো নেই। ‘আয়না’ ছবি পরিচালনা করে চলচ্চিত্র পরিচালক হিসেবে তিনি নিজেকে পরিচিত করেন। ‘এই তুমি সেই তুমি’ তার পরিচালিত আরেক চলচ্চিত্র।
২০১১ সালে বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে কবরী হেসে বলেছিলেন, ‘এখনও দেখা হলে কেউ কেউ বলেন, ‘আপনি ঠিক আগের মতই আছেন। কিন্তু কেউ কি কখনো একরকম থাকতে পারে! তখন আমি তাদের বলি যে, আপনি আমাকে ভীষণ ভালোবাসেন বলেই এরকম মনে হয়।’ হ্যাঁ গ্রাম বাংলার সাধারণ মধ্যবিত্ত থেকে শহুরে মানুষ নিজের আপনজনের চোখ দিয়ে চলচ্চিত্রে কবরীকে দেখতেন। যিনি রেখে গেছেন বাংলা চলচ্চিত্রে তাঁর অনন্য সব গর্বের সৃষ্টিকর্ম। নিজে হয়েছেন কিংবদন্তি এক অভিনেত্রী।

করোনা আক্রান্ত শিল্পী ফরিদা পারভীনের অবস্থা স্থিতিশিল
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন প্রখ্যাত লালনশিল্পী ফরিদা পারভীন। তবে তিনি এখন ভালো আছেন এবং তার জ্বর নেই বলে জানিয়েছেন তার ছেলে। ফরিদা পারভীনের ছেলে ছেলে ইমাম জাফর নোমানী গতকাল শুক্রবার বলেন, ‘আমার মায়ের অবস্থা এখন আগের চেয়ে অনেক ভালো। ভালোভাবেই রিকভার করছেন। তিনি ভালো আছেন, মায়ের জ্বর নেই।’ তিনি আরও বলেন, ‘তবে ফুসফুস আক্রান্ত হওয়ায় সুস্থ হতে কিছুটা সময় লাগবে বলে ডাক্তার বলেছেন। এছাড়া সবকিছুই স্বাভাবিক অবস্থায় আছে। দু’তিন দিনের মধ্যে তার আবার কোভিড টেস্ট করানো হবে। নেগেটিভ এলেই বাসায় নেব।’ এর আগে, গত ৮ এপ্রিল তার করোনা শনাক্ত হয়। ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী কিছুদিন বাসাতে চিকিৎসা নিলেও ১২ এপ্রিল তাকে ইউনিভার্সেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সিটি স্ক্যানের রিপোর্ট অনুযায়ী তার ফুসফুসের প্রায় ৫০ শতাংশ আক্রান্ত হয়েছিল। ফরিদা পারভীন লালনের গান গেয়ে দেশে-বিদেশে খ্যাতি পেয়েছেন? ১৯৫৪ সালের ৩১ ডিসেম্বর নাটোর জেলার সিংড়া থানার শাওল গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। জন্ম নাটোরে হলেও বড় হয়েছেন কুষ্টিয়ায়। ১৯৬৮ সালে রাজশাহী বেতারের তালিকাভুক্ত শিল্পী হিসেবে নজরুল সংগীত গাইতে শুরু করেন। পরবর্তীতে ১৯৭৩ সালের দিকে দেশাত্মবোধক গান গেয়ে জনপ্রিয়তা পান। সাধক মোকসেদ আলী শাহের কাছে ফরিদা পারভীন লালন সংগীতের তালিম নেন। ১৯৮৭ সালে ফরিদা পারভীন সংগীতাঙ্গনে বিশেষ অবদানের জন্য একুশে পদক পান। এছাড়া ২০০৮ সালে তিনি জাপান সরকারের পক্ষ থেকে ‘ফুকুওয়াকা এশিয়ান কালচার’ পুরস্কারও পেয়েছেন।

বঙ্গবন্ধুর কন্যার নের্তৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে: এনামুল হক শামীম
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক, শরীয়তপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য ও পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নের্তৃত্বে বাংলাদেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে। আওয়ামীলীগ তথা বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে শিক্ষা, চিকিৎসা, স্বাস্থ্য, সড়কসহ সব ক্ষেত্রে দেশের উন্নয়ন হয়। দেশের মানুষ শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাথে ঐক্যবদ্ধ আছে। তাই বঙ্গবন্ধুর কন্যার নের্তৃত্বে বাংলাদেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, কোন ষড়যন্ত্র করে এই অগ্রযাত্রাকে থামানো যাবে না। তাই শেখ হাসিনার সরকার বার বার দরকার। গতকাল সোমবার দুপুরে নড়িয়া উপজেলা ২ কোটি ৮৯ লাখ ২০ হাজার টাকা ব্যয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স ষ্ট্রেশন ভবন উদ্বোধন শেষে এসব কথা বলেন। উপমন্ত্রী বলে, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ রাষ্ট্র ক্ষমতায় আছে বলেই বিশ্ব নেতারা মনে করেন, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার হাতেই নিরাপদ। পরে উপমন্ত্রী ১ কোটি ৫৮ লাখ ১৩ টাকা ব্যয়ে ভোজেশ্বর ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স, ৬০ লাখ টাকা ব্যয়ে ভোজেশ্বর ইউনিয়ন ভূমি অফিস ভবন ও এক কোটি ২৬ লাখ টাকা ব্যয়ে আনাখন্ড বেইলি ব্রিজ থেকে ভেনপা পর্যন্ত সড়ক মেরামতের শুভ উদ্বোধন করেন। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জয়ন্তী রুপা রায়, নড়িয়া পৌরসভায় মেয়র আবুল কালাম আজাদ, নড়িয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা একেএম ফজলুল হক মাল, সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান খোকন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম সিকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক মিহির চক্রবর্তী, দপ্তর সম্পাদক শাহ আলম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. জাকির হোসেন বেপারীসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

২ লক্ষ টাকা পেলে বেঁচে যাবেন ক্যান্সার আক্রান্ত রাশেদা
                                  

শরীয়তপুর প্রতিনিধি : শরীয়তপুর জেলার ডামুড্যা উপজেলার বড় শিধলকুড়া গ্রামের মনির হোসেন এর স্ত্রী ২ সন্তানের জননী মোসাঃ রাশেদা বেগম (৩৮) ক্যান্সার আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন। তার পরিবারের সর্বস্ব বিক্রি করে তার চিকিৎসা কার্যক্রম চালিয়ে নেওয়ার পরেও এখনো আরও দুই লক্ষ টাকার জন্য হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাচ্ছেন না রাশেদা। গত দুই মাস পূর্বে ঢাকা ক্যান্সার হাসপাতালের চিকিৎসক রফিকুল ইসলাম এর পরীক্ষায় তার ক্যান্সার ধরা পড়ে। এর পরে ঢাকা, খুলনা সহ বিভিন্ন যায়গায় চিকিৎসার পরে ৯ এপ্রিল শুক্রবার ঢাকার ডেলটা হেলথ কেয়ার হাসপাতাল রামপুরায় তার অপারেশন সম্পন্ন হয়েছে। এখন হাসপাতাল থেকে টাকার জন্য চিকিৎসা কার্যক্রম বন্ধ হয়ে যাচ্ছে বলে তার স্বামী মনির হোসেন জানান। মাত্র দুই লক্ষ টাকা পেলে রাশেদা আবার স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে পারবে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। শরীয়তপুর তথা দেশের ধর্নাঢ্য ব্যক্তিবর্গ তাদের সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিলে রাশেদা তার স্বামী সন্তানের কাছে স্বাভাবিক ভাবে ফিরে আসতে পারবেন। এ জন্য রাশেদার পরিবারের পক্ষ থেকে সবার কাছে আর্থিক সহায়তা কামনা করেছেন। রাশেদাকে সহায়তা পাঠানোর জন্য বিকাশ নং-০১৭৪১-১১৮২৮০, রকেট নং-০১৯১৭-৭৪৯৮৫৬।

রমজানে ছয় নিত্যপণ্যের দাম বেঁধে দিলো সরকার
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : কৃষি বিপণন অধিদপ্তর জানিয়েছে, রমজান মাসে প্রায় ৮০ হাজার মেট্রিক টন ছোলা, তিন লাখ টন পেঁয়াজ, দুই লাখ টন ভোজ্যতেল, ৮০ হাজার টন মসুর ডাল, এক লাখ ৩৬ হাজার টন চিনি ও ৪০ থেকে ৫০ হাজার টন খেজুরের চাহিদা রয়েছে। পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে নিত্য প্রয়োজনীয় ছয়টি পণ্যের দাম বেঁধে দিয়েছে সরকার। গতকাল সোমবার এক বিজ্ঞপ্তিতে কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের বেঁধে দেওয়া দাম অনুযায়ী পণ্য বিক্রি নিশ্চিত করতে সরকারের বিভিন্ন সংস্থা সমন্বিতভাবে কাজ করবে। নতুন বেঁধে দেওয়া দাম অনুযায়ী খুচরা বাজারে ছোলা কেজিপ্রতি ৬৩ থেকে ৬৭ টাকা, পেঁয়াজ ৪০ টাকা, ভোজ্যতেলের এক লিটারের বোতল ১৩৯ টাকা, পাঁচ লিটারের বোতল ৬৬০ টাকা, মোটা দানার মসুর ডাল ৬৭ থেকে ৬৯ টাকা ও সরু দানার ডাল ৯৭ থেকে ১০৩ টাকা, চিনির খুচরা মূল্য কেজিপ্রতি ৬৭ থেকে ৬৮ টাকা এবং সাধারণ মানের খেজুর কেজিপ্রতি ৮০-১০০ ও মধ্যম মানের খেজুর ২০০-২৫০ টাকার বেশি বিক্রি করতে পারবে না। বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বাজার পর্যালোচনা, সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী এবং সরকারি-বেসরকারি সংস্থার সঙ্গে আলোচনা করে ছোলা, পেঁয়াজ, ভোজ্যতেল, মসুর ডাল, চিনি ও খেজুরের দাম নির্ধারণ করে দেয়া হলো।

কোভ্যাক্স থেকে শিগগিরই ৭ কোটি ডোজ টিকা পাবে বাংলাদেশ
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : আগামী মে মাসের শুরুতে কোভ্যাক্স থেকে ছয় কোটি ৮০ লাখ ডোজ ভ্যাকসিন বাংলাদেশ পাবে বলে জানিয়েছে বিশ্বব্যাংক। সোমবার সকালে প্রকাশিত ‘বাংলাদেশ আপডেট’ শীর্ষক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। প্রতিবেদন প্রকাশ উপলক্ষে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। এতে বক্তব্য রাখেন বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর মাসিং মিয়াং টেম্বন। প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন সংস্থাটির সিনিয়র ইকোনমিস্ট বানার্ড হ্যাভেন। প্রতিবেদন প্রকাশ উপলক্ষে বিশ্বব্যাংকের দেশীয় পরিচালক মার্সি টেম্বন সাংবাদিকদের ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে বলেন, ‘ভ্যাকসিন প্রাপ্তি নিয়ে বৈশ্বিকভাবে অনিশ্চয়তা রয়েছে। তবে বাংলাদেশ কোভ্যাক্স থেকে ভ্যাকসিন খুব শিগগিরই পাবে।` তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকারের ভ্যাকসিন কিনতে অর্থের কোনও সমস্যা নেই। বিশ্বব্যাংকও ৫০ কোটি ডলার দিতে যাচ্ছে যা দিয়ে দেশের তিন ভাগ মানুষের জন্য ভ্যাকসিন কেনা যাবে।’ প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনা মহামারির মধ্যেও বাংলাদেশে অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের লক্ষণ দেখা যাচ্ছে। চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ২ দশমিক ৬ শতাংশ থেকে ৫ দশমিক ৬ শতাংশ হতে পারে। প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, কোভিড ১৯-এর কারণে তৈরি অনিশ্চয়তা সত্ত্বেও বাংলাদেশের অর্থনীতির প্রতি দৃষ্টিভঙ্গি ইতিবাচক। পুনরুদ্ধারের গতি বেশিরভাগের ওপর নির্ভর করে দ্রুত টিকা কীভাবে অর্জন করা যায়। মুদ্রাস্ফীতি বাংলাদেশ ব্যাংকের ৫ দশমিক ৫ শতাংশ লক্ষ্যমাত্রার কাছাকাছি থাকতে পারে। বৈশ্বিক উদ্যোগ কোভ্যাক্স’র সঙ্গে বিশ্বব্যাংকও রয়েছে।

লকডাউনে কর্মহীন পরিবার পাবে ৫০০ টাকা ও খাবার
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে ১৪ এপ্রিল থেকে সরকার সারা দেশে সর্বাত্মক লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে। লকডাউন চলাকালীন কর্মহীন প্রতিটি পরিবারকে নগদ ৫০০ টাকা এবং লকডাউন বাড়লে কর্মহীন প্রতিটি পরিবারকে চাল, ডাল, তেলসহ নিত্যপণ্য দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, সরকার ইতোধ্যে কর্মহীন পরিবারের জন্য ৫৭২ কোটি ৯ লাখ ২৭ হাজার টাকা বরাদ্দ দিয়েছে। যা এরই মধ্যে প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদ ও সিটি কপোরেশনের ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে পৌঁছে গেছে। তবে, কঠোর লকডাউন সাত দিনের বেশি বাড়লে প্রতিটি কর্মহীন পরিবারকে দেওয়া হবে খাবারের প্যাকেট। এর মধ্যে থাকবে ১০ কেজি চাল, এক কেজি তেল, এক কেজি ডাল, চার কেজি আলু, এক কেজি লবণ। সহায়তার এই সব পণ্যপ্যাকেট জনপ্রতিনিধিরা পৌঁছে দেবেন নিজ নিজ এলাকার তালিকাভুক্ত কর্মহীন পরিবারে। গত বৃহস্পতিবার সরকারি এক তথ্য বিবরণীতে জানানো হয়েছে, প্রায় এক কোটি ২৪ লাখ ৪১ হাজার ৯০০ পরিবারকে ভিজিএফ (ভালনারেবল গ্রুপ ফিডিং) কর্মসূচির আওতায় এ আর্থিক সহায়তা দেবে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, পরিবারপ্রতি ৪৫ টাকা কেজি দরে ১০ কেজি চালের সমমূল্য, অর্থাৎ কার্ডপ্রতি ৪৫০ টাকা হলেও ৫০ টাকা বাড়িয়ে দেওয়া হবে ৫০০ টাকা হারে। যা পাবে কর্মহীন প্রতিটি পরিবার। এটি করোনাকালীন প্রথম উদ্যোগ। জানা গেছে, দেশের ৬৪টি জেলার ৪৯২টি উপজেলার জন্য ৮৭ লাখ ৭৯ হাজার ২০৩টি কার্ড এবং ৩২৮টি পৌরসভার জন্য ১২ লাখ ৩০ হাজার ৭৪৬টি কার্ডসহ মোট এক কোটি ৯ হাজার ৯৪৯টি ভিজিএফ কার্ডের বিপরীতে ৪৫০ কোটি ৪৪ লাখ ৭৭ হাজার ৫০ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।
এ ছাড়া কোভিড পরিস্থিতিসহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় পরিবারকে তাৎক্ষণিকভাবে খাদ্য সহায়তার জন্য ১২১ কোটি ৬৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ৬৪টি জেলার ৪ হাজার ৫৬৮টি ইউনিয়নের প্রতিটিতে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা হারে মোট ১১৪ কোটি ২০ লাখ টাকা মানবিক সহায়তা দেওয়া হবে।
ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর, গাজীপুর এবং চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের জন্য ৭ লাখ টাকা হারে বরাদ্দ দেয়া হয়। ময়মনসিংহ, নারায়ণগঞ্জ, কুমিল্লা, রাজশাহী, রংপুর, খুলনা, বরিশাল এবং সিলেট সিটি করপোরেশনের জন্য ৫ লাখ টাকা হারে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে সারা দেশের ৩২৮টি পৌরসভার অনুকূলে মোট ৫ কোটি ৬৭ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। এর মধ্যে ‘এ’ ক্যাটাগরির প্রতিটি পৌরসভার জন্য ২ লাখ টাকা, ‘বি’ ক্যাটাগরির প্রতিটি পৌরসভার জন্য এক লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ‘সি’ ক্যাটাগরির প্রতিটি পৌরসভার জন্য এক লাখ টাকা হারে বরাদ্দ দেওয়া হয়।

বাবুনগরী মামুনুলসহ ৪৩ আসামির বিরুদ্ধে চার্জশিট
                                  

কোর্ট রিপোর্টার : হেফাজতে ইসলামের সাবেক আমির শাহ আহমদ শফীকে হত্যার অভিযোগ দায়ের করা মামলা নতুন মোড় নিয়েছে। পুলিশ তদন্ত শেষে হেফাজত নেতা বাবুনগরী, মামুনুল হক, আজিজুলসহ ৪৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেছে। গতকাল সোমবার দুপুরে চট্টগ্রাম জুডিশিয়াল তৃতীয় জজ আদালতে চার্জশিট দাখিল করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। গত বছরের ১৭ ডিসেম্বর সকালে আহমদ শফীর শ্যালক মোহাম্মদ মাঈনুদ্দিন বাদী হয়ে চট্টগ্রামের তৃতীয় জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালত-৩ এ হত্যা মামলা দায়ের করেছিলেন। মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, আহমদ শফীকে আটকে রেখে মানসিক নির্যাতন এবং তার অক্সিজেন মাস্ক খুলে দিয়ে আসামিরা তাকে হত্যা করে।

রোজার বাজারে ভাজ্যতেল নিয়ে এনবিআর
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : রমজান উপলক্ষে দ্রব্যমূল্য সহনশীল রাখার জন্য আমদানি করা অপরিশোধিত সয়াবিন ও পাম তেলের ওপর ৪ শতাংশ অগ্রিম কর প্রত্যাহার করা হয়েছে। গতকাল রোববার জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) এ প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। রোজার মৌসুমে ভোজ্যতেলসহ বিভিন্ন ধরনের নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বেড়ে যায়। নিম্ন আয়ের পাশাপাশি মধ্যবিত্তের বাজারে হিসাবে টান লাগে। তাই সরকার আমদানি পর্যায়ে যাতে খরচ কমে যায়, সে জন্য অগ্রিম কর কমাল। এর আগে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি প্রথম দফায় দেশের বাজারে ভোজ্যতেলের দাম নির্ধারণ করে দেয় সরকার। বলা হয়, খুচরা বাজারে খোলা সয়াবিন ১১৫ টাকা লিটারে বিক্রি হবে। বোতলজাত সয়াবিনের লিটার বিক্রি হবে ১৩৫ টাকায়। এ ছাড়া পাম সুপার বিক্রি হবে ১০৪ টাকা লিটার দরে। পরে আবার গত ১৫ মার্চ ভোজ্যতেলের দাম আরেক দফা বাড়িয়ে দাম নির্ধারণ করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। এক লিটারের এক বোতল সয়াবিন তেলের দাম নির্ধারণ হয় ১৩৯ টাকা। চলতি বছরের শুরু থেকে অস্থির হয়ে পড়ে ভোজ্যতেলের বাজার। দফায় দফায় বাড়তে থাকে দাম। ফেব্রুয়ারি মাসে দাম বেড়ে ১০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ অবস্থানে উঠে আসে। অপরিশোধিত তেল আমদানিতে ১৫ শতাংশ ভ্যাট ও ৪ শতাংশ অগ্রিম কর দিতে হয় ব্যবসায়ীদের। বিশ্ববাজারে তেলের দাম বাড়লে ওই দামের ওপর ভিত্তি করে ভ্যাট ও কর আদায় করলে স্থানীয় বাজারেও দাম বাড়ে। আর এ পরিপ্রেক্ষিতেই এই অগ্রিম কর প্রত্যাহার করা হলো।

কর্মী ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে জনকণ্ঠ অফিসে তালা
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : দৈনিক জনকণ্ঠে কর্মী ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে গতকাল রোববার দুপুরে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান ফটকে তালা দিয়েছেন চাকরি হারানো কর্মীরা। পরে তারা রাজধানীর নিউ ইস্কাটনে জনকণ্ঠ অফিসের সামনের সড়কে যান চলাচল বন্ধ করে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন। তাদের আন্দোলনে সংহতি জানিয়ে অংশগ্রহণ করেন সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। জনকণ্ঠের কর্মীদের অভিযোগ, গত সাত বছর ধরে প্রতিষ্ঠানটিতে পদোন্নতি এবং ইনক্রিমেন্ট বন্ধ ছিল। এরমধ্যে অনেক কর্মীর অষ্টম ওয়েজ বোর্ড বাস্তবায়ন করা হয়নি। এসব যৌক্তিক পাওনা পরিশোধের জন্য কর্তৃপক্ষকে কয়েক দফা চিঠি দেয়া হয়েছিল। কিন্তু কর্তৃপক্ষ তাদের এই আবেদনে সাড়া দেয়নি। এর মধ্যে গত ১৬ মার্চ অন্তত ৬০ শতাংশ কর্মীকে ছাঁটাই করে তাদের মেইলে চিঠি পাঠায় জনকণ্ঠ কর্তৃপক্ষ। তাই এই ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে তারা আন্দোলন করছেন। অবিলম্বে এই ছাঁটাইয়ের আদেশ প্রত্যাহার করতে হবে। পাশাপাশি বকেয়া বেতন-ভাতা এবং প্রমোশন ও ইনক্রিমেন্ট দিতে হবে। বেলা ১২টা থেকে শুরু হওয়া ওই অবস্থান ও বিক্ষোভ কর্মসূচিতে সংহতি জানিয়ে অবস্থান নেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি আবু জাফর সূর্য, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক মনিরুল আলমসহ বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিসহ সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। বিকেলে এ প্রতিবেদন তৈরি পর্যন্ত তাদের অবস্থান অব্যাহত ছিল। ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক খায়রুল আলম বলেন, জনকণ্ঠে চাকরিচ্যুত কর্মীদের পাশে আমরা রয়েছি। আমরা চাই দ্রুত সময়ে তাদের পুনর্বহাল করা হোক। তবে কর্মী ছাঁটাইয়ের কয়েকদিন পরই (গত ২২ মার্চ) মারা যান দৈনিক জনকণ্ঠের সম্পাদক ও প্রকাশক মোহাম্মদ আতিকউল্লাহ খান মাসুদ।


   Page 1 of 397
     জাতীয়
টিকার বিকল্প দেশের সন্ধান চলছে, সেরাম দিচ্ছে না
.............................................................................................
করোনা ভ্যাকসিনকে বৈশ্বিক গণপণ্য ঘোষণা চান শেখ হাসিনা
.............................................................................................
মামুনুল সাত দিনের রিমান্ডে
.............................................................................................
করোনা দিন দিন ভীতিকর হচ্ছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
বাঁশখালীতে শ্রমিক পুলিশের সংঘর্ষে গুলিতে নিহত ৫
.............................................................................................
সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে রুখে দিতে হবে : কাদের
.............................................................................................
রোমান্টিক অভিনেত্রী কবরী পাড়ি জমিয়েছেন অনন্তলোকে
.............................................................................................
করোনা আক্রান্ত শিল্পী ফরিদা পারভীনের অবস্থা স্থিতিশিল
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধুর কন্যার নের্তৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে: এনামুল হক শামীম
.............................................................................................
২ লক্ষ টাকা পেলে বেঁচে যাবেন ক্যান্সার আক্রান্ত রাশেদা
.............................................................................................
রমজানে ছয় নিত্যপণ্যের দাম বেঁধে দিলো সরকার
.............................................................................................
কোভ্যাক্স থেকে শিগগিরই ৭ কোটি ডোজ টিকা পাবে বাংলাদেশ
.............................................................................................
লকডাউনে কর্মহীন পরিবার পাবে ৫০০ টাকা ও খাবার
.............................................................................................
বাবুনগরী মামুনুলসহ ৪৩ আসামির বিরুদ্ধে চার্জশিট
.............................................................................................
রোজার বাজারে ভাজ্যতেল নিয়ে এনবিআর
.............................................................................................
কর্মী ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে জনকণ্ঠ অফিসে তালা
.............................................................................................
বুধবার থেকে সাধারণ ছুটির আভাস
.............................................................................................
প্রখ্যাত সংগীতশিল্পী মিতা হক করোনায় মারা গেলেন
.............................................................................................
করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধিতে রপ্তানি আয়ে আবারো বিপর্যয়ের শঙ্কা
.............................................................................................
প্রণোদনার হাজার কোটি টাকা অব্যবহৃত
.............................................................................................
করোনায় মারা গেলেন পরিবেশ অধিদপ্তরের ডিজি
.............................................................................................
করোনায় সাংবাদিক হাসান শাহরিয়ার মারা গেছেন
.............................................................................................
এক বন্দরে রাজস্ব আয় ৫৫৯ কোটি টাকা
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানাতে বাইডেনের দূত কেরি ঢাকায়
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ সম্মানে ভূষিত হচ্ছেন শেখ হাসিনা
.............................................................................................
আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর
.............................................................................................
সেনাপ্রধান চার ইউনিটকে রেজিমেন্টাল পতাকা দিলেন
.............................................................................................
লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির বিষয়ে সিদ্ধান্ত বৃহস্পতিবার
.............................................................................................
সকলের সঙ্গে বন্ধুত্ব এবং কারও সঙ্গে বৈরিতা নয় : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
মামুনুলের ঘটনায় আমার প্রচণ্ড লজ্জা লাগছে: হাছান মাহমুদ
.............................................................................................
এমপি আসলামুল হক আসলাম আর নেই
.............................................................................................
শীতলক্ষায় অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে লঞ্চডুবি
.............................................................................................
রাজউক শ্রমিক কর্মচারী লীগের নির্বাচন অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
রেলস্টেশন ও বাস টার্মিনালে ঘরমুখো মানুষের ভিড়
.............................................................................................
রোহিঙ্গাদের জন্য মেডিকেল সামগ্রী নিয়ে ঢাকায় তুর্কি বিমান
.............................................................................................
সাবেক ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মুফতি ওয়াক্কাস আর নেই
.............................................................................................
করোনার টিকা নিলেন ওবায়দুল কাদের
.............................................................................................
ব্যবসায়িরা এবার ভ্যাটও খেয়ে ফেলতে পারে
.............................................................................................
নগরবাসি নতুন যুদ্ধে পরাজিত
.............................................................................................
প্রভাব জানান দিলো করোনা, আরও ৫২ মৃত্যু সংক্রমণ বাড়ছেই
.............................................................................................
হরতালে ২২ ঘণ্টা অচল ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক
.............................................................................................
মাটিচাপা দেয়া হচ্ছে ২৯৮ কনটেইনার পণ্য
.............................................................................................
বাস অর্ধেক খালি থাকবে, ভাড়া বাড়লো ৬০ শতাংশ
.............................................................................................
করোনায় আক্রান্ত আবদুল মতিন খসরু আইসিইউতে
.............................................................................................
অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করবে ট্রেন
.............................................................................................
আজ হরতাল ডেকেছে হেফাজত, পরিবহন চলবে
.............................................................................................
রাজশাহী ট্র্যাজেডির ১৭ লাশ হস্তান্তর, চালক গ্রেফতার
.............................................................................................
ওড়াকান্দি আসার ইচ্ছা অনেক দিন পর আজ পূরণ হলো : মোদি
.............................................................................................
গ্রামীণফোনের বিরুদ্ধে তথ্য পাচারের মামলার প্রতিবেদন ২৯ এপ্রিল
.............................................................................................
পরিত্যক্ত সেল থেকে গাইবান্ধায় বিস্ফোরণ: র‌্যাব
.............................................................................................

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মো: রিপন তরফদার নিয়াম
প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক : মফিজুর রহমান রোকন
নির্বাহী সম্পাদক : শাহাদাত হোসেন শাহীন
বাণিজ্যিক কার্যালয় : "রহমানিয়া ইন্টারন্যাশনাল কমপ্লেক্স"
(৬ষ্ঠ তলা), ২৮/১ সি, টয়েনবি সার্কুলার রোড,
মতিঝিল বা/এ ঢাকা-১০০০| জিপিও বক্স নং-৫৪৭, ঢাকা
ফোন নাম্বার : ০২-৪৭১২০৮০৫/৬, ০২-৯৫৮৭৮৫০
মোবাইল : ০১৭০৭-০৮৯৫৫৩, 01731800427
E-mail: dailyganomukti@gmail.com
Website : http://www.dailyganomukti.com
   © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop