ঢাকা,সোমবার,১২ আশ্বিন ১৪২৮,২৭,সেপ্টেম্বর,২০২১ বাংলার জন্য ক্লিক করুন
  
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : > কোস্টগার্ডের অভিযানে ইয়াবা ও গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক   > বাণিজ্য সম্প্রসারণে বৈশ্বিক ভিত্তি বঙ্গবন্ধুর তৈরি করা   > সাবেক প্রতিমন্ত্রী মান্নান ও তাঁর স্ত্রীর বিচার শুরু   > করোনায় শনাক্ত বেড়েছে, মৃত্যু ২১   > প্রধানমন্ত্রী ওয়াশিংটনে অবস্থান করছেন   > একদিনে ৮০ লাখ ডোজ টিকা   > রাজবাড়ীতে জন্ম নিবন্ধন তৈরিতে নাজেহাল সনদ গ্রহিতারা   > গ্রাম ও শহরের মধ্যে পার্থক্য থাকবে না : এমপি নয়ন   > সোনাইমুড়ীতে সাংবাদিকদের মানববন্ধন   > নন্দীগ্রামে ১৫ বছরেও চালু হয়নি হাসপাতাল  

   প্রবাস -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
নিউইয়র্কে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি কর্মীদের সংঘর্ষ

স্টাফ রিপোর্টার, নিউইয়র্ক থেকে : নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটস এলাকায় শতশত আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ব্যস্ত বাণিজ্যিক এই এলাকায় শনিবার রাতে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হাতাহাতির ঘটনায় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা যায়। অনেকের হাতে লাঠি দেখা যায়। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান জানিয়েছেন, তার সমর্থকদের ওপর হামলা করার কারণে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তিনি হাসপাতালে খবর নিয়েছেন বলে জানান। বিএনপির পক্ষ থেকেও অভিযোগ করা হয়েছে, তাদের একটি মিছিল জ্যাকসন হাইটস এলাকা দিয়ে যাবার সময় হামলা করা হলে বেশ কয়েকজন আহত হন। পরে তারা পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন। এ সময় দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়।
জাতিসংঘের ৭৬তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৗঁছাবার আগের রাতে দুপক্ষের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। নিউইয়র্ক পুলিশ দুই পক্ষকে সড়ক থেকে সরিয়ে দেবার চেষ্টা করে। এ সময় বিক্ষোভরত কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। রোববার বিকেলে আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা এনএফকে বিমানবন্দরে ব্যানার নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে জড়ো হলে সেখানেও বিএনপির কর্মীরা ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে পাল্টা কর্মসূচি পালন করে। তারা বেগম জিয়া ও জিয়াউর রহমানের পক্ষে সেøাগান দেয়। জ্যাকজন হাইটসে আওয়ামী লীগ সমর্থকরা বিএনপি সমর্থকদের ‘তালেবান’ বলার পর দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। এর আগেও নিউইয়র্কে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে। তবে এবারের হাতাহাতি ছিলো অন্যবারের চেয়ে অনেক বেশি এবং উদ্বেগজনক। অসংখ্য বিদেশি সংঘর্ষের ঘটনা দেখে বিস্ময় প্রকাশ করেন। জ্যাকসন হাইটস মূলত ব্যবসায়িক ও পর্যটন এলাকা। মিছিল ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় সাধারণ মানুষের মধ্যে নানা প্রশ্ন তৈরি হয়েছে। দেশের ভাবমূর্তি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রবাসিরা। অন্য কোন কমিউনিটিতে এমন ঘটনা বিরল।
এবারের জাতিসংঘ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ কর্তৃক আয়োজিত ‘রোহিঙ্গা সংকট : একটি টেকসই সমাধানের বাধ্যবাধকতা’ শীর্ষক একটি উচ্চপর্যায়ের সাইড ইভেন্টে অংশগ্রহণ করবেন। ইতোমধ্যে এ অনুষ্ঠান আয়োজনে ওআইসি, এশিয়ান এবং ইউরোপিয়ান দেশগুলোর পক্ষ থেকে সাড়া পাওয়া গেছে। বাংলাদেশ ছাড়াও গাম্বিয়া, ইন্দোনেশিয়া, সৌদি আরব, তুরস্ক, যুক্তরাজ্য, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন এবং ওআইসি অনুষ্ঠানটির সহআয়োজক। আমরা রোহিঙ্গা সমস্যার পঞ্চম বছরে পদার্পণ করেছি কিন্তু পাঁচ বছরে একজনকেও মিয়ানমারে পাঠানো সম্ভব হয়নি। অথচ রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবর্তন আমাদের জন্য এক নম্বর অগ্রাধিকার ইস্যু। এই সাইড ইভেন্টের মাধ্যমে এ বক্তব্যই আমরা বিশ্ববাসীর কাছে পৌঁছে দিতে চাই। আন্তরিকতার সাথে এবং সত্যিকার অর্থে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বিশ্ব যেন আমাদের পাশে দাঁড়ায় বাংলাদেশ সেই আহবান জানাবে। যুক্তরাষ্ট্রে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা রোহিঙ্গা ইস্যুর মতো ঘটনা নিয়ে কর্মসূচি পালন সুযোগ থাকলেও তারা এসব বিষয় এড়িয়ে যান বলে স্থানীয় সাংবাদিকরা এই প্রতিবেদককে জানান।

নিউইয়র্কে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি কর্মীদের সংঘর্ষ
                                  

স্টাফ রিপোর্টার, নিউইয়র্ক থেকে : নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটস এলাকায় শতশত আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ব্যস্ত বাণিজ্যিক এই এলাকায় শনিবার রাতে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হাতাহাতির ঘটনায় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন বলে জানা যায়। অনেকের হাতে লাঠি দেখা যায়। যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান জানিয়েছেন, তার সমর্থকদের ওপর হামলা করার কারণে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তিনি হাসপাতালে খবর নিয়েছেন বলে জানান। বিএনপির পক্ষ থেকেও অভিযোগ করা হয়েছে, তাদের একটি মিছিল জ্যাকসন হাইটস এলাকা দিয়ে যাবার সময় হামলা করা হলে বেশ কয়েকজন আহত হন। পরে তারা পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন। এ সময় দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়।
জাতিসংঘের ৭৬তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৗঁছাবার আগের রাতে দুপক্ষের মধ্যে এই সংঘর্ষ হয়। নিউইয়র্ক পুলিশ দুই পক্ষকে সড়ক থেকে সরিয়ে দেবার চেষ্টা করে। এ সময় বিক্ষোভরত কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। রোববার বিকেলে আওয়ামী লীগের নেতা কর্মীরা এনএফকে বিমানবন্দরে ব্যানার নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে জড়ো হলে সেখানেও বিএনপির কর্মীরা ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে পাল্টা কর্মসূচি পালন করে। তারা বেগম জিয়া ও জিয়াউর রহমানের পক্ষে সেøাগান দেয়। জ্যাকজন হাইটসে আওয়ামী লীগ সমর্থকরা বিএনপি সমর্থকদের ‘তালেবান’ বলার পর দুই পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। এর আগেও নিউইয়র্কে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে। তবে এবারের হাতাহাতি ছিলো অন্যবারের চেয়ে অনেক বেশি এবং উদ্বেগজনক। অসংখ্য বিদেশি সংঘর্ষের ঘটনা দেখে বিস্ময় প্রকাশ করেন। জ্যাকসন হাইটস মূলত ব্যবসায়িক ও পর্যটন এলাকা। মিছিল ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় সাধারণ মানুষের মধ্যে নানা প্রশ্ন তৈরি হয়েছে। দেশের ভাবমূর্তি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন প্রবাসিরা। অন্য কোন কমিউনিটিতে এমন ঘটনা বিরল।
এবারের জাতিসংঘ অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ কর্তৃক আয়োজিত ‘রোহিঙ্গা সংকট : একটি টেকসই সমাধানের বাধ্যবাধকতা’ শীর্ষক একটি উচ্চপর্যায়ের সাইড ইভেন্টে অংশগ্রহণ করবেন। ইতোমধ্যে এ অনুষ্ঠান আয়োজনে ওআইসি, এশিয়ান এবং ইউরোপিয়ান দেশগুলোর পক্ষ থেকে সাড়া পাওয়া গেছে। বাংলাদেশ ছাড়াও গাম্বিয়া, ইন্দোনেশিয়া, সৌদি আরব, তুরস্ক, যুক্তরাজ্য, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন এবং ওআইসি অনুষ্ঠানটির সহআয়োজক। আমরা রোহিঙ্গা সমস্যার পঞ্চম বছরে পদার্পণ করেছি কিন্তু পাঁচ বছরে একজনকেও মিয়ানমারে পাঠানো সম্ভব হয়নি। অথচ রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে প্রত্যাবর্তন আমাদের জন্য এক নম্বর অগ্রাধিকার ইস্যু। এই সাইড ইভেন্টের মাধ্যমে এ বক্তব্যই আমরা বিশ্ববাসীর কাছে পৌঁছে দিতে চাই। আন্তরিকতার সাথে এবং সত্যিকার অর্থে রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে বিশ্ব যেন আমাদের পাশে দাঁড়ায় বাংলাদেশ সেই আহবান জানাবে। যুক্তরাষ্ট্রে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা রোহিঙ্গা ইস্যুর মতো ঘটনা নিয়ে কর্মসূচি পালন সুযোগ থাকলেও তারা এসব বিষয় এড়িয়ে যান বলে স্থানীয় সাংবাদিকরা এই প্রতিবেদককে জানান।

আবুধাবিতে প্রবেশে আরেক নিয়ম নিয়ে বাংলাদেশিরা বিপাকে
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে অধিকতর সতকর্তামূলক ব্যবস্থা হিসেবে আবুধাবিতে প্রবেশে নতুন নিয়ম করা হয়েছে। এখন থেকে যাত্রীদের যাত্রার তিন থেকে চার ঘণ্টা আগে পিসিআর নেগেটিভ সনদ নেওয়ার শর্ত যুক্ত করেছে আবুধাবি কর্তৃপক্ষ। সিভিল এভিয়েশনের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান শুক্রবার গণমাধ্যমকে এ বিষয়টি জানান। সম্প্রতি ভারত, পাকিস্তানসহ কয়েকটি দেশে যাত্রীদের বিমানে চড়ার চার ঘণ্টা আগে পিসিআর নেগেটিভ সনদ নিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতে প্রবেশের সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। তবে বাংলাদেশের কোনো বিমানবন্দরে র‌্যাপিড পিসিআর টেস্টের ব্যবস্থা নেই। এই টেস্টের জন্য প্রয়োজনীয় জায়গারও অভাব রয়েছে হযরত শাহজালাল (রাহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। ফলে যাত্রার কয়েক ঘণ্টা আগে করোনা টেস্টের সুযোগ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন বাংলাদেশিরা। গত ৫ আগস্ট থেকে এয়ারলাইন্সগুলোকে আবার ট্রানজিট যাত্রী পরিবহনের অনুমতি দেয় ইউএই। কিন্তু শুধু দুবাই হয়ে প্রবাসীরা ইউরোপ ও আমেরিকাসহ বিশ্বের বিভিন্ন গন্তব্যে যাওয়ার সুযোগ পেলেও আবুধাবি হয়ে ট্রানজিটের ক্ষেত্রে নতুন নিয়ম চালু করে। এ বিষয়ে সিভিল এভিয়েশনের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মফিদুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, আবুধাবিতে প্রবেশে যাত্রীদের যাত্রার তিন থেকে চার ঘণ্টা আগের পিসিআর নেগেটিভ সনদ নেওয়ার শর্ত যুক্ত করেছে আবুধাবি কর্তৃপক্ষ। তবে এ শর্ত পূরণ করলেই যে বাংলাদেশিরা সরাসরি আবুধাবি হয়ে ট্রানজিট করতে পারবেন সেই বিষয়টি স্পষ্ট নয়। এ ব্যাপারে এয়ারলাইন্সগুলোকে সুনিদির্ষ্ট তথ্য দিতে বলা হয়েছে। সংযুক্ত আরব আমিরাত সরকার বাংলাদেশিদের প্রবেশ বন্ধ রাখায় বিপাকে পড়েছেন ছুটিতে দেশে আসা প্রবাসীকর্মীরা। ভ্রমণ বা ভিজিট ভিসায় সে দেশে গিয়ে চাকরি প্রত্যাশীরাও নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের অপেক্ষায় দিন গুনছেন।

মাল্টায় অবৈধ বাংলাদেশিদের আইনি সহায়তা দেবে ‘আয়েবা’
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : আবারও মাল্টা থেকে ১৫৮ জন বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠানোর খবর এসেছে। এই খবরে প্রবাসীদের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। এসব অসহায়দের পাশে থাকার জন্য ইতোমধ্যে কাজ শুরু করেছে অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন (আয়েবা)। এর আগেও দেশটি থেকে ৪৪ বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠানো হয়। ইতোমধ্যে গ্রিসের বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তারাও মাল্টায় অবস্থান করছেন। একই সঙ্গে অবৈধরা বাংলাদেশি কিনা যাচাই করতে বাংলাদেশ থেকে একটি প্রতিনিধি দল এসে ১৬০ জনকে বাংলাদেশি নাগরিক হিসেবে শনাক্ত করেছেন। সূত্র জানায়, এর আগে ৪৬ জনকে পাঠানোর কথা থাকলেও দু`জন আইনি প্রক্রিয়ায় মাল্টাত থাকার সুযোগ পান। নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক মাল্টা আওয়ামী লীগের এক নেতা দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, দূতাবাস বাংলাদেশিদের রাখার ব্যবস্থা না করে তাদের জোরপূর্বক দেশে পাঠানোর জন্য আউট পাস দিচ্ছে।তিনি বলেন, অবৈধপথে আসা বাংলাদেশিরা মানবিক, রাজনৈতিক ও পারিবারিক সমস্যা দেখিয়ে মাল্টা সরকারের কাছে আশ্রয় প্রার্থনা করেন। এর আগে যাদেরকে দেশে পাঠানো হয়েছে। তারা কি অবস্থায় রয়েছে? কে নেয় তাদের খবর।
এ ব্যাপারে গ্রিসে বাংলাদেশ দূতাবাসের কাউন্সিলর মো. খালেদ বলেন, অভিযোগটি সত্য নয়। জোরপূর্বক কোনো বাংলাদেশিকে ফেরত পাঠানো হচ্ছে না। বরং তারা স্বেচ্ছায় চলে যেতে চাচ্ছে।
এদিকে অসহায় বাংলাদেশিদের পাশে থাকার জন্য অল ইউরোপিয়ান বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন (আয়েবা) মহাসচিব কাজী এনায়েত উল্লাহ জানান, ইতোমধ্যে আমাদের সংগঠন মাল্টা প্রশাসন ও ইউরোপ ইউনিয়নের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। পাশাপাশি মাল্টার এক বিজ্ঞ আইনজীবী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আলোচনা চলছে।
তিনি জানান, আইনজীবীদের সংগে আলোচনা চূড়ান্ত হলে আয়েবার হয়ে মাল্টায় যেসব অসহায় বাংলাদেশি রয়েছে তাদের জন্য তারা আইনি সহায়তা দিবে। আয়েবা দেশের স্বার্থে কাজ করতে সব সময় দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। এর আগে ২০১৬ সালে পর্তুগালে আয়েবার সহযোগিতায় তিন হাজার ৮শত বাংলাদেশিকে বৈধতা পাওয়ায় এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের মধ্যে চুক্তি অনুযায়ী ৯৩০০০ অসহায় ইউরোপে বসবাসকারী বাংলাদেশীকে জন প্রতি ১০০০০ ইউরো পূনর্বাষনের দিয়ে ইউরোপ ত্যাগে বাধ্য করবে।আয়েবা প্রথম থেকেই এই চুক্তির বিরুদ্ধে এবং বিভিন্ন দেশে অফিসিয়ালদের সংগে মিটিং করে তা মানবাধিকারের ভিত্বিতে বিবেচনার অনূরোধ জানায়। মহাসচিব আরো বলেন এর মধ্যে হাজার হাজার মানূষ ইউরোপে থাকার বৈধতা পেয়েছেন এবং ওনারা আনন্দিত যে মানবতাবাদি ইউরোপিয়ানরা ওনাদের আবেদনে সাড়া দিচ্ছেন। এরই ধারাবাহিকতায় আয়েবা মাল্টায় অসহায় বাংলাদেশিদের পাশে থাকার জন্য কাজ শুরু হয়েছে, আশা করি তারা আইনি সহায়তায় এবং মানবাধিকারের ভিত্তিতে মাল্টায় থেকে যেতে পারবেন।

কোয়ারেন্টিনের টাকা দিতে না পেরে বিপদের মুখে সৌদি প্রবাসীরা
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : সরকারি ছুটির দিনে সৌদিয়া এয়ারলাইনসের অফিস বন্ধ থাকায় হোটেল কোয়ারেন্টিনের টাকা জমা দিতে পারেননি প্রবাসীরা। এ কারণে অনেক প্রবাসীই আজ বুধবার ফ্লাইটের টিকেট থাকা সত্ত্বেও সৌদি আরবে যেতে পারবেন না। কুমিল্লার রুহুল আমিনের আজ দিবাগত রাত ২টার সময় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সৌদি আরবের জেদ্দার উদ্দেশে উড়াল দেওয়ার কথা। সেজন্য তিনি কুমিল্লা থেকে ঢাকায় পৌঁছান সকালেই। এরপর কারওয়ান বাজারে সৌদি এয়ারলাইনসের কার্যালয়ে যান হোটেল কোয়ারেন্টিন খরচ বাবদ ৬০ হাজার টাকা জমা দিতে। কিন্তু এয়ারলাইনসের মূল গেট বন্ধ দেখতে পান। গেটের দারোয়ান তাঁকে বলেছেন, আজ বুদ্ধ পূর্ণিমা উপলক্ষে সরকারি ছুটি। অন্যদিন আসতে। দারোয়ানের এ কথায় চিন্তায় পড়ে যান রুহুল আমিন। কারণ, রাতেই যে ফ্লাইট। কোয়ারেন্টিনের টাকা দিতে না পারলে উড়োজাহাজে উঠতে পারবেন না। ফলে কয়েকবার সৌদি এয়ারলাইনসের অফিসে ঢোকার চেষ্টা করেছেন। কিন্তু তাঁকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। এখন কী করবেন তা ভেবে পাচ্ছেন না। কারণ, তিনি কুমিল্লা থেকে তল্পিতল্পা গুছিয়ে ঢাকায় এসেছেন। বাড়ির সবার কাছ থেকে বিদায় নিয়েও এসেছেন। গতকাল দুপুর আড়াইটার দিকে সৌদি এয়ারলাইনসের গেটের সামনের ফুটপাতে বসে ছিলেন রুহুল আমিন। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘আমার রাতে ফ্লাইট। অথচ, চারদিকে ছোটাছুটি করেও কোয়ারেন্টিনের ৬০ হাজার টাকা জমা দিতে পারিনি। এখান থেকে বলা হচ্ছে, আজ আর হবে না। অন্য সময় আসতে বলছে গেটের দারোয়ান। দারোয়ান ছাড়া এয়ারলাইনসের কোনো কর্মকর্তাও আজ আসেনি। কারণ হিসেবে সরকারি ছুটিকে দেখাচ্ছে। কিন্তু আমাদের বলা হয়েছিল, ফ্লাইটের দিনে এসে টাকা জমা দিতে।’ রুহুল আমিন আরও বলেন, ‘কোনো উপায় না দেখে এখন সবকিছু গুছিয়ে এয়ারপোর্টের দিকে যাব। দেখি সেখানে গিয়ে কোনো ব্যবস্থা করা যায় কিনা। আর যদি না করা যায়, তাহলে আবার কাল সকালে এখানে ফিরে আসব। আসলে এই রাষ্ট্র আমাদের একটুও সম্মান করে না। অথচ, আমরা কত কষ্ট করে টাকা পাঠাই দেশে। দেড় মাস আগে ছুটিতে দেশে এসেছিলাম। এখন আটকে গেছি।’ শুধু রুহুল আমিন নন, এমন শত শত মানুষ আজ সকাল থেকে ভিড় জমান সৌদি এয়ারলাইনসের সামনে। যাদের মধ্যে কেউ তাদের কাজ মেটাতে পারেননি। এদের মধ্যে শাওন হাওলাদার একজন। তিনিও সকালে মাদারীপুর থেকে এসেছেন হোটেল কোয়ারেন্টিনের জন্য টাকা জমা দিতে।

টেক্সাসে এক পরিবারের ছয় বাংলাদেশির লাশ উদ্ধার
                                  

দ্য ডালাস মর্নিং নিউজ : যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের অ্যালেন শহরের একটি বাড়ি থেকে একই পরিবারের ছয় বাংলাদেশির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। দুই ভাই পরিবারের চার সদস্যকে হত্যা করার পর তারা নিজেরাও আত্মহত্যা করেছে বলে ধারণা পুলিশের। অ্যালেন পুলিশ জানিয়েছে, বড় ভাই তানভীর তৌহিদ (২১) ছোট দুই ভাই ফারহান তৌহিদ মানসিক বিষণ্নতায় ভুগছিল। তা থেকে মুক্তি পেতে তারা এই কাজ করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে মন করা হচ্ছে। হত্যাকাণ্ডের আগে ফারহান তৌহিদ ইনস্টাগ্রামে একটি দীর্ঘ ‘সুইসাইড নোট’ পোস্ট করেছেন। এতে তিনি লিখেছেন, ‘আমি নিজেকে ও আমার পরিবারকে হত্যা করেছি।’ নবম শ্রেণি থেকে মানসিক হতাশার বিরুদ্ধে কীভাবে লড়াই করেছেন ফারহান সে কথাও লিখেছেন। তার বড় ভাইও হতাশার সঙ্গে লড়াই করেছেন বলে জানিয়েছেন। গত ফেব্রুয়ারি মাসে ইনস্টাগ্রাম পোস্টে ফারহান লেখেন, তার ভাই বলেছেন, ‘আমরা যদি এক বছরে সবকিছু ঠিক করতে না পারি, তবে আমরা নিজেদের ও পরিবারকে হত্যা করব।’ নিজেরা আত্মহত্যা করলে পরিবার লজ্জায় পড়বে। তাই লজ্জা ও কষ্ট থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য অন্যদের হত্যা করে নিজেদের আত্মহত্যার কথা সুইসাইড নোটে উল্লেখ রয়েছে বলে পুলিশের বরাত দিয়ে মার্কিন সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে। সুইসাইড নোটে হত্যার পরিকল্পনার কথাও লেখা আছে। পুলিশ জানিয়েছে, দুই ভাই ‘সুইসাইড নোট’ রেখে গেছেন। এই নোট থেকে মনে করা হচ্ছে, তারা হতাশায় ভুগছিলেন। পরিবারকে লজ্জা ও কষ্ট থকে মুক্তি দেওয়ার জন্য দুই ভাই সবাইকে হত্যা করে নিজেরা আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছেন বলে সুইসাইড নোটে উল্লেখ রয়েছে।
ওই পরিবারের এক বন্ধুর কাছ থেকে ফোন পেয়ে ডালাস শহরতলির অ্যালেনের পাইন ব্লাফ ড্রাইভ এলাকার ওই বাড়িতে পুলিশ রাত ১টার দিকে তল্লাশির জন্য যায়। সেখানে গিয়ে একটি বাড়ির এক কক্ষে একইসঙ্গে বাবা-মা ও তিন সন্তানের লাশ পড়ে থাকতে দেখে। একটু দূরেই পড়েছিল তাদের দাদির লাশ।
নিহতরা হলেন- ১৯ বছর বয়সী যমজ ভাই-বোন ফারহান তৌহিদ ও ফারবিন তৌহিদ, বড় ভাই তানভীর তৌহিদ (২১), মা আইরিন ইসলাম (৫৬), বাবা তৌহিদুল ইসলাম (৫৪), তানভীর তৌহিদের নানি আলতাফুন্নেসা (৭৭)।
ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা স্থানীয় পুলিশের সার্জেন্ট জন ফেল্টি স্থানীয় সংবাদমাধ্যম দ্য ডালাস মর্নিং নিউজকে বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, সাপ্তাহিক ছুটির দিন রোববার দুই ভাই পরিবারের অন্য সদস্যদের হত্যার পর নিজেরা আত্মহত্যা করেছে। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

ইউরোপ ফেরতদের নিজ খরচে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন
                                  

স্টাফ রিপোর্টার : যুক্তরাজ্যসহ ইউরোপের যেকোনো দেশ থেকে বাংলাদেশে আসা সব যাত্রীকে নিজ খরচে সরকার অনুমোদিত হোটেল বা সরকারি স্থাপনায় বাধ্যতামূলকভাবে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। গতকাল মঙ্গলবার বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) জানিয়েছে, আগামীকাল ৩১ মার্চ থেকে পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত এই ঘোষণা কার্যকর থাকবে। দেশে ও বর্হিবিশ্বে করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। সংস্থাটির এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, কোয়ারেন্টিন শেষে পিসিআর পরীক্ষার যেসব যাত্রীর করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট আসবে তাদেরকে ছেড়ে দেওয়া হবে। এতে আরও বলা হয়েছে, যুক্তরাজ্য ও ইউরোপীয় দেশগুলো ছাড়া অন্য যেকোনো দেশ থেকে বাংলাদেশে আসলে সেখানে স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর করোনার কোনো উপসর্গ দেখা না গেলে কঠোরভাবে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। যদি কারো শরীরে করোনার উপসর্গ দেখা যায় তাহলে তাদেরকে নিজ খরচে সরকার অনুমোদিত হোটেল বা সরকারি স্থাপনায় বাধ্যতামূলকভাবে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। করোনার ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও সব যাত্রীকে বাংলাদেশে আসার আগে করোনার পিসিআর পরীক্ষায় নেগেটিভ সার্টিফিকেট নিতে হবে এবং তা বিমানবন্দরে দেখাতে হবে। ফ্লাইট ছাড়ার ৭২ ঘণ্টা আগে পিসিআর পরীক্ষা করাতে হবে বলেও ঘোষণায় উল্লেখ করা হয়েছে।

সিলেটে যুক্তরাজ্য ফেরত ২৫ যাত্রীর করোনা পরীক্ষা
                                  

খায়রুল আলম সুমন, ব্যুরো সিলেট : সিলেটে যুক্তরাজ্য থেকে দেশে আসা ২৮ যাত্রীর নমুনা পীক্ষায় গত সোমবার করোনা পজিটিভ শনাক্ত হলে এর একদিন পর মঙ্গলবার এ ২৮ জনের নমুনা পুণঃপরীক্ষায় ২৫ জনেরই করোনা নেগেটিভ এসেছে। মঙ্গলবার শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবে পরীক্ষার পর তাদের নেগেটিভ আসে। সোমবার সিলেটের সীমান্তিকের ল্যাবে ২৮ যাত্রীর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসার পর পূনরায় তাদের নমূনা সংগ্রহ করে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবিপ্রবি) র ল্যাবে পাঠানো হয়। সেখানে তাদের মধ্যে ২৫ জনের রিপোর্টই নেগেটিভ এসেছে।
সিলেটের সিভিল সার্জন প্রেমানন্দ মন্ডল বলেন, সোমবার বেসরকারি সংস্থা সীমান্তিকের পিসিআর ল্যাবে করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসা যাত্রীদের কারো কোন উপস্বর্গ না থাকায় পুণরায় পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। মঙ্গলবার সকালে তাদের নমুনা শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হলে পরীক্ষা শেষে রাতে ২৫ জনের নেগেটিভ রিপোর্ট আসে। ২টি ল্যাবের নমুনা পরীক্ষায় রিপোর্টে কেনো এতোটা তারতম্য হলো তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। যে ২৫ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে তাদের নমুনা পুণরায় সংগ্রহ করে পরক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হবে। বিষয়টি নিয়ে বুধবার জরুরি বৈঠক করা হবে বলে জানান তিনি। এসব নমূনার সাথে যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন স্ট্রেইনের মিল আছে কিনা তাও পরীক্ষা করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারা। উল্লেখ্য, গত ২১ জানুয়ারি যুক্তরাজ্য থেকে বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট নং বিজি-২০২’তে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে আসেন ১৫৭ প্রবাসী। সিলেটে আসার সেনাবাহিনী ও পুলিশের তত্ত্বাবধানে তাদেরকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে বিভিন্ন হোটেলে পাঠানো হয়। দেশে আসার পর নমুনা পরীক্ষায় তাদের করোনা নেগেটিভ শনাক্ত হয়। আগের নিয়ম অনুসারে, তাদের ৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা। এ হিসেবে সোমবার তাদেরকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন থেকে ছেড়ে দিতে রোববার নমুনা সংগ্রহ করে সিলেটে করোনা পরীক্ষায় নিযুক্ত বেসরকারি সংস্থা সীমান্তিকের ল্যাবে পরীক্ষা করানো হয়েছিল। সোমবার আসা রিপোর্টে তাদের ২৮ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। করোনা পজিটিভ আসার পর তাদেরকে সিলেটের খাদিমপাড়াস্থ ৩১ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়। তবে তাদের কারোরই তেমন কোনো উপসর্গ নেই বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন। যুক্তরাজ্যে মহামারি করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেইন শনাক্ত হওয়ার পর থেকে বিশ্বের সঙ্গে দেশটির যোগাযোগ প্রায় বিচ্ছিন্ন। সেখানে করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেইন ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ায় এ সতর্কতা নেয়া হয়। কিন্তু বাংলাদেশের সঙ্গে লন্ডনের আকাশপথে যোগাযোগ এখনও রয়েছে। গত ৪ জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত মোট ৫৪৪ জন যাত্রী যুক্তরাজ্য থেকে সিলেটে এসেছেন। প্রতি সপ্তাহে সোম ও বৃহস্পতিবার বিমানের ফ্লাইট লন্ডন-সিলেট রুটে যাতায়ত করা হচ্ছে।

কুয়েতে নতুন ‘আইন পাস’, কমবে বাংলাদেশি শ্রমিক
                                  

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : প্রবাসী কোটার লোক কমাতে কুয়েতের সংসদে সর্বসম্মতিক্রমে একটি আইন পাস হয়েছে বলে জানিয়েছে ব্লুমবার্গ। কোন দেশের কত মানুষ কুয়েতে থাকতে পারবেন সে বিষয়ে সিদ্ধান্তে আসতে দেশটির সরকারকে এক বছর সময় দেয়া হয়েছে। নতুন এই আইনে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হবে বাংলাদেশ, পাকিস্তান, নেপাল অঞ্চলের মানুষেরা।

নতুন আইনের খসড়ায় আগে বলা হয়েছিল বাংলাদেশ, নেপাল, পাকিস্তান এবং ভিয়েতনাম থেকে কুয়েতের মোট জনসংখ্যার অনুপাতে মাত্র ৫ শতাংশ শ্রমিক নিয়োগ দেয়া যাবে। ভারতীয়রা ১৫ শতাংশ। শ্রীলঙ্কা, ফিলিপাইন এবং মিশর থেকে ১০ শতাংশ। এর বাইরে অন্য দেশ থেকে তিন শতাংশের বেশি কর্মী নেয়া যাবে না।

আন্তর্জাতিক জরিপকারী সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য অনুযায়ী, কুয়েতের বর্তমান জনসংখ্যা ৪২ লাখ ৭০ হাজারের মতো।

খসড়ায় যে নির্দেশনার কথা বলা আছে, সেটি অবশ্য এখনো চূড়ান্ত হয়নি। যদি এটিই চূড়ান্ত হয় তাহলে বাংলাদেশ থেকে ২ লাখ ১৩ হাজার ৫০০ মানুষ দেশটিতে থাকতে পারবেন। আবার কোনো কোনো হিসাবে কুয়েতের মোট জনসংখ্যা ৪৮ লাখও বলা হয়। সেটি হলে ২ লাখ ৪০ হাজার বাংলাদেশি সেখানে থাকতে পারবেন। দেশটিতে এখন প্রায় সাড়ে ৩ লাখ বাংলাদেশি আছেন।

গত জুনে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, কুয়েতে মোট জনসংখ্যার ৩০ শতাংশের বেশি প্রবাসী থাকতে পারবেন না। এখন আছে প্রায় ৭০ শতাংশ! এই মুহূর্তে অতিরিক্ত যেসব প্রবাসী কুয়েতে অবস্থান করছেন তাদের বিষয়ে ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে কিছু বলা হয়নি। তবে জুলাইয়ের শেষ দিকে গালফ নিউজ জানিয়েছিল, আইন পাস হলে অতিরিক্ত কর্মীদের কুয়েত ছাড়তে হবে না। কিন্তু সংখ্যা কোটায় না আসা পর্যন্ত কোনো কোম্পানি নতুন নিয়োগ দিতে পারবে না।

কোটা পূরণ হওয়ার পর কোম্পানিগুলো বেশি লোক নিলে দশ বছরের কারাদণ্ডের প্রস্তাব করা হয়েছে আইনে। থাকবে বড় অঙ্কের জরিমানাও।

কমছেই না সৌদি ফেরত প্রবাসীদের ভোগান্তী
                                  

গণমুক্তি ডেস্ক : করোনার কারণে দেশে এসে আটকেপড়া সৌদি প্রবাসীরা গত ৩০ সেপ্টেম্বর থেকে বিশেষ ফ্লাইটে ফিরে যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন। তবে ফিরতি টিকিটের ক্ষেত্রে কয়েক দিন আগে টোকেন দেয়া ছাড়াও কিছু পদ্ধতি অনুসরণ করা হচ্ছে। কিন্তু সঠিক তথ্য না পাওয়ায় দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে ঢাকায় টিকিটের জন্য এসে ভোগান্তিতে পড়ছেন অনেকেই।

আজও কারওয়ানবাজারের সৌদি এয়ারলাইন্সের কার্যালয়ের সামনে টিকিটপ্রত্যাশীদের দীর্ঘ জটলা দেখা গেছে। তাদেরই টিকিট দেয়া হচ্ছে যাদের ভিসা ও আকামার মেয়াদ রয়েছে।

আগেরদিন শুক্রবার ছুটির দিনেও মতিঝিলে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বুকিং কাউন্টার এবং কারওয়ানবাজারে সৌদি এয়ারলাইন্সের বুকিং কাউন্টারের বাইরে কয়েকশ’ যাত্রীর ভিড় দেখা গেছে। তবে গত সপ্তাহের মতো এদিন কোনো মিছিল-হট্টগোল হয়নি।

একই শর্তপূরণকারীদের শুক্রবার টিকিট দিয়েছে মতিঝিলের বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বুকিং কার্যালয়। গত ৫ থেকে ৮ এপ্রিলের ফিরতি টিকিটধারীদের টিকিট রি-ইস্যু করা হয়েছে। তবে যাদের ভিসার মেয়াদ শেষ, কফিলের কাছ থেকে ছুটিও বাড়াতে পারেননি, তারা টোকেন থাকলেও টিকিট পাননি। আগের দিনগুলোর তুলনায় শুক্রবার কারওয়ানবাজার ও মতিঝিলে ভিড় কম থাকলেও ভোগান্তি পিছু ছাড়ছে না সৌদি প্রবাসীদের। তবে ছিল না বিক্ষোভ, হট্টগোল।

কারওয়ানবাজারে সোনারগাঁও হোটেলের ফটকের পাশে টাঙানো নোটিশে সৌদি এয়ারলাইন্স জানিয়েছে, ৪ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে ১১টা পর্যন্ত টোকেন দেয়া হবে। টোকেনের জন্য শুক্রবার দুপুরেই প্রায় ৫০ জন প্রবাসী কর্মী লাইন ধরেন। তারা নিজেরাই কলমে লিখে সিরিয়াল নম্বর ঠিক করেন।

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের মো. বাহালুলের সিরিয়াল নম্বর ৪৭। তিনি বৃহস্পতিবার ঢাকায় এসেছেন টোকেনের জন্য। শুক্রবার এলাকার তিনজনকে নিয়ে লাইনের সিরিয়াল নিয়েছেন। আগামী দুই রাত সোনারগাঁও হোটেলের আশপাশে কাটিয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করছেন। বাহালুল জানালেন, আর বাড়ি যাবেন না। টোকেন পেলে টিকিট কেটে করোনা পরীক্ষা করে সৌদির বিমান ধরবেন।

তিনি জানান, গত বছরের অক্টোবরে ছয় মাসের ছুটিতে দেশে আসেন। ২৩ মার্চ ফিরতি বিমান ছিল। কিন্তু করোনায় বিমান চলাচল বন্ধ হওয়ায় আটকা পড়েন। ৩০ মার্চ তার ভিসার মেয়াদ শেষ হয়েছে। সৌদি সরকারের বাড়ানো তিন দফায় ছুটিতে তার ভিসা ও কাজে ফেরার সময়সীমা ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বেড়েছিল। কিন্তু টিকিট না পাওয়ায় যেতে পারেননি। কফিলের সঙ্গে যোগাযোগ করে এক মাস ছুটি বাড়িয়েছেন। ৩০ অক্টোবরের মধ্যে ফিরতে হবে। কিন্তু শেষ দিনের আশায় থাকতে চান না। যত দ্রুত সম্ভব কাজে ফিরতে চান।

তবে যারা এখনও ছুটি বাড়াতে পারেননি, তারা কাজ হারানোর আশঙ্কায় রয়েছেন। তাদের টিকিট পাওয়ার সম্ভাবনা না থাকলেও এ আশঙ্কা থেকে তারাও ভিড় করছেন এয়ারলাইন্স কার্যালয়ে। বিমান কার্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, শুধু টোকেনধারীদের পুলিশি তল্লাশির পর প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে। যাত্রীদের পালা করে কাউন্টারে ভিসা, আকামা ও ছুটির মেয়াদ যাচাই-বাছাই করে দেয়া হচ্ছে টিকিট।

ভিসার মেয়াদ বাড়াতে আজও সড়কে সৌদি প্রবাসীরা
                                  

নিজস্ব প্রতিবেদক : স্বয়ংক্রিয় ভিসা ও আকামার মেয়াদ বৃদ্ধি এবং সৌদি এয়ারলাইন্সের টিকিটের টোকেনের দাবিতে আজও সড়কে নেমে বিক্ষোভ করছেন সৌদিপ্রবাসীরা।

মঙ্গলবার সকালে সৌদি প্রবাসীদের একটি অংশ সার্ক ফোয়ারা মোড়ে বিক্ষোভ করে কিছুক্ষণ সড়ক আটকে রাখেন। প্রবাসীদের বিক্ষোভের ফলে সোনারগাঁ হোটেলের সামনের রাস্তা দিয়ে কিছু সময়ের জন্য যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এছাড়া কারওয়ান বাজার থেকে বিজয় সরণী পর্যন্ত দীর্ঘ এলাকায় সৃষ্টি হয়। এ অবস্থায় অফিসগামী যাত্রীদের বিপাকে পড়তে হয়। পরে, পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সৌদি প্রবাসীরা বলছেন, তাদের অধিকাংশদের ভিসার মেয়াদই আগামীকাল শেষ হয়ে যাচ্ছে। সেক্ষেত্রে এখনো টোকেন না পাওয়ায় অনিশ্চয়তায় পড়েছেন তারা। সৌদি প্রবাসী শ্রমিকরা বিক্ষোভ মিছিলসহ প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের দিকে অগ্রসর হতে থাকেন।

বিক্ষোভে অংশ নেওয়া সৌদিপ্রবাসী হেলাল বলেন, সরকার ইচ্ছা করলেই ভিসা নবায়ন সংক্রান্ত সমস্যার সমাধান করতে পারে। প্রবাসীমন্ত্রী যদি সৌদি দূতাবাসে পদক্ষেপ নিতে বলেন তাহলে সৌদি আরব অবশ্যই এটি করবে।

পুলিশের ঢাকা মহানগর ট্রাফিক বিভাগের (পশ্চিম) এডিসি মঞ্জুর মোর্শেদ জানান, সড়ক অবরোধের সময় কারওয়ান বাজার থেকে বিজয় সরণি পর্যন্ত দীর্ঘ এলাকায় যানজটের সৃষ্টি হয়।

গত সোমবার থেকেই টিকিটের দাবিতে সৌদিপ্রবাসীরা ‍বিক্ষোভ শুরু করেছেন। তাদের অনেকেরই দাবি ছিল, সৌদি আরবে তাদের ইকামার (সৌদি আরবে কাজের অনুমতিপত্র) মেয়াদ বৃদ্ধি ও একাধিক ফ্লাইট চালু করা। এর মধ্যেই গত ২৩ সেপ্টেম্বর ইকামার মেয়াদ ২৪ অক্টোবর পর্যন্ত বাড়ানোর ঘোষণা দেয় সৌদি আরব। ওই দিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন বলেন, বাংলাদেশের শ্রমিকদের ইকামা আরও ২৪ দিন বৈধ থাকবে এবং প্রয়োজনে আরও বাড়ানো হবে। তিনি বলেন, যে সকল বাংলাদেশি তাদের কর্মস্থল সৌদি আরবে ফিরে যেতে চান তাদের ভিসার মেয়াদ বাড়িয়ে দিতে সম্মত হয়েছে সৌদি সরকার।

এই ঘোষণার পর আবার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস ও সৌদি এয়ারলাইনস তাদের ফ্লাইটের সংখ্যা বাড়ায়। তবে টিকিট পাওয়া নিয়ে সৌদিপ্রবাসীদের ক্ষোভ ছিল এবং এর পাশাপাশি তাঁরা ভিসা নবায়ন এজেন্সির মাধ্যমে করার নির্দেশ বাতিলের দাবি জানিয়ে আসছিল।

সাউদিয়া কর্তৃপক্ষের শিডিউল অনুযায়ী, আজ যাদের টোকেন নম্বর ২৩০১ থেকে ২৭০০, শুধু এই ৪০০ জনকেই টিকিট দেয়া হবে। তবে তিন হাজারের পরের সিরিয়ালের টোকেন নম্বরের প্রবাসীরাও সকাল থেকে ভিড় করেছেন। পাশাপাশি আজ টিকিট ইস্যু করলেও নতুন করে আর কাউকে টোকেন দিচ্ছে না সাউদিয়া। তাদের টাঙানো একটি নোটিশে বলা হয়েছে, ৪ অক্টোবরের আগে আর টোকেন দেয়া হচ্ছে না।

সৌদিতে নামার অনুমতি পেল বিমান, ১ অক্টোবর থেকে ফ্লাইট
                                  

গণমুক্তি ডেস্ক : অবশেষে সৌদি আরবে ফ্লাইট পরিচালনার জন্য ল্যান্ডিং পারমিশন (অবতরণের অনুমতি) পেল রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। আগামী ১ অক্টোবর থেকে তারা সৌদিতে ফ্লাইট পরিচালনা করতে পারবে। এর আগে সৌদি সরকার বিমানকে ১ অক্টোবর থেকে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দিলেও ল্যান্ডিং পারমিশন দেয়নি। এমন সিদ্ধান্তের বিষয়ে বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) থেকে সৌদির সিভিল এভিয়েশনকে চিঠিও দিয়েছিল।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি সূত্র ল্যান্ডিং পারমিশন পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

বিমান সূত্র জানায়, বিমান ১ অক্টোবর থেকে সৌদির তিন শহরে সপ্তাহে আটটি ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি পেয়েছে। শহর তিনটি হচ্ছে জেদ্দা, দাম্মাম ও রিয়াদ।

দুই-একদিনের মধ্যে বিমানের ওয়েবসাইটে ১ অক্টোবর থেকে ২৪ অক্টোবর পর্যন্ত ফ্লাইট শিডিউল ঘোষণা করা হবে বলে জানা গেছে।

এদিকে বাংলাদেশ সরকারের অনুরোধে সৌদি আরবে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশিদের আকামার মেয়াদ বাড়িয়েছে দেশটির সরকার। ২২ সেপ্টেম্বর থেকে এর মেয়াদ আরও ২৪ দিন বাড়ানো হয়েছে। অর্থাৎ আরবি সফর মাসের শেষ দিন পর্যন্ত প্রবাসীদের আকামার মেয়াদ বাড়ানো হয়। বুধবার পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম তার নিজস্ব ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি লিখেছেন, সৌদি আরবে ৪ দিন বর্ধিত ছুটি ছিল। আজকেই খুলেছে। সৌদি আরবের যারা খোঁজ রাখেন তাদের এটা জানা উচিত (কোনো ‘ছাত্র অধিকার আন্দোলন’ এটা জানার কথা নয়)।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আরও লেখেন, সৌদি সরকার আমাদের অনুরোধের প্রেক্ষিতে নিচের সিদ্ধান্তগুলো নিয়েছে- আকামার মেয়াদ আরবি সফর মাসের শেষ দিন পর্যন্ত (মানে আজ থেকে আরও ২৪ দিন) বর্ধিত করা হয়েছে; বাংলাদেশ বিমানকে রিয়াদ এবং জেদ্দায় সপ্তাহে মোট ৪ ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দেয়া হয়েছে ও ঢাকাস্থ সৌদি আরব দূতাবাসের ভিসা অফিস রোববার থেকে খোলা থাকবে। যেখানে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত নতুন নিয়মাবলী মেনে কনসুলার সেবা প্রদান করা হবে।

উল্লেখ্য, সৌদি এয়ারলাইন্সের ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে টিকিট বিক্রি এবং ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে ফ্লাইট চালু করার কথা ছিল। কিন্তু সেই ফ্লাইট চালু হচ্ছিল না। এতে ২২ ও ২৩ সেপ্টেম্বর (মঙ্গল ও বুধবার) রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে অবস্থিত সৌদি এয়ারলাইন্সের অফিসের সামনে কারওয়ান বাজার মোড়ে বিক্ষোভ করেন সৌদি প্রবাসীরা।

রাস্তা অবরোধ করে সৌদি প্রবাসীদের বিক্ষোভ
                                  

গণমুক্তি ডেস্ক: রাজধানীর কারওয়ান বাজার মোড়ে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভে নেমেছেন সৌদি আরব থেকে ছুটিতে এসে আটকে পড়া প্রবাসীরা।

আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে টিকিট না পেয়ে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন প্রবাসীরা। এ সময় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে সড়কে দেখা দেয় দীর্ঘ যানজট। বিক্ষোভকারীদের ঘিরে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। সবশেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, পুলিশ বিক্ষোভকারীদের বোঝানোর চেষ্টা করছে।

এরআগে গতকাল সোমবার হোটেল সোনারগাঁও এর পাশে বিক্ষোভ করেন প্রবাসীরা। এছাড়াও জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এসেও বিক্ষোভ করেন তারা।

জানা গেছে, সৌদি আরব থেকে ছুটিতে আসা আটকে পড়া প্রবাসীরা ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বেশির ভাগের ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়া নিয়ে উদ্বিগ্ন তারা। এ অবস্থায় দ্রুত সৌদি আরবে ফিরে যেতে না পারলে চাকরি যাওয়ারও আশঙ্কা করছেন তারা।

তাদের অভিযোগ, বিমানের কারণে সৌদি আরবের এয়ারলাইন্সগুলোর চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তারা আটকে পড়েছেন। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স আগামী ১ অক্টোবর থেকে সৌদি আরবে বাণিজ্যিক ফ্লাইট শুরুর অনুমতি পেলেও দরকার হচ্ছে ল্যান্ডিং পারমিশনের। সোমবার এসব জানান, বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মোকাব্বির হোসেন।

তিনি জানান, ল্যান্ডিং পারমিশন নিশ্চিত হলেই ফ্লাইট ঘোষণা করা হবে। সেইসঙ্গে ফ্লাইট ঘোষণার আগে টিকিট কাউন্টারে ভিড় না করতে যাত্রীদের প্রতি অনুরোধ জানান মোকাব্বির হোসেন। তিনি আরো জানান, যাদের আগে টিকিট কাটা আছে তারাই প্রথমে আসন বরাদ্দের সুযোগ পাবেন। আপাতত মিলবে না নতুন টিকিট।

সৌদি প্রবেশের অনুমতি পেল বাংলাদেশসহ ২৫ দেশ
                                  

গণমুক্তি ডেস্ক : অবশেষে সৌদি আরবে প্রবেশের অনুমতি পাচ্ছেন বাংলাদেশসহ ২৫ দেশের প্রবাসীরা। কিছু শর্তসাপেক্ষে সৌদি সিভিল এভিয়েশন জেনারেল অথরিটি এসব দেশের নাগরিকদের দেশটিতে প্রবেশের অনুমতি দিয়েছে। তবে কবে থেকে সৌদিতে প্রবেশ করা যাবে এ সংক্রান্ত নির্দিষ্ট কোনো তারিখ এখনো জানানো হয়নি।

যে ২৫টি দেশের প্রবাসীরা সৌদি আরব ফিরে আসার সুযোগ পাচ্ছেন তাদের মধ্যে বাংলাদেশের নামও রয়েছে। তবে আপাতত এ সুযোগ পাচ্ছে না পার্শ্ববর্তী ভারত,পাকিস্তান,নেপাল, শ্রীলংকার সহ আরো কয়েকটি দেশ।

যেসব দেশের আটকে থাকা প্রবাসীরা সৌদি আরবে ফিরে যেতে পারবেন দেশগুলো হলো- সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, বাহরাইন, লেবানন, কুয়েত, মিশর, তিউনিসিয়া, মরক্কো, চীন, ইংল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া, ফ্রান্স, বাংলাদেশ, জার্মানি, ইতালি, অস্ট্রেলিয়া, তুরস্ক, গ্রিস, ফিলিপাইন, মালয়েশিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, সুদান, ইথিউপিয়া, কেনিয়া ও নাইজেরিয়া।

বেশ কিছু শর্তে এসব দেশের নাগরিকদের সৌদিতে প্রবেশের অনুমতি দেয়া হয়েছে। শর্তগুলো হলো-
১. সৌদি আরব ভ্রমণ করতে হলে সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট থেকে একটি ফরম পূরণ করে তার মধ্যে বিস্তারিত তথ্য লিখে নিচে স্বাক্ষর করতে হবে এবং আসার সময় এয়ারপোর্টে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্ধারিত ডেস্কে জমা দিতে হবে।
২. ভ্রমণ করার সাত দিন পূর্ব থেকে কোয়ারেন্টাইন থাকতে হবে। মূলত পিসিআর দেওয়ার ৪ দিন আগে থেকে এবং পিসিআর রিপোর্ট পাওয়ার ৩ দিন পর পর্যন্ত।
৩. সৌদি আরবের টাটামন এবং তাওয়াক্বালনা অ্যাপস ডাউনলোড করে নিবন্ধন করতে হবে।
৪. অবশ্যই আসার ৮ ঘণ্টার মধ্যে টাটামন (tatamman) অ্যাপের মাধ্যমে বাসার অবস্থান নির্ধারণ করতে হবে।
৫. কোভিড-১৯ এর লক্ষণ সম্পর্কে অবগত থাকতে হবে। যদি কোনো লক্ষণ দেখা দেয় তাহলে সরাসরি ৯৩৭ নাম্বারে ফোন করতে হবে অথবা সাধারণ স্বাস্থ্য কেন্দ্রে গিয়ে চিকিৎসা নিতে হবে।
৬. আপনাকে টাটামন অ্যাপসের মাধ্যমে প্রতিদিনের স্বাস্থ্যের অবস্থা জানাতে হবে এবং আপনি কোয়ারেন্টাইন থাকাকালীন সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশিত ফরম অনুযায়ী পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

দেশে ফিরেছেন মালয়েশিয়ায় আটক রায়হান
                                  

গণমুক্তি ডেস্ক : দেশে ফিরেছেন মালয়েশিয়া প্রবাসী রায়হান কবির। মালয়েশিয়ায় নির্যাতন নিয়ে কাতার ভিত্তিক আল-জাজিরা টেলিভিশনে সাক্ষাৎকার দেওয়ার কারণে দেশটির পুলিশের হাতে আটক হয়েছিলেন তিনি। শুক্রবার (২১ আগস্ট) দিবাগত রাত ১টার দিকে মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে ঢাকায় ফিরেছেন রায়হান।

মালয়েশিয়া থেকে দেশে পরিবারের কাছে ফিরে একটি বেসরকারি টেলিভিশনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রায়হান কবির জানান, মালয়েশিয়ায় পুলিশের রিমান্ডে ২৭ দিন একই জামাকাপড়ে কেটেছে তার। হাতকড়া পরিয়েই পুলিশ তাকে মালয়েশিয়ার বিমানবন্দরে ইমিগ্রেশন অতিক্রম করায়। এ সময় এক বাঙালি একটা শার্ট এনে দিলে গায়ের ময়লা জামাটি পরিবর্তন করে নেন তিনি। মালয়েশিয়ায় পুলিশ তার সঙ্গে ভালো আচরণ করলেও দিনগুলো কেটেছে মানসিক চাপের মধ্যে। তবে তাকে যে বাংলাদেশে ফেরত পাঠানো হচ্ছে, বিমানবন্দরে আসার আগ পর্যন্ত জানতেন না রায়হান।

রায়হান জানিয়েছেন, আলজাজিরার সাক্ষাৎকারে মালয়েশিয়া সরকারের বিরুদ্ধে তিনি কিছুই বলেননি। শুধু প্রবাসীদের দুঃখ, কষ্ট ও সমস্যার কথা তুলে ধরেছিলেন।

রায়হান বলেন, আপনারা সবাই দেখেছেন, আমি আলজাজিরায় কী বলেছি। বলার মতো তেমন কিছুই বলিনি। শুধু প্রবাসীদের ওপর, আমার দেশের মানুষের ওপর, যেকোনো দেশের মাইগ্রেন্ট ওয়ার্কারদের প্রতি যে অন্যায় হয়েছে, শুধু সে বিষয়ে বলেছি। হিউম্যান রাইটস বলতে যে ব্যাপারটি আছে, মানুষের সঙ্গে যেভাবে আচরণ করা উচিত, সে ব্যাপারে একজন শিক্ষিত মানুষ হিসেবে আমি আমার মতামত দিয়েছি।

এ ব্যাপারে রায়হান আরো বলেন, আমি তোমার দেশে (মালয়েশিয়া) কাজ করতে যাই, এর মানে এই নয়, আমি তোমার দেশের গোলাম। তুমি আমার দেশে আসতে পারো, আমি তোমার দেশে যেতে পারি। এটা গিভ অ্যান্ড টেক পলিসি। একুশ শতকে এসে কেউ বলবে না, আমি ওই দেশে কাজ করতে যাই। তার আমাকে প্রয়োজন। সে আমার মেধা, আমার শ্রম কিনে নিচ্ছে এবং এর বিনিময়ে আমি তার কাছ থেকে অর্থ পাচ্ছি। তাই মানুষ হিসেবে সবার প্রতি শ্রদ্ধা থাকা উচিত। যে বিষয়গুলো আমার কাছে খারাপ লেগেছে, আমি অতটুকই তুলে ধরেছি।

মালয়েশিয়ার পুলিশ ভালো আচরণ করেছে উল্লেখ করে রায়হান কবির বলেন, পুলিশ আমার প্রতি সদয় ছিল। পুলিশ জানত আমি নির্দোষ। জানত যে, এটা কোনো ক্রিমিনাল অফেন্স নয়। তাই পুলিশও আমার প্রতি সদয় ছিল। তারা আমার সঙ্গে খুব সুন্দর ব্যবহার করেছে।

রায়হান আরো বলেন, আমার ভিডিওবার্তা দেওয়ার পেছনে কোনো স্বার্থ লুকায়িত আছে কিনা, পলিটিকাল ইনফ্লুয়েন্স আছে কিনা, তারা এটাই তদন্ত করার চেষ্টা করেছে। যেহেতু তারা কিছু খুঁজে পায়নি, তাই আমার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করতে পারেনি। শুধু তদন্ত করার জন্য তারা আমাকে গ্রেপ্তার করে।

বাংলাদেশের জনগণসহ যারা পাশে ছিল, সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন রায়হান। তিনি বলেন, আমি প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। বিশেষ করে ধন্যবাদ জানাতে চাই বাংলাদেশের জনগণকে, যারা আমার পাশে ছিল। এ ছাড়া পুরো বিশ্ব আমার পাশে ছিল, সব প্রবাসী পাশে ছিল। এ ছাড়া বিভিন্ন আইনজীবী, আন্তর্জাতিক মিডিয়া, এনজিও—এমন কোনো এনজিও নাই যে, এ ক্ষেত্রে আমার পাশে দাঁড়ায়নি। সবাই প্রচণ্ড পরিমাণে আমাকে সাপোর্ট দিয়েছে, ওই দেশের মানুষও, বাংলাদেশের মানুষও। সবার প্রতিই আমি কৃতজ্ঞ।

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার কথা জানতে চাইলে রায়হান বলেন, আপাতত মানসিক শান্তি প্রয়োজন। এখন কিছু ভাবছি না। পরে চিন্তা করব, কী করা যায়। যোগ্যতা আছে, মেধা আছে, কিছু একটা হয়ে যাবে।

এদিকে, কয়েক দিন পর সংবাদ সম্মেলন করে মালয়েশিয়ায় প্রবাসীদের বাস্তব জীবন এবং নিজের রিমান্ডের বিষয়ে কথা বলার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন রায়হান কবির।

আবুধাবি বিমানবন্দরে আটকে গেছেন ১৩২ বাংলাদেশি!
                                  

ডেস্ক রিপোর্ট : সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবি বিমানবন্দরে আটকে গেছেন ১৩২ জন বাংলাদেশি প্রবাসী যাত্রী। আজ শনিবার ইমিগ্রেশন পার করতে গিয়ে তারা আটকে পড়েন। কী কারণে এ সমস্যা হচ্ছে নিশ্চিত করে বলতে পারছে না বাংলাদেশ বিমান বা দূতাবাস।

জানা গেছে, এয়ার অ্যারাবিয়া বিমানের একটি ফ্লাইট আবুধাবি পৌঁছানোর পর সেটির ৫১ জন যাত্রীকে আমিরাতের অভ্যন্তরে ঢোকার আগে আটকে দেওয়া হয়। এ ছাড়া ২২৫ জন যাত্রী নিয়ে আবুধাবি পৌঁছানোর পর বিমানের একটি ফ্লাইটের ৮১ জন যাত্রীকে আটকে দেওয়া হয়।

এ তথ্য নিশ্চিত করেন বাংলাদেশ বিমানের আঞ্চলিক পরিচালক নিধান চন্দ্র বড়ুয়া। তিনি বলেন, ‘২২৫ জনের মধ্যে ১৪৪ যাত্রী আমিরাতের অভ্যন্তরে ঢোকার সুযোগ পেয়েছেন। বাকিদের আটকে দেওয়া হয়েছে।’ তবে কেন তাদের আমিরাতের অভ্যন্তরে ঢোকার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না, তা নিশ্চিত করে বলতে পারেননি নিধান চন্দ্র বড়ুয়া। তিনি ধারণা করছেন, আইসিএ অ্যাপ্রুভাল সংক্রান্ত ঝামেলার কারণে যাত্রীদের আটকে দেওয়া হয়েছে। নিধান আরও জানান, শুধু বাংলাদেশ নয় পাকিস্তানসহ আরও একটি দেশের বেশ কয়েকজন যাত্রীকে আটকে দেওয়া হয়েছে।

এদিকে আটকে থাকা যাত্রীরা বলছেন, তারা সবাই ইমিগ্রেশনের লাইনে ছিলেন। ১৪৪ জন যাত্রী চলে যাওয়ার পর তারা জানতে পারেন; ইমিগ্রেশনের সিস্টেমের মধ্যে আইসিএ পারমিশন সাবমিট করার জন্য দেখাচ্ছে। কিন্তু তাদের কারও কাছে আইসিএ পারমিশন ছিল না। যারা বের হয়েছেন তাদের কাছেও আইসিএ পারমিশন ছিল না বলেও জানান যাত্রীরা।

কানাডা ও কলকাতায় শেখ ফজিলাতুন্নেছা ও শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী উদযাপন
                                  

গণমুক্তি ডেস্ক : কানাডার রাজধানী অটোয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশনে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের ৯০তম ও শেখ কামালের ৭১তম জন্মবার্ষিকী উদযাপিত হয়েছে।

প্রথমেই পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাণী পাঠ করা হয়। পরে শেখ ফজিলাতুন্নেছা ও শেখ কামালের ওপর নির্মিত পৃথক দু’টি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতেই হাইকমিশনার মিজানুর রহমান জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। তিনি বলেন, ফজিলাতুন্নেসা মুজিব ছিলেন বাঙালির মুক্তিসংগ্রামের অন্যতম অনুপ্রেরণাদাত্রী। প্রতিটি পদক্ষেপে তিনি বঙ্গবন্ধুকে সক্রিয় সহযোগিতা করেছেন। শেখ কামাল ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান ও একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন।

কানাডায় প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটি ও প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ভার্চুয়াল আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন। আলোচনা শেষে ১৫ আগস্ট হত্যার শিকার বঙ্গবন্ধু পরিবারের সকল সদস্যের আত্মার মাগফিরাত কামনা করা হয়।

বৃহস্পতিবার কলকাতায় বাংলাদেশ উপ হাইকমিশনে শেখ কামালের ৭১তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করা হয়। শুরুতে শেখ কামালের ছবিতে পুষ্প অর্পণ করেন মিশন প্রধান তৌফিক হাসান। এরপর ‘মনের মানুষ’ নামে এক প্রামাণ্যচিত্রে শেখ কামালের বৈচিত্র্য ও বর্ণাঢ্য জীবন তুলে ধরা হয়।


   Page 1 of 17
     প্রবাস
নিউইয়র্কে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি কর্মীদের সংঘর্ষ
.............................................................................................
আবুধাবিতে প্রবেশে আরেক নিয়ম নিয়ে বাংলাদেশিরা বিপাকে
.............................................................................................
মাল্টায় অবৈধ বাংলাদেশিদের আইনি সহায়তা দেবে ‘আয়েবা’
.............................................................................................
কোয়ারেন্টিনের টাকা দিতে না পেরে বিপদের মুখে সৌদি প্রবাসীরা
.............................................................................................
টেক্সাসে এক পরিবারের ছয় বাংলাদেশির লাশ উদ্ধার
.............................................................................................
ইউরোপ ফেরতদের নিজ খরচে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন
.............................................................................................
সিলেটে যুক্তরাজ্য ফেরত ২৫ যাত্রীর করোনা পরীক্ষা
.............................................................................................
কুয়েতে নতুন ‘আইন পাস’, কমবে বাংলাদেশি শ্রমিক
.............................................................................................
কমছেই না সৌদি ফেরত প্রবাসীদের ভোগান্তী
.............................................................................................
ভিসার মেয়াদ বাড়াতে আজও সড়কে সৌদি প্রবাসীরা
.............................................................................................
সৌদিতে নামার অনুমতি পেল বিমান, ১ অক্টোবর থেকে ফ্লাইট
.............................................................................................
রাস্তা অবরোধ করে সৌদি প্রবাসীদের বিক্ষোভ
.............................................................................................
সৌদি প্রবেশের অনুমতি পেল বাংলাদেশসহ ২৫ দেশ
.............................................................................................
দেশে ফিরেছেন মালয়েশিয়ায় আটক রায়হান
.............................................................................................
আবুধাবি বিমানবন্দরে আটকে গেছেন ১৩২ বাংলাদেশি!
.............................................................................................
কানাডা ও কলকাতায় শেখ ফজিলাতুন্নেছা ও শেখ কামালের জন্মবার্ষিকী উদযাপন
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় আলজাজিরাকে সাক্ষাৎকার দেয়া সেই বাংলাদেশি গ্রেফতার
.............................................................................................
বাংলাদেশি শ্রমিকদের কোটা কমছে কুয়েতে
.............................................................................................
বাংলাদেশসহ ১৬ দেশের সাথে ইতালির ফ্লাইট চলাচল বন্ধ
.............................................................................................
ইকামা ও ভিসার মেয়াদ ৩ মাস বাড়াল সৌদি
.............................................................................................
সৌদি ও কাতার থেকে ফিরলেন ৮০০ বাংলাদেশি
.............................................................................................
সিঙ্গাপুরে ‘হিরো’ বাংলাদেশি ডাক্তার
.............................................................................................
ভিসাপ্রাপ্ত লাখো শ্রমিকের বিদেশযাত্রা অনিশ্চিত
.............................................................................................
চাই না হতে মর্গে পচা লাশ!
.............................................................................................
দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা
.............................................................................................
বান্ধবীর খপ্পরে মালয়েশিয়ায় প্রতারিত বাঙালি যুবক
.............................................................................................
দক্ষিণ আফ্রিকায় ১১৭ বাংলাদেশি নিহত
.............................................................................................
বাহরাইনে ভবনধসে ৪ বাংলাদেশি নিহত
.............................................................................................
সিফাত উল্লাহ কি সত্যি সিজোফ্রেনিয়ার রোগী?
.............................................................................................
হজে এসে আরো তিন বাংলাদেশির মৃত্যু
.............................................................................................
কানাডায় সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি তরুণী নিহত
.............................................................................................
সৌদি আরবে জঙ্গি হামলায় বাংলাদেশি নিহত
.............................................................................................
সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি নিহত
.............................................................................................
স্ত্রী হত্যাচেষ্টার দায়ে নিউইয়র্কে বাংলাদেশির ১৮ বছরের জেল
.............................................................................................
রিয়াদে স্বর্ণের বারসহ বাংলাদেশ বিমানের কেবিন ক্রু গ্রেফতার
.............................................................................................
নবী-পয়গম্বরের সঙ্গে রাম-কৃষ্ণের তুলনা করলেন যুক্তরাজ্য বিএনপি সভাপতি মালেক
.............................................................................................
ইতালী প্রবাসী আবু সাইদ খানের গল্প অবলম্বনে বাংলা ছায়াছবি
.............................................................................................
ব্যর্থতায়ও পুরস্কার
.............................................................................................
জনশক্তি রফতানি, অবশেষে দুয়ার খুলছে আমিরাতের
.............................................................................................
ভারতে দুই বাংলাদেশি যুবক আটক
.............................................................................................
সৌদি প্রবাসীদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর মতবিনিময়
.............................................................................................
সুইজারল্যান্ডে বর্ণাঢ্য আয়োজনে বর্ষবরণ উৎসব
.............................................................................................
জেদ্দায় `মরু-প্রবাসী বৈশাখী উৎসব` অনুষ্ঠিত
.............................................................................................
রোমে বাংলাদেশ দূতাবাসের বর্ষবরণ
.............................................................................................
বাংলাদেশ, ভারতে তৎপর ছিল আল কায়েদার সামিউন
.............................................................................................
মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশী শ্রমিক নিহত ৩
.............................................................................................
পশ্চিমবঙ্গে ৫ বাংলাদেশি চুরির অভিযোগে আটক
.............................................................................................
লন্ডনে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কাউন্সিল প্রার্থীর ওপর হামলা
.............................................................................................
বাংলাদেশ দূতাবাস অভিবাসী শ্রমিকদের বিভিন্ন প্রয়োজনীয় কনস্যুলার সেবা প্রদান
.............................................................................................
সিঙ্গাপুরে শামীম ওসমানকে আওয়ামী লীগের গণসংবর্ধনা
.............................................................................................

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মো: রিপন তরফদার নিয়াম
প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক : মফিজুর রহমান রোকন
নির্বাহী সম্পাদক : শাহাদাত হোসেন শাহীন
বাণিজ্যিক কার্যালয় : "রহমানিয়া ইন্টারন্যাশনাল কমপ্লেক্স"
(৬ষ্ঠ তলা), ২৮/১ সি, টয়েনবি সার্কুলার রোড,
মতিঝিল বা/এ ঢাকা-১০০০| জিপিও বক্স নং-৫৪৭, ঢাকা
ফোন নাম্বার : ০২-৪৭১২০৮০৫/৬, ০২-৯৫৮৭৮৫০
মোবাইল : ০১৭০৭-০৮৯৫৫৩, 01731800427
E-mail: dailyganomukti@gmail.com
Website : http://www.dailyganomukti.com
   © সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত । এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি Dynamic Solution IT Dynamic Scale BD & BD My Shop