ঢাকা ০৪:৪২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষা অবৈতনিক করার উদ্যোগ

গণমুক্তি ডিজিটাল ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১১:০৯:৪৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ মে ২০২৪ ৩৯ বার পড়া হয়েছে

ফাইল ছবি

দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

টাকার জন্য কোনও শিক্ষার্থী যাতে নিম্ন মাধ্যমিক থেকে ঝরে না পড়ে লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে সরকার। ২০১০ সালের জাতীয় শিক্ষানীতি অনুযায়ী নিম্ন মাধ্যমিক শিক্ষাকে অবৈতনিক বা স্বল্পমূল্যে দেওয়ার চেষ্টা করবে সরকার।

স্বাধীনের পরবর্তী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৩ সালে এক ঘোষণায় দেশের সকল প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেন। প্রথম যাত্রায় জাতীয়করণ হয় ৩৭ হাজার ৬৭২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এরপর তিন দফায় ২৬ হাজার ১৫৯টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

নতুন করে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় করা হয়েছে ১ হাজার ২০৭টি। বর্তমানে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা ৬৫ হাজার ৫৬৬টি। সংশ্লিমন্ত্রণালয় সূত্রের খবর, জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ অনুযায়ী প্রাথমিক শিক্ষার মেয়াদ ৫ বছর থেকে বাড়িয়ে ৮ বছর অর্থাৎ অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত সম্প্রসারণ করার কথা থাকলেও মাত্র ৬৯৬টি বিদ্যালয় অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত সম্প্রসারণ সম্ভব হয়েছে।

অবকাঠামো ও প্রয়োজনীয় শিক্ষকের অভাবে তা বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়নি। বর্তমান সরকার অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষাকে অবৈতনিক করার উদ্যোগ নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষা অবৈতনিক করার উদ্যোগ

আপডেট সময় : ১১:০৯:৪৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ মে ২০২৪

 

টাকার জন্য কোনও শিক্ষার্থী যাতে নিম্ন মাধ্যমিক থেকে ঝরে না পড়ে লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে সরকার। ২০১০ সালের জাতীয় শিক্ষানীতি অনুযায়ী নিম্ন মাধ্যমিক শিক্ষাকে অবৈতনিক বা স্বল্পমূল্যে দেওয়ার চেষ্টা করবে সরকার।

স্বাধীনের পরবর্তী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৩ সালে এক ঘোষণায় দেশের সকল প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেন। প্রথম যাত্রায় জাতীয়করণ হয় ৩৭ হাজার ৬৭২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এরপর তিন দফায় ২৬ হাজার ১৫৯টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

নতুন করে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় করা হয়েছে ১ হাজার ২০৭টি। বর্তমানে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা ৬৫ হাজার ৫৬৬টি। সংশ্লিমন্ত্রণালয় সূত্রের খবর, জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০ অনুযায়ী প্রাথমিক শিক্ষার মেয়াদ ৫ বছর থেকে বাড়িয়ে ৮ বছর অর্থাৎ অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত সম্প্রসারণ করার কথা থাকলেও মাত্র ৬৯৬টি বিদ্যালয় অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত সম্প্রসারণ সম্ভব হয়েছে।

অবকাঠামো ও প্রয়োজনীয় শিক্ষকের অভাবে তা বাস্তবায়ন করা সম্ভব হয়নি। বর্তমান সরকার অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষাকে অবৈতনিক করার উদ্যোগ নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।