ঢাকা ০৫:১৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

অস্বাস্থ্য বায়ুকে সঙ্গী করে ঢাকাবাসীর দিন যাত্রা

গণমুক্তি রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ১১:২৭:৫১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১৫২ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

অস্বাস্থ্য বায়ুকে সঙ্গী করেই শুরু হলো ঢাকাবাসীর দিন যাত্রা। শনিবার সরকারী ছুটির দিনেও ব্যক্তিমালিকানাধীন অফিস-ব্যবআ প্রতিষ্ঠান খোলা। কর্মব্যস্ত নগরী জেগে ওঠে সেই ভোরবেলাই।

কিন্তু ঢাকার বায়ু অস্বাস্থ্যকর। ঘর থেকে পা ফেললেই দম বন্ধ হবার উপক্রম। চারিদিকে ধুলাবালিতে অতিষ্ঠ নগরবাসিন্দারা। স্কুলের পথে শিশুরাও এখন মাস্ক পড়ে যেতে হচ্ছে।

যেখানে-সেখানে খোঁড়াখুড়ি আর নির্মাণ সামগ্রী ফেলার রাখায় ঢাকার পরিবেশ উধাও। এ অবস্থায়ই চলছে হচ্ছে মেগাসিটি ঢাকার বাসিন্দাদের।

আজ শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বায়ুদূষণের শীর্ষ অবস্থানে ওঠে এসেছে ভারতের দিল্লি। দূষণ মাত্রার দিক থেকে তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে ঢাকা। বিশ্বের বায়ু দূষণ নিয়ে কাজ করা কোয়ালিটি ইনডেক্স তথা আইকিউএয়ার পর্যবেক্ষণকারী অনুযায়ী সকাল ৮টা ২২ মিনিটে বায়ুর মান সূচকে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

তালিকার দিল্লির বায়ুর মানের স্কোর হচ্ছে ২২৩ অর্থাৎ সেখানকার বায়ু ‘খুবই অস্বাস্থ্যকর’ পর্যায়ে রয়েছে। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ঢাকা। শহরটির স্কোর হচ্ছে ২০৩ তথা এখানকার বায়ুর মানও খুবই অস্বাস্থ্যকর।
সূচকে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে পাকিস্তানের করাচি এবং শহরটির স্কোর হচ্ছে ২০২। এর অর্থ দাঁড়ায় সেখানকার বায়ুর মান খুবই অস্বাস্থ্যকর।

দূষণের তালিকায় চতুর্থ ও পঞ্চম অবস্থানে রয়েছে ভারতের কলকাতা ও মুম্বাই। তালিকার ১১১ শহরের মধ্যে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে আমেরিকার সল্ট লেক সিটি । শহরটির স্কোর হচ্ছে ৫।

সংস্থাটির পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী স্কোর শূন্য থেকে ৫০ এর মধ্যে থাকলে বায়ুর মান ভালো বলে বিবেচিত হয়। ৫১ থেকে ১০০ হলে মাঝারি বা সহনীয় ধরা হয় বায়ুর মান।

সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয় ১০১ থেকে ১৫০ স্কোর। ১৫১ থেকে ২০০ পর্যন্ত অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয়। স্কোর ২০১ থেকে ৩০০ হলে খুবই অস্বাস্থ্যকর বলে বিবেচনা করা হয়। এছাড়া ৩০১-এর বেশি হলে তা দুর্যোগপূর্ণ বলে বিবেচিত হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

অস্বাস্থ্য বায়ুকে সঙ্গী করে ঢাকাবাসীর দিন যাত্রা

আপডেট সময় : ১১:২৭:৫১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

 

অস্বাস্থ্য বায়ুকে সঙ্গী করেই শুরু হলো ঢাকাবাসীর দিন যাত্রা। শনিবার সরকারী ছুটির দিনেও ব্যক্তিমালিকানাধীন অফিস-ব্যবআ প্রতিষ্ঠান খোলা। কর্মব্যস্ত নগরী জেগে ওঠে সেই ভোরবেলাই।

কিন্তু ঢাকার বায়ু অস্বাস্থ্যকর। ঘর থেকে পা ফেললেই দম বন্ধ হবার উপক্রম। চারিদিকে ধুলাবালিতে অতিষ্ঠ নগরবাসিন্দারা। স্কুলের পথে শিশুরাও এখন মাস্ক পড়ে যেতে হচ্ছে।

যেখানে-সেখানে খোঁড়াখুড়ি আর নির্মাণ সামগ্রী ফেলার রাখায় ঢাকার পরিবেশ উধাও। এ অবস্থায়ই চলছে হচ্ছে মেগাসিটি ঢাকার বাসিন্দাদের।

আজ শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) বায়ুদূষণের শীর্ষ অবস্থানে ওঠে এসেছে ভারতের দিল্লি। দূষণ মাত্রার দিক থেকে তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে ঢাকা। বিশ্বের বায়ু দূষণ নিয়ে কাজ করা কোয়ালিটি ইনডেক্স তথা আইকিউএয়ার পর্যবেক্ষণকারী অনুযায়ী সকাল ৮টা ২২ মিনিটে বায়ুর মান সূচকে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

তালিকার দিল্লির বায়ুর মানের স্কোর হচ্ছে ২২৩ অর্থাৎ সেখানকার বায়ু ‘খুবই অস্বাস্থ্যকর’ পর্যায়ে রয়েছে। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ঢাকা। শহরটির স্কোর হচ্ছে ২০৩ তথা এখানকার বায়ুর মানও খুবই অস্বাস্থ্যকর।
সূচকে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে পাকিস্তানের করাচি এবং শহরটির স্কোর হচ্ছে ২০২। এর অর্থ দাঁড়ায় সেখানকার বায়ুর মান খুবই অস্বাস্থ্যকর।

দূষণের তালিকায় চতুর্থ ও পঞ্চম অবস্থানে রয়েছে ভারতের কলকাতা ও মুম্বাই। তালিকার ১১১ শহরের মধ্যে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে আমেরিকার সল্ট লেক সিটি । শহরটির স্কোর হচ্ছে ৫।

সংস্থাটির পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী স্কোর শূন্য থেকে ৫০ এর মধ্যে থাকলে বায়ুর মান ভালো বলে বিবেচিত হয়। ৫১ থেকে ১০০ হলে মাঝারি বা সহনীয় ধরা হয় বায়ুর মান।

সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয় ১০১ থেকে ১৫০ স্কোর। ১৫১ থেকে ২০০ পর্যন্ত অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয়। স্কোর ২০১ থেকে ৩০০ হলে খুবই অস্বাস্থ্যকর বলে বিবেচনা করা হয়। এছাড়া ৩০১-এর বেশি হলে তা দুর্যোগপূর্ণ বলে বিবেচিত হয়।