ঢাকা ০১:২৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪

আধিপত্য বিস্তারের জেরে ভেদরগঞ্জে দুই পক্ষের সংঘধর্ষে আহত ৩০

গণমুক্তি ডিজিটাল ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১০:০০:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ মার্চ ২০২৪ ১৪০ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও পরাজিত চেয়ারমেন পদপ্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে কমপক্ষে ৩০জন আহত হয়েছে। বুধবার (২৭ মার্চ) সকাল আনুমানিক ৮টার দিকে উপজেলার সখিপুর থানাধীন কাঁচিকাটা ইউনিয়নে দক্ষিণ মাথাভাঙা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, চেয়ারম্যান ও পরাজিত চেয়ারমেন পদপ্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় আহতদের শরীয়তপুর, চাঁদপুর, মুন্সীগঞ্জ ও ঢাকায় চিকিৎসাধীন।

পুলিশ জানায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কাঁচিকাটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন দেওয়ান ও পরাজিত চেয়ারমেন পদপ্রার্থী ফজলুলহক কাউছার মোল্যার সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

চেয়ারম্যান নুরুল আমিন দেওয়ান বলেন, পরাজয় মেনে নিতে না পেরে আমার সমর্থক দক্ষিণ মাথাভাঙ্গার নজরুল ইসলাম খানের বাড়িতে হামলা করে ভাঙচুর করে। এতে আমাদের প্রায় ৩০ জন লোক আহত হয়েছে।

তবে পরাজিত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ফজলুল হক কাউছার মোল্ল্যা সংবাদমাধ্যমকে জানায়, নির্বাচন নিয়ে কোনো বিরোধ হয়নি। নদীতে কোনা জাল বাওয়ার আধিপত্য নিয়ে বিরোধ হয়েছে। এর বাইরে আমি কিছুই জানি না।

সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুদুর রহমান বলেন, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কাঁচিকাটায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের আনুমানিক ৩০ জনের মতো আহত হয়েছে। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

আধিপত্য বিস্তারের জেরে ভেদরগঞ্জে দুই পক্ষের সংঘধর্ষে আহত ৩০

আপডেট সময় : ১০:০০:৫৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ মার্চ ২০২৪

 

নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও পরাজিত চেয়ারমেন পদপ্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে কমপক্ষে ৩০জন আহত হয়েছে। বুধবার (২৭ মার্চ) সকাল আনুমানিক ৮টার দিকে উপজেলার সখিপুর থানাধীন কাঁচিকাটা ইউনিয়নে দক্ষিণ মাথাভাঙা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, চেয়ারম্যান ও পরাজিত চেয়ারমেন পদপ্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় আহতদের শরীয়তপুর, চাঁদপুর, মুন্সীগঞ্জ ও ঢাকায় চিকিৎসাধীন।

পুলিশ জানায়, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কাঁচিকাটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন দেওয়ান ও পরাজিত চেয়ারমেন পদপ্রার্থী ফজলুলহক কাউছার মোল্যার সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

চেয়ারম্যান নুরুল আমিন দেওয়ান বলেন, পরাজয় মেনে নিতে না পেরে আমার সমর্থক দক্ষিণ মাথাভাঙ্গার নজরুল ইসলাম খানের বাড়িতে হামলা করে ভাঙচুর করে। এতে আমাদের প্রায় ৩০ জন লোক আহত হয়েছে।

তবে পরাজিত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ফজলুল হক কাউছার মোল্ল্যা সংবাদমাধ্যমকে জানায়, নির্বাচন নিয়ে কোনো বিরোধ হয়নি। নদীতে কোনা জাল বাওয়ার আধিপত্য নিয়ে বিরোধ হয়েছে। এর বাইরে আমি কিছুই জানি না।

সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুদুর রহমান বলেন, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে কাঁচিকাটায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয় পক্ষের আনুমানিক ৩০ জনের মতো আহত হয়েছে। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।