ঢাকা ০৭:৩০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪

আসছে ৮ হাজার কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট

গণমুক্তি রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৭:২২:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ জুন ২০২৪ ৭৩ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

বৃহস্পতিবার ( ৬ জুন) জাতীয় সংসদে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের টানা ১৬তম এবং দেশের ৫৩তম বাজেট পেশ করা হবে।  ২০২৪-২০২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উত্থাপনের সকল আয়োজন সম্পন্ন।  প্রায় ৮ হাজার কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট উত্থাপন করবেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

বুধবার (৫ জুন) বিকেল ৫টায় জাতীয় সংসদ ভবনের অধিবেশন কক্ষে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশন শুরু হয়। অধিবেশন শুরুর আগে সংসদের কার্যউপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে অধিবেশনের মেয়াদ ও কার্যসূচি চূড়ান্ত করা হয়। কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার সংসদে প্রস্তাবিত বাজেট উত্থাপন করবেন অর্থমন্ত্রী। প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সরকার ও বিরোধী দলীয় সংসদ সদস্যদের দীর্ঘ আলোচনা শেষে আগামী ৩০ জুন পাস হবে। এর আগে ১০ জুন সোমবার চলতি অর্থবছরের সম্পূরক বাজেট পাস হতে পারে।

সংসদ সচিবালয় সূত্র জানায়, সংসদে বাজেট উত্থাপনের আগে মন্ত্রীসভার বৈঠকে তা অনুমোদিত হবে। দুপুর ১২টায় সংসদ ভবনে কেবিনেট কক্ষে মন্ত্রীসভার বৈঠক হবে। ইতোমধ্যে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। গত ১৩ মে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে তার কার্যালয়ে বাজেটের সর্বশেষ প্রস্তুতি তুলে ধরে প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা নেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। পরদিন অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের কর্মকর্তারা রাজস্ব আহরণের পরিকল্পনা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে যান।

আসন্ন বাজেট পরিকল্পনা প্রসঙ্গে সম্প্রতি অর্থপ্রতিমন্ত্রী ওয়াসিকা আয়শা খান বলেন, মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ, রপ্তানিপণ্যের বৈচিত্র্যকরণ, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও প্রান্তিক মানুষের সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি এবারের বাজেটের অগ্রাধিকারে থাকবে। বাজেটে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ অগ্রাধিকার পাচ্ছে জানিয়ে অর্থ প্রতিমন্ত্রী বলেছিলেন, নিম্ন আয়ের মানুষকে স্বস্তি দিতে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় উপকারভোগীর সংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে। আরও বলেছেন, যেসব খাত দীর্ঘদিন কর অবকাশ সুবিধা পেয়ে আসছে, সেসব খাত থেকে এবারে কর অব্যাহতির সুবিধা উঠিয়ে দেওয়ার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রের খবর, , চলতি ২০২৩-২০২৪ অর্থবছরে বাজেট ছিল ৭ লাখ ৬১ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকা। এর মধ্যে পরিচালনসহ অন্যান্য ব্যয় ৪ লাখ ৯৮ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকা এবং বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির ব্যয় ২ লাখ ৬৩ হাজার কোটি টাকা। আগামী ২০২৪-২০২৫ অর্থবছরে বাজেট ৭ লাখ ৯৬ হাজার ৯০০ কোটি টাকার পরিকল্পনা করছে, অর্থ মন্ত্রণালয়ের একাধিক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এমনটিই জানিয়েছে। যা জিডিপির ১৪ দশমিক ২০ শতাংশ। এর বিপরীতে সরকারের রাজস্ব আয়ের লক্ষ্য ধরা হচ্ছে ৫ লাখ ৫০ হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে এনবিআরের মাধ্যমে কর আদায়ের লক্ষ্য ৪ লাখ ৭৬ হাজার ৫০০ কোটি টাকা।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

আসছে ৮ হাজার কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট

আপডেট সময় : ০৭:২২:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ৫ জুন ২০২৪

 

বৃহস্পতিবার ( ৬ জুন) জাতীয় সংসদে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের টানা ১৬তম এবং দেশের ৫৩তম বাজেট পেশ করা হবে।  ২০২৪-২০২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট উত্থাপনের সকল আয়োজন সম্পন্ন।  প্রায় ৮ হাজার কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট উত্থাপন করবেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

বুধবার (৫ জুন) বিকেল ৫টায় জাতীয় সংসদ ভবনের অধিবেশন কক্ষে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশন শুরু হয়। অধিবেশন শুরুর আগে সংসদের কার্যউপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে অধিবেশনের মেয়াদ ও কার্যসূচি চূড়ান্ত করা হয়। কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার সংসদে প্রস্তাবিত বাজেট উত্থাপন করবেন অর্থমন্ত্রী। প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সরকার ও বিরোধী দলীয় সংসদ সদস্যদের দীর্ঘ আলোচনা শেষে আগামী ৩০ জুন পাস হবে। এর আগে ১০ জুন সোমবার চলতি অর্থবছরের সম্পূরক বাজেট পাস হতে পারে।

সংসদ সচিবালয় সূত্র জানায়, সংসদে বাজেট উত্থাপনের আগে মন্ত্রীসভার বৈঠকে তা অনুমোদিত হবে। দুপুর ১২টায় সংসদ ভবনে কেবিনেট কক্ষে মন্ত্রীসভার বৈঠক হবে। ইতোমধ্যে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। গত ১৩ মে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে তার কার্যালয়ে বাজেটের সর্বশেষ প্রস্তুতি তুলে ধরে প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা নেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। পরদিন অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের কর্মকর্তারা রাজস্ব আহরণের পরিকল্পনা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে যান।

আসন্ন বাজেট পরিকল্পনা প্রসঙ্গে সম্প্রতি অর্থপ্রতিমন্ত্রী ওয়াসিকা আয়শা খান বলেন, মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ, রপ্তানিপণ্যের বৈচিত্র্যকরণ, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও প্রান্তিক মানুষের সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি এবারের বাজেটের অগ্রাধিকারে থাকবে। বাজেটে মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ অগ্রাধিকার পাচ্ছে জানিয়ে অর্থ প্রতিমন্ত্রী বলেছিলেন, নিম্ন আয়ের মানুষকে স্বস্তি দিতে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় উপকারভোগীর সংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে। আরও বলেছেন, যেসব খাত দীর্ঘদিন কর অবকাশ সুবিধা পেয়ে আসছে, সেসব খাত থেকে এবারে কর অব্যাহতির সুবিধা উঠিয়ে দেওয়ার বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রের খবর, , চলতি ২০২৩-২০২৪ অর্থবছরে বাজেট ছিল ৭ লাখ ৬১ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকা। এর মধ্যে পরিচালনসহ অন্যান্য ব্যয় ৪ লাখ ৯৮ হাজার ৭৮৫ কোটি টাকা এবং বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির ব্যয় ২ লাখ ৬৩ হাজার কোটি টাকা। আগামী ২০২৪-২০২৫ অর্থবছরে বাজেট ৭ লাখ ৯৬ হাজার ৯০০ কোটি টাকার পরিকল্পনা করছে, অর্থ মন্ত্রণালয়ের একাধিক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এমনটিই জানিয়েছে। যা জিডিপির ১৪ দশমিক ২০ শতাংশ। এর বিপরীতে সরকারের রাজস্ব আয়ের লক্ষ্য ধরা হচ্ছে ৫ লাখ ৫০ হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে এনবিআরের মাধ্যমে কর আদায়ের লক্ষ্য ৪ লাখ ৭৬ হাজার ৫০০ কোটি টাকা।