ঢাকা ০৫:৪১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

আস্থার সম্পর্ক গড়তেই ঢাকা সফর বললেন ডোনাল্ড লু

গণমুক্তি রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৬:১৫:৫৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪ ৪৫ বার পড়া হয়েছে

হাছান মাহমুদের সঙ্গে ডোনাল্ড লু: সংগ্রহ

দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

বাংলাদেশ-মর্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে অস্বস্তিকর সম্পর্কের মধ্যেই সুসংবাদ দিলেন ঢাকা সফরে থাকা মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লু। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কে যথেষ্ট অস্বস্তিকর বিষয় নিষ্পত্তি নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে তার আলোচনা হয়েছে। বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কের ক্ষেত্রে নতুন অধ্যায়ের প্রত্যাশা করছেন লু।

লুর ভাষায়, আমরা অস্বস্তিকর বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করার পাশাপাশি ইতিবাচক বিষয়গুলো নিয়েও সহযোগিতা বাড়াতে আগ্রহী। নতুন বিনিয়োগ নিয়ে কথা বলেছি। বাংলাদেশের আরও বেশি শিক্ষার্থী যাতে যুক্তরাষ্ট্রে পড়াশোনা করতে পারেন, তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। পরিবেশবান্ধব জ্বালানি নিয়েও কথা বলেছি। কীভাবে এ নিয়ে একসঙ্গে কাজ করা যায়, তা বলেছি।

বুধবার (১৫ মে) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লু।

লু বলেন, গত দুদিন আমি বাংলাদেশ সফর করছি। দুই দেশের নাগরিকদের মধ্যে নতুন করে আস্থার সম্পর্ক গড়ে তুলতেই আমার এ সফর। গত বছর বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে অনেক উত্তেজনা ছিল। এখানে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য আমরা কঠোর পরিশ্রম করেছি। এখন আমরা নতুন একটি অধ্যায় প্রত্যাশা করছি।

লু বলেন, দুই দেশের সম্পর্ক জোরদারে আমরা একটা উপায় বের করতে চাচ্ছি। সম্পর্কের অস্বস্তিকর বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করতেই আমি আজ মন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করেছি। আমাদের মধ্যে অনেকগুলো অস্বস্তিকর বিষয়ের মধ্যে রয়েছে র‌্যাবের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা, শ্রম আইন সংশোধন, মানবাধিকার ও ব্যবসায়িক পরিবেশ সংস্কার ইত্যাদি।

তিনি বলেন, এ ছাড়া দুর্নীতির বিরুদ্ধে কীভাবে একসঙ্গে লড়াই করতে পারি, মন্ত্রীর সঙ্গে সে বিষয়ে আমি আলাপ করেছি। সরকারে স্বচ্ছতা ও কর্মকর্তাদের জবাবদিহি বাড়াতে অনেক কাজ করার বাকি আছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

আস্থার সম্পর্ক গড়তেই ঢাকা সফর বললেন ডোনাল্ড লু

আপডেট সময় : ০৬:১৫:৫৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪

 

বাংলাদেশ-মর্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে অস্বস্তিকর সম্পর্কের মধ্যেই সুসংবাদ দিলেন ঢাকা সফরে থাকা মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লু। তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্কে যথেষ্ট অস্বস্তিকর বিষয় নিষ্পত্তি নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে তার আলোচনা হয়েছে। বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কের ক্ষেত্রে নতুন অধ্যায়ের প্রত্যাশা করছেন লু।

লুর ভাষায়, আমরা অস্বস্তিকর বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করার পাশাপাশি ইতিবাচক বিষয়গুলো নিয়েও সহযোগিতা বাড়াতে আগ্রহী। নতুন বিনিয়োগ নিয়ে কথা বলেছি। বাংলাদেশের আরও বেশি শিক্ষার্থী যাতে যুক্তরাষ্ট্রে পড়াশোনা করতে পারেন, তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। পরিবেশবান্ধব জ্বালানি নিয়েও কথা বলেছি। কীভাবে এ নিয়ে একসঙ্গে কাজ করা যায়, তা বলেছি।

বুধবার (১৫ মে) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোনাল্ড লু।

লু বলেন, গত দুদিন আমি বাংলাদেশ সফর করছি। দুই দেশের নাগরিকদের মধ্যে নতুন করে আস্থার সম্পর্ক গড়ে তুলতেই আমার এ সফর। গত বছর বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে অনেক উত্তেজনা ছিল। এখানে একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য আমরা কঠোর পরিশ্রম করেছি। এখন আমরা নতুন একটি অধ্যায় প্রত্যাশা করছি।

লু বলেন, দুই দেশের সম্পর্ক জোরদারে আমরা একটা উপায় বের করতে চাচ্ছি। সম্পর্কের অস্বস্তিকর বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করতেই আমি আজ মন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করেছি। আমাদের মধ্যে অনেকগুলো অস্বস্তিকর বিষয়ের মধ্যে রয়েছে র‌্যাবের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা, শ্রম আইন সংশোধন, মানবাধিকার ও ব্যবসায়িক পরিবেশ সংস্কার ইত্যাদি।

তিনি বলেন, এ ছাড়া দুর্নীতির বিরুদ্ধে কীভাবে একসঙ্গে লড়াই করতে পারি, মন্ত্রীর সঙ্গে সে বিষয়ে আমি আলাপ করেছি। সরকারে স্বচ্ছতা ও কর্মকর্তাদের জবাবদিহি বাড়াতে অনেক কাজ করার বাকি আছে।