ঢাকা ০৮:৪২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪

ইন্দোনেশিয়া থেকে উড়ে শিবচর, বিয়ের পিঁড়িতে তরুণী ইফহা

মাদারীপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ১২:০১:১৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ২২০ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

পছন্দের মানুষটিকে জীবন সঙ্গী করতে সুদূর ইন্দোনেশিয়া থেকে উড়ে এসেছেন শিবচরে।

মহাধুমধামে হয়ে গেলো বিয়ের অনুষ্ঠান। ২০১৮ সালে কাজ করতে সিঙ্গাপুর যান শামীম মাদবর। সেখানেই ইন্দোনেশিয়ার তরুণী ইফহার সঙ্গে পরিচয়। মূলত ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটকের মাধ্যমে ইন্দোনেশিয়ার সঙ্গে সিঙ্গাপুরে পরিচয় হয় শামীমের।

এরপর ডিজিটাল প্ল্যার্টফর্ম ছেড়ে বাস্তবেই শামীমের নায়িকা হয়ে ওঠেন ইফহার। দুই বছরের মাথায় ইফহার নিজেই ছুটে আসেন বাংলাদেশে। এবারে আর প্রেম নয়, এক ঘরের বাসিন্দা হলেন তারা। ইফহা সিঙ্গাপুরে অনলাইনে কসমেটিকসের সফল ব্যবসায়ী।

ইউটিউবে বাংলাদেশে বিয়ের ধরন পছন্দ হওয়ায় তারা এখানেই বিয়ের পরিকল্পনা করেন ইফহা। প্রথমে দুই পরিবার রাজি না থাকলেও, পরে মতের পরিবর্তন হওয়ায় ৩০ জানুয়ারি সিঙ্গাপুর থেকে বাড়ি আসেন শামীম। ১৭ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশে আসেন ইফহা। শামীমের পরিবার সানন্দে গ্রহণ করেন তরুণীকে।

বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) গায়ে হলুদ ও শুক্রবার শামীমের বাড়িতে জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। বিদেশি তরুণীর বিয়ের অনুষ্ঠান দেখতে শামীমের বাড়িতে ভিড় জমায় এলাকাবাসী।

ছেলের বিয়ের বিষয়ে শামীমের বাবা বলেন, বিদেশি মেয়েকে আমার ছেলে পছন্দ করেছে। আমরা মেয়ের পরিবারের সঙ্গে কথা বলেছি। তারাও বিয়েতে রাজি হয়েছেন। শুক্রবার শামীম ও আমার ছোট ছেলে সুমনের একত্রে বিয়ে দিয়েছি।

এ বিষয়ে বর শামীম বলেন, ইফহার খুবই ভালো মনের মানুষ। আমরা সিঙ্গাপুর যাবো। ওখান থেকে ইন্দোনেশিয়ায় ওর বাবা-মায়ের কাছে বেড়াতে যাবো।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

ইন্দোনেশিয়া থেকে উড়ে শিবচর, বিয়ের পিঁড়িতে তরুণী ইফহা

আপডেট সময় : ১২:০১:১৬ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

 

পছন্দের মানুষটিকে জীবন সঙ্গী করতে সুদূর ইন্দোনেশিয়া থেকে উড়ে এসেছেন শিবচরে।

মহাধুমধামে হয়ে গেলো বিয়ের অনুষ্ঠান। ২০১৮ সালে কাজ করতে সিঙ্গাপুর যান শামীম মাদবর। সেখানেই ইন্দোনেশিয়ার তরুণী ইফহার সঙ্গে পরিচয়। মূলত ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিকটকের মাধ্যমে ইন্দোনেশিয়ার সঙ্গে সিঙ্গাপুরে পরিচয় হয় শামীমের।

এরপর ডিজিটাল প্ল্যার্টফর্ম ছেড়ে বাস্তবেই শামীমের নায়িকা হয়ে ওঠেন ইফহার। দুই বছরের মাথায় ইফহার নিজেই ছুটে আসেন বাংলাদেশে। এবারে আর প্রেম নয়, এক ঘরের বাসিন্দা হলেন তারা। ইফহা সিঙ্গাপুরে অনলাইনে কসমেটিকসের সফল ব্যবসায়ী।

ইউটিউবে বাংলাদেশে বিয়ের ধরন পছন্দ হওয়ায় তারা এখানেই বিয়ের পরিকল্পনা করেন ইফহা। প্রথমে দুই পরিবার রাজি না থাকলেও, পরে মতের পরিবর্তন হওয়ায় ৩০ জানুয়ারি সিঙ্গাপুর থেকে বাড়ি আসেন শামীম। ১৭ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশে আসেন ইফহা। শামীমের পরিবার সানন্দে গ্রহণ করেন তরুণীকে।

বৃহস্পতিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) গায়ে হলুদ ও শুক্রবার শামীমের বাড়িতে জাঁকজমকপূর্ণ আয়োজনে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। বিদেশি তরুণীর বিয়ের অনুষ্ঠান দেখতে শামীমের বাড়িতে ভিড় জমায় এলাকাবাসী।

ছেলের বিয়ের বিষয়ে শামীমের বাবা বলেন, বিদেশি মেয়েকে আমার ছেলে পছন্দ করেছে। আমরা মেয়ের পরিবারের সঙ্গে কথা বলেছি। তারাও বিয়েতে রাজি হয়েছেন। শুক্রবার শামীম ও আমার ছোট ছেলে সুমনের একত্রে বিয়ে দিয়েছি।

এ বিষয়ে বর শামীম বলেন, ইফহার খুবই ভালো মনের মানুষ। আমরা সিঙ্গাপুর যাবো। ওখান থেকে ইন্দোনেশিয়ায় ওর বাবা-মায়ের কাছে বেড়াতে যাবো।