ঢাকা ১০:৫৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪

উপমহাদেশের খ্যাতনামা গজল গায়ক পঙ্কজ উধাস প্রয়াত

গণমুক্তি ডিজিটাল ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৭:২৭:৩৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১২২ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

শুরুতে তবলার প্রশিক্ষণ নিলেও পরবর্তী সময়ে গুলাম কাদির খানের কাছে শাস্ত্রীয় সংগীতের তালিম নিতে শুরু করেন পঙ্কজ

পরপারে পারি দিলে উপমহাদেশের খ্যাতনামা গজল গায়ক পঙ্কজ উধাস। ৭২ বছর বয়সী এই শিল্পী দীর্ঘ দিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন তিনি। বাবার প্রয়াণের খবর নিশ্চিত করেন মেয়ে নায়াব উধাস ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, গভীর শোকের সঙ্গে জানাচ্ছি, পদ্মশ্রী প্রাপ্ত শিল্পী পঙ্কজ উধাস ২৬ ফেব্রুয়ারি প্রয়াত হয়েছেন।

ছায়া ছবিসহ বিভিন্ন মাধ্যমে একটা লম্বা সময় শ্রোতাদের মুগ্ধ করে রেখেছিলেন পঙ্কজ। চান্দি জ্যায়সা রঙ্গ, না কাজরে কি ধার, দিওয়ারো সে মিল কর রোনা, আহিস্তা, থোড়ি থোড়ি প্যার করো, নিকলো না বেনাকাব, পঙ্কজ উদাসের গাওয়া এসব কালজয়ী গজল শ্রোতাদের মনের রসদ।

নশা, পয়মানা, হসরত, হামসফর-এর মতো বেশ কয়েকটি বিখ্যাত অ্যালবামও রয়েছে।

পঙ্কজ উধাসের জন্ম ১৯৫১ সালের ১৭ মে গুজরাতের জেটপুরে। কেশুভাই উধাস ও জিতুবেন উধাসের তিন সন্তানের মধ্যে পঙ্কজ ছিলেন কনিষ্ঠ। পরিবারেই তার সংগীতের হাতেখড়ি।

সন্তানদের সংগীতের প্রতি উৎসাহ দেখে কেশুভাই তাদের রাজকোটের সঙ্গীত অ্যাকাডেমিতে ভর্তি করে দেন।

শুরুতে তবলার প্রশিক্ষণ নিলেও পরবর্তী সময়ে গুলাম কাদির খানের কাছে শাস্ত্রীয় সংগীতের তালিম নিতে শুরু করেন পঙ্কজ। পরবর্তী সময়ে গোয়ালিয়র ঘরানার জনপ্রিয় শিল্পী নবরং নাগপুরকরের কাছে তালিম নিতে চলে আসেন পঙ্কজ মুম্বাই। সিনেমার গানে তার অভিষেক হয় ১৯৮৯ সালে হম তুম ওউর ওহ ছবির মাধ্যমে।

তার পর সাথ সাথ, উৎসব, প্রেম প্রতিজ্ঞা’র মতো ছবিতে কণ্ঠ দেন। ১৯৮৬ সালে নাম সিনেমায় তার গাওয়া চিঠঠি আয়ি হ্যয় গানটি তাকে জনপ্রিয়তা শিখরে পৌঁছে দেয়। ১৯৯১ সালে সাজন ছবির জিয়ে তো জিয়ে তার সংগীত জীবনের অন্যতম হিট গান।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

উপমহাদেশের খ্যাতনামা গজল গায়ক পঙ্কজ উধাস প্রয়াত

আপডেট সময় : ০৭:২৭:৩৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

 

শুরুতে তবলার প্রশিক্ষণ নিলেও পরবর্তী সময়ে গুলাম কাদির খানের কাছে শাস্ত্রীয় সংগীতের তালিম নিতে শুরু করেন পঙ্কজ

পরপারে পারি দিলে উপমহাদেশের খ্যাতনামা গজল গায়ক পঙ্কজ উধাস। ৭২ বছর বয়সী এই শিল্পী দীর্ঘ দিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন তিনি। বাবার প্রয়াণের খবর নিশ্চিত করেন মেয়ে নায়াব উধাস ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, গভীর শোকের সঙ্গে জানাচ্ছি, পদ্মশ্রী প্রাপ্ত শিল্পী পঙ্কজ উধাস ২৬ ফেব্রুয়ারি প্রয়াত হয়েছেন।

ছায়া ছবিসহ বিভিন্ন মাধ্যমে একটা লম্বা সময় শ্রোতাদের মুগ্ধ করে রেখেছিলেন পঙ্কজ। চান্দি জ্যায়সা রঙ্গ, না কাজরে কি ধার, দিওয়ারো সে মিল কর রোনা, আহিস্তা, থোড়ি থোড়ি প্যার করো, নিকলো না বেনাকাব, পঙ্কজ উদাসের গাওয়া এসব কালজয়ী গজল শ্রোতাদের মনের রসদ।

নশা, পয়মানা, হসরত, হামসফর-এর মতো বেশ কয়েকটি বিখ্যাত অ্যালবামও রয়েছে।

পঙ্কজ উধাসের জন্ম ১৯৫১ সালের ১৭ মে গুজরাতের জেটপুরে। কেশুভাই উধাস ও জিতুবেন উধাসের তিন সন্তানের মধ্যে পঙ্কজ ছিলেন কনিষ্ঠ। পরিবারেই তার সংগীতের হাতেখড়ি।

সন্তানদের সংগীতের প্রতি উৎসাহ দেখে কেশুভাই তাদের রাজকোটের সঙ্গীত অ্যাকাডেমিতে ভর্তি করে দেন।

শুরুতে তবলার প্রশিক্ষণ নিলেও পরবর্তী সময়ে গুলাম কাদির খানের কাছে শাস্ত্রীয় সংগীতের তালিম নিতে শুরু করেন পঙ্কজ। পরবর্তী সময়ে গোয়ালিয়র ঘরানার জনপ্রিয় শিল্পী নবরং নাগপুরকরের কাছে তালিম নিতে চলে আসেন পঙ্কজ মুম্বাই। সিনেমার গানে তার অভিষেক হয় ১৯৮৯ সালে হম তুম ওউর ওহ ছবির মাধ্যমে।

তার পর সাথ সাথ, উৎসব, প্রেম প্রতিজ্ঞা’র মতো ছবিতে কণ্ঠ দেন। ১৯৮৬ সালে নাম সিনেমায় তার গাওয়া চিঠঠি আয়ি হ্যয় গানটি তাকে জনপ্রিয়তা শিখরে পৌঁছে দেয়। ১৯৯১ সালে সাজন ছবির জিয়ে তো জিয়ে তার সংগীত জীবনের অন্যতম হিট গান।