ঢাকা ১২:৪৬ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪

কক্সবাজারে বন কর্মকর্তার হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি হবে

গণমুক্তি রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৮:৩১:৫৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ এপ্রিল ২০২৪ ২২৬ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

কক্সবাজারের উখিয়ায় বনবিট কর্মকর্তাকে হত্যার ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি পেতে হবে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে এবং এজাহারভুক্ত এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মন্ত্রণালয়ের প্রত্যাশা নৃশংস হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে।

বুধবার (৩ এপ্রিল) আগারগাঁওয়ের পর্যটন ভবনে পরিবেশ ও সামাজিক উন্নয়ন সংস্থা আয়োজিত এড্রেসিং দ্যা চিলড্রেনস এনভায়রনমেন্টাল হেলথ উইথ এ পাট্টিকুলার ফোকাস অন লেড পয়জনিং ইন বাংলাদেশ শীর্ষক কর্মশালায় এ কথা বলেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী।

কক্সবাজারের উখিয়ায় সংরক্ষিত বনের পাহাড় কেটে মাটি পাচারকারীদের ড্রাম্প ট্রাকের চাপায় প্রয়োজনীয় আইনানুগ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

জলবায়ু বাস সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্টের মাধ্যমে প্রকল্প বাছাই ও বরাদ্দ প্রদানে নতুন নীতিমালা করা হচ্ছে। ভবিষ্যতে নীতিমালা অনুসরণ করে প্রকল্প গ্রহণ করা হবে, ফলে বিসিসিটির অতীতের ভুলভ্রান্তি পরিহার করা সম্ভব হবে।

এর পূর্বে কর্মশালায় প্রদত্ত বক্তব্যে পরিবেশমন্ত্রী বলেন, সীসা বিষক্রিয়ার ঝুঁকি কমাতে এবং বাংলাদেশের শিশুদের স্বাস্থ্যকর ভবিষ্যৎ নিশ্চিত করতে সরকার ও তাঁর মন্ত্রণালয় সম্ভাব্য সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। তিনি বলেন, একাজে সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা এবং অংশগ্রহণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সাবেক সচিব ও এসডোর চেয়ারপারসন সৈয়দ মার্গুব মোর্শেদ। ড. আব্দুল হামিদ, মহাপরিচালক, পরিবেশ অধিদপ্তর, কেয়া খান মহাপরিচালক মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, আনজির লিটন মহাপরিচালক বাংলাদেশ শিশু একাডেমী. এস কে রফিকুল ইসলাম প্রধান নিয়ন্ত্রক (অতিরিক্ত সচিব) আমদানি ও রপ্তানি প্রধান নিয়ন্ত্রকের কার্যালয় ও ইউনিসেফের স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান মায়া ভ্যানডেনেন্ট অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

কক্সবাজারে বন কর্মকর্তার হত্যাকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি হবে

আপডেট সময় : ০৮:৩১:৫৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ এপ্রিল ২০২৪

 

কক্সবাজারের উখিয়ায় বনবিট কর্মকর্তাকে হত্যার ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি পেতে হবে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে এবং এজাহারভুক্ত এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মন্ত্রণালয়ের প্রত্যাশা নৃশংস হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে।

বুধবার (৩ এপ্রিল) আগারগাঁওয়ের পর্যটন ভবনে পরিবেশ ও সামাজিক উন্নয়ন সংস্থা আয়োজিত এড্রেসিং দ্যা চিলড্রেনস এনভায়রনমেন্টাল হেলথ উইথ এ পাট্টিকুলার ফোকাস অন লেড পয়জনিং ইন বাংলাদেশ শীর্ষক কর্মশালায় এ কথা বলেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী।

কক্সবাজারের উখিয়ায় সংরক্ষিত বনের পাহাড় কেটে মাটি পাচারকারীদের ড্রাম্প ট্রাকের চাপায় প্রয়োজনীয় আইনানুগ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

জলবায়ু বাস সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্টের মাধ্যমে প্রকল্প বাছাই ও বরাদ্দ প্রদানে নতুন নীতিমালা করা হচ্ছে। ভবিষ্যতে নীতিমালা অনুসরণ করে প্রকল্প গ্রহণ করা হবে, ফলে বিসিসিটির অতীতের ভুলভ্রান্তি পরিহার করা সম্ভব হবে।

এর পূর্বে কর্মশালায় প্রদত্ত বক্তব্যে পরিবেশমন্ত্রী বলেন, সীসা বিষক্রিয়ার ঝুঁকি কমাতে এবং বাংলাদেশের শিশুদের স্বাস্থ্যকর ভবিষ্যৎ নিশ্চিত করতে সরকার ও তাঁর মন্ত্রণালয় সম্ভাব্য সকল পদক্ষেপ গ্রহণ করবে। তিনি বলেন, একাজে সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা এবং অংশগ্রহণ খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সাবেক সচিব ও এসডোর চেয়ারপারসন সৈয়দ মার্গুব মোর্শেদ। ড. আব্দুল হামিদ, মহাপরিচালক, পরিবেশ অধিদপ্তর, কেয়া খান মহাপরিচালক মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, আনজির লিটন মহাপরিচালক বাংলাদেশ শিশু একাডেমী. এস কে রফিকুল ইসলাম প্রধান নিয়ন্ত্রক (অতিরিক্ত সচিব) আমদানি ও রপ্তানি প্রধান নিয়ন্ত্রকের কার্যালয় ও ইউনিসেফের স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান মায়া ভ্যানডেনেন্ট অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।