ঢাকা ০৫:০৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪

কলকাতায় এমপি আজিম হত্যা, ঢাকায় গ্রেপ্তার তিনজন ফের ৫ দিনের রিমান্ডে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:১৯:০৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪ ৬৯ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

বাংলাদেশের ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীমকে কলকতায় হত্রার সঙ্গে জড়িত তিনজনকে ফের ৫দিনের পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। তাদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করতে এবং নতুন কোন তথ্যের বিষয়ে জানতেই এই রিমান্ডে আনা।

ঢাকার গোয়েন্দা প্রধান হারুন অর রশিদের নেতৃত্বে তিন সদস্যের গোয়েন্দা এখন এমপি আজিম হত্যার তদন্তে কলকাতায় রয়েছেন।

শুক্রবার (৩১ মে) সরকারী ছুটির দিনে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শান্ত ইসলাম মল্লিকের আদালতে হাজির করে রিমান্ড চাওয়া হলে আদালত তা মঞ্জুর করেন।

গ্রেপ্তারকৃত সৈয়দ আমানুল্লাহ আমান ওরফে শিমুল ভূঁইয়া, ফয়সাল আলী সাজী ওরফে তানভীর ভূঁইয়া ও শিলাস্তি রহমানকে মহানগর গোয়েন্দা সদর দপ্তরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

এর আগে ২৪ মে তিন আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে ৮ দিনের রিমান্ডে আনা হয়। সেই রিমান্ড শেষে তাদের আদালতে হাজির করে ফের ৮ দিনের রিমান্ড আবেদন করে গোয়েন্দা পুলিশ।

গত ২২ মে রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানায় হত্যার উদ্দেশে অপহরণের অভিযোগে মামলাটি দায়ের করেন এমপি আজিমের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, গত ৯ মে রাত ৮টার দিকে আনোয়ারুল আজীম গ্রামের বাড়ি ঝিনাইদহ যাওয়ার উদ্দেশে যাত্রা করেন। গত ১১ মে বিকেল পৌনে ৫টার নাগাদ বাবার সঙ্গে ভিডিও কলে কথা বললে বাবার কথাবার্তা কিছুটা অসংলগ্ন মনে হয়। এরপর থেকে বাবার মোবাইল নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়।

মেয়ে ডরিন তার অভিযোগে উল্লেখ করেন, গত ১৩ মে বাবার ভারতীয় নম্বর থেকে উজির মামার হোয়াটসঅ্যাপে একটি ক্ষুদে বার্তা আসে। এতে লেখা ছিল, আমি হঠাৎ করে দিল্লি যাচ্ছি, আমার সঙ্গে ভিআইপি রয়েছে। আমি অমিত সাহার কাজে নিউটাউন যাচ্ছি। আমাকে ফোন দেওয়ার দরকার নেই। আমি পরে ফোন দেব।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

কলকাতায় এমপি আজিম হত্যা, ঢাকায় গ্রেপ্তার তিনজন ফের ৫ দিনের রিমান্ডে

আপডেট সময় : ০৭:১৯:০৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩১ মে ২০২৪

 

বাংলাদেশের ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীমকে কলকতায় হত্রার সঙ্গে জড়িত তিনজনকে ফের ৫দিনের পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। তাদের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করতে এবং নতুন কোন তথ্যের বিষয়ে জানতেই এই রিমান্ডে আনা।

ঢাকার গোয়েন্দা প্রধান হারুন অর রশিদের নেতৃত্বে তিন সদস্যের গোয়েন্দা এখন এমপি আজিম হত্যার তদন্তে কলকাতায় রয়েছেন।

শুক্রবার (৩১ মে) সরকারী ছুটির দিনে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শান্ত ইসলাম মল্লিকের আদালতে হাজির করে রিমান্ড চাওয়া হলে আদালত তা মঞ্জুর করেন।

গ্রেপ্তারকৃত সৈয়দ আমানুল্লাহ আমান ওরফে শিমুল ভূঁইয়া, ফয়সাল আলী সাজী ওরফে তানভীর ভূঁইয়া ও শিলাস্তি রহমানকে মহানগর গোয়েন্দা সদর দপ্তরে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

এর আগে ২৪ মে তিন আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে ৮ দিনের রিমান্ডে আনা হয়। সেই রিমান্ড শেষে তাদের আদালতে হাজির করে ফের ৮ দিনের রিমান্ড আবেদন করে গোয়েন্দা পুলিশ।

গত ২২ মে রাজধানীর শেরেবাংলা নগর থানায় হত্যার উদ্দেশে অপহরণের অভিযোগে মামলাটি দায়ের করেন এমপি আজিমের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, গত ৯ মে রাত ৮টার দিকে আনোয়ারুল আজীম গ্রামের বাড়ি ঝিনাইদহ যাওয়ার উদ্দেশে যাত্রা করেন। গত ১১ মে বিকেল পৌনে ৫টার নাগাদ বাবার সঙ্গে ভিডিও কলে কথা বললে বাবার কথাবার্তা কিছুটা অসংলগ্ন মনে হয়। এরপর থেকে বাবার মোবাইল নম্বর বন্ধ পাওয়া যায়।

মেয়ে ডরিন তার অভিযোগে উল্লেখ করেন, গত ১৩ মে বাবার ভারতীয় নম্বর থেকে উজির মামার হোয়াটসঅ্যাপে একটি ক্ষুদে বার্তা আসে। এতে লেখা ছিল, আমি হঠাৎ করে দিল্লি যাচ্ছি, আমার সঙ্গে ভিআইপি রয়েছে। আমি অমিত সাহার কাজে নিউটাউন যাচ্ছি। আমাকে ফোন দেওয়ার দরকার নেই। আমি পরে ফোন দেব।