ঢাকা ০৫:৩১ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

কলকাতা বিমানবন্দরে গুলিতে সিআইএসএফ কর্মীর আত্মহত্যা

গণমুক্তি ডিজিটাল ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ১২:০২:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪ ৮৬ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) ভোর পাঁচটা নাগাদ হঠাৎ কলকাতা বিমান বন্দরের পাঁচ নম্বর গেট থেকে গুলির শব্দ ভেসে আসে। গুলির শব্দ পেয়ে কর্মরত সিআইএসএফ কর্মী থেকে শুরু করে সবাই তৎপর হয়ে ওঠেন। খোঁজ নিয়ে জানতে পান পাঁচ নম্বর গেটের টাওয়ার থেকে আসে গুলির শব্দ।

কলকাতা বিমানবন্দরে নিজের রাইফেল থেকে গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেছেন সেন্ট্রাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল সিকিউরিটি ফোর্সের (সিআইএসএফ) এক কর্মী। ভোরে হঠাৎ করে গুলির শব্দে বিমানবন্দরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

জানা গিয়েছে, সিআইএসএফের ওই কর্মীর নাম শ্রী বিষ্ণু (২৫)। তার বাড়ি তেলেঙ্গানায়। ২০২২ সাল থেকে সিআইএসএফ-এ কর্মরত ছিলেন তিনি।

তাৎক্ষণিক কর্মীরা টাওয়ারের ওপর ওঠে শ্রী বিষ্ণুকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পান। তাকে সেখান থেকে ভিআইপি রোডের কাছের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিষ্ণু কর্তব্যরত অবস্থায় নিজের রাইফেল থেকে নিজেকে থুতনির নিচে থেকে গুলি করেছিলেন।

ঘটনার পরপরই বিমানবন্দরে সিআইএসএফের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ও বিমানবন্দর থানার পুলিশ পৌঁছান। কী কারণে ওই কর্মী আত্মহত্যা করেছেন, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

কলকাতা বিমানবন্দরে গুলিতে সিআইএসএফ কর্মীর আত্মহত্যা

আপডেট সময় : ১২:০২:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪

 

বৃহস্পতিবার (২৮ মার্চ) ভোর পাঁচটা নাগাদ হঠাৎ কলকাতা বিমান বন্দরের পাঁচ নম্বর গেট থেকে গুলির শব্দ ভেসে আসে। গুলির শব্দ পেয়ে কর্মরত সিআইএসএফ কর্মী থেকে শুরু করে সবাই তৎপর হয়ে ওঠেন। খোঁজ নিয়ে জানতে পান পাঁচ নম্বর গেটের টাওয়ার থেকে আসে গুলির শব্দ।

কলকাতা বিমানবন্দরে নিজের রাইফেল থেকে গুলি চালিয়ে আত্মহত্যা করেছেন সেন্ট্রাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল সিকিউরিটি ফোর্সের (সিআইএসএফ) এক কর্মী। ভোরে হঠাৎ করে গুলির শব্দে বিমানবন্দরে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

জানা গিয়েছে, সিআইএসএফের ওই কর্মীর নাম শ্রী বিষ্ণু (২৫)। তার বাড়ি তেলেঙ্গানায়। ২০২২ সাল থেকে সিআইএসএফ-এ কর্মরত ছিলেন তিনি।

তাৎক্ষণিক কর্মীরা টাওয়ারের ওপর ওঠে শ্রী বিষ্ণুকে রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পান। তাকে সেখান থেকে ভিআইপি রোডের কাছের একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বিষ্ণু কর্তব্যরত অবস্থায় নিজের রাইফেল থেকে নিজেকে থুতনির নিচে থেকে গুলি করেছিলেন।

ঘটনার পরপরই বিমানবন্দরে সিআইএসএফের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ও বিমানবন্দর থানার পুলিশ পৌঁছান। কী কারণে ওই কর্মী আত্মহত্যা করেছেন, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।