ঢাকা ১০:৫৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪

কোনও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীকে ছাড় নয় : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:০৯:১৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ এপ্রিল ২০২৪ ১০৪ বার পড়া হয়েছে

ঘটনাস্থল পরিদর্শনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল

দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

ব্যাংক লুটকারী সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে সরকার। কোনও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীকে ছাড় নয়। বান্দরবানের রুমায় পরিদর্শনে এসে এমন কঠোর মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি বলেন, হামলা ও ব্যাংক লুটকারী সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সরকার কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে।

পর পর তিন দিন কয়েকটি হামলা, ব্যাংক ডাকাতি, অপহরণ, গোলাগুলি ও অস্ত্র লুটের ঘটনার পর বান্দরবানে সশস্ত্র গোষ্ঠী কেএনএফের বিরুদ্ধে যৌথ অভিযান শুরু করতে যাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

যৌথ অভিযানের বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী, সশস্ত্র বাহিনী রয়েছে। তারা তাদের মতো করে কাজ করবে। আমরা এদের উৎপত্তিস্থল খুঁজে বের করবো। সেইসঙ্গে এসব ঘটনার বিষয়ে কঠোর অবস্থানে যাবো।

মন্ত্রী বলেছেন, সন্ত্রাসীরা তাদের সক্ষমতা দেখানোর চেষ্টা করেছে মাত্র। তবে নিরাপত্তা বাহিনী তাদের সব সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ধূলিসাৎ করে দেবে। অস্ত্র ও পোশাকসহ তারা দেশে ঢুকবে, আর আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী বসে থাকবে, এটা কাম্য নয়।

এ ব্যাপারে কঠোর অবস্থানে যাবো। কোনোক্রমেই আইন ভঙ্গ করতে দেওয়া হবে না। শিগগিরই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পাহাড়ে সব বাহিনীর সদস্য আরও বাড়ানো হবে এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে যা যা করা দরকার, তাই করা হবে।

শনিবার (৬ এপ্রিল) বান্দরবান সার্কিট হাউজে জেলার আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সভা অনুষ্ঠিত হয়। তাতে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এর আগে রুমা ও থানচিতে ব্যাংকে ডাকাতি, ব্যাংক কর্মকর্তাকে অপহরণ, অস্ত্র লুট, থানায় হামলার পর শনিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান সিদ্দিকী, পুলিশ প্রধান চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন, আনসার প্রধান মেজর জেনারেল একেএম আমিনুল হক, স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) প্রধান পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক মনিরুল ইসলাম ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

কোনও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীকে ছাড় নয় : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আপডেট সময় : ১১:০৯:১৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ৬ এপ্রিল ২০২৪

 

ব্যাংক লুটকারী সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে সরকার। কোনও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীকে ছাড় নয়। বান্দরবানের রুমায় পরিদর্শনে এসে এমন কঠোর মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

তিনি বলেন, হামলা ও ব্যাংক লুটকারী সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সরকার কঠোর অবস্থানে যাচ্ছে।

পর পর তিন দিন কয়েকটি হামলা, ব্যাংক ডাকাতি, অপহরণ, গোলাগুলি ও অস্ত্র লুটের ঘটনার পর বান্দরবানে সশস্ত্র গোষ্ঠী কেএনএফের বিরুদ্ধে যৌথ অভিযান শুরু করতে যাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

যৌথ অভিযানের বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী, সশস্ত্র বাহিনী রয়েছে। তারা তাদের মতো করে কাজ করবে। আমরা এদের উৎপত্তিস্থল খুঁজে বের করবো। সেইসঙ্গে এসব ঘটনার বিষয়ে কঠোর অবস্থানে যাবো।

মন্ত্রী বলেছেন, সন্ত্রাসীরা তাদের সক্ষমতা দেখানোর চেষ্টা করেছে মাত্র। তবে নিরাপত্তা বাহিনী তাদের সব সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ধূলিসাৎ করে দেবে। অস্ত্র ও পোশাকসহ তারা দেশে ঢুকবে, আর আমাদের নিরাপত্তা বাহিনী বসে থাকবে, এটা কাম্য নয়।

এ ব্যাপারে কঠোর অবস্থানে যাবো। কোনোক্রমেই আইন ভঙ্গ করতে দেওয়া হবে না। শিগগিরই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পাহাড়ে সব বাহিনীর সদস্য আরও বাড়ানো হবে এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষার্থে যা যা করা দরকার, তাই করা হবে।

শনিবার (৬ এপ্রিল) বান্দরবান সার্কিট হাউজে জেলার আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সভা অনুষ্ঠিত হয়। তাতে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

এর আগে রুমা ও থানচিতে ব্যাংকে ডাকাতি, ব্যাংক কর্মকর্তাকে অপহরণ, অস্ত্র লুট, থানায় হামলার পর শনিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান সিদ্দিকী, পুলিশ প্রধান চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন, আনসার প্রধান মেজর জেনারেল একেএম আমিনুল হক, স্পেশাল ব্রাঞ্চের (এসবি) প্রধান পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক মনিরুল ইসলাম ও পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা।