ঢাকা ০৯:৫৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::

চীনকে টপকে মিঠা পানির মছ উৎপাদনে দ্বিতীয় বাংলাদেশ

গণমুক্তি রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০২:২২:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪ ৬৮ বার পড়া হয়েছে

চীনকে টপকে মিঠা পানির মছ উৎপাদনে দ্বিতীয় বাংলাদেশ

দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

তিপান্ন বছরের বাংলাদেশের অর্জনটা বিশাল। অব্যাহত উন্নয়নে সমৃদ্ধ বাংলাদেশে মাছ ও প্রাণিসম্পদ উন্নয়নে নজির গড়েছে। এবারে মিঠা পানির মাছ উৎপাদনে চীনকে ছড়িয়ে বিশে^ দ্বিতীয় স্থানে ওঠে এসেছে বাংলাদেশ।

মিঠা পানির মাছের উৎপাদন বেড়েছে ১.৩২ মিলিয়ন টন। চীনকে পেছনে ফেলে সামনে ওঠে এসেছে বাংলাদেশ। মত্র দুই বছরে বাংলাদেশে মিঠাপানির মাছের উৎপাদন বেড়ে দাড়িয়েছে ১ দশমিক ৩২ মিলিয়ন টনে।

জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আব্দুর রহমান।

বাংলাদেশের এই সাফল্য তুলে ধরতে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব সাঈদ মাহমুদ বেলাল হায়দার, অতিরিক্ত সচিব মো. আব্দুল কাইয়ূম, মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সৈয়দ মো. আলমগীরকে সঙ্গে নিয়ে বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য তুলে ধরেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী মে. আবদুর রহমন।

মন্ত্রী বলেন, জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার প্রতিবেদন অনুযায়ী মিঠাপানির মাছ আহরণে বাংলাদেশ চীনকে টপকে বিশ্বে দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে। বদ্ধ জলাশয়ে চাষ করা মাছ উৎপাদনে পঞ্চম স্থানের ধারাবাহিকতা বজায় রে রেখেছে বাংলাদেশ। চিংড়ি, লবস্টার উৎপাদনে বিশ্বে অষ্টম এবং সামুদ্রিক মাছ উৎপাদনে বাংলাদেশের অবস্থান ১৪তম।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

চীনকে টপকে মিঠা পানির মছ উৎপাদনে দ্বিতীয় বাংলাদেশ

আপডেট সময় : ০২:২২:৫০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪

 

তিপান্ন বছরের বাংলাদেশের অর্জনটা বিশাল। অব্যাহত উন্নয়নে সমৃদ্ধ বাংলাদেশে মাছ ও প্রাণিসম্পদ উন্নয়নে নজির গড়েছে। এবারে মিঠা পানির মাছ উৎপাদনে চীনকে ছড়িয়ে বিশে^ দ্বিতীয় স্থানে ওঠে এসেছে বাংলাদেশ।

মিঠা পানির মাছের উৎপাদন বেড়েছে ১.৩২ মিলিয়ন টন। চীনকে পেছনে ফেলে সামনে ওঠে এসেছে বাংলাদেশ। মত্র দুই বছরে বাংলাদেশে মিঠাপানির মাছের উৎপাদন বেড়ে দাড়িয়েছে ১ দশমিক ৩২ মিলিয়ন টনে।

জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আব্দুর রহমান।

বাংলাদেশের এই সাফল্য তুলে ধরতে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব সাঈদ মাহমুদ বেলাল হায়দার, অতিরিক্ত সচিব মো. আব্দুল কাইয়ূম, মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক সৈয়দ মো. আলমগীরকে সঙ্গে নিয়ে বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য তুলে ধরেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী মে. আবদুর রহমন।

মন্ত্রী বলেন, জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার প্রতিবেদন অনুযায়ী মিঠাপানির মাছ আহরণে বাংলাদেশ চীনকে টপকে বিশ্বে দ্বিতীয় অবস্থানে উঠে এসেছে। বদ্ধ জলাশয়ে চাষ করা মাছ উৎপাদনে পঞ্চম স্থানের ধারাবাহিকতা বজায় রে রেখেছে বাংলাদেশ। চিংড়ি, লবস্টার উৎপাদনে বিশ্বে অষ্টম এবং সামুদ্রিক মাছ উৎপাদনে বাংলাদেশের অবস্থান ১৪তম।