ঢাকা ০৬:৪৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

জাতীয় পতাকার নকশাকার, বীরমুক্তিযোদ্ধা জাসদ নেতা শিব নারায়ণ দাশ প্রয়াত

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:২৬:১১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪ ৪৪ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

জাতীয় পতাকার নকশাকার, বীরমুক্তিযোদ্ধা জাসদ নেতা শিব নারায়ণ দাশ প্রয়াত। তার মৃত্যুতে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু ও সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার শোক বার্তায় স্বাধীনতা সংগ্রামের অন্যতম অগ্র যোদ্ধা, জাতীয় পতাকার অন্যতম নকশাকার, বীরমুক্তিযোদ্ধা, জাসদের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা শিবনারায়ণ দাশের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

তারা শিবনারায়ণ দাশের প্রতি দলের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, ছাত্রলীগের একজন নেতা হিসাবে ৬০দশকে বাঙালি জাতীয়তাবাদী সংগ্রামকে স্বাধীনতা সংগ্রামে উন্নীত করতে যে সকল অগ্রযোদ্ধা হিসাবে দু:সাহসী ভূমিকা পালন করেছেন তাদের অন্যতম ছিলেন শিব নারায়ণ দাশ।

যে পতাকা উঁচিয়ে স্বাধীনতা সংগ্রাম মহান মুক্তিযুদ্ধে উন্নীত হয়েছিল সেই স্বাধীনতার পতাকার অন্যতম নকশাকার শিব নারায়ণ দাশ। স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের আদর্শের প্রশ্নের বিরোধে স্বাধীন বাংলাদেশে যখন সমাজতান্ত্রিক সমাজ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য নিয়ে বিরোধী দল হিসাবে জাসদ গঠিত হলে শিব নারায়ণ দাশ জাসদ রাজনীতির একজন গুরুত্বপূর্ণ সংগঠক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

জাসদ কুমিল্লা জেলা কমিটির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যসহ বিভিন্ন দায়িত্বে থেকে জাসদ রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। জীবনের শেষ প্রান্তে জাসদের সাংগঠনিক দায়িত্বে না থাকলেও জাসদের নেতা-কর্মীদের খোঁজ-খবর রাখতেন, সাধ্যমত সাহায্য করতেন।

শোকবার্তায় বলা হয়, বাঙালি জাতি ও স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্রের প্রতি শিব নারায়ণ দাশ যে ঐতিহাসিক অবদান রেখেছেন, সমাজ প্রগতির আন্দোলনে যে ভূমিকা রেখেছেন, তার জন্য তিনি চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন। তিনি জাসদের নেতাকর্মীদের কাছে চিরদিন প্রেরণার উৎস হিসাবে থাকবেন।

শিব নারায়ণ দাশ শনিবার (১৯ এপ্রিল) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন অসুস্থতায় ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর। তিনি স্ত্রী ও পুত্রসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গিয়েছেন।

শিব নারায়ণ দাশের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে সভাপতি হাসানুল হক ইনু, সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতারসহ নেতৃবৃন্দ শেষবারের মত দেখতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে(বিএসএম এমইউ)তে ছুটে যান ।

শ্রদ্ধা নিবেদন ও শেষকৃত্য

শনিবার (২০ এপ্রিল) সকাল ১০টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শিব নারায়ন দাসের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন কর্মসুচি নেয়া হয়েছে। জাতীয় পতাকার অন্যতম নকশাকার, জাসদ নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা শিবনারায়ণ দাসের চক্ষু সন্ধানীতে দান করেছেন, পরিবার তার শরীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে দান করেছেন।

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ঢাকা জেলা প্রশাসন থেকে গার্ড অব অনার প্রদান শেষে জাতির পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন। বেলা ১২টায় কুমিল্লার উদ্দেশ্যে যাত্রা, কুমিল্লায় সর্বস্তরের জনগণের শ্রদ্ধা নিবেদন করবে বিকেল সাড়ে ৪টায়। কুমিল্লায় শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে শিব নারায়ণ দাসের মরদেহ ঢাকায় নিয়ে আসা হবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

জাতীয় পতাকার নকশাকার, বীরমুক্তিযোদ্ধা জাসদ নেতা শিব নারায়ণ দাশ প্রয়াত

আপডেট সময় : ০৭:২৬:১১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪

জাতীয় পতাকার নকশাকার, বীরমুক্তিযোদ্ধা জাসদ নেতা শিব নারায়ণ দাশ প্রয়াত। তার মৃত্যুতে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু ও সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার শোক বার্তায় স্বাধীনতা সংগ্রামের অন্যতম অগ্র যোদ্ধা, জাতীয় পতাকার অন্যতম নকশাকার, বীরমুক্তিযোদ্ধা, জাসদের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা শিবনারায়ণ দাশের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

তারা শিবনারায়ণ দাশের প্রতি দলের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, ছাত্রলীগের একজন নেতা হিসাবে ৬০দশকে বাঙালি জাতীয়তাবাদী সংগ্রামকে স্বাধীনতা সংগ্রামে উন্নীত করতে যে সকল অগ্রযোদ্ধা হিসাবে দু:সাহসী ভূমিকা পালন করেছেন তাদের অন্যতম ছিলেন শিব নারায়ণ দাশ।

যে পতাকা উঁচিয়ে স্বাধীনতা সংগ্রাম মহান মুক্তিযুদ্ধে উন্নীত হয়েছিল সেই স্বাধীনতার পতাকার অন্যতম নকশাকার শিব নারায়ণ দাশ। স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধের আদর্শের প্রশ্নের বিরোধে স্বাধীন বাংলাদেশে যখন সমাজতান্ত্রিক সমাজ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্য নিয়ে বিরোধী দল হিসাবে জাসদ গঠিত হলে শিব নারায়ণ দাশ জাসদ রাজনীতির একজন গুরুত্বপূর্ণ সংগঠক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

জাসদ কুমিল্লা জেলা কমিটির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যসহ বিভিন্ন দায়িত্বে থেকে জাসদ রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন। জীবনের শেষ প্রান্তে জাসদের সাংগঠনিক দায়িত্বে না থাকলেও জাসদের নেতা-কর্মীদের খোঁজ-খবর রাখতেন, সাধ্যমত সাহায্য করতেন।

শোকবার্তায় বলা হয়, বাঙালি জাতি ও স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্রের প্রতি শিব নারায়ণ দাশ যে ঐতিহাসিক অবদান রেখেছেন, সমাজ প্রগতির আন্দোলনে যে ভূমিকা রেখেছেন, তার জন্য তিনি চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন। তিনি জাসদের নেতাকর্মীদের কাছে চিরদিন প্রেরণার উৎস হিসাবে থাকবেন।

শিব নারায়ণ দাশ শনিবার (১৯ এপ্রিল) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন অসুস্থতায় ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৮ বছর। তিনি স্ত্রী ও পুত্রসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গিয়েছেন।

শিব নারায়ণ দাশের মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে সভাপতি হাসানুল হক ইনু, সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতারসহ নেতৃবৃন্দ শেষবারের মত দেখতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে(বিএসএম এমইউ)তে ছুটে যান ।

শ্রদ্ধা নিবেদন ও শেষকৃত্য

শনিবার (২০ এপ্রিল) সকাল ১০টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শিব নারায়ন দাসের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন কর্মসুচি নেয়া হয়েছে। জাতীয় পতাকার অন্যতম নকশাকার, জাসদ নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা শিবনারায়ণ দাসের চক্ষু সন্ধানীতে দান করেছেন, পরিবার তার শরীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে দান করেছেন।

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ঢাকা জেলা প্রশাসন থেকে গার্ড অব অনার প্রদান শেষে জাতির পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন। বেলা ১২টায় কুমিল্লার উদ্দেশ্যে যাত্রা, কুমিল্লায় সর্বস্তরের জনগণের শ্রদ্ধা নিবেদন করবে বিকেল সাড়ে ৪টায়। কুমিল্লায় শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে শিব নারায়ণ দাসের মরদেহ ঢাকায় নিয়ে আসা হবে।