ঢাকা ০৫:৪৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

ঢাকায় ভারতীয় হাইকশিনের উদ্যোগে ইফতারের আয়োজন

গণমুক্তি রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৩:০১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২০ মার্চ ২০২৪ ১২০ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

ঢাকায় ভারতীয় হাইকশিনের উদ্যোগে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ইফতার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। সম্মানিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান।

স্বাগত বক্তব্যে হাইকমিশনার প্রণয় ভার্মা ভ্রাতৃত্ব ও মানবতার চেতনা বৃদ্ধিতে ইফতারের তাৎপর্য তুলে ধরেন। ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে বন্ধুত্ব ও সহযোগিতার গভীর বন্ধনকে বিশেষ ভাবে উল্লেখ করেন।

১৯৭১ সালের যৌথ আত্মত্যাগ সরণ বরে প্রণয় ভার্মা দুই দেশের বহুমুখী সম্পর্ককে আরও সমৃদ্ধ করার প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেন। ভারতের হাইকমিশনার উল্লেখ করেন যে ইফতার সমাবেশ জনগণের গভীর বন্ধনের প্রতীক। যা কিনা জনগণের মধ্যে ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্কের মজবুত ভিত্তি তৈরি করে।

ইফতার অনুষ্ঠানে আইনসভা, বিচার বিভাগ, রাজনৈতিক, সশস্ত্র বাহিনী, সুশীল সমাজ, ব্যবসায়িক, মিডিয়া ও সংস্কৃতিসহ প্রায় ৪০০জন বিশিষ্ট অতিথি উপস্থিত ছিলেন। ভারতীয় হাইকমিশন এতথ্য জানায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

ঢাকায় ভারতীয় হাইকশিনের উদ্যোগে ইফতারের আয়োজন

আপডেট সময় : ০৪:৪৩:০১ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২০ মার্চ ২০২৪

 

ঢাকায় ভারতীয় হাইকশিনের উদ্যোগে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ইফতার অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। সম্মানিত অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান।

স্বাগত বক্তব্যে হাইকমিশনার প্রণয় ভার্মা ভ্রাতৃত্ব ও মানবতার চেতনা বৃদ্ধিতে ইফতারের তাৎপর্য তুলে ধরেন। ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে বন্ধুত্ব ও সহযোগিতার গভীর বন্ধনকে বিশেষ ভাবে উল্লেখ করেন।

১৯৭১ সালের যৌথ আত্মত্যাগ সরণ বরে প্রণয় ভার্মা দুই দেশের বহুমুখী সম্পর্ককে আরও সমৃদ্ধ করার প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেন। ভারতের হাইকমিশনার উল্লেখ করেন যে ইফতার সমাবেশ জনগণের গভীর বন্ধনের প্রতীক। যা কিনা জনগণের মধ্যে ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্কের মজবুত ভিত্তি তৈরি করে।

ইফতার অনুষ্ঠানে আইনসভা, বিচার বিভাগ, রাজনৈতিক, সশস্ত্র বাহিনী, সুশীল সমাজ, ব্যবসায়িক, মিডিয়া ও সংস্কৃতিসহ প্রায় ৪০০জন বিশিষ্ট অতিথি উপস্থিত ছিলেন। ভারতীয় হাইকমিশন এতথ্য জানায়।