ঢাকা ১২:৪৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪

নেপাল থেকে ৪০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানি করবে বাংলাদেশ

গণমুক্তি রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৬:২৬:৪০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪ ৫১ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

নেপাল থেকে ৪০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানির অনুমেদন দিয়েছে ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। প্রতি ইউনিট ৮ টাকা ১৭ পয়সা দরে এই বিদ্যুৎ আমদানি করা হবে ভারতের জাতীয় গ্রিড ব্যবহার করে।

মঙ্গলবার জলবিদ্যুৎ আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়। ভারতের জাতীয় গ্রিড ব্যবহার করে নেপাল থেকে ৫ বছরের এই ৪০ মেগাওয়াট জলবিদ্যুৎ কেনার অনুমোদন দেয় সরকার।

জানা গেছে, বিদ্যুৎ আমদানির বিষয়ে গত বছরের মে মাসে বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যে একটি চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ী নেপালের ত্রিশুলি প্রকল্প থেকে ২৪ মেগাওয়াট এবং অন্য একটি বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে ১৬ মেগাওয়াটসহ মোট ৪০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আসবে বাংলাদেশে।

ভারত হয়ে বাংলাদেশের ভেড়ামারায় জাতীয় গ্রিডে এ বিদ্যুৎ যুক্ত হবে।

নেপালের এ বিদ্যুৎ আমদানির লক্ষ্যে গত ১০ সেপ্টেম্বর বৈঠকে বসে বিদ্যুৎ খাত উন্নয়ন ও আমদানি সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। সাবেক অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল কমিটির প্রধান ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

নেপাল থেকে ৪০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানি করবে বাংলাদেশ

আপডেট সময় : ০৬:২৬:৪০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪

 

নেপাল থেকে ৪০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানির অনুমেদন দিয়েছে ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। প্রতি ইউনিট ৮ টাকা ১৭ পয়সা দরে এই বিদ্যুৎ আমদানি করা হবে ভারতের জাতীয় গ্রিড ব্যবহার করে।

মঙ্গলবার জলবিদ্যুৎ আমদানির অনুমোদন দেওয়া হয়। ভারতের জাতীয় গ্রিড ব্যবহার করে নেপাল থেকে ৫ বছরের এই ৪০ মেগাওয়াট জলবিদ্যুৎ কেনার অনুমোদন দেয় সরকার।

জানা গেছে, বিদ্যুৎ আমদানির বিষয়ে গত বছরের মে মাসে বাংলাদেশ ও নেপালের মধ্যে একটি চুক্তি হয়। চুক্তি অনুযায়ী নেপালের ত্রিশুলি প্রকল্প থেকে ২৪ মেগাওয়াট এবং অন্য একটি বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে ১৬ মেগাওয়াটসহ মোট ৪০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আসবে বাংলাদেশে।

ভারত হয়ে বাংলাদেশের ভেড়ামারায় জাতীয় গ্রিডে এ বিদ্যুৎ যুক্ত হবে।

নেপালের এ বিদ্যুৎ আমদানির লক্ষ্যে গত ১০ সেপ্টেম্বর বৈঠকে বসে বিদ্যুৎ খাত উন্নয়ন ও আমদানি সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। সাবেক অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল কমিটির প্রধান ছিলেন।