ঢাকা ০৭:৫৭ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪

প্রধানমন্ত্রী মোদির আমন্ত্রণে ২১জুন দিল্লী সফরে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা

গণমুক্তি ডিজিটাল ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৮:৫০:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪ ২৬৪ বার পড়া হয়েছে

ফাইল ছবি

দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে ২১জুন দিল্লী সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে রাষ্ট্রীয় সফরে দিল্লী যাবেন শেখ হাসিনা। চলতি মাসে দুইবার ভারত সফর কোন রাষ্ট্রপ্রধানের জন্য নজির। ভারত সফরে মোদি-হাসিনা গুরুত্বপূর্ণ দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে বসবেন। ২১ থেকে ২২ জুন নয়া দিল্লি সফর করবেন হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী দফতরের প্রেস উইং থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে এতথ্য জানানো হয়। ২১ জুন শুক্রবার বেলা ২টায় বাংলাদেশ বিমানের একটি বিশেষ ফ্লাইটে পালাম বিমানবন্দরের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন। দিল্লিতে পৌঁছার পর এদিনই (২১ জুন) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আবাসস্থলে তার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী ড. এস. জয়শঙ্কর।

সফরসূচির দ্বিতীয় দিন ২২ জুন সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নয়া দিল্লির ফোরকোর্টে রাষ্ট্রপতি ভবনে আনুষ্ঠানিক সংবর্ধনা দেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রী সশস্ত্র সালাম গ্রহণ ও গার্ড অব অনার পরিদর্শন করবেন। এসময় দুই দেশের জাতীয় সংগীত বাজানো হবে। ভারতের রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আনুষ্ঠানিক ছবিও তোলা হবে এই সংবর্ধনা পর্বে। রাজঘাটে মহাত্মা গান্ধীর সমাধিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও পরিদর্শন বইয়ে সই করবেন। এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠক উপলক্ষে হায়দ্রাবাদ হাউজে যাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সেখানে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর একান্ত বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিনিধি পর্যায়ে আলোচনা এবং দুই দেশের মধ্যে স্বাক্ষরিত এমওইউ ও চুক্তি বিনিময় এবং দুই নেতার প্রেস বিবৃতি অনুষ্ঠানের আয়োজন রয়েছে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সম্মানে রাষ্ট্রীয় মধ্যাহ্নভোজ আয়োজনের কথা রয়েছে। ২২ জুন বিকালে ভারতের উপরাষ্ট্রপতি জগদীপ ধনখারের সঙ্গে তার সচিবালয়ে সাক্ষাৎ করবেন শেখ হাসিনা।

উপরাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুনরায় ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনে যাবেন। এসময় ভারতের রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হবে। ইদন সন্ধ্যায় ঢাকা উদ্দেশ্যে নয়াদিল্লী ছাড়বেন শেখ হাসিনা।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

প্রধানমন্ত্রী মোদির আমন্ত্রণে ২১জুন দিল্লী সফরে যাচ্ছেন শেখ হাসিনা

আপডেট সময় : ০৮:৫০:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪

 

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে ২১জুন দিল্লী সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে রাষ্ট্রীয় সফরে দিল্লী যাবেন শেখ হাসিনা। চলতি মাসে দুইবার ভারত সফর কোন রাষ্ট্রপ্রধানের জন্য নজির। ভারত সফরে মোদি-হাসিনা গুরুত্বপূর্ণ দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে বসবেন। ২১ থেকে ২২ জুন নয়া দিল্লি সফর করবেন হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী দফতরের প্রেস উইং থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে এতথ্য জানানো হয়। ২১ জুন শুক্রবার বেলা ২টায় বাংলাদেশ বিমানের একটি বিশেষ ফ্লাইটে পালাম বিমানবন্দরের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন। দিল্লিতে পৌঁছার পর এদিনই (২১ জুন) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আবাসস্থলে তার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করবেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী ড. এস. জয়শঙ্কর।

সফরসূচির দ্বিতীয় দিন ২২ জুন সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নয়া দিল্লির ফোরকোর্টে রাষ্ট্রপতি ভবনে আনুষ্ঠানিক সংবর্ধনা দেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রী সশস্ত্র সালাম গ্রহণ ও গার্ড অব অনার পরিদর্শন করবেন। এসময় দুই দেশের জাতীয় সংগীত বাজানো হবে। ভারতের রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আনুষ্ঠানিক ছবিও তোলা হবে এই সংবর্ধনা পর্বে। রাজঘাটে মহাত্মা গান্ধীর সমাধিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ ও পরিদর্শন বইয়ে সই করবেন। এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠক উপলক্ষে হায়দ্রাবাদ হাউজে যাবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সেখানে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর একান্ত বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিনিধি পর্যায়ে আলোচনা এবং দুই দেশের মধ্যে স্বাক্ষরিত এমওইউ ও চুক্তি বিনিময় এবং দুই নেতার প্রেস বিবৃতি অনুষ্ঠানের আয়োজন রয়েছে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সম্মানে রাষ্ট্রীয় মধ্যাহ্নভোজ আয়োজনের কথা রয়েছে। ২২ জুন বিকালে ভারতের উপরাষ্ট্রপতি জগদীপ ধনখারের সঙ্গে তার সচিবালয়ে সাক্ষাৎ করবেন শেখ হাসিনা।

উপরাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুনরায় ভারতের রাষ্ট্রপতি ভবনে যাবেন। এসময় ভারতের রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হবে। ইদন সন্ধ্যায় ঢাকা উদ্দেশ্যে নয়াদিল্লী ছাড়বেন শেখ হাসিনা।