ঢাকা ১২:৩৪ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ

গণমুক্তি রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৫:০১:২৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০২৪ ১৩৫ বার পড়া হয়েছে

বিএসএমএমইউতে মারধরের শিকার ডা. রাসুল আমিন শিপন। ছবি: সংগৃহীত

দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

ঢাকায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) সবধরনের সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে সবধরনের সভা, সমাবেশ ও মিছিল নিষিদ্ধ করা হলো বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

শনিবার (২৩ মার্চ) রাতে জরুরি বিজ্ঞপ্তি জারি করে এ আদেশের কথা জানায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বিএসএমএমইউয়ের প্রক্টর অধ্যাপক হাবিবুর রহমানের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে এই আদেশের কোন কারণ জানানো হয়নি।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রের খবর, শনিবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের চার চিকিৎসককে শারীরিক নির্যাতনের প্রেক্ষিতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই চার চিকিৎসক বর্তমান উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদের অনুসারী বলে পরিচিত।

বিএসএমএমইউয়ের প্রক্টর অধ্যাপক হাবিবুর রহমান বলেন, মিছিল-মিটিংসহ নানা কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছিল। চারজন চিকিৎসককে শারীরিক নির্যাতন করা হয়েছে। এসবের পরিপ্রেক্ষিতে বিজ্ঞপ্তিটি জারি করা হয়েছে।

এদিকে বিদায়ী ভিসি শরফুদ্দিন আহমেদের বিরুদ্ধে নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ তুলে তার কার্যালয়ের সামনে শনিবার বিক্ষোভ করেন আওয়ামী লীগপন্থি স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) শিক্ষকরা। এতে অংশ নেন বিশ্ববিদ্যালয়টির কর্মকর্তা-কার্মচারী ও নার্সরাও।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ

আপডেট সময় : ০৫:০১:২৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০২৪

 

ঢাকায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) সবধরনের সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে সবধরনের সভা, সমাবেশ ও মিছিল নিষিদ্ধ করা হলো বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

শনিবার (২৩ মার্চ) রাতে জরুরি বিজ্ঞপ্তি জারি করে এ আদেশের কথা জানায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বিএসএমএমইউয়ের প্রক্টর অধ্যাপক হাবিবুর রহমানের সই করা বিজ্ঞপ্তিতে এই আদেশের কোন কারণ জানানো হয়নি।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রের খবর, শনিবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের চার চিকিৎসককে শারীরিক নির্যাতনের প্রেক্ষিতে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এই চার চিকিৎসক বর্তমান উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদের অনুসারী বলে পরিচিত।

বিএসএমএমইউয়ের প্রক্টর অধ্যাপক হাবিবুর রহমান বলেন, মিছিল-মিটিংসহ নানা কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছিল। চারজন চিকিৎসককে শারীরিক নির্যাতন করা হয়েছে। এসবের পরিপ্রেক্ষিতে বিজ্ঞপ্তিটি জারি করা হয়েছে।

এদিকে বিদায়ী ভিসি শরফুদ্দিন আহমেদের বিরুদ্ধে নিয়োগ বাণিজ্যের অভিযোগ তুলে তার কার্যালয়ের সামনে শনিবার বিক্ষোভ করেন আওয়ামী লীগপন্থি স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) শিক্ষকরা। এতে অংশ নেন বিশ্ববিদ্যালয়টির কর্মকর্তা-কার্মচারী ও নার্সরাও।