ঢাকা ০৫:৫৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

বাংলাদেশে পালিয়ে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ৩ সদস্য

গণমুক্তি রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৭:০১:৩২ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ মার্চ ২০২৪ ১১৩ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

বাংলাদেশে পালিয়ে এসে আশ্রয় নিয়েছে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ৩ সদস্য। শনিবার (৩০ মার্চ) এ তথ্য জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। এদিন রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

শনিবার ভোরে ঘুমধুমের তুমব্রু সীমান্ত দিয়ে এই ৩ সদস্য পালিয়ে আসে। পরে বিজিবি সদস্যরা গিয়ে তাদের সঙ্গে থাকা অস্ত্র জমা নেয়ার পর তাদের নাইক্ষ্যংছড়ি ব্যাটালিয়নে নিয়ে যায়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যুদ্ধের মধ্যে সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে আসা মিয়ানমার সেনাদের দ্রুত ফেরত পাঠানো হবে।

এর আগে বিজেপির পালিয়ে আসা ১৭৯ সদস্যকে নৌপথে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য মিয়ানমার ইতোমধ্যে প্রস্তাব করেছে। আমরা আশা করি খুব সহসাই এই তিনজনসহ তাদেরকে নৌপথে ফেরত পাঠাতে সম্ভব হবে।

এর আগে ১৫ ফেব্রুয়ারি রাখাইন রাজ্যে যুদ্ধের মধ্যে পালিয়ে আসা মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী ও সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যসহ ৩৩০ জনকে দেশটিতে ফেরত পাঠিয়েছিল সরকার।

মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ-বিজিপি ৩০২ জন, তাদের পরিবারের চার সদস্য, দুজন সেনা সদস্য, ১৮ জন ইমিগ্রেশন সদস্য এবং চারজন বেসামরিক নাগরিক ছিলেন।

১১ মার্চ নাইক্ষ্যংছড়ির জামছড়ি সীমান্ত দিয়ে পালিয়ে এসেছিল ১৭৯ জন মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি) সদস্যরা। তাদেরকে মিয়ানমারের ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বাংলাদেশে পালিয়ে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ৩ সদস্য

আপডেট সময় : ০৭:০১:৩২ অপরাহ্ন, শনিবার, ৩০ মার্চ ২০২৪

 

বাংলাদেশে পালিয়ে এসে আশ্রয় নিয়েছে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ৩ সদস্য। শনিবার (৩০ মার্চ) এ তথ্য জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। এদিন রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

শনিবার ভোরে ঘুমধুমের তুমব্রু সীমান্ত দিয়ে এই ৩ সদস্য পালিয়ে আসে। পরে বিজিবি সদস্যরা গিয়ে তাদের সঙ্গে থাকা অস্ত্র জমা নেয়ার পর তাদের নাইক্ষ্যংছড়ি ব্যাটালিয়নে নিয়ে যায়।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যুদ্ধের মধ্যে সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে আসা মিয়ানমার সেনাদের দ্রুত ফেরত পাঠানো হবে।

এর আগে বিজেপির পালিয়ে আসা ১৭৯ সদস্যকে নৌপথে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য মিয়ানমার ইতোমধ্যে প্রস্তাব করেছে। আমরা আশা করি খুব সহসাই এই তিনজনসহ তাদেরকে নৌপথে ফেরত পাঠাতে সম্ভব হবে।

এর আগে ১৫ ফেব্রুয়ারি রাখাইন রাজ্যে যুদ্ধের মধ্যে পালিয়ে আসা মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী ও সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যসহ ৩৩০ জনকে দেশটিতে ফেরত পাঠিয়েছিল সরকার।

মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ-বিজিপি ৩০২ জন, তাদের পরিবারের চার সদস্য, দুজন সেনা সদস্য, ১৮ জন ইমিগ্রেশন সদস্য এবং চারজন বেসামরিক নাগরিক ছিলেন।

১১ মার্চ নাইক্ষ্যংছড়ির জামছড়ি সীমান্ত দিয়ে পালিয়ে এসেছিল ১৭৯ জন মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি) সদস্যরা। তাদেরকে মিয়ানমারের ফেরত পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।