ঢাকা ০১:১৫ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪

ভারতের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার আসছে ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:০০:০৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ২৩৩ বার পড়া হয়েছে

ফাইল ছবি

দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

পেঁয়াজ রপ্তানির ওপর নিষেধা আরোপ তুলে নিলো ভারত। তাতে বাংলাদেশে পেঁয়াজ আমদানি বাধা দূর হলো। বাংলাদেশ আমদানি করবে ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ।

নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে বাংলাদেশে ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমোদন দিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। রোববার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের নেতৃত্বে মন্ত্রীদের কমিটি এ অনুমোদন দেয়।

সেই সঙ্গে কমিটি ৩ লাখ মেট্রিক টন পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমোদন দেয়। সরকারের এ সিদ্ধান্তকে এরই মধ্যে স্বাগত জানিয়েছেন মহারাষ্ট্রের কৃষকরা।

সম্প্রতি ভারত সফর শেষে দেশে ফিরে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, ভারতের সঙ্গে আলোচনা সফল হয়েছে। রমজানের আগেই ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ আসবে।

এর আগে বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রীও পেঁয়াজ আমদানির আশ্বাসের কথা শুনিয়েছিলেন। অবশেষে ভারতের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে বাংলাদেশে পেঁয়াজ আমদানিতে বাধা দূর হলো।

গুজরাট এবং মহারাষ্ট্রে পেঁয়াজের বিশাল মজুদের কারণে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার অন্যতম কারণ হলো।

সরকারের এমন ঘোষণায় রোববার থেকে পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে। বাজারে প্রতি ১০০ টনে ১০০ রুপি কমেছে।

মহারাষ্ট্রের পেঁয়াজ উৎপাদনকারী কৃষক সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ভারত দিঘোল বলেছেন, রপ্তানি শুরু হলে আমরা ভালো দাম পাবার আশা করছেন তিনি।

মহারাষ্ট্রের উপ-মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিস পেঁয়াজ রপ্তানির নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে ধন্যবাদ জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

ভারতের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার আসছে ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ

আপডেট সময় : ০৭:০০:০৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

 

পেঁয়াজ রপ্তানির ওপর নিষেধা আরোপ তুলে নিলো ভারত। তাতে বাংলাদেশে পেঁয়াজ আমদানি বাধা দূর হলো। বাংলাদেশ আমদানি করবে ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ।

নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে বাংলাদেশে ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমোদন দিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার। রোববার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের নেতৃত্বে মন্ত্রীদের কমিটি এ অনুমোদন দেয়।

সেই সঙ্গে কমিটি ৩ লাখ মেট্রিক টন পেঁয়াজ রপ্তানির অনুমোদন দেয়। সরকারের এ সিদ্ধান্তকে এরই মধ্যে স্বাগত জানিয়েছেন মহারাষ্ট্রের কৃষকরা।

সম্প্রতি ভারত সফর শেষে দেশে ফিরে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, ভারতের সঙ্গে আলোচনা সফল হয়েছে। রমজানের আগেই ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ আসবে।

এর আগে বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রীও পেঁয়াজ আমদানির আশ্বাসের কথা শুনিয়েছিলেন। অবশেষে ভারতের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারে বাংলাদেশে পেঁয়াজ আমদানিতে বাধা দূর হলো।

গুজরাট এবং মহারাষ্ট্রে পেঁয়াজের বিশাল মজুদের কারণে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার অন্যতম কারণ হলো।

সরকারের এমন ঘোষণায় রোববার থেকে পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে। বাজারে প্রতি ১০০ টনে ১০০ রুপি কমেছে।

মহারাষ্ট্রের পেঁয়াজ উৎপাদনকারী কৃষক সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ভারত দিঘোল বলেছেন, রপ্তানি শুরু হলে আমরা ভালো দাম পাবার আশা করছেন তিনি।

মহারাষ্ট্রের উপ-মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিস পেঁয়াজ রপ্তানির নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে ধন্যবাদ জানান।