ঢাকা ০৪:০৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪

রমজানে ফ্রাঙ্কফুর্টে প্রথমবারের মতো আলোকসজ্জা 

গণমুক্তি ডিজিটাল ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৭:৪৫:৫৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ মার্চ ২০২৪ ১৫৪ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

আসন্ন রমজান উপলক্ষ্যে জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্টের একটি রাস্তা আলোকসজ্জা করা হচ্ছে। গোটা রমজান জুড়েই চলবে এই আলোকসজ্জআ। শান্তি ও ঐক্যের বার্তা ছড়িয়ে দিতেই শহর কর্তৃপক্ষের এই উদ্যোগ।

রাস্তার দু’পাশে বহু হোটেল ও রেস্তোরাঁ থাকার কারণে ফ্রেসগাস বা খাবার সড়ক নামেও পরিচিত। এই গ্রোসে বকেনহাইমার স্ট্রাসে সড়কে আলোকসজ্জা করা হবে। এই রাস্তা শুধু পথচারীরা ব্যবহার করেন।

সিটি কাউন্সিলের চেয়ারম্যান হিলিম আরসলানার বলেন, জানাচ্ছেন, রমজান এমন একটা সময় যখন মানুষ জীবনে সত্যিই কী গুরুত্বপূর্ণ, তা বোঝার চেষ্টা করে। খাওয়ার জন্য কিছু থাকা, মাথার উপর একটি ছাদ এবং পরিবার, বন্ধুবান্ধব ও প্রতিবেশীদের সাথে শান্তি ও স্বাচ্ছন্দ্য।

ফ্রাঙ্কফুর্টের মেয়র নারগেস এস্কান্দারি-গ্র্যুনব্যার্গ বলেন, যুদ্ধ ও সংকটের সময় শান্তি এবং ঐক্যের বার্তা দেওয়া আরও জরুরি। রোজার সময় সড়কে যে আলো জ্বালানো হবে সেগুলো হলো ঐক্যের আলো, কুসংস্কার, বৈষম্য, মুসলিমবিরোধী বর্ণবাদ এবং ইহুদিবিদ্বেষের বিরুদ্ধেও।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

রমজানে ফ্রাঙ্কফুর্টে প্রথমবারের মতো আলোকসজ্জা 

আপডেট সময় : ০৭:৪৫:৫৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ৯ মার্চ ২০২৪

আসন্ন রমজান উপলক্ষ্যে জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্টের একটি রাস্তা আলোকসজ্জা করা হচ্ছে। গোটা রমজান জুড়েই চলবে এই আলোকসজ্জআ। শান্তি ও ঐক্যের বার্তা ছড়িয়ে দিতেই শহর কর্তৃপক্ষের এই উদ্যোগ।

রাস্তার দু’পাশে বহু হোটেল ও রেস্তোরাঁ থাকার কারণে ফ্রেসগাস বা খাবার সড়ক নামেও পরিচিত। এই গ্রোসে বকেনহাইমার স্ট্রাসে সড়কে আলোকসজ্জা করা হবে। এই রাস্তা শুধু পথচারীরা ব্যবহার করেন।

সিটি কাউন্সিলের চেয়ারম্যান হিলিম আরসলানার বলেন, জানাচ্ছেন, রমজান এমন একটা সময় যখন মানুষ জীবনে সত্যিই কী গুরুত্বপূর্ণ, তা বোঝার চেষ্টা করে। খাওয়ার জন্য কিছু থাকা, মাথার উপর একটি ছাদ এবং পরিবার, বন্ধুবান্ধব ও প্রতিবেশীদের সাথে শান্তি ও স্বাচ্ছন্দ্য।

ফ্রাঙ্কফুর্টের মেয়র নারগেস এস্কান্দারি-গ্র্যুনব্যার্গ বলেন, যুদ্ধ ও সংকটের সময় শান্তি এবং ঐক্যের বার্তা দেওয়া আরও জরুরি। রোজার সময় সড়কে যে আলো জ্বালানো হবে সেগুলো হলো ঐক্যের আলো, কুসংস্কার, বৈষম্য, মুসলিমবিরোধী বর্ণবাদ এবং ইহুদিবিদ্বেষের বিরুদ্ধেও।