ঢাকা ০৪:৫৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

রিশাদ-ঝড়ে সিরিজ বাংলাদেশের

গণমুক্তি ডিজিটাল ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৭:২৫:৩৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ মার্চ ২০২৪ ১৫৫ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

লক্ষটা মাত্র ২৩৬ রানের। তানজিদ হাসান তামিম ৮১ বলে ৮৪ রানের মারকুটে ইনিংসের পরও সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে হারের শঙ্কায় পড়ে বাংলাদেশ।

১৩০ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে রীতিমতো ধুঁকছিল টাইগাররা। মুশফিকুর রহিম আর মেহেদী হাসান মিরাজের জুটি। সেই শঙ্কা দূর করে রিশাদ হোসেনের শেষ সময়ের ব্যাটিং ঝড়ে।

১৮ বলে ৪৮ রানের হার না মানা ইনিংস খেলে দলকে জয়ের পথে নিয়ে আসেন লোয়ার অর্ডারের রিশাদ। শ্রীলঙ্কাকে ৪ উইকেট আর ৫৮ বল হাতে রেখে হারিয়ে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতেছে বাংলাদেশ।

কিন্তু রিশাদ আরও একবার ব্যাট হাতে চমক দেখান। মাঠে নেমেই চার-ছক্কার ফুলঝুরি হাকাতে থাকেন ডানহাতি ব্যাটার। শেষ পর্যন্ত ১৮ বলে ৪৮ রানের ইনিংসে ৫টি চারের সঙ্গে ৪টি ছক্কা হাঁকান। ৩৬ বলে ৩৭ রানে অপরাজিত থাকেন মুশফিক।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
শ্রীলঙ্কা: ৫০ ওভারে ২৩৫/১০ (জানিথ লিয়ানাগে ১০১*, চারিথ আসালাঙ্কা ৩৭, কুশল মেন্ডিস ২৯; তাসকিন আহমেদ ৩/৪২, মোস্তাফিজুর রহমান ২/৩৯, মেহেদি হাসান মিরাজ ২/৩৮, রিশাদ হোসেন ১/৫১)

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

রিশাদ-ঝড়ে সিরিজ বাংলাদেশের

আপডেট সময় : ০৭:২৫:৩৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ মার্চ ২০২৪

 

লক্ষটা মাত্র ২৩৬ রানের। তানজিদ হাসান তামিম ৮১ বলে ৮৪ রানের মারকুটে ইনিংসের পরও সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে হারের শঙ্কায় পড়ে বাংলাদেশ।

১৩০ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে রীতিমতো ধুঁকছিল টাইগাররা। মুশফিকুর রহিম আর মেহেদী হাসান মিরাজের জুটি। সেই শঙ্কা দূর করে রিশাদ হোসেনের শেষ সময়ের ব্যাটিং ঝড়ে।

১৮ বলে ৪৮ রানের হার না মানা ইনিংস খেলে দলকে জয়ের পথে নিয়ে আসেন লোয়ার অর্ডারের রিশাদ। শ্রীলঙ্কাকে ৪ উইকেট আর ৫৮ বল হাতে রেখে হারিয়ে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতেছে বাংলাদেশ।

কিন্তু রিশাদ আরও একবার ব্যাট হাতে চমক দেখান। মাঠে নেমেই চার-ছক্কার ফুলঝুরি হাকাতে থাকেন ডানহাতি ব্যাটার। শেষ পর্যন্ত ১৮ বলে ৪৮ রানের ইনিংসে ৫টি চারের সঙ্গে ৪টি ছক্কা হাঁকান। ৩৬ বলে ৩৭ রানে অপরাজিত থাকেন মুশফিক।

সংক্ষিপ্ত স্কোর
শ্রীলঙ্কা: ৫০ ওভারে ২৩৫/১০ (জানিথ লিয়ানাগে ১০১*, চারিথ আসালাঙ্কা ৩৭, কুশল মেন্ডিস ২৯; তাসকিন আহমেদ ৩/৪২, মোস্তাফিজুর রহমান ২/৩৯, মেহেদি হাসান মিরাজ ২/৩৮, রিশাদ হোসেন ১/৫১)