ঢাকা ০২:০৩ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪

শনিবার বন্ধ হচ্ছে মালয়েশিয়ায় কর্মী যাওয়া

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৩৫:৩৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪ ৭০ বার পড়া হয়েছে

বাংলাদেশে নিযুক্ত মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার হাযনাহ মো. হাশি

দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

শ্রমবাজার সিন্ডিকেট দুই সরকারেরই নিয়ন্ত্রণের বাইরে

 

মায়েশিয়ার শ্রমবাজার ঘিরে দুই দেশের শক্তিশালী সিন্ডিকেট রয়েছে। দুই সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে সিন্ডিকেটের অপতৎপরতা। সিন্ডিকেটের কারসাজিতে চাহিদার চেয়ে বাংলাদেশের বেশি কর্মী গিয়েছেন মালয়েশিয়ায়। ফলে বাংলাদেশসহ ১৪টি দেশ থেকে আগামী শনিবার থেকে মালয়েশিয়ায় কর্মী যাওয়া বন্ধ হচ্ছে।

বুধবার (২৯ মে) ঢাকায় কূটনৈতিক সংবাদদাতাদের সংগঠন ডিকাব সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে এই আশঙ্কার কথা জানালেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার হাযনাহ মো. হাশিম।

হাইকমিশনার সাংবাদিকদের জানান, তার আশঙ্কা মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার ঘিরে সক্রিয় সিন্ডিকেটগুলো বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়া সরকারের নিয়ন্ত্রণে।

শ্রমবাজার প্রসঙ্গে মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার বলেন, তারা প্রয়োজনের ভিত্তিতে সময় সময় চাহিদা ও জোগান পর্যালোচনা করেন। কভিড মহামারির সময় যাতায়াত বন্ধ ছিল; তখন মালয়েশিয়ার অনেক প্রতিষ্ঠান চার্টার্ড ফ্লাইটে করে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিয়ে গিয়েছিল।

চার্টার্ড ফ্লাইটে করে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিয়ে গিয়েছিল।

হাইকমিশনার বলেন, তার সরকার মালয়েশিয়ায় কর্মরত বাংলাদেশি কর্মীদের কল্যাণ নিশ্চিত করতে অঙ্গীকারবদ্ধ। মালয়েশিয়ার উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে বাংলাদেশি কর্মীদের ভূমিকার জোরালো প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, আমরা নিশ্চিত করতে চাই যে সব কিছু ঠিকমতো হচ্ছে।

মালয়েশিয়ায় সাশ্রয়ী মূল্যে বিশ্বমানের স্বাস্থ্যসেবা, শিক্ষা ও পর্যটনসেবার বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরেন হাইকমিশনার বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি (এফটিএ) হবে। এফটিএ হলে বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়ায় রপ্তানি, বিশেষ করে কৃষিপণ্য রপ্তানি আরো বাড়বে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

শনিবার বন্ধ হচ্ছে মালয়েশিয়ায় কর্মী যাওয়া

আপডেট সময় : ১১:৩৫:৩৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

শ্রমবাজার সিন্ডিকেট দুই সরকারেরই নিয়ন্ত্রণের বাইরে

 

মায়েশিয়ার শ্রমবাজার ঘিরে দুই দেশের শক্তিশালী সিন্ডিকেট রয়েছে। দুই সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে সিন্ডিকেটের অপতৎপরতা। সিন্ডিকেটের কারসাজিতে চাহিদার চেয়ে বাংলাদেশের বেশি কর্মী গিয়েছেন মালয়েশিয়ায়। ফলে বাংলাদেশসহ ১৪টি দেশ থেকে আগামী শনিবার থেকে মালয়েশিয়ায় কর্মী যাওয়া বন্ধ হচ্ছে।

বুধবার (২৯ মে) ঢাকায় কূটনৈতিক সংবাদদাতাদের সংগঠন ডিকাব সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে এই আশঙ্কার কথা জানালেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার হাযনাহ মো. হাশিম।

হাইকমিশনার সাংবাদিকদের জানান, তার আশঙ্কা মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার ঘিরে সক্রিয় সিন্ডিকেটগুলো বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়া সরকারের নিয়ন্ত্রণে।

শ্রমবাজার প্রসঙ্গে মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার বলেন, তারা প্রয়োজনের ভিত্তিতে সময় সময় চাহিদা ও জোগান পর্যালোচনা করেন। কভিড মহামারির সময় যাতায়াত বন্ধ ছিল; তখন মালয়েশিয়ার অনেক প্রতিষ্ঠান চার্টার্ড ফ্লাইটে করে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিয়ে গিয়েছিল।

চার্টার্ড ফ্লাইটে করে বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিয়ে গিয়েছিল।

হাইকমিশনার বলেন, তার সরকার মালয়েশিয়ায় কর্মরত বাংলাদেশি কর্মীদের কল্যাণ নিশ্চিত করতে অঙ্গীকারবদ্ধ। মালয়েশিয়ার উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে বাংলাদেশি কর্মীদের ভূমিকার জোরালো প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, আমরা নিশ্চিত করতে চাই যে সব কিছু ঠিকমতো হচ্ছে।

মালয়েশিয়ায় সাশ্রয়ী মূল্যে বিশ্বমানের স্বাস্থ্যসেবা, শিক্ষা ও পর্যটনসেবার বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরেন হাইকমিশনার বলেন, বাংলাদেশের সঙ্গে মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি (এফটিএ) হবে। এফটিএ হলে বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়ায় রপ্তানি, বিশেষ করে কৃষিপণ্য রপ্তানি আরো বাড়বে।