ঢাকা ১২:০১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪

সিন্ডিকেটের কব্জায় মালয়েশিয়ার শ্রম বাজার

গণমুক্তি ডিজিটাল ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৩:৪৮:৩৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল ২০২৪ ৮১ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

মালিক পক্ষ বা প্রতিষ্ঠান সকল ব্যয় বহন করলেও শ্রমিক প্রতি কমপক্ষে ৪ থেকে ৫ লাখ টাকা ব্যয়ে মালয়েশিয়ায় যেতে হচ্ছে বাংলাদেশিদের। শক্তিশালী সিন্ডিকেটের কারণে বিদেশে বিশেষ করে মালয়েশিয়ায় শ্রম বাজার হারাতে বসেছে বাংলাদেশ।

এখানেই শেষ নয়, চিহ্নিত কিছু সংখ্যক এজেন্সি সিন্ডিকেট করে বাংলাদেশিদের জন্য মালয়েশিয়ার সম্ভবনাময় শ্রম বাজার নিজেদের কব্জায় নিয়ে গেছে।

মেনপাওয়ার ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত এমন বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা বলছেন, মালয়েশিয়ার প্রতিষ্ঠান যে শ্রমিক যাবে, তাদের ঘর থেকে বেরুনোর পর রিকশা ভাড়া থেকে শুরু করে মালয়েশিয়া কোম্পানির কর্মস্থলে পৌছানো পর্যন্ত সকল ব্যয় বহন করেন থাকেন।

কিন্তু বাংলাদেশি সিন্ডিকেট মালয়েশিয়ার শ্রম বাজার নিজেদের কব্জায় রাখতে সেখানকার কোম্পানি বা প্রতিষ্ঠান এবমন কি মালয়েশিয়ার সরকারের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে শ্রম বাজার নিজেদের কব্জায় রাখতে যা যা প্রয়োজন তার সবটুকুই করছেন তারা।

ফলে বাজার থেকে মালয়েশিয়ায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সুযোগ থাকা সত্ত্বেও অধিক টাকা ব্যয়ের কারণে বাংলাদেশি কর্মীরা যেতে পারছেন না।

এদিকে গত ১২ মার্চ ঢাকায় বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে ঢাকায় নিযুক্ত মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার হাজনাহ মো. হাশিম বৈঠক করেছেন। এসময় মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি কর্মীদের সঙ্গে প্রতারণা ও তাদের দুর্ভোগের জন্য দুই দেশের জনশক্তি সিন্ডিকেটকে দায়ী করেন মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার হাজনাহ মো. হাশিম।

প্রবাসী কর্মীদের দুর্ভোগের উল্লেখ করে হাইকমিশনার বলেন, আমরা যে এ সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছি, তার একটি কারণ হলো সিন্ডিকেট, যারা এখানে (বাংলাদেশ) এবং মালয়েশিয়াতে সক্রিয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

সিন্ডিকেটের কব্জায় মালয়েশিয়ার শ্রম বাজার

আপডেট সময় : ০৩:৪৮:৩৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল ২০২৪

 

মালিক পক্ষ বা প্রতিষ্ঠান সকল ব্যয় বহন করলেও শ্রমিক প্রতি কমপক্ষে ৪ থেকে ৫ লাখ টাকা ব্যয়ে মালয়েশিয়ায় যেতে হচ্ছে বাংলাদেশিদের। শক্তিশালী সিন্ডিকেটের কারণে বিদেশে বিশেষ করে মালয়েশিয়ায় শ্রম বাজার হারাতে বসেছে বাংলাদেশ।

এখানেই শেষ নয়, চিহ্নিত কিছু সংখ্যক এজেন্সি সিন্ডিকেট করে বাংলাদেশিদের জন্য মালয়েশিয়ার সম্ভবনাময় শ্রম বাজার নিজেদের কব্জায় নিয়ে গেছে।

মেনপাওয়ার ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত এমন বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা বলছেন, মালয়েশিয়ার প্রতিষ্ঠান যে শ্রমিক যাবে, তাদের ঘর থেকে বেরুনোর পর রিকশা ভাড়া থেকে শুরু করে মালয়েশিয়া কোম্পানির কর্মস্থলে পৌছানো পর্যন্ত সকল ব্যয় বহন করেন থাকেন।

কিন্তু বাংলাদেশি সিন্ডিকেট মালয়েশিয়ার শ্রম বাজার নিজেদের কব্জায় রাখতে সেখানকার কোম্পানি বা প্রতিষ্ঠান এবমন কি মালয়েশিয়ার সরকারের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে শ্রম বাজার নিজেদের কব্জায় রাখতে যা যা প্রয়োজন তার সবটুকুই করছেন তারা।

ফলে বাজার থেকে মালয়েশিয়ায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সুযোগ থাকা সত্ত্বেও অধিক টাকা ব্যয়ের কারণে বাংলাদেশি কর্মীরা যেতে পারছেন না।

এদিকে গত ১২ মার্চ ঢাকায় বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে ঢাকায় নিযুক্ত মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার হাজনাহ মো. হাশিম বৈঠক করেছেন। এসময় মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি কর্মীদের সঙ্গে প্রতারণা ও তাদের দুর্ভোগের জন্য দুই দেশের জনশক্তি সিন্ডিকেটকে দায়ী করেন মালয়েশিয়ার হাইকমিশনার হাজনাহ মো. হাশিম।

প্রবাসী কর্মীদের দুর্ভোগের উল্লেখ করে হাইকমিশনার বলেন, আমরা যে এ সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছি, তার একটি কারণ হলো সিন্ডিকেট, যারা এখানে (বাংলাদেশ) এবং মালয়েশিয়াতে সক্রিয়।