ঢাকা ০৪:৩৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪

সুলতান ডাইন ও নবাবী ভোজ সিলগালা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:০৭:৫৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪ ১৬৬ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

নিম্নমানের খাবার সরবরাহের অভিযোগ আগেও ওঠেছিলো সুলতান’স ডাইনের বিরুদ্ধে। অবৈধভাবে গড়ে ওঠা রোস্তোরাঁর বিরুদ্ধে অভিযানে মাঠে নামে ফায়ার সার্ভিস, রাজউক ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন ইউনিট।

অবৈধভাবে গড়ে ওঠা রেস্তোরাঁর বিরুদ্ধে মঙ্গলবার (৫ মার্চ) অভিযানকালে বেইলি রোডের সুলতানস ডাইন রেস্টুরেন্ট বন্ধ পায়। অভিযানের খবরে বন্ধ সুলতানস ডাইন ও নবাবী ভোজের লোকজন পালিয়ে যায়। পরে রেস্টুরেন্টটি সিলগালা করে দেওয়া হয়।

অভিযানকালে দেখা যায়, রেস্টুরেন্টটি বন্ধ রাখা হয়েছে। একটি নোটিশে লেখা রয়েছে, রেনোভেশন কাজের জন্য সাময়িকভাবে সুলতানস ডাইন বন্ধ রয়েছে। বন্ধ থাকা রেস্টুরেন্টটি সিলগালা করে দেন রাজউকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনির হোসেন হাওলাদার।

এছাড়া বেইলি রোডের নবাবী ভোজ রেস্টুরেন্ট পরিদর্শনে গিয়ে তা বন্ধ পায় এবং সেটিও সিলগালা করে দেয় রাজউক।

গত বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) রাতে রাজধানীর বেইলি রোডের গ্রিন কোজি কটেজে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৪৬জনের মৃত্যু হয়। ভবনটিতে বেশ কয়েকটি খাবারের দোকান গড়ে ওঠে। যেগুলোতে অগ্নিনির্বাপনের কোন ব্যবস্থা ছিলো।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

সুলতান ডাইন ও নবাবী ভোজ সিলগালা

আপডেট সময় : ০৭:০৭:৫৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৫ মার্চ ২০২৪

 

নিম্নমানের খাবার সরবরাহের অভিযোগ আগেও ওঠেছিলো সুলতান’স ডাইনের বিরুদ্ধে। অবৈধভাবে গড়ে ওঠা রোস্তোরাঁর বিরুদ্ধে অভিযানে মাঠে নামে ফায়ার সার্ভিস, রাজউক ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন ইউনিট।

অবৈধভাবে গড়ে ওঠা রেস্তোরাঁর বিরুদ্ধে মঙ্গলবার (৫ মার্চ) অভিযানকালে বেইলি রোডের সুলতানস ডাইন রেস্টুরেন্ট বন্ধ পায়। অভিযানের খবরে বন্ধ সুলতানস ডাইন ও নবাবী ভোজের লোকজন পালিয়ে যায়। পরে রেস্টুরেন্টটি সিলগালা করে দেওয়া হয়।

অভিযানকালে দেখা যায়, রেস্টুরেন্টটি বন্ধ রাখা হয়েছে। একটি নোটিশে লেখা রয়েছে, রেনোভেশন কাজের জন্য সাময়িকভাবে সুলতানস ডাইন বন্ধ রয়েছে। বন্ধ থাকা রেস্টুরেন্টটি সিলগালা করে দেন রাজউকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনির হোসেন হাওলাদার।

এছাড়া বেইলি রোডের নবাবী ভোজ রেস্টুরেন্ট পরিদর্শনে গিয়ে তা বন্ধ পায় এবং সেটিও সিলগালা করে দেয় রাজউক।

গত বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) রাতে রাজধানীর বেইলি রোডের গ্রিন কোজি কটেজে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৪৬জনের মৃত্যু হয়। ভবনটিতে বেশ কয়েকটি খাবারের দোকান গড়ে ওঠে। যেগুলোতে অগ্নিনির্বাপনের কোন ব্যবস্থা ছিলো।