ঢাকা ০৪:৩৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

৪৫ জেলায় রামনবমী পালন

গণমুক্তি ডিজিটাল ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৩:৫৩:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪ ৮০ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

বুধবার (১৭ এপ্রিল) বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট এর উদ্যেগে ঢাকা, চট্টগ্রাম, গোপালগঞ্জ, নিলফামারী, ময়মনসিংহ, নরসিন্দীসহ দেশের ৪৫টি জেলায় সাড়ম্বরে রামনবমী পালিত হয়েছে। ঢাকার জয়কালী মন্দির রোডস্থ শ্রী শ্রী রামসীতা মন্দিরে ভোর ৫টা থেকে শ্রী রাম চন্দ্রের পুজা সকাল ৯ টা থেকে ১২ পর্যন্ত যজ্ঞানুষ্ঠান ও রামসীতা মন্দিরের সভাপতি শ্রী গণেশ চন্দ্র ঘোষের সভাপতিত্বে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় হিন্দু মহাজোট এর পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়।

বক্তব্য রাখেন রামসীতা মন্দিরের সাধারন সম্পাদক মিল্টন বিশ্বাস, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শুভ মজুমদার, অ্যাডভোকেট সৌদিপ্ত কুমার দাস, সাংগঠণিক সম্পাদক রঞ্জন সরকার, হিন্দু মহাজোটের সভাপতি অ্যাডভোকেট দীনবন্ধু রায়, নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট প্রদীপ কুমার পাল, মহাসচিব অ্যাডভোকেট গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা অ্যাডভোকেট প্রতীভা বাকচী, রামনবমী উদযাপন পরিষদের আহ্বয়ক ডি কে সমির প্রমুখ।

হিন্দু মহাজোটের মহাসচিব গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিকের নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য শোভা যাত্রা ঢাকার রামসীতা মন্দির থেকে শুরু হয়ে বঙ্গভবনের পাশ দিয়ে ইত্তেফাক মোড় ও জগৎবন্ধু আশ্রম ও মদনেশ্বর মহাদের জিউ মন্দির মোড়, বলধা গার্ডেন মোড় হয়ে রামসীতা মন্দিরে এসে শেষ হয়।

বক্তাগণ বলেন ভগবান রাম চন্দ্রের জীবনী আমাদের সুস্থ পারিবার ব্যবস্থা, সমাজ ব্যবস্থা, ধর্মনীতি, রাষ্ট্র নীতি, কুটনীতি, দন্ডবিধি, পররাষ্ট্রনীতি, প্রতিবেশীর প্রতি দায়িত্ব কর্তব্য সম্পর্কে শিক্ষা দেয়।

দুষ্টের দমন ও শিষ্টের পালন, নারী জাতির সম্মান ও মর্যাদা রক্ষা, পিতা পুত্র স্বামী স্ত্রী পরস্পরের প্রতি দায়িত্ব কর্তব্যের শিক্ষা আমরা রামায়ন থেকে পাই। আজ নুতনভাবে বিশ্বে রামায়ন চর্চা হচ্ছে। সারা বিশ্বে পরিবার ব্যবস্থা ভেঙ্গ যাচ্ছে। স্বামী স্ত্রীসহ পরিবারের মধ্যে পরস্পরের মধ্যে শ্রদ্ধা ও অসহিষ্ণু মনোভাবের ফলে সারা বিশ্ব অশান্তি বিরাজ করছে।

ফলে সন্তান সন্ততি প্রকৃত দায়িত্বশীল মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে পারছে না। প্রজা হিতৈষী রাষ্ট্র মানেই রামরাজ্য। প্রতিবেশী হনুমান বানরদের সাথে সুসম্পর্কের অনুপ্রেরনা, প্রতিবেশী রাষ্ট্রের সাথে, সারা বিশ্বকে পথ দেখাচ্ছে। সেজন্যই আজ সারা বিশ্বে নুতন করে রামায়ন চর্চা শুরু হয়েছে।

দুপুরে প্রসাদ বিতরন ও রাতে রামায়ন গানের মধ্যদিয়ে রামনবমী উৎসব সমাপ্ত হয়।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

৪৫ জেলায় রামনবমী পালন

আপডেট সময় : ০৩:৫৩:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪

 

বুধবার (১৭ এপ্রিল) বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট এর উদ্যেগে ঢাকা, চট্টগ্রাম, গোপালগঞ্জ, নিলফামারী, ময়মনসিংহ, নরসিন্দীসহ দেশের ৪৫টি জেলায় সাড়ম্বরে রামনবমী পালিত হয়েছে। ঢাকার জয়কালী মন্দির রোডস্থ শ্রী শ্রী রামসীতা মন্দিরে ভোর ৫টা থেকে শ্রী রাম চন্দ্রের পুজা সকাল ৯ টা থেকে ১২ পর্যন্ত যজ্ঞানুষ্ঠান ও রামসীতা মন্দিরের সভাপতি শ্রী গণেশ চন্দ্র ঘোষের সভাপতিত্বে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় হিন্দু মহাজোট এর পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে একথা জানানো হয়।

বক্তব্য রাখেন রামসীতা মন্দিরের সাধারন সম্পাদক মিল্টন বিশ্বাস, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শুভ মজুমদার, অ্যাডভোকেট সৌদিপ্ত কুমার দাস, সাংগঠণিক সম্পাদক রঞ্জন সরকার, হিন্দু মহাজোটের সভাপতি অ্যাডভোকেট দীনবন্ধু রায়, নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট প্রদীপ কুমার পাল, মহাসচিব অ্যাডভোকেট গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা অ্যাডভোকেট প্রতীভা বাকচী, রামনবমী উদযাপন পরিষদের আহ্বয়ক ডি কে সমির প্রমুখ।

হিন্দু মহাজোটের মহাসচিব গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিকের নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য শোভা যাত্রা ঢাকার রামসীতা মন্দির থেকে শুরু হয়ে বঙ্গভবনের পাশ দিয়ে ইত্তেফাক মোড় ও জগৎবন্ধু আশ্রম ও মদনেশ্বর মহাদের জিউ মন্দির মোড়, বলধা গার্ডেন মোড় হয়ে রামসীতা মন্দিরে এসে শেষ হয়।

বক্তাগণ বলেন ভগবান রাম চন্দ্রের জীবনী আমাদের সুস্থ পারিবার ব্যবস্থা, সমাজ ব্যবস্থা, ধর্মনীতি, রাষ্ট্র নীতি, কুটনীতি, দন্ডবিধি, পররাষ্ট্রনীতি, প্রতিবেশীর প্রতি দায়িত্ব কর্তব্য সম্পর্কে শিক্ষা দেয়।

দুষ্টের দমন ও শিষ্টের পালন, নারী জাতির সম্মান ও মর্যাদা রক্ষা, পিতা পুত্র স্বামী স্ত্রী পরস্পরের প্রতি দায়িত্ব কর্তব্যের শিক্ষা আমরা রামায়ন থেকে পাই। আজ নুতনভাবে বিশ্বে রামায়ন চর্চা হচ্ছে। সারা বিশ্বে পরিবার ব্যবস্থা ভেঙ্গ যাচ্ছে। স্বামী স্ত্রীসহ পরিবারের মধ্যে পরস্পরের মধ্যে শ্রদ্ধা ও অসহিষ্ণু মনোভাবের ফলে সারা বিশ্ব অশান্তি বিরাজ করছে।

ফলে সন্তান সন্ততি প্রকৃত দায়িত্বশীল মানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে পারছে না। প্রজা হিতৈষী রাষ্ট্র মানেই রামরাজ্য। প্রতিবেশী হনুমান বানরদের সাথে সুসম্পর্কের অনুপ্রেরনা, প্রতিবেশী রাষ্ট্রের সাথে, সারা বিশ্বকে পথ দেখাচ্ছে। সেজন্যই আজ সারা বিশ্বে নুতন করে রামায়ন চর্চা শুরু হয়েছে।

দুপুরে প্রসাদ বিতরন ও রাতে রামায়ন গানের মধ্যদিয়ে রামনবমী উৎসব সমাপ্ত হয়।