×
  • প্রকাশিত : ২০২২-০৯-১৮
  • ৪৭ বার পঠিত
চট্টগ্রাম ব্যুরো : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, আওয়ামী লীগ চায় বিএনপিসহ সব দল নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক। ২০১৮ সালেও বিএনপি নির্বাচন থেকে পালাতে গিয়েও আবার অংশ নিয়েছিল। আগামী নির্বাচনেও তারা অংশগ্রহণ করুক সেটিই আমরা চাই।

কিন্তু তারা আন্দোলনের নামে যেভাবে আবার নিজেরা নিজেরা মারামারি করছে, পুলিশের ওপর আক্রমণ করছে, আবার পেট্রল বোমা সন্ত্রাসীদের মাঠে নামিয়েছে, এজন্য জনগণই তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলছে। শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাতে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এই মন্তব্য করেন।  বাংলাদেশ পাকিস্তানের চেয়েও খারাপ অবস্থায় চলে গেছে, পাকিস্তানই ভালো ছিল সম্প্রতি বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের এমন বক্তব্যের বিষয়ে তথ্য মন্ত্রী বলেন, মির্জা ফখরুল, তাঁর নেত্রী খালেদা জিয়া ও তাদের দল বিএনপি যে হৃদয়ে পাকিস্তানকেই লালন করে এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতা বিশ্বাস করে না, তারই বহিঃপ্রকাশ ঘটিয়েছেন তার এই বক্তব্যে । তিনি বলেন, যেখানে আমরা অর্থনৈতিক, সামাজিক, মানব উন্নয়ন, স্বাস্থ্যসহ সব সূচকে পাকিস্তানকে ২০১৫ সালে অতিক্রম করেছি। আমাদের মাথাপিছু আয় পাকিস্তান নয় শুধু এমনকি ভারতের চেয়েও বেশি। আমরা ২০০৯ সালে সরকার গঠন করার আগে বাংলাদেশে দারিদ্র্যসীমার হার ছিল ৪১ শতাংশ, যা এখন ২০ শতাংশ কমেছে। 

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ আরো বলেন, বিএনপি ২০১৪ সালে নির্বাচনে অংশ নেয়ার বদলে নির্বাচন প্রতিহত করার চেষ্টা করেছিল। পাঁচশ ভোটকেন্দ্র স্কুলঘর জ্বালিয়ে দিয়েছিল। শিশু-কিশোরদের বই জ্বালিয়ে দিয়েছিল। তিনি বলেন, আমরা চাই তারা পুলিশ ও জনগণের ওপর হামলা না করে নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন করুক। কিন্তু তারা সেটি করছে না বলেই পুলিশকে আত্মরক্ষার্থে ব্যবস্থা নিতে হয়েছে এবং জনগণও প্রতিরোধ গড়ে তুলেছে।   

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...
ক্যালেন্ডার...

Sun
Mon
Tue
Wed
Thu
Fri
Sat