ঢাকা ১২:০০ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২০ মে ২০২৪

বিজয় এক্সপ্রেস লাইনচ্যূত: গরমে লাইন বেঁকে যাওয়ার গল্পটা সঠিক নয় 

গণমুক্তি ডিজিটাল ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৫:৩৭:৫৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৮ মার্চ ২০২৪ ১৪৫ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

বিজয় এক্সপ্রেসের দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে অতিরিক্ত গরমে রেললাইন বাঁকা হওয়ার যে গল্পটা বলা হচ্ছিল, তার কোন সত্যতা পায়নি রেলওয়ের কর্মকর্তা ও প্রকৌশলীরা। তারা ধারণা করছেন, ২০৮ নম্বর রেলওয়ে সেতুর নড়বড়ে কাঠের স্লিপার এবং নাট-বল্টুতে ত্রুটির কারণে বিজয় এক্সপ্রেসের ৯টি বগি লাইনচ্যূত হয়ে এই দুর্ঘটনা।

সোমবার  (১৯ মার্চ)  রাত ২টার  দিকে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী আবু জাফর মিঞা এ তথ্য সংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

তার মতে, রেললাইন বেঁকে যাওয়ার কারণে বগি লাইনচ্যুত হওয়ার যে কথা বলা হচ্ছে, সরেজমিনে তার প্রমাণ পাওয়া যায়নি। বিজয় এক্সপ্রেসের  ৯টি বগি লাইনচ্যুত হওয়ার ঘটনার কারণ খুঁজে বের করতে তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। প্রতিবেদনে আসলে সঠিক কারণ জানা সম্ভব হবে।

এর আগে চট্টগ্রাম পূর্বাঞ্চল রেলওয়ে মহাব্যবস্থাপক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন ও হাসানপুর রেলস্টেশনের সহকারী স্টেশনমাস্টার মংগু মারমা সাংবাদিকদের জানান, গরমের কারণে রেললাইন বেঁকে গিয়ে হাসানপুর স্টেশনে প্রবেশের সময় আউটারে বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনের ৯টি বগি লাইনচ্যুত হয়।

রোববার (১৭ মার্চ) বেলা পৌনে দু’টা নাগাদ  কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের হাসানপুরের তেজের বাজার এলাকায় বিজয় এক্সপ্রেস দুর্ঘটনা পড়ে। তাতে ট্রেনের ৯টি বগি যাত্রী রেললাইনের পাশের জমিতে গিয়ে পড়ে।  তাতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

চট্টগ্রামের সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। জেলার বিভিন্ন স্টেশনে আটকা পড়ে ৮টি ট্রেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বিজয় এক্সপ্রেস লাইনচ্যূত: গরমে লাইন বেঁকে যাওয়ার গল্পটা সঠিক নয় 

আপডেট সময় : ০৫:৩৭:৫৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৮ মার্চ ২০২৪

বিজয় এক্সপ্রেসের দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে অতিরিক্ত গরমে রেললাইন বাঁকা হওয়ার যে গল্পটা বলা হচ্ছিল, তার কোন সত্যতা পায়নি রেলওয়ের কর্মকর্তা ও প্রকৌশলীরা। তারা ধারণা করছেন, ২০৮ নম্বর রেলওয়ে সেতুর নড়বড়ে কাঠের স্লিপার এবং নাট-বল্টুতে ত্রুটির কারণে বিজয় এক্সপ্রেসের ৯টি বগি লাইনচ্যূত হয়ে এই দুর্ঘটনা।

সোমবার  (১৯ মার্চ)  রাত ২টার  দিকে রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের প্রধান প্রকৌশলী আবু জাফর মিঞা এ তথ্য সংবাদমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

তার মতে, রেললাইন বেঁকে যাওয়ার কারণে বগি লাইনচ্যুত হওয়ার যে কথা বলা হচ্ছে, সরেজমিনে তার প্রমাণ পাওয়া যায়নি। বিজয় এক্সপ্রেসের  ৯টি বগি লাইনচ্যুত হওয়ার ঘটনার কারণ খুঁজে বের করতে তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। প্রতিবেদনে আসলে সঠিক কারণ জানা সম্ভব হবে।

এর আগে চট্টগ্রাম পূর্বাঞ্চল রেলওয়ে মহাব্যবস্থাপক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন ও হাসানপুর রেলস্টেশনের সহকারী স্টেশনমাস্টার মংগু মারমা সাংবাদিকদের জানান, গরমের কারণে রেললাইন বেঁকে গিয়ে হাসানপুর স্টেশনে প্রবেশের সময় আউটারে বিজয় এক্সপ্রেস ট্রেনের ৯টি বগি লাইনচ্যুত হয়।

রোববার (১৭ মার্চ) বেলা পৌনে দু’টা নাগাদ  কুমিল্লার নাঙ্গলকোটের হাসানপুরের তেজের বাজার এলাকায় বিজয় এক্সপ্রেস দুর্ঘটনা পড়ে। তাতে ট্রেনের ৯টি বগি যাত্রী রেললাইনের পাশের জমিতে গিয়ে পড়ে।  তাতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

চট্টগ্রামের সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে। জেলার বিভিন্ন স্টেশনে আটকা পড়ে ৮টি ট্রেন।