ঢাকা ০৪:৩৪ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

লিটারে ৪ টাকা বাড়লো সয়াবিন তেল

গণমুক্তি রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৪:৫৪:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪ ৫১ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

বোতলজাত সয়াবিন তেল লিটারে বাড়লো ৪ টাকা। রমজানে ভোজ্যতেল আমদানি শুল্ক-কর কমানোর ফলে প্রতি লিটার ১৬৩ টাকা করা হয়েছিলো।

বৃহস্পতিবার ৪ টাকা বাড়িয়ে ১৬৭ টাকা নির্ধারণ করা হয়। আর খোলা সয়াবিনের দাম লিটারে ২ টাকা কমিয়ে ১৪৭ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু সয়াবিন তেলের এই দাম ঘোষণা করেন।

৫ লিটার সয়াবিন তেলের বোতল ৮০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৮১৮ টাকা এবং প্রতি লিটার বোতল জাত পাম অয়েলের দাম ১৩৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

রমজানকে সামনে রেখে গত ৮ ফেব্রুয়ারি জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) আলাদা প্রজ্ঞাপনের জারি করে ভোজ্যতেল আমদানিতে শুল্ক-কর কমানোর ঘোষণা দেয়।

এতে স্থানীয় পর্যায়ে পরিশোধিত সয়াবিন ও পাম তেলের উৎপাদন এবং ব্যবসা পর্যায়ে ভ্যাট পুরোপুরি প্রত্যাহার করা হয়।

৫৫ শতাংশ ভ্যাট অব্যাহতি দেওয়ার পর প্রতি লিটার দাম ১০ টাকা কমিয়ে ১৬৩ টাকা নির্ধারণ করেছিল বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

এই ভ্যাট অব্যাহতির মেয়াদ গত ১৫ এপ্রিল শেষ হয়েছে। এ কারণে ১৬ এপ্রিল থেকে বাজারে ভোজ্যতেল (পরিশোধিত পাম তেল এবং পরিশোধিত সয়াবিন তেল) ভ্যাট অব্যাহতি ছাড়াই আগের দামে, ১৭৩ টাকা লিটারে সরবরাহ করার কথা জানায় বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

লিটারে ৪ টাকা বাড়লো সয়াবিন তেল

আপডেট সময় : ০৪:৫৪:২৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

 

বোতলজাত সয়াবিন তেল লিটারে বাড়লো ৪ টাকা। রমজানে ভোজ্যতেল আমদানি শুল্ক-কর কমানোর ফলে প্রতি লিটার ১৬৩ টাকা করা হয়েছিলো।

বৃহস্পতিবার ৪ টাকা বাড়িয়ে ১৬৭ টাকা নির্ধারণ করা হয়। আর খোলা সয়াবিনের দাম লিটারে ২ টাকা কমিয়ে ১৪৭ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম টিটু সয়াবিন তেলের এই দাম ঘোষণা করেন।

৫ লিটার সয়াবিন তেলের বোতল ৮০০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৮১৮ টাকা এবং প্রতি লিটার বোতল জাত পাম অয়েলের দাম ১৩৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

রমজানকে সামনে রেখে গত ৮ ফেব্রুয়ারি জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) আলাদা প্রজ্ঞাপনের জারি করে ভোজ্যতেল আমদানিতে শুল্ক-কর কমানোর ঘোষণা দেয়।

এতে স্থানীয় পর্যায়ে পরিশোধিত সয়াবিন ও পাম তেলের উৎপাদন এবং ব্যবসা পর্যায়ে ভ্যাট পুরোপুরি প্রত্যাহার করা হয়।

৫৫ শতাংশ ভ্যাট অব্যাহতি দেওয়ার পর প্রতি লিটার দাম ১০ টাকা কমিয়ে ১৬৩ টাকা নির্ধারণ করেছিল বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

এই ভ্যাট অব্যাহতির মেয়াদ গত ১৫ এপ্রিল শেষ হয়েছে। এ কারণে ১৬ এপ্রিল থেকে বাজারে ভোজ্যতেল (পরিশোধিত পাম তেল এবং পরিশোধিত সয়াবিন তেল) ভ্যাট অব্যাহতি ছাড়াই আগের দামে, ১৭৩ টাকা লিটারে সরবরাহ করার কথা জানায় বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন।