ঢাকা ০১:০০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪

এমপি আজিম হত্যার তদন্তে কলকাতায় ঢাকার গোয়েন্দারা

গণমুক্তি ডিজিটাল ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৩:৩৬:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪ ৯২ বার পড়া হয়েছে

ঢাকার গোয়েন্দা কলকাতায়

দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

কলকাতায় খুন হওয়া বাংলাদেশের ঝিনাইদহ-৪ আসনের এমপি আজিম হত্যার তদন্তে ঢাকার গোয়েন্দা প্রতিনিধি দল এখন ভারতের পশ্চিমবঙ্গে।

ঢাকার গোয়েন্দা প্রধান হারুন অর রশীদের নেতৃত্বে তিন সদস্যের গোয়েন্দা দল কলকাতায় পৌঁছে ঘটনাস্থল পরিদর্শন এবং কলকাতার গোয়েন্দাদের কব্জায় থাকা জিহাদ হাওলাদারকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন।

রোববার (২৬ মে) বেলা সাড়ে ১১ টা নাগাদ কলকাতায় পৌঁছায় গোয়েন্দারা। তদন্ত দলে রয়েছেন ওয়ারি বিভাগের ডিসি মুহাম্মদ আব্দুল আহাদ ও এডিসি শাহীদুর রহমান।

এমপি আজিম হত্যার মাস্টারমাইন্ড শাহীনকে দেশে ফিরিয়ে আনতে পুলিশের মহাপরিদর্শকের মাধ্যমে আবেদন করা হবে।

হারুন জানান, শাহীন এই হত্যার নেপথ্যের পান্ডা বলে নিশ্চিত করেছে কলকাতা ও ঢাকার গোয়েন্দারা। শাহিন আমেরিকায় আছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এর আগে ঢাকার গোয়েন্দাদের হাতে গ্রেপ্তারকৃত ৩ আসামকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে কলকাতা গোয়েন্দার দুই সদস্য ঢাকায় আসেন। এবং তারা ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

এমপি আজিম হত্যার তদন্তে কলকাতায় ঢাকার গোয়েন্দারা

আপডেট সময় : ০৩:৩৬:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪

 

কলকাতায় খুন হওয়া বাংলাদেশের ঝিনাইদহ-৪ আসনের এমপি আজিম হত্যার তদন্তে ঢাকার গোয়েন্দা প্রতিনিধি দল এখন ভারতের পশ্চিমবঙ্গে।

ঢাকার গোয়েন্দা প্রধান হারুন অর রশীদের নেতৃত্বে তিন সদস্যের গোয়েন্দা দল কলকাতায় পৌঁছে ঘটনাস্থল পরিদর্শন এবং কলকাতার গোয়েন্দাদের কব্জায় থাকা জিহাদ হাওলাদারকে জিজ্ঞাসাবাদ করবেন।

রোববার (২৬ মে) বেলা সাড়ে ১১ টা নাগাদ কলকাতায় পৌঁছায় গোয়েন্দারা। তদন্ত দলে রয়েছেন ওয়ারি বিভাগের ডিসি মুহাম্মদ আব্দুল আহাদ ও এডিসি শাহীদুর রহমান।

এমপি আজিম হত্যার মাস্টারমাইন্ড শাহীনকে দেশে ফিরিয়ে আনতে পুলিশের মহাপরিদর্শকের মাধ্যমে আবেদন করা হবে।

হারুন জানান, শাহীন এই হত্যার নেপথ্যের পান্ডা বলে নিশ্চিত করেছে কলকাতা ও ঢাকার গোয়েন্দারা। শাহিন আমেরিকায় আছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এর আগে ঢাকার গোয়েন্দাদের হাতে গ্রেপ্তারকৃত ৩ আসামকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে কলকাতা গোয়েন্দার দুই সদস্য ঢাকায় আসেন। এবং তারা ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করেন।