ঢাকা ১১:৩৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ মে ২০২৪

১৭৩ বাংলাদেশিকে ফেরত, যাবে মিয়ানমারের ২৮৫ বিজিপি সদস্য

গণমুক্তি ডিজিটাল ডেস্ক
  • আপডেট সময় : ০৬:২৮:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪ ৪৪ বার পড়া হয়েছে

সাজা শেষে দীর্ঘদিন পর মিয়ানমার থেকে দেশে ফিরছেন অনেকে, ঘাটে স্বজনদের অপেক্ষা

দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

মিয়ানমারের কারাগারে বিভিন্ন মেয়াদে সাজাভোগ শেষে দেশে ফিরেছেন ১৭৩ বাংলাদেশি। অপর দিকে বাংলাদেশে পালিয়ে এসে আশ্রয় নেওয়া মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) ২৮৫ সদস্যদের নিতে আসা মিয়ানমার প্রতিরক্ষা বাহিনীর ‘নেভাল শিপ চিন ডুইন’ জাহাজ থেকে ১৭৩ বাংলাদেশিদের নিয়ে নৌবাহিনীর জাহাজ বুধবার (২৪ এপ্রিল) কক্সবাজার শহরের নুনিয়ার ছড়া ঘাটে এসে পৌঁছে।

বিজিবির অধীনে থাকা মিয়ানমারের পালিয়ে আশ্রয় নেওয়া ২৮৫ সদস্যকে নিয়ে বৃহস্পতিবার মিয়ানমার ফেরত যাবে প্রতিনিধি দলটি।

জাতীয় সংসদের হুইপ ও কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল বলেন, ১৭৩ বাংলাদেশি ফিরেছেন। তারা মিয়ানমারের কারাগারে ভিন্ন মেয়াদে সাজা শেষ করে সরকারের প্রচেষ্টায় ফিরছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, ১৭৩ জনের মধ্যে ১২৯ জন কক্সবাজারের, ৩০ জন বান্দরবানের, সাত জন রাঙামাটির এবং খাগড়াছড়ি, নোয়াখালী, নারায়ণগঞ্জ, চট্টগ্রাম, রাজবাড়ী, নরসিংদী ও নীলফামারী জেলার একজন করে রয়েছেন। ইতিমধ্যে ফেরত আসাদের অপেক্ষায় ঘাটে ভিড় করেন স্বজনরা।

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার মো. মাহাফুজুল ইসলাম জানিয়েছেন, ফেরত আসাদের বিজিবি গ্রহণ করে পুলিশকে হস্তান্তর করবে। তারপর যাচাই-বাছাই শেষে স্ব স্ব থানার পুলিশের মাধ্যমে স্বজনদের হস্তান্তরের প্রক্রিয়াটি করা হবে।

ইয়াঙ্গুনে বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্র বলছে, রাখাইন রাজ্যে সংঘাতের কারণে সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে আসতে বাধ্য হওয়া মিয়ানমারের প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্যদের ফিরিয়ে আনতে বাংলাদেশ আসা ‘মিয়ানমার নেভাল শিপ চিন ডুইন’ ১৭৩ বাংলাদেশিকে বহন করে মঙ্গলবারই যাত্রা করে। ১৪৪ জন কারাগারে পূর্ণ মেয়াদে সাজা ভোগ করেছেন। অপর ২৯ জন মিশনের প্রচেষ্টায় ক্ষমা পেয়ে বাংলাদেশে ফেরত আসেন।

মূলত বাংলাদেশিদের নিয়ে আসা মিয়ানমারের জাহাজটি বৃহস্পতিবার সকালেই বাংলাদেশে পালিয়ে আশ্রয় নেওয়া মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর ২৮৫ সদস্যকে নিয়ে ফেরত যাবেন।

২৮৫ সদস্যকে ফেরত নেওয়ার প্রক্রিয়ার জন্যই মিয়ানমারের প্রতিনিধি দলটি নাইক্ষ্যংছড়ি গেছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

১৭৩ বাংলাদেশিকে ফেরত, যাবে মিয়ানমারের ২৮৫ বিজিপি সদস্য

আপডেট সময় : ০৬:২৮:০৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪

 

মিয়ানমারের কারাগারে বিভিন্ন মেয়াদে সাজাভোগ শেষে দেশে ফিরেছেন ১৭৩ বাংলাদেশি। অপর দিকে বাংলাদেশে পালিয়ে এসে আশ্রয় নেওয়া মিয়ানমারের সেনাবাহিনী ও বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) ২৮৫ সদস্যদের নিতে আসা মিয়ানমার প্রতিরক্ষা বাহিনীর ‘নেভাল শিপ চিন ডুইন’ জাহাজ থেকে ১৭৩ বাংলাদেশিদের নিয়ে নৌবাহিনীর জাহাজ বুধবার (২৪ এপ্রিল) কক্সবাজার শহরের নুনিয়ার ছড়া ঘাটে এসে পৌঁছে।

বিজিবির অধীনে থাকা মিয়ানমারের পালিয়ে আশ্রয় নেওয়া ২৮৫ সদস্যকে নিয়ে বৃহস্পতিবার মিয়ানমার ফেরত যাবে প্রতিনিধি দলটি।

জাতীয় সংসদের হুইপ ও কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল বলেন, ১৭৩ বাংলাদেশি ফিরেছেন। তারা মিয়ানমারের কারাগারে ভিন্ন মেয়াদে সাজা শেষ করে সরকারের প্রচেষ্টায় ফিরছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, ১৭৩ জনের মধ্যে ১২৯ জন কক্সবাজারের, ৩০ জন বান্দরবানের, সাত জন রাঙামাটির এবং খাগড়াছড়ি, নোয়াখালী, নারায়ণগঞ্জ, চট্টগ্রাম, রাজবাড়ী, নরসিংদী ও নীলফামারী জেলার একজন করে রয়েছেন। ইতিমধ্যে ফেরত আসাদের অপেক্ষায় ঘাটে ভিড় করেন স্বজনরা।

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার মো. মাহাফুজুল ইসলাম জানিয়েছেন, ফেরত আসাদের বিজিবি গ্রহণ করে পুলিশকে হস্তান্তর করবে। তারপর যাচাই-বাছাই শেষে স্ব স্ব থানার পুলিশের মাধ্যমে স্বজনদের হস্তান্তরের প্রক্রিয়াটি করা হবে।

ইয়াঙ্গুনে বাংলাদেশ দূতাবাস সূত্র বলছে, রাখাইন রাজ্যে সংঘাতের কারণে সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে আসতে বাধ্য হওয়া মিয়ানমারের প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্যদের ফিরিয়ে আনতে বাংলাদেশ আসা ‘মিয়ানমার নেভাল শিপ চিন ডুইন’ ১৭৩ বাংলাদেশিকে বহন করে মঙ্গলবারই যাত্রা করে। ১৪৪ জন কারাগারে পূর্ণ মেয়াদে সাজা ভোগ করেছেন। অপর ২৯ জন মিশনের প্রচেষ্টায় ক্ষমা পেয়ে বাংলাদেশে ফেরত আসেন।

মূলত বাংলাদেশিদের নিয়ে আসা মিয়ানমারের জাহাজটি বৃহস্পতিবার সকালেই বাংলাদেশে পালিয়ে আশ্রয় নেওয়া মিয়ানমারের নিরাপত্তা বাহিনীর ২৮৫ সদস্যকে নিয়ে ফেরত যাবেন।

২৮৫ সদস্যকে ফেরত নেওয়ার প্রক্রিয়ার জন্যই মিয়ানমারের প্রতিনিধি দলটি নাইক্ষ্যংছড়ি গেছেন।