ঢাকা ১১:৫০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪
সংবাদ শিরোনাম ::
Logo রাজাকার  স্লোগান দিলে আর ছাড় নয়: রাবি ছাত্রলীগ সভাপতি Logo ঢাবিতে সংঘর্ষে আহত হয়ে ঢাকা মেডিকেলে ২২৬, আতঙ্ক Logo শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা: দেশজুড়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে মঙ্গলবার বিক্ষোভের ডাক Logo শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার জন্য  প্রাধ্যক্ষরা রাতভর হলে অবস্থান করবেন: উপাচার্য  Logo ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন Logo আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলায় দুই শতাধিক আহতের দাবি Logo সত্য না লিখলে পত্রিকা ডাস্টবিনে ফেলে দিন: প্রধানমন্ত্রী Logo এর জবাব ছাত্রলীগই দেবে: কাদের Logo ঢাবিতে আন্দোলনকারী ও ছাত্রলীগের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া Logo ভিক্ষু ড.এফ দীপংকর মহাথেরুর মৃত্যুর বিষয়টি তদন্ত করছে পুলিশ : পুলিশ সুপার

মাদারীপুরে ভূমিদস্যুর বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

মাদারীপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০১:৪৫:৩০ অপরাহ্ন, রবিবার, ৯ জুন ২০২৪ ৬২ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

মাদারীপুরে সংঘবদ্ধ ভূমিদস্যু ও মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে ভূক্তিভোগি পরিবার ও এলাকাবাসী। আজ রোববার সকালে মাদারীপুর সদর উপজেলার ধুরাইল ইউনিয়নের খালাসীকান্দির একটি বাজারে মানববন্ধন করা হয়। এসময় অভিযুক্ত এনামুল চৌদিকারসহ তার সহযোগিদের বিচার দাবী করা হয়।

মানববন্ধনে ভূক্তভোগি পরিবার ও এলাকাবাসী জানান, ধুরাইলের খালাসীকান্দি এলাকার এনামুল চৌকিদার, আব্বাস চৌদিকার ও তাদের সহযোগিরা দীর্ঘ দিন ধরে এলাকায় জোরপূর্বক জমি দলখ, মাদক কারবারী, অবৈধ অস্ত্র রাখাসহ নানা অপকর্ম করে আসছে। এদের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুললে তাদের শারীরিক নির্যাতনসহ এলাকা ছাড়া করে। জমির দলিল, খাজনা, মিউটিসন থাকার পরেও নিরহ মানুষের জমি জোরপূর্বক দলখ করে হয়রানি করে আসছে।

তাদের বিরুদ্ধে মাদারীপুর সদর থানা ও আদালতে একাধিক মামলা রয়েছে। এরই প্রতিবাদে মানববন্ধন করেন এলাকাবাসী। তাদের দাবী, এনামুল চৌকিদার গংদের হাত থেকে নিরহ মানুষের মুক্তি। এসময় ভূক্তভোগি খোকন হাওলাদার বলেন, ‘আমি র্দীঘদিন ইতালী প্রবাসী। আমি ৬৩ শতাংশ জমি স্থানীয় দেলোয়ার চৌকিদার ও কাদির চৌকিদারের কাছ থেকে কিনেছি। কিন্তু এসব জমির উপর এনামুল চৌকিদার ও তার সহযোগিরা কয়েক বছর যাবত জোরপূর্বক দখল করে রেখেছে। আমাদের জমি বুঝিয়ে দিচ্ছে না। তারা প্রভাবশালী হওয়ায় কেউ মুখ খুলতেও সাহস করে না। তারা আমাকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে। আমি এদের বিচার দাবী করি।

একই অভিযোগ করেন এলাকার হায়দার চৌদিকার, সাহু চৌকিদার, মোখলেছ মৃধা, উজ্জ্বল খালাসী, বেল্লাল খালাসী, চাঁন মিয়া বেপারী, জবেদালী মাদবরসহ ভূক্তভোগির পরিবার। তবে এসব অভিযোগের বিষয় মুখ খুলেনি অভিযুক্ত এনামুল চৌদিকার।
এব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এইচএম সালাউদ্দিন বলেন, লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে জমিজমার বিষয় আদালতে মামলা করা উচিত।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপলোডকারীর তথ্য
ট্যাগস :

মাদারীপুরে ভূমিদস্যুর বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর মানববন্ধন

আপডেট সময় : ০১:৪৫:৩০ অপরাহ্ন, রবিবার, ৯ জুন ২০২৪

 

মাদারীপুরে সংঘবদ্ধ ভূমিদস্যু ও মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে ভূক্তিভোগি পরিবার ও এলাকাবাসী। আজ রোববার সকালে মাদারীপুর সদর উপজেলার ধুরাইল ইউনিয়নের খালাসীকান্দির একটি বাজারে মানববন্ধন করা হয়। এসময় অভিযুক্ত এনামুল চৌদিকারসহ তার সহযোগিদের বিচার দাবী করা হয়।

মানববন্ধনে ভূক্তভোগি পরিবার ও এলাকাবাসী জানান, ধুরাইলের খালাসীকান্দি এলাকার এনামুল চৌকিদার, আব্বাস চৌদিকার ও তাদের সহযোগিরা দীর্ঘ দিন ধরে এলাকায় জোরপূর্বক জমি দলখ, মাদক কারবারী, অবৈধ অস্ত্র রাখাসহ নানা অপকর্ম করে আসছে। এদের বিরুদ্ধে কেউ মুখ খুললে তাদের শারীরিক নির্যাতনসহ এলাকা ছাড়া করে। জমির দলিল, খাজনা, মিউটিসন থাকার পরেও নিরহ মানুষের জমি জোরপূর্বক দলখ করে হয়রানি করে আসছে।

তাদের বিরুদ্ধে মাদারীপুর সদর থানা ও আদালতে একাধিক মামলা রয়েছে। এরই প্রতিবাদে মানববন্ধন করেন এলাকাবাসী। তাদের দাবী, এনামুল চৌকিদার গংদের হাত থেকে নিরহ মানুষের মুক্তি। এসময় ভূক্তভোগি খোকন হাওলাদার বলেন, ‘আমি র্দীঘদিন ইতালী প্রবাসী। আমি ৬৩ শতাংশ জমি স্থানীয় দেলোয়ার চৌকিদার ও কাদির চৌকিদারের কাছ থেকে কিনেছি। কিন্তু এসব জমির উপর এনামুল চৌকিদার ও তার সহযোগিরা কয়েক বছর যাবত জোরপূর্বক দখল করে রেখেছে। আমাদের জমি বুঝিয়ে দিচ্ছে না। তারা প্রভাবশালী হওয়ায় কেউ মুখ খুলতেও সাহস করে না। তারা আমাকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করেছে। আমি এদের বিচার দাবী করি।

একই অভিযোগ করেন এলাকার হায়দার চৌদিকার, সাহু চৌকিদার, মোখলেছ মৃধা, উজ্জ্বল খালাসী, বেল্লাল খালাসী, চাঁন মিয়া বেপারী, জবেদালী মাদবরসহ ভূক্তভোগির পরিবার। তবে এসব অভিযোগের বিষয় মুখ খুলেনি অভিযুক্ত এনামুল চৌদিকার।
এব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এইচএম সালাউদ্দিন বলেন, লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। তবে জমিজমার বিষয় আদালতে মামলা করা উচিত।