ঢাকা ০২:৩৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪

গাজীপুরে গ্যাসসিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ কেউ শঙ্কা মুক্ত নয়! স্বাস্থ্যমন্ত্রী

গণমুক্তি রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৩:১৪:১২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ ২০২৪ ১২৮ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

শ্বাসনালি পুড়েছে ২৬ জনের

গাজীপুরে গ্যাসসিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ ৩২জন শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন। তাদের কেউই শঙ্কামুক্ত নয় বলে জানিয়েছেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন।

বৃহস্পতিবার (১৪ মর্চ) হাসপাতালে গিয়ে তিনি রোগীদের দেখেছেন। সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকদের নিয়ে একটা মেডিক্যাল বোর্ড বসেন। ৫০ ভাগের বেশি বার্নের রোগীর সংখ্যা ১৬ জন। ৮০ ভাগের বেশি পুড়ে যাওয়া রোগী ১০ জনের বেশি।

রোগীদের সবারই শ্বাসনালি পুড়ে গেছে। সিলিন্ডার বিস্ফোরণে গুরুতর আহতদের কেউই শঙ্কামুক্ত নয়। জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী সামন্তলাল সেন। মন্ত্রী বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক চেষ্টা করা হবে।

তবে তাদের কেউই শঙ্কামুক্ত নয়। ৯০ ভাগের বেশি বার্ন এমন ৬জন ইতিমধ্যে আইসিইউতে। অগ্নিদগ্ধদের মধ্যে বেশ কয়েকজন শিশুও রয়েছে। শিশুদের ১০ ভাগের বেশি বার্ন হলেই আশঙ্কাজনক।

সেখানে অনেক শিশু-কিশোরদের ৩০ ভাগের বেশি বার্ন। ১০ বছর বয়সের মধ্যে ৭ জন এবং ১১-১৮ বছর বয়সের মধ্যে ৬ জন রোগী রয়েছে। এই ১৩ জনের সবাই ১০ ভাগের বেশি পুড়ে যাওয়া।

অধিকাংশের অবস্থাই খারাপ। যেকোনো বার্নের রোগী যতক্ষণ না বাসায় যায়, ততক্ষণ তাদের আমরা আশঙ্কামুক্ত বলতে পারি না।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

গাজীপুরে গ্যাসসিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ কেউ শঙ্কা মুক্ত নয়! স্বাস্থ্যমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৩:১৪:১২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ ২০২৪

 

শ্বাসনালি পুড়েছে ২৬ জনের

গাজীপুরে গ্যাসসিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ ৩২জন শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন। তাদের কেউই শঙ্কামুক্ত নয় বলে জানিয়েছেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. সামন্ত লাল সেন।

বৃহস্পতিবার (১৪ মর্চ) হাসপাতালে গিয়ে তিনি রোগীদের দেখেছেন। সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকদের নিয়ে একটা মেডিক্যাল বোর্ড বসেন। ৫০ ভাগের বেশি বার্নের রোগীর সংখ্যা ১৬ জন। ৮০ ভাগের বেশি পুড়ে যাওয়া রোগী ১০ জনের বেশি।

রোগীদের সবারই শ্বাসনালি পুড়ে গেছে। সিলিন্ডার বিস্ফোরণে গুরুতর আহতদের কেউই শঙ্কামুক্ত নয়। জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী সামন্তলাল সেন। মন্ত্রী বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে সর্বাত্মক চেষ্টা করা হবে।

তবে তাদের কেউই শঙ্কামুক্ত নয়। ৯০ ভাগের বেশি বার্ন এমন ৬জন ইতিমধ্যে আইসিইউতে। অগ্নিদগ্ধদের মধ্যে বেশ কয়েকজন শিশুও রয়েছে। শিশুদের ১০ ভাগের বেশি বার্ন হলেই আশঙ্কাজনক।

সেখানে অনেক শিশু-কিশোরদের ৩০ ভাগের বেশি বার্ন। ১০ বছর বয়সের মধ্যে ৭ জন এবং ১১-১৮ বছর বয়সের মধ্যে ৬ জন রোগী রয়েছে। এই ১৩ জনের সবাই ১০ ভাগের বেশি পুড়ে যাওয়া।

অধিকাংশের অবস্থাই খারাপ। যেকোনো বার্নের রোগী যতক্ষণ না বাসায় যায়, ততক্ষণ তাদের আমরা আশঙ্কামুক্ত বলতে পারি না।