ঢাকা ০১:১৩ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪

মাদারীপুরে তথ্য গোপন করে স্বাস্থ্য সহকারী পদে চাকরী পাওয়ার অভিযোগ

মাদারীপুর প্রতিনিধি
  • আপডেট সময় : ০২:১৪:০৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪ ৯৯ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

 

মাদারীপুরে ভুল ঠিকানায় আবেদন করে স্বাস্থ্য সহকারী পদে চূড়ান্তভাবে চাকরীর সুপারিশ পাওয়ার অভিযোগ ওঠেছে এক প্রার্থীর বিরুদ্ধে। বিষয়টি লিখিতভাবে অভিযোগ করেন বৈধ প্রার্থী আল আমিন। সিভিল সার্জন বলছেন, ভুল বা মিথ্যা তথ্য দিয়ে আবেদন করে চাকরীর সুপারিশ প্রাপ্ত হলে তদন্তসাপেক্ষে নিয়োগ বাতিল করা হবে। তবে সুপারিশপ্রাপ্ত প্রার্থী সিভিল সার্জন অফিসকে চাকরিতে যোগদান না করার কথা জানিয়ে দিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কালকিনি উপজেলার এনায়েতনগর ইউনিয়নের মো: নুরুল হকের ছেলে মো: হাসান সাবেক ২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা হয়ে তথ্য গোপন করে সাবেক ৩নং ওয়ার্ডে স্বাস্থ্য সহকারী পদে আবেদন করেছেন। আবেদন মোতাবেক প্রবেশপত্র পেয়ে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে চূড়ান্তভাবে চাকরীর সুপারিশ পেয়েছেন।

চাকরীর বিজ্ঞপ্তিতে বলা আছে, স্বাস্থ্য সহকারী পদের ক্ষেত্রে প্রার্থী যে ওয়ার্ডের (পুরাতন) জন্য আবেদন করবেন সে ওয়ার্ডের (পুরাতন) স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে। একই ইউনিয়নের অন্য ওয়ার্ডের স্থায়ী বাসিন্দাগণ আবেদন করতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে প্রার্থী যে ওয়ার্ডের বাসিন্দা সে ওয়ার্ড অবশ্যই আবেদনপত্রে উল্লেখ করতে হবে। কিন্তু মো: হাসান ২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা হয়ে আবেদনপত্রে ৩নং ওয়ার্ড উল্লেখ্য করেছেন ।

অভিযোগকারী আল আমিন খান বলেন, স্থায়ী ঠিকানা গোপন করে চাকরী নেওয়া যা নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশিত শর্তাবলীর বহির্ভূত। ভুল ও অসত্য তথ্য প্রদানের কারণে তাহার নিয়োগ বাতিল হওয়ার সামিল। আমি চাই যোগ্য ও বৈধ প্রার্থীকে নিয়োগ দেওয়া হোক।

ভুল আবেদনের বিষয়ে জানতে চাইলে মো: হাসান বলেন, আমি এলাকায় বেশি থাকি না, তাই জানিও না কোনটি সঠিক, কোনটি ভুল। আমাকে সিভিল সার্জন অফিস থেকে বৃহস্পতিবার ফোন দিয়েছিল, ফোন রিসিভ করতে না পেরে আমি তাদের হোয়াটসঅ্যাপে জানিয়ে দিয়েছি আমি এই চাকরিতে যোগদান করবো না।
মাদারীপুরের সিভিল সার্জন ডা. মুনীর আহমেদ খান বলেন, এ বিষয়ে আমরা অভিযোগ পেয়েছি।

তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়া তিনি বলেন, যদি কেউ ভুল বা মিথ্যা তথ্য দিয়ে আবেদন করে চাকরীর সুপারিশ প্রাপ্ত হয় তাহলে তার নিয়োগ বাতিল হয়ে যাবে।

উল্লেখ্য, গত ৩ জানুয়ারী ২০২৪ তারিখ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আওতাধীন শূন্য পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে মাদারীপুর সিভিল সার্জন অফিস। ১৭ মে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা শেষে চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করে অত্র দপ্তর। এখানে ৯টি পদে মোট ৭২ জন্য চূড়ান্তভাবে সুপারিশ পেয়েছেন। সুপারিশ প্রাপ্তদের ২৩ মে পূর্বাহ্নে স্বাস্থ্য পরীক্ষার রিপোর্ট সহ যোগদান করতে বলা হয়েছে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

মাদারীপুরে তথ্য গোপন করে স্বাস্থ্য সহকারী পদে চাকরী পাওয়ার অভিযোগ

আপডেট সময় : ০২:১৪:০৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪

 

 

মাদারীপুরে ভুল ঠিকানায় আবেদন করে স্বাস্থ্য সহকারী পদে চূড়ান্তভাবে চাকরীর সুপারিশ পাওয়ার অভিযোগ ওঠেছে এক প্রার্থীর বিরুদ্ধে। বিষয়টি লিখিতভাবে অভিযোগ করেন বৈধ প্রার্থী আল আমিন। সিভিল সার্জন বলছেন, ভুল বা মিথ্যা তথ্য দিয়ে আবেদন করে চাকরীর সুপারিশ প্রাপ্ত হলে তদন্তসাপেক্ষে নিয়োগ বাতিল করা হবে। তবে সুপারিশপ্রাপ্ত প্রার্থী সিভিল সার্জন অফিসকে চাকরিতে যোগদান না করার কথা জানিয়ে দিয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, কালকিনি উপজেলার এনায়েতনগর ইউনিয়নের মো: নুরুল হকের ছেলে মো: হাসান সাবেক ২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা হয়ে তথ্য গোপন করে সাবেক ৩নং ওয়ার্ডে স্বাস্থ্য সহকারী পদে আবেদন করেছেন। আবেদন মোতাবেক প্রবেশপত্র পেয়ে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে চূড়ান্তভাবে চাকরীর সুপারিশ পেয়েছেন।

চাকরীর বিজ্ঞপ্তিতে বলা আছে, স্বাস্থ্য সহকারী পদের ক্ষেত্রে প্রার্থী যে ওয়ার্ডের (পুরাতন) জন্য আবেদন করবেন সে ওয়ার্ডের (পুরাতন) স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে। একই ইউনিয়নের অন্য ওয়ার্ডের স্থায়ী বাসিন্দাগণ আবেদন করতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে প্রার্থী যে ওয়ার্ডের বাসিন্দা সে ওয়ার্ড অবশ্যই আবেদনপত্রে উল্লেখ করতে হবে। কিন্তু মো: হাসান ২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা হয়ে আবেদনপত্রে ৩নং ওয়ার্ড উল্লেখ্য করেছেন ।

অভিযোগকারী আল আমিন খান বলেন, স্থায়ী ঠিকানা গোপন করে চাকরী নেওয়া যা নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশিত শর্তাবলীর বহির্ভূত। ভুল ও অসত্য তথ্য প্রদানের কারণে তাহার নিয়োগ বাতিল হওয়ার সামিল। আমি চাই যোগ্য ও বৈধ প্রার্থীকে নিয়োগ দেওয়া হোক।

ভুল আবেদনের বিষয়ে জানতে চাইলে মো: হাসান বলেন, আমি এলাকায় বেশি থাকি না, তাই জানিও না কোনটি সঠিক, কোনটি ভুল। আমাকে সিভিল সার্জন অফিস থেকে বৃহস্পতিবার ফোন দিয়েছিল, ফোন রিসিভ করতে না পেরে আমি তাদের হোয়াটসঅ্যাপে জানিয়ে দিয়েছি আমি এই চাকরিতে যোগদান করবো না।
মাদারীপুরের সিভিল সার্জন ডা. মুনীর আহমেদ খান বলেন, এ বিষয়ে আমরা অভিযোগ পেয়েছি।

তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়া তিনি বলেন, যদি কেউ ভুল বা মিথ্যা তথ্য দিয়ে আবেদন করে চাকরীর সুপারিশ প্রাপ্ত হয় তাহলে তার নিয়োগ বাতিল হয়ে যাবে।

উল্লেখ্য, গত ৩ জানুয়ারী ২০২৪ তারিখ স্বাস্থ্য অধিদপ্তর আওতাধীন শূন্য পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে মাদারীপুর সিভিল সার্জন অফিস। ১৭ মে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা শেষে চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করে অত্র দপ্তর। এখানে ৯টি পদে মোট ৭২ জন্য চূড়ান্তভাবে সুপারিশ পেয়েছেন। সুপারিশ প্রাপ্তদের ২৩ মে পূর্বাহ্নে স্বাস্থ্য পরীক্ষার রিপোর্ট সহ যোগদান করতে বলা হয়েছে।