ঢাকা ০৫:৪০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

শেরপুরে কুড়া ব্যবসায়ীকে কুপিয়েছে গুরুতর জখম

শেরপুর ব্যুরো
  • আপডেট সময় : ০৬:০৩:৩৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪ ৪৭ বার পড়া হয়েছে
দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

শেরপুরে কুড়া ব্যবসায়ী লুৎফর রহমান সোহাগকে কুপিয়েছে গুরুতর জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। শেরপুরের দীঘারপাড় এলাকায় রাতে বুধবার রাতের ঘটনা। তাকে সদর হাসপাতালে ভর্তির অবস্থার অবণতি হলে মধ্যরাতে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সোহাগ তালুকদার স্থানীয় আব্দুল আওয়াল মাস্টারের ছেলে।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) রাতে ঘটনার খবর পেয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এমদাদুল হক হাসপাতালে ছুটে এবং ঘটনার জড়িতদের গ্রেফতারের আশ্বাস দেন।

জানা যায়, পৌরসভার কাউন্সিলর নির্বাচন ও আধিপত্যকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন যাবত দীঘারপাড় মহল্লার সাবেক কাউন্সিলর আমির হোসেন বাদশা তালুকদার ও ফখরুল আলম ফখরুলের বিরোধ চলে আসছিল। ঈদুল ফিতরের আগে ঈদগাহ মাঠের মেয়াদ উত্তীর্ন কমিটিকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে হামলা-পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটে।

জেলা পুলিশ ও থানা পুলিশের প্রচেষ্টায় একাধিক দফায় সমঝোতা বৈঠকের পর উভয় পক্ষ শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানে মুচলেকা দেয় এবং পৃথক মাঠে ঈদের নামায আদায় করে। বুধবার রাত ৯টা নাগাদ বাদশা তালুকদারের ভাতিজা সোহাগ তালুকদার দীঘারপাড় মধ্যপাড়া ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফেরার পথে ফখরুলের নেতৃত্বে ১০/১২ জন দুর্বৃত্ত হামলা চালিয়ে সোহাগকে গুরুতর জখম করে পালিয়ে যায়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

শেরপুরে কুড়া ব্যবসায়ীকে কুপিয়েছে গুরুতর জখম

আপডেট সময় : ০৬:০৩:৩৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

 

শেরপুরে কুড়া ব্যবসায়ী লুৎফর রহমান সোহাগকে কুপিয়েছে গুরুতর জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। শেরপুরের দীঘারপাড় এলাকায় রাতে বুধবার রাতের ঘটনা। তাকে সদর হাসপাতালে ভর্তির অবস্থার অবণতি হলে মধ্যরাতে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সোহাগ তালুকদার স্থানীয় আব্দুল আওয়াল মাস্টারের ছেলে।

বুধবার (১৭ এপ্রিল) রাতে ঘটনার খবর পেয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এমদাদুল হক হাসপাতালে ছুটে এবং ঘটনার জড়িতদের গ্রেফতারের আশ্বাস দেন।

জানা যায়, পৌরসভার কাউন্সিলর নির্বাচন ও আধিপত্যকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন যাবত দীঘারপাড় মহল্লার সাবেক কাউন্সিলর আমির হোসেন বাদশা তালুকদার ও ফখরুল আলম ফখরুলের বিরোধ চলে আসছিল। ঈদুল ফিতরের আগে ঈদগাহ মাঠের মেয়াদ উত্তীর্ন কমিটিকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে হামলা-পাল্টা হামলার ঘটনা ঘটে।

জেলা পুলিশ ও থানা পুলিশের প্রচেষ্টায় একাধিক দফায় সমঝোতা বৈঠকের পর উভয় পক্ষ শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানে মুচলেকা দেয় এবং পৃথক মাঠে ঈদের নামায আদায় করে। বুধবার রাত ৯টা নাগাদ বাদশা তালুকদারের ভাতিজা সোহাগ তালুকদার দীঘারপাড় মধ্যপাড়া ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে মোটরসাইকেলে বাড়ি ফেরার পথে ফখরুলের নেতৃত্বে ১০/১২ জন দুর্বৃত্ত হামলা চালিয়ে সোহাগকে গুরুতর জখম করে পালিয়ে যায়।