ঢাকা ০২:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪

টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী

গণমুক্তি রিপোর্ট
  • আপডেট সময় : ০৩:৫৮:৪৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মে ২০২৪ ৬৩ বার পড়া হয়েছে

১০ টাকায় টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী ছবি সংগ্রহ

দৈনিক গনমুক্তি অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

 

১০ টাকায় টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী

আগারগাঁওয়ে হাসপাতাল নির্মাণকালেই ঘোষণা এসেছিলো মাত্র ১০টাকার টিকিট কেটে যে কোন মানুষ এখানে চোখের চিকিৎসাসেবা নিতে পারবেন। দুর্ঘটনা জনিত চোখের চিকিৎসায় চব্বিশ ঘন্টা হাসপাতালটির দুয়ার খোলা।

জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একাধিকবার এই হাসপাতাল এসে ১০ টাকা দিয়ে নিজে টিকিট কেটে চিকিৎসাসেবা নিয়েছেন। শুক্রবার (৩ মে) সকালেও প্রধানমন্ত্রী হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দিয়ে নিজের চোখ পরীক্ষা করিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীর সাবেক স্বাস্থ্য উপদেষ্টা ও বাংলাদেশ মেডিকেল রিসার্চ কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী, জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. গোলাম মোস্তফা ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য ও চক্ষুরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. দীন মো. নূরুল হক এসময় উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সরকারের জনল্যাণমূলক অলাভজনক গণ প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে হাসপাতালটি অন্যতম যা চক্ষু রোগের যেকোন বয়সী ব্যক্তির চিকিৎসায় দুবাহু বাড়িয়ে দিয়েছে।

প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত এবং দক্ষ চক্ষুবিদদের মাধ্যমে এখানে সেবা কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে। ২৫০ শয্যার এ ইনস্টিটিউটে রয়েছে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন সর্বাধুনিকতম চিকিৎসা অবকাঠামো ও পর্যাপ্ত সংখ্যক চিকিৎসক। সেবা কার্যক্রমের মধ্যে জরুরি বিভাগ নিচতলায় এবং আই.সি.ইউ, ব্লাড ব্যাংক, অপারেশন থিয়েটার বি ব্লকের চতুর্থ তলায় বিদ্যমান।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী

আপডেট সময় : ০৩:৫৮:৪৫ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মে ২০২৪

 

১০ টাকায় টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী

আগারগাঁওয়ে হাসপাতাল নির্মাণকালেই ঘোষণা এসেছিলো মাত্র ১০টাকার টিকিট কেটে যে কোন মানুষ এখানে চোখের চিকিৎসাসেবা নিতে পারবেন। দুর্ঘটনা জনিত চোখের চিকিৎসায় চব্বিশ ঘন্টা হাসপাতালটির দুয়ার খোলা।

জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একাধিকবার এই হাসপাতাল এসে ১০ টাকা দিয়ে নিজে টিকিট কেটে চিকিৎসাসেবা নিয়েছেন। শুক্রবার (৩ মে) সকালেও প্রধানমন্ত্রী হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দিয়ে নিজের চোখ পরীক্ষা করিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রীর সাবেক স্বাস্থ্য উপদেষ্টা ও বাংলাদেশ মেডিকেল রিসার্চ কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী, জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. গোলাম মোস্তফা ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য ও চক্ষুরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. দীন মো. নূরুল হক এসময় উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সরকারের জনল্যাণমূলক অলাভজনক গণ প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে হাসপাতালটি অন্যতম যা চক্ষু রোগের যেকোন বয়সী ব্যক্তির চিকিৎসায় দুবাহু বাড়িয়ে দিয়েছে।

প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত এবং দক্ষ চক্ষুবিদদের মাধ্যমে এখানে সেবা কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে আসছে। ২৫০ শয্যার এ ইনস্টিটিউটে রয়েছে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন সর্বাধুনিকতম চিকিৎসা অবকাঠামো ও পর্যাপ্ত সংখ্যক চিকিৎসক। সেবা কার্যক্রমের মধ্যে জরুরি বিভাগ নিচতলায় এবং আই.সি.ইউ, ব্লাড ব্যাংক, অপারেশন থিয়েটার বি ব্লকের চতুর্থ তলায় বিদ্যমান।